হাসিব এর ব্লগ

কতলের হুকুম ও সমঝোতার ইশারা

হাসিব এর ছবি
লিখেছেন হাসিব (তারিখ: শনি, ১৯/০৪/২০১৪ - ১:৪৮অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

ধর্মীয় মৌলবাদি সংগঠন হেফাজতে ইসলাম প্রায় এক বছর পরে আবারো তাদের কর্মকান্ড জোরেশোরে শুরু করেছে। বিগত দুই সপ্তাহান্তে তারা বিভিন্ন সমাবেশে উস্কানীমূলক বক্তব্য প্রচার করছে। গতকাল তারা এমনকি নাস্তিকদের কতলের ফতোয়া দিয়েছে। হঠাৎ করে হেফাজতের এরকম গর্ত থেকে বের হয়ে আসার কারণ কী? এখানে সরকারের পক্ষ থেকে কোন নিশ্চয়তা বা সমঝোতার প্রসঙ্গ আছে কি? বা কিছুদিন আগে দুই কিশোর ব্লগারকে জেলে পোরার সাথেই বা এসবের কোন সংযোগ আছে?


স্মৃতি ঢেকে যায় বিজ্ঞাপনে

হাসিব এর ছবি
লিখেছেন হাসিব (তারিখ: বিষ্যুদ, ০৬/০৩/২০১৪ - ৩:১৪পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

বাংলাদেশের প্রধান দৈনিক প্রথম আলো (বা পড়ুন পেহলী রোশনী) বদলে যাও, বদলে যাও বদলে দাও শ্লোগান দেশের অন্যান্য কর্পোরেট মিডিয়া হাউসের ঘোষিত শ্লোগানগুলোর মতো না। এরা রীতিমতো হাতেকলমে এসবের নজির আমাদের সাথে হাজির করে। এদের বেতনভুকেরা রিকনসিলিয়েশন তত্ত্ব খাড়া করে মেহেরজান সিনেমার পক্ষে জান লড়ে দেয়, জামাত বান্ধব বুদ্ধিজীবি পুল দিয়ে জামাতি এ্যাজেন্ডা পুশ করে, পেট্রোল বোমার জন্য দুই দলের ঘাড়ে সমান দোষ চাপিয়


হেফাজতে ইসলামের নতুন কর্মসূচীর প্রেক্ষাপট বিশ্লেষণ

হাসিব এর ছবি
লিখেছেন হাসিব (তারিখ: সোম, ২৫/১১/২০১৩ - ২:৫৯পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

সংবিধানে মহান আল্লাহর ওপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস পুনঃস্থাপন ও মহানবী হজরত মুহাম্মদ সা:-এর শানে কটূক্তিকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান রেখে আইন পাসসহ ১৩ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। গতকাল ২৪শে নভেম্বর সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কার্যালয় হাটহাজারী দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম মাদরাসায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মঈনুদ্দিন রুহী। সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি আদায়ের জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করেন হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব হাফেজ আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

এই কর্মসূচী দিতে গিয়ে হেফাজতে ইসলামের পক্ষ থেকে এর প্রেক্ষাপট বা কারণ ব্যাখ্যা করা হয়েছে। কিন্তু এর মধ্যে কতোটা সত্য, কতোটা মিথ্যা এবং কতোটাই বা অতিরঞ্জন?


তারিক আলি, আপনাকে আমাদের প্রয়োজন নেই

হাসিব এর ছবি
লিখেছেন হাসিব (তারিখ: রবি, ১৭/১১/২০১৩ - ৩:৫০পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

প্রথম আলো অদ্ভুদআরো অদ্ভুদ তাদের পাকিরাও ভালো প্রজেক্ট
আনপড় পাঠকেরা এই প্রজেক্ট সম্পর্কে না জানতে পারেন। তাদের জন্য একটা ছোট্ট সূচনা।

পাকিরাও ভালো প্রজেক্ট প্রথম আলো ঘোষিত অফিসিয়াল কোন প্রজেক্ট নয়। সবকিছু নিয়ে প্রশ্ন তোলা ব্লগজগত থেকে এইরকম প্রজেক্ট বাস্তবে আছে এরকম অনুমানের সূচনা। প্রথমআলো গ্রুপ নিয়মিত বিরতিতে পাকিস্তান থেকে বুদ্ধিজীবী ভাড়া করে আনে। এরা হাবিজাবি মিশিয়ে পাকিস্তানের হাতেগোনা কিছু লোকের বাংলাদেশ সম্পর্কে ভালোমন্দ কথা বলে এরকম লোকেদের হাজির করে। নিয়মিত এরকম পাকিস্তানি ভালো লোক মিডিয়াতে হাজির হলে, এবং সেইসাথে সেখানকার লোকেদের একাত্তর প্রশ্নে অবস্থান চেপে গেলে জনমানসে সব পাকিস্তানি আসলে খারাপ না এরকম একটা ধারণা প্রতিষ্ঠা করতে সাহায্য হয়। পুনর্মিত্রতার এই প্রজেক্ট বেশ কিছুদিন ধরে চলছে।


ফরহাদ মজহার ও তার সমর্থকগোষ্ঠি প্রসঙ্গে

হাসিব এর ছবি
লিখেছেন হাসিব (তারিখ: রবি, ০৩/১১/২০১৩ - ১২:৪৯পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

জামাতি বুদ্ধিজীবি ফরহাদ মজহার সম্প্রতি এক টকশোতে মিডিয়ার ওপর এক হাত নিয়েছেন। এক হাত নেবার পর সেটা আবার পরে রেটোরিক ইত্যাদির চাপানউতোর দেবারও চেষ্টা করেছেন। স্বাভাবিকভাবেই ফরহাদ মজহারের বক্তব্যের প্রতিবাদ হয়েছে এবং এখনও হচ্ছে। বিপরীতে ফরহাদ মজহারকে সমর্থন দেবার জন্য জামাত/বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবিরা একাট্টা হয়েছেন। সাথে আছেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক এক উপদেষ্টা। চলুন দেখা যাক কারা কোন পক্ষে কাজ করছেন।


বিডি-সিএসআইআরটি (সাইবার ক্রাইম বিরোধী সেল) ও তাদের পারফরমেন্স

হাসিব এর ছবি
লিখেছেন হাসিব (তারিখ: শনি, ০২/১১/২০১৩ - ১২:৩৩পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

পড়ছিলাম বিডিনিউজে "ফেইসবুকে হয়রানি: ‘অসহায়’ নিয়ন্ত্রক সংস্থা" শিরোনামে প্রতিবেদন। সেখানে কেন ফেইসবুক নিয়ন্ত্রনে অসহায় নিয়ন্ত্রক সংস্থা সেই বিষয়ে একজন সাইবার ক্রাইম "বিশেষজ্ঞের" কাছে প্রতিবেদক জানতে চেয়েছেন কিছু বিষয়। এই বিশেষজ্ঞ কাজ করছেন বিটিআরসিতে। সে প্রতিবেদন সাইবার ক্রাইম নিয়ন্ত্রকদের কার্যক্রমের একটা সার অংশ উঠে এসেছে।


বাংলাদেশের সাম্প্রতিক রাজনীতিতে বহির্বৈশ্বিক তৎপরতা

হাসিব এর ছবি
লিখেছেন হাসিব (তারিখ: বিষ্যুদ, ৩১/১০/২০১৩ - ৩:৫৯পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

আকারে ছোট অর্থনীতি ও তুলনামূলকভাবে প্রভাবহীন দেশগুলোর একটা সমস্যা হলো এদের সবসময় প্রতিবেশী দেশ ও বিশ্বরাজনীতির মোড়লদের কথা হাসিমুখে শুনতে হয় হয়। বাংলাদেশও এরকম একটা একটা দেশ। আমরা বহুকিছুর জন্য বাইরের শক্তির কাছে নির্ভরশীল। বাংলাদেশে প্রভাব রাখে এরকম প্রতিবেশি দেশ হলো ভারত। ভারত পার হয়ে পাকিস্তান বীর্যসূত্রে দেশি কিছু দালালের ওপর প্রভাব রাখে। পাকিস্তানের ভাইবেরাদর মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কুয়েত সৌদি আরব বাংলাদেশের রাজনীতিতে ভূমিকা রাখে। এদের বাইরে আছে স্যামকাগু অর্থাৎ বিশ্বমোড়ল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।


পাঠ প্রতিক্রিয়া: সংবাদমাধ্যমকে কেন লোক বিশ্বাস করে না

হাসিব এর ছবি
লিখেছেন হাসিব (তারিখ: সোম, ২৮/১০/২০১৩ - ৪:০৫পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

২৮শে অক্টোবর, ২০১৩ তারিখে কালের কণ্ঠে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আবু আহমেদ সংবাদপত্রকে কেন মানুষে বিশ্বাস করে না শিরোনামে একটি প্রবন্ধ লিখেছেন। এই লেখাটি সেটার প্রতিক্রিয়া।


রাজনৈতিক দরকষাকষি ও পিষ্ট হওয়া মত প্রকাশের স্বাধীনতা

হাসিব এর ছবি
লিখেছেন হাসিব (তারিখ: বুধ, ০৩/০৪/২০১৩ - ৮:২৯অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

গণজাগরণ মঞ্চ কার্যক্রম শুরু হবার পর বাংলাদেশের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট অনেকটাই বদলে গেছে। ঘটনাক্রমে প্রধান দুইটি রাজনৈতিক দল নির্বাচনকে সামনে রেখে ধর্মকার্ড খেলা শুরু করেছে। রাজনীতির মঞ্চে নতুন উদয় হওয়া বিএনপি জামাত সমর্থিত হেফাজতে ইসলাম এই মুহুর্তে রাজনীতির নিয়ন্ত্রকের ভূমিকা দখল করতে পেরেছে। পরিবর্তিত এই প্রেক্ষাপটের বলি হচ্ছে ব্লগাররা ও ব্লগের মতো স্বাধীন মতপ্রকাশের মাধ্যম। ব্লগার ও অনলাইন এ্যাক্টিভিস্টদের প্রতিনিধি হয়ে ওঠা গণজাগরণ মঞ্চও তার প্রত্যাশা ও সম্ভাবনা অনুযায়ী বিকশিত হতে পারছে না।


আন্তর্জাতিক অভিজ্ঞতার আলোকে জামাত নিষিদ্ধকরণ রূপরেখা

হাসিব এর ছবি
লিখেছেন হাসিব (তারিখ: বুধ, ০৬/০৩/২০১৩ - ৯:১৫অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

বহু প্রতীক্ষার পর স্বাধীনতা যুদ্ধে বাংলাদেশে মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। সম্প্রতি সেই বিচার প্রক্রিয়ার ফলও একে একে আসতে শুরু করেছে। এই সময়ে গণজাগরণ মঞ্চ তথা বাংলাদেশের আনাচে কানাচে যুদ্ধাপরাধীদের দল হিসেবে পরিচিত জামায়াতে ইসলামী নিষিদ্ধ করার দাবি উঠেছে। কোন রাজনৈতিক দল নিষিদ্ধ করার দাবি বাংলাদেশের আগে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন সময়ে উঠেছে এবং ওসবের ফলশ্রুতিতে সেসব রাজনৈতিক দল নিষিদ্ধও হয়েছে। এই লেখাটি মূলত সেসব অভিজ্ঞতার আলোকে বাংলাদেশে জামায়াতে ইসলামী নিষিদ্ধ করার প্রাথমিক রূপরেখার প্রস্তাবনা।