মুক্তিযুদ্ধ

ব্যাখ্যাহীন দেশ্রপ্রেম ও রোশেনারা

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: সোম, ২৩/০৬/২০১৪ - ৬:৫৯পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা দেখতে যেয়ে আবিষ্কার করলাম, সে তালিকায় রোশেনারার (রওশন আরা) নাম নেই।
দু:খ পেলাম।
অথচ রোশেনারা যে কাজ করেছিলেন, তা কোন বীরশ্রেষ্ঠ থেকে কম নয়।

ইতিহাসে আমরা দুজন রোশেনারার (রওশন আরা) সম্পর্ক জানতে পারি।

এক.

মুক্তিযোদ্ধারা ভারী অস্ত্র নিয়ে কিশোরী রোশেনারাদের গ্রামে আশ্রয় নিয়েছিল।
রোশেনারাদের বাড়িতে অস্ত্র রেখেছিল, গ্রেনেড আর মাইন।


স্বাধীনতার ঘোষণা ও একজন এম.এ. হান্নান

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: শুক্র, ১৩/০৬/২০১৪ - ৯:৫১অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

২৫ মার্চ ১৯৭১, হঠাৎই বঙ্গবন্ধুর সাথে আলোচনা বন্ধ করে সন্ধ্যায় পাকিস্তানের কসাই প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খান ঢাকা ত্যাগ করে পশ্চিম-পাকিস্তান চলে যায়।

এই পাকি কসাইয়ের আদেশে ওই রাতে পাকিস্তান সেনাবাহিনী পূর্ব-পাকিস্তানে শুরু করে 'অপারেশান সার্চলাইট' আর এর সাথেই শুরু হয় দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ-উত্তর সর্ববৃহৎ গণহত্যা ও জাতিগত ধোলাই।


মুক্তিযুদ্ধের ই-আর্কাইভ

বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ পাঠাগার ও গবেষণা কেন্দ্র এর ছবি
লিখেছেন বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ পাঠাগার ও গবেষণা কেন্দ্র [অতিথি] (তারিখ: বিষ্যুদ, ১২/০৬/২০১৪ - ৬:০১অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

প্রিয় সুধী,

মুক্তিযুদ্ধের উপর অনলাইন আর্কাইভে আপনাকে শুভেচ্ছা জানাই।

বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ পাঠাগার ও গবেষণা কেন্দ্র
Bangladesh Liberation War Library and Research Centre
ফেসবুক পেজ

প্রতিষ্ঠিত হয় ২০০৭ সালে; বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও গবেষণা এবং প্রচার নিয়ে কাজ করছে এই সংগঠন।


বাঘের পোষাকের আড়ালে লুকিয়ে থাকা বিড়ালের আত্মসমর্পন

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: শনি, ০৭/০৬/২০১৪ - ২:৫১পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

১৪ ডিসেম্বর:

মিত্রবাহিনীর তুমুল আক্রমনে সারা পূর্ব বাঙলায় পাকিস্তানী সৈন্যরা কোনঠাসা হয়ে গেছে।
ভারতীয় বিমানবাহিনী ও মিত্রবাহিনীর গোলন্দাজরা পাকিস্তানী সামরিক বাহিনীর লক্ষ্যবস্তুতে বিরতিহীনভাবে বোম্বিং করছে।

পরাজয় নিশ্চিত বুঝতে পেরে সকালে গর্ভনর হাউজে পূর্ব পাকিস্তানের গর্ভনর ডা: মালিক তার ১১ মন্ত্রী সহ পদত্যাগ করে।


বঙ্গবন্ধুর ভাষণের দুর্লভ ভিডিও ফুটেজ ও অডিও

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: রবি, ২৫/০৫/২০১৪ - ২:১২পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

বাহাত্তরে দেশে ফিরে বঙ্গবন্ধু দেয়া ভাষণের অডিও

১০ জানুয়ারি, ১৯৭২

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান পাকিস্তানের বন্দীদশা থেকে মুক্ত হয়ে বাংলাদেশে ফিরে এসে রেসকোর্স ময়দানে জনতার উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন।


পাকিস্তানের অখণ্ডতার প্রতি সমর্থন ও সহযোগিতা কি অপরাধ ছিল?

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: সোম, ২৮/০৪/২০১৪ - ৬:১৯অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

সবার জানা ঐতিহাসিক সত্যটা হচ্ছে ১৪ই অগাস্ট ১৯৪৭-এ গঠিত পাকিস্তান রাষ্ট্রের আঞ্চলিক অখণ্ডতা ২৬শে মার্চ ১৯৭১-এর প্রথম প্রহরে ভেঙে পড়ে এবং বাংলাদেশ রাষ্ট্রের অভ্যূদয় ঘটে। ১০ই এপ্রিল ১৯৭১-এ মুজিবনগরে সরকার গঠন পাকিস্তান ভেঙে বাংলাদেশ গঠনকে বাস্তব করে তোলে এবং ও ১৬ই ডিসেম্বর ১৯৭১-এ বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ বাহিনীর নিকট পাকিস্তান বাহিনীর আত্মসমর্পণ স্বাধীন, সার্বভৌম বাংলাদেশের যাত্রাকে নিশ্চিত করে। ২২শে ফেব্রুয়ারি ১৯৭৪-এ পাকিস্তান কর্তৃক বাংলাদেশকে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতির মাধ্যমে পাকিস্তানের ভেঙে পড়ার বিষয়টি খোদ পাকিস্তান সরকারও মেনে নেয়।


আমাদের গল্প (২য় পর্ব)

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: বিষ্যুদ, ১৭/০৪/২০১৪ - ২:০১পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

সাম্প্রতিক সময়ে যুদ্ধাপরাধের বিচারের বিরুদ্ধাচরণ করে একটি গোষ্ঠী দেশে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে । সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সামাজিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক জীবনকে ব্যাহত করার যাবতীয় চেষ্টা করছে । যা জাতির জন্য অমঙ্গল বয়ে আনবে বলে আমার আশঙ্কা হয় । যুদ্ধাপরাধীদের উপযুক্ত বিচার ও স্বাধীনতা বিরোধীদের এ ষড়যন্ত্র থেকে জাতিকে রক্ষা করার প্রয়াস অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার পথকে সুগম করবে । উপর্যুক্ত প্রসঙ্গে আ


আমাদের গল্প (১ম পর্ব)

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: রবি, ১৩/০৪/২০১৪ - ১০:৩৫অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের জন্মের সাথে বেদনাদায়ক ইতিহাস আছে । আমরা বাঙালি, বাংলা আমাদের মাতৃভাষা । বাংলার ইতিহাস সুপ্রাচীন । বাঙালির অতীতগাথা অত্যন্ত সমৃদ্ধ । আমাদের ভাষারীতি উঁচুমানের । বাঙালির আরও আছে শিল্পকলা আর সংস্কৃতির নিজস্ব ধারা । তবুও আমাদের একটি বড় অপ্রাপ্তি ছিল, স্বাধীনতা নামক এক মুকুটমণির অভাব ছিল । প্রায় দু’শ বছরের ঔপনিবেশিক শাসনের নাগপাশ ছিন্ন করে বাঙলা তথা ভারতমাতা বৃটিশদের হাত থেকে মু


তোমাদের যা বলার ছিল, বলছে কি তা বাংলাদেশ?

সাক্ষী সত্যানন্দ এর ছবি
লিখেছেন সাক্ষী সত্যানন্দ [অতিথি] (তারিখ: শুক্র, ২৮/০৩/২০১৪ - ১১:০১অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

আবারও বকেয়া লেখা,
আরও এক বছর দেরি করতে মন চাইল না, তাই


একাত্তরের গল্প শুনি

শিশিরকণা এর ছবি
লিখেছেন শিশিরকণা (তারিখ: বিষ্যুদ, ২৭/০৩/২০১৪ - ৫:৩৬পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

মার্চ মাস এলেই টিভিতে মুক্তিযোদ্ধা কিংবা শহীদ পরিবারের স্বজনদেরকে ডেকে ডেকে ১৯৭১ এর স্মৃতি বলতে বলা হয়। ঘুরে ফিরে কিছু মানুষের কাহিনীই আমরা বারে বারে শুনি। কিন্তু শুধু তারাই কেন শোনাবেন? একাত্তরে এদেশে মারা গেছে ৩০ লক্ষ মানুষ, আমাদের তো ৩০ লক্ষ গল্প থাকার কথা। অন্তত ৩০ লক্ষ সাহসিকতার গল্প। সে সময় বাঙালি ছিলো সাড়ে সাত কোটি, তত কোটি গল্প কি আমরা শুনেছি?