অণুগল্পের নামে ফাজলামি

সাবিহ ওমর এর ছবি
লিখেছেন সাবিহ ওমর [অতিথি] (তারিখ: শুক্র, ২৭/০৪/২০১২ - ৩:১৫পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

কাজ কর্ম নাই (এটা একটা ডাহা মিথ্যা কথা)। তাই বসে বসে অণুগল্প লিখি। আস্ত গল্প লেখার মত মানসিক অবস্থা নাই। লিখতে লিখতে গল্প পচে বাসি হয়ে যায়। বাসি গল্প সার্ভ করতে ভাল লাগে না। তাই ফ্রেশ ফ্রেশ অণু-পরমাণু গল্প লিখি। সেরম সেরম ছোট করতে পারলে কোয়ান্টাম মেকানিক্স-জনিত কিছু সুবিধাও হাসিল করা যায় বলে মনে হয়। এই যেমন ব্যারিয়ার টানেলিং। বড় গল্প এন্টেনায় না ধরলে মানুষ হাউকাউ করে। ছোট-পাতি-অণুগল্প না ধরলেও মানুষ মাইন্ড খায় না, হাসিমুখে বলে যে টানেলিং করে বেরিয়ে গেছে। জিয়ারিতে কিন্তু টানেলিং সংক্রান্ত একখানা রিডিং কম্প্রিহেনশন আসত আগে। কমন পড়লে ছক্কা। আমার পড়েছিল, তাই সহীহ-সালামতে টানেলিং করে বেরিয়ে গেছি। যাকগে, এখন আমরা গল্প লিখি।

গল্প #২

মার্জিনে যথেষ্ট জায়গা না থাকায় গল্প# ১ লিখে সারতে পারলাম না। এখন দুই-তিনশ বছর ধরে লোকজন সেই গল্প খুঁজে মরবে। তাদের জন্য সমবেদনা।

গল্প #৩

মহান গল্পকার আর্টেরিয় দ্য ব্যালন বসে বসে গল্প লিখছিলেন। কিন্তু গল্প আসছিল না। তাই দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে চেষ্টা করলেন কতক্ষণ। তাও হল না। পায়চারি করলে নাকি সুবিধা হয়। তাও করে দেখলেন ঘণ্টাখানেক। তাও হয় না। তখন মহান গল্পকার আর্টেরিয় দ্য ব্যালন ধুত্তেরি বলে বেডরুমে গিয়ে শুয়ে থাকলেন।

গল্প #৪

"স্যার স্যার এটাই কি আপনার শেষ ছবি?"
"আপনি কি সত্যিই অভিনয় ছেড়ে দিচ্ছেন?"
"ভক্তদের কথা কি একবারও ভেবে দেখবেন না স্যার?"
"চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সাথে আপনার বিরোধের ব্যাপারটা কি তবে সত্য?"
"এই সিদ্ধান্তের পেছনে মিস সরণির কোন হাত আছে কি?"
"মিস সরণি দু'মাস ধরে আপনার মা'র ফ্ল্যাটে থাকছেন, এটা কি সত্যি?"
"স্যার আপনারা বিয়ের ডেট ঘোষণা করছেন কবে?"
"আপনারা গোপনে বিয়ে সেরে ফেলেছেন একথা কি সত্য?"
"আপনাদের একটি দু'মাসের সন্তান রয়েছে বলে শোনা যায়, এ ব্যাপারে কিছু বলবেন?"

নায়ক দাঁতটাত খিঁচে কি যেন একটা বললেন, ভীড়ের জন্য আর শুনতে পেলাম না।

গল্প #৫

সেদিন ব্রাশ গিয়ে মনে পড়লো যে সামনের দাঁতটা নড়ছিল। কিন্তু আজকে আর নড়ছেনা। মিররের সামনে ইইইইইই করে দেখি দাঁত নাই! তাহলে দাঁত কোথায় গেল???
আমি ভয় পাওয়া গলায় আপুনিকে বললাম, "আপুনি, আই সোয়ালোড মাই টুথ!"
আপুনি বলে, "ভালোতো, দাঁতে ক্যালসিয়াম থাকে। ক্যালসিয়াম খেলে বোনস স্ট্রং হয়।"
তাই আমার বোনস এখন অনেক স্ট্রং।

গল্প #৬

"কিলবিল একটা ফাকেন মিউজিক্যাল দোস্ত। গানের চয়েজ দেখসিস? ব্যাং ব্যাং? শুনলে মনে হয় না, এক্কেবারে এই সিনেমার জন্য বানাইসে? অথচ এটা শেরের গান। ফ্রাংক সিনাত্রার মেয়ে পরে এরকম হন্টিং কইরা গাইসে। কিন্তু গানটারে ইম্মর্টালাইজ করলো কে? ওয়ান এন্ড ওনলি টারান্টিনো। সোজা মাথার মধ্যে গুল্লি, তারপরই শুরু টররররং রর টররররংরং টররড়রররর ট্যার‍্যার‍্যাং!"

"তারপর লাস্ট সিনে লোনলি শেপার্ড কিভাবে ইউজ করসে দেখসিস? টুরুরু টুরুরু করে এতক্ষণ জামফিরের বাঁশির আওয়াজ চলতেসিল, এখন অর্কেস্ট্রা শুরু হবে, তার আগে গিটারের একটা হাল্কা-হাল্কা, বুঝস না সাসপেন্স তৈরি করে যে ওরকম একটা বিল্ড আপ, নাকি বিল্ড ডাউন কমু? আর বিল কি করতেসে? এই সময় বিল সোফির ঘাড়ে হাত রাইখা কথা বলতেসে। বলতেসে, "ডাজ শি নো,,,গিটার, সাসপেন্স,,, "দ্যাট হার ডটার",,, গিটারের ঠোকা, সাসপেন্সের চরম,,, "ইজ স্টিল এলাইভ।",,, ফুল অর্কেস্ট্রা! ট্যা-ট্যা-ট্যা ট্যা-ট্যা ট্যা-ট্যা ট্যা-র‍্যা-র‍্যাএ্যাএ্যাএ্যা,,, এইদিকে স্ক্রিনের উপ্রে কি? ডিরেক্টেড বাই কোয়েন্টিন টারান্টিনো! এইগুলা কি? ক? কি এইগুলা? জিনিয়াস না?"

আমি কিছু কই না, খালি হাঁ করে শুনি। মাইনষে কত কিছু জানে!


মন্তব্য

সজল এর ছবি

৬ এর শেষ লাইন ভাল্লাগছে, এর আগ পর্যন্ত নিজেরে ভুদাই লাগতেছিলো। ওয়েল্কাম্ব্যাক।

---
মানুষ তার স্বপ্নের সমান বড়

কল্যাণ এর ছবি

ওয়াও হাততালি চ্রম

বিনীত নিবেদনঃ

সেদিন ব্রাশ গিয়ে মনে পড়লো যে সামনের দাঁতটা নড়ছিল

ব্রাশের পর "করতে"টা কি বাদ পড়েছে?

______________
আমার নামের মধ্যে ১৩

তাপস শর্মা এর ছবি
শাব্দিক এর ছবি

গল্প ১,৪, ৫ বেশি ভাল লাগল দেঁতো হাসি

প্রদীপ্তময় সাহা এর ছবি

২ নম্বরটা খাসা । দেঁতো হাসি

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।