পড়ুয়াদের ২০১৫

সন্দেশ এর ছবি
লিখেছেন সন্দেশ (তারিখ: বিষ্যুদ, ৩১/১২/২০১৫ - ১২:২১পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

ব্লগ শেষ পর্যন্ত যারা পড়তে চান আর লিখতে চান, তাদেরই ময়দান।

২০১৫ সালে আপনার পড়া সেরা বইটি, আর আপনার চোখে নতুন আবিষ্কৃত একজন লেখককে নিয়ে সচলায়তনে লিখুন। বইটি হতে পারে যে কোনো ভাষার, লেখক হতে পারেন যে কোনো দেশের। বইটি যে কোনো বছর প্রকাশিত হতে পারে, তবে আপনাকে সেটি পড়ে থাকতে হবে ২০১৫ সালেই। একই ভাবে, লেখককেও হতে হবে ২০১৫ সালে আপনার চোখে প্রথম আবিষ্কার।


কিতাব আল গাইর-ইস্তিফাজ (ওয়ালিমাঃ ওয়াহিদ)

সাক্ষী সত্যানন্দ এর ছবি
লিখেছেন সাক্ষী সত্যানন্দ [অতিথি] (তারিখ: শনি, ০৬/০২/২০১৬ - ১২:৪০পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা একটি বোলগ, উসকানি বিহীন।


ফেসবুকীয় পপকর্ণ স্ট্যাটাস ও পুলিশের ‘বাবুল মাতবর’-মামলা

মাহবুবুল হক এর ছবি
লিখেছেন মাহবুবুল হক (তারিখ: শুক্র, ০৫/০২/২০১৬ - ১১:০৪অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

অনেকদিন আগে ‘যখন পুলিশ এলো’ শিরোনামে কয়েক পর্বে আমি লিখেছিলাম পুলিশ সম্পর্কে একেবারে প্রত্যক্ষ কয়েকটি অভিজ্ঞতার কথা।এগুলো এতটাই বাস্তব যে অনেকের অনেক অভিজ্ঞতার সাথে হুবহু মিলে যেতে পারে। অনেকদিন পর আবার পুলিশ প্রসঙ্গে লিখতে হল। বাবুল মাতবর বা তার আগে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তা বা সিটি কর্পোারেশন কর্মকর্তা বিকাশ কিংবা তারও আগে বিশ্বাবিদ্যালয় ছাত্র খলিল (সম্ভবত) এমন আরও অনেকের ক্ষেত্রে পুলিশ যে পোশা


স্বপ্নের জীবাশ্ম

নীড় সন্ধানী এর ছবি
লিখেছেন নীড় সন্ধানী (তারিখ: শুক্র, ০৫/০২/২০১৬ - ৭:২৩অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

ঘুম ছুটে যাবার পর অমিতাভ আবারো ভাবলো। ওটা তো স্বপ্নই ছিলো। ওই চোখ দুটো স্বপ্ন ছাড়া এতটা রং ছড়ায় না কোথাও। যেখানে কেবলি ভয়, যেখানে কেবলি আশংকা, সেখানে এতটা আনন্দ এতখানি আলোর আশ্বাস নিয়ে আসে না। স্টুডিও ছবির নিগেটিভে হাসিকে কান্না কিংবা কান্নাকে হাসি বলে যেখানে ভুল হয়ে যায় নবনীতার চোখে ভাসতে থাকা হাসিটাকেও নির্ঘাত একটা স্বপ্ন বলে ধরে নেয় সে।


নিদাঘনামা (২)

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: বিষ্যুদ, ০৪/০২/২০১৬ - ৬:০৫পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

[justify]আগরে পর্ব এখানে : http://www.sachalayatan.com/guest_writer/53893

আমাদের সেই শহরটাও আদতে ছিল একটা গ্রামের প্রতিলিপি। শহর বলতে আমি তখনো একটা ছোট গলিকেই বুঝতাম শুধু। এখানকার পথে সবুজ না থাকলেও মাটি ছিল অঢেল। তখনো পিচতো দূরের কথা সুরকিও দেখিনি আমরা।


ছবির গল্পঃ মালিক অম্বর বিষয়ক জাহাঙ্গীরের মনকলা

সত্যপীর এর ছবি
লিখেছেন সত্যপীর (তারিখ: বুধ, ০৩/০২/২০১৬ - ১০:২৯পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

চতুর্থ মোগল বাদশা নূরউদ্দীন মুহম্মদ জাহাঙ্গীরের বুদ্ধিশুদ্ধি ছিল অল্প। তার টাইটেল জাহাঙ্গীর ফার্সীতে বোঝায় দুনিয়াজয়ী ব্যক্তি, তাই তার হুকুমে আঁকা ছবিতে প্রায়ই দেখা যায় তিনি হাস্যকরভাবে জামাজুতাসুদ্ধা একটা আস্ত ভূগোলকের উপর খাড়িয়ে আছেন। এইরকম একটা ছবি নিয়ে আলোচনা করি আজকে চলেন। ছবিতে মাছের উপর গরু, গরুর উপর পৃথিবী, পৃথিবীর উপর জাহাঙ্গীর। হাতে সোনার ধনুক, সেইটে দিয়ে সোনার তীর ছুঁড়ে মারছেন সড়কির উপর গাঁথা একটি কৃষ্ণাঙ্গ মানুষের কেটে ফেলা মাথার হাঁ করা মুখের দিকে।

কৃষ্ণাঙ্গ মানুষটি দক্ষিণ ভারতের আফ্রিকান বংশোদ্ভূত গেরিলা কমান্ডার চাপু ওরফে মালিক অম্বর, যার যন্ত্রনায় বাপবেটা আকবর জাহাঙ্গীর ছিলেন অতীষ্ঠ।


সিনেমার জন্ম

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: মঙ্গল, ০২/০২/২০১৬ - ১১:৪১অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

একটি সিনেমা কখন জন্ম নেয়?


টিনের ক্যানভাস

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: সোম, ০১/০২/২০১৬ - ৭:৪৫অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

টিনের ক্যানভাসের ওপর এনামেল পেইন্টের আঁচড়। ছবি হিসেবে নিলামে ওঠেনা, হয়তো ঘরেও নয়। নেহায়েত রাস্তার জিনিস তাই পথে পথেই এর প্রদর্শনী। তাতে কিন্তু এই ছবি গুলোর বিশেষ মানহানী ঘটেনি কখনও। রিকশার ছবি যে আবারো আঁকানো শুরু হয়েছে সেটাই খবর। দেশের অন্য শহর বা জেলা গুলোর খবর বিশেষ জানিনা, তবে রাজশাহীতে বছর কয়েক যাবত রিকশা অলঙ্করনের একটা জোয়ার দেখা যাচ্ছে। ব্লগে বা পত্রিকায় রিকশার পুরনো দিনের কথাই আলোচিত হতে দ


কালীকাপ্রসাদ এর সাথে অসমাপ্ত আড্ডা

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: সোম, ০১/০২/২০১৬ - ২:২৮অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

[justify][i]সংগীতপ্রেমি মানুষের কাছে কালীকাপ্রসাদ এর পরিচয় নতুন করে দেওয়ার কিছু নেই। তিনি গানের মানুষ, আপাদমস্তক শিল্পী। ওপার বাংলার গানের দল ‘দোহার’ এর প্রাণ পুরুষ। গানের খোঁজে, গানের পেছনে ছুটে বেড়ান অহর্নিশ। তার সাথে এই কথপোকথনের শুরু মূলত বাংলাদেশের কোন একটি স্যাটেলাইট টেলিভিশনে দোহার- এর লাইভ অনুষ্ঠান দেখার মাধ্যমে। একজন গুণমুদ্ধ দর্শক-শ্রোতা হিসেবে বাংলা ব্লগ সাইটে একটি লেখা লিখেছিলাম- নিজের


যাই, বাহামা ছুঁয়ে আসি

এক লহমা এর ছবি
লিখেছেন এক লহমা [অতিথি] (তারিখ: সোম, ০১/০২/২০১৬ - ১২:১৬অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

অবশেষে বেরিয়ে পড়লাম, পায়ের বেড়ি খসিয়ে বেড়িয়ে আসার জন্য। নরওয়েজিয়ান (আবারও) ক্রুজ লাইনের তরণী ভরসায়, এবার গন্তব্য বাহামা দ্বীপপুঞ্জ। চার রাত, তিন দিন-এর ভ্রমণ, মাত্রই তিনটি দ্বীপ ছুঁয়ে আসা। কিন্তু, সেটাই বা কম কি, একটু ঘুরে আসা ত হবে!