বাইছাশি বাজাই - একটি ধাঁধা

আসিফ আসগর এর ছবি
লিখেছেন আসিফ আসগর [অতিথি] (তারিখ: সোম, ২৪/০৮/২০০৯ - ৭:১৮অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

ক্লু ১ : না, কোন বাদ্যযন্ত্র নয়; বরং খুবই পরিচিত দুটি সংঘবদ্ধ গোষ্ঠির নাম। সচলে ইদানিং এদের গৌরবজ্জ্বল ইতিহাস এবং আমাদের ব্যক্তিজীবনে এদের কর্মকান্ডের প্রভাব নিয়ে লেখা আসছে।

ক্লু ২ - এই গোষ্ঠিগুলোর উপরদিককার সদস্যদের চেহারায় এক ধরনের ‘নূরানি’ আভা দেখতে পাওয়া যায়। এবং এরা কথায় শুধু চিড়া নয়; আলপিন, সেফটিপিন থেকে শুরু করে সোনা, রূপা, প্লাটিনাম, ইউরেনিয়াম পর্যন্ত ভিজিয়ে ফেলতে পারে। এদের এক কথায় মুক্তিযুদ্ধ হয়ে যায় গন্ডগোল, শহীদের সংখ্যা থেকে ঝড়ে যায় দুটি শূন্য। [খুঊব খেয়াল কইরা, শহীদ হওয়ার প্রথম শর্ত কিন্তু যুদ্ধে মৃত্যু না, মুসলিম হওয়া। হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান, হাতি, ঘোড়া, ছাগল… হাবিজাবি এসব মরলেই কি আর বাঁচলেই কি]

ক্লু ৩ : দ্বিতীয় দলটির দলপ্রধানের নাম (এবং কাম) –এর আদ্যক্ষরগুলো নিলে দাঁড়ায় – MoRaNi অর্থাৎ, মরানি । [ডিসক্লেইমার - দুষ্টু বালকের দলের মাথায় অশ্লীল শব্দ এসে ভীড় জমালে তার জন্য লেখক দায়ী নয়, খুশি]

ক্লু ৪ - যুদ্ধ-দারিদ্র্য কবলিত, হাসতে ভুলে যাওয়া মানবজাতির প্রতি স্রষ্টা-প্রদত্ত নির্মল হাসির খোরাক ‘ফাকিস্তান’ এবং ফাকিস্তানবাসীদের প্রতি এদের রয়েছে অন্তরের টান, একাত্তুরে হা-দা (হানাদার) বাহিনীর এরা ছিল বজম ফেরেন্ড। আধা-হিন্দু আমাদেরকে সার্থক মুসলমান বানানোর জন্য এদের সিনিয়র গ্রুপের সদস্যরা হা-দা’র কুত্তার বাচ্চাদের হাতে আমাদের মা-বোনদের তুলে দিত ধর্ষণের জন্য।

ক্লু ৫ - দেশের শীর্ষস্থানীয় রাজনীতিবিদদের সাথে প্রায়শই এদের হাতে হাত মিলিয়ে ভোট চাইতে দেখা যায়।

ক্লু ৬ - বাইছাশি’র লোকজন আবার একটু ‘একেলে’। এদের ভেতর বাংলাদেশি জাতীয়তাবোধ প্রবলভাবে বিদ্যমান। ফাকিস্তান সংশ্লিষ্ট ইস্যুগুলো বাদে দেশবিরোধী যেকোন ব্যাপারে এরা আমার-আপনার থেকে বেশি জ্ঞান রাখে এবং সভা-সমিতিতে এই জ্ঞানগর্ভনিসৃতসুধা ঢেলে দেয় উপস্থিত সুধিজনের উপর। পথভ্রষ্ট দুষ্টু বালকেরা এ সময় মধ্যাঙ্গুলি প্রদর্শন করলে এরা যথাক্রমে নিম্নলিখিত কার্যদ্বয় সমাধা করে –
ক। মহান আল্লাহ যেন এসব পথভ্রষ্ট যুবকদের ইসলামের পথে আসার মন-মানসিকতা প্রদান করেন, তার জন্য লোকসম্মুখে দোয়া,
খ। রাতের আঁধারে ধরে এনে ধারাল অস্ত্র সহযোগে পায়ের রগ কর্তন ‘আল্লাহু আকবার’ সহকারে, তারপর থেকে ভ্রান্ত দুষ্টু বালকেরা একেবারে পথেই বসা (আমিন)।

ক্লু ৭ - এরা বিশ্বাস করে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের হলোকস্ট থেকে শুরু করে ক্লিনটন-মনিকা কেস পর্যন্তও যদিওবা নতুন কিছু বলার থাকতে পারে, কিন্তু একাত্তুরের যুদ্ধাপরাধীদের ইস্যুটি বিলকুল ‘সেটেল্ড’। এ প্রসঙ্গে মরানি-র সদ্য করা একটি উক্তি উল্লেখযোগ্যঃ
I hope that the government will come forward to prioritize the greater national unity to prevent India from constructing disastrous Tipaimukh Dam rather than pushing the nation towards division based on an issue (war crime of 1971) which has already been settled [উৎসঃ বাজাই-এর ওয়েবসাইট]

(চলবে…)

[সৌভাগ্যবান কেউ এখনও ধাঁধার সমাধান না করতে পারলে বাংলা-ইংরেজি মিলিয়ে যত গালি জানা আছে, দিতে থাকুন… সমাধান অটোমেটিকালি মুখে এসে যাবে]


মন্তব্য

অমিত এর ছবি

জামাত-ই-হারামী

ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

৭ নম্বর ক্লু পড়ে হেড অফিস থেকে ধোঁয়া বের হচ্ছে। সব ঠিকঠাক হলে আবার ভাবতে বসবো...

অনীক আন্দালিব এর ছবি

কয়েকদিন ধরে মন-মেজাজ খারাপ। আশেপাশে সবার মতামতে মনে হচ্ছে আমিই কি ভুল?

আজকে তোর পোস্ট পড়ে আবার ভরসা পেলাম, নাহ, এখনও আমি ভুল না।

আমার শেষ ফেসবুক স্ট্যাটাসটা দেখিস, আমরা গেরেট মাইন্ডরা একরকম চিন্তাই করি! চোখ টিপি

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

ধুর্বাল, এইটা সবাই পারে... ---------------------------------------------------------------------------
- আমি ভালোবাসি মেঘ। যে মেঘেরা উড়ে যায় এই ওখানে- ওই সেখানে।সত্যি, কী বিস্ময়কর ওই মেঘদল !!!

_________________________________________

সেরিওজার গল্প

স্বপ্নহারা এর ছবি

জিতসি...জিতসি...এইটা আমি পারি!
তয় সবাই পারে না...পারলে এত্ত জামাতি কইথেইকা আসে?!

-------------------------------------------------------------
স্বপ্ন দিয়ে জীবন গড়া, কেড়ে নিলে যাব মারা!

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

এনকিদু এর ছবি

এইটা কি ধাঁধা ছিল ?


অনেক দূরে যাব
যেখানে আকাশ লাল, মাটিটা ধূসর নীল ...


অনেক দূরে যাব
যেখানে আকাশ লাল, মাটিটা ধূসর নীল ...

আসিফ আসগর এর ছবি

হাহা... আসলে না। জামাতিদের কোন এক ওয়েবসাইট দেখে মেজাজ খারাপ ছিল সম্ভবত, তাই এসব হাবিজাবি লিখে ফেলেছিলাম রাগের মাথায়। 'একটি কঠিন ধাঁধা' নয়, বরং জামাতিদের বিরুদ্ধে রাগ-দুঃখ মেশানো একটা শ্লেষাত্মক রম্য রচনা করাই ছিল লেখার উদ্দেশ্য -- যা আপনাকে এবং উপরের সুহান রিজওয়ানকে বোঝাতে পারিনি... অবশ্যই আমার লেখনির দুর্বলতা। আন্তরিকভাবে দুঃখিত সময় নষ্ট করার জন্য। এতদিন পর পড়ে নিজের কাছেই হাস্যকর লাগছে এই লেখা... সম্ভব হলে মুছে দিতাম। ইয়ে, মানে...

ভাল থাকবেন সব সময়।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA