ব্লগ

এলোমেলো

অপ বাক এর ছবি
লিখেছেন অপ বাক (তারিখ: বুধ, ০১/০২/২০০৬ - ৬:৩৩অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

হে যাকারিয়া , আমি তোমাকে একটি পুত্রের সুসংবাদ দিচ্ছি, তার নাম হবে ইয়াহইয়া, (সুরা মারিয়ম- আয়াত- 7)
যখন বান্দার জন্ম হয় তখন জানা ছিলো না তার 2000 বছর পরে আরও এক বান্দার জন্ম হবে, পবিত্রভুমিতে, তার নাম তাকে সম্মানিত করবে, এবং নামের রহমতে সে কৌশলে হবে সেনাবাহিনীর প্রধান, মাঝে কেটে গেছে 2000 বছর, এই নামের উৎপত্তি হয়েছে ইশ্বরপ্রদত্ত নামের মহিমা আছে, ইতিহাস সাক্ষী, ইশ্বর যাকে ইচ্ছা সম্পদ দান করেন, যাকে ইচ্ছা সম্মানিত করেন, নিশ্চয়ই জ্ঞানীদের জন্য নিদর্শন আছে, কিন্তু মানবজাতি তোমরা বড়ই ব্যাগ্রতা দেখাও, সমাপ্তিতে নিয়ে যাবো.। মাঝে কিছু কাল কাটিয়ে যাবে আনন্দে , তবে অহেতুক হতয়া করো না, দুর্বলের উপর অত্যাচার করো না, ন্যায়পরায়ন শাসক হবে, প্রজাপালন করবে


মনোহরদীর রেইনট্রি নিধন ও বাংলাদেশের বৃক্ষ বিশেষজ্ঞবৃন্দ

হীরক লস্কর এর ছবি
লিখেছেন হীরক লস্কর (তারিখ: বুধ, ০১/০২/২০০৬ - ৮:৪৫পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:


নরসিংদী জেলার মনোহরদীর ইউএনও রেইনট্রি কাটার নির্দেশ দিয়েছেন। সে নির্দেশে অনেক রেইনট্রি কাটা হয়ে গেছে। দেশের কিছু পত্রিকায় রেইনট্রি কাটাকে পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতিসাধন হিসেবে চিহ্নিত করে প্রচুর লেখালেখি হচ্ছে। ডেইলি স্টারে অত্যন্তকড়া সম্পাদকীয় লেখা হয়েছে আজ।
সাংবাদিকরা কিছু বৃক্ষ বিশেষজ্ঞদের প্রশ্ন করেছিলেন রেইনট্রি পরিবেশের জন্য খারাপ কিনা? তারা জবাব দিয়েছেন এরকম কোনো কথা তারা কোথাও শুনেননি এবং কোনো বইয়ে পড়েন নি।
বিশেষজ্ঞদের এই অজ্ঞতায় আমি হ


ডেনমার্কের প্রকাশিত কার্টুন

অপ বাক এর ছবি
লিখেছেন অপ বাক (তারিখ: মঙ্গল, ৩১/০১/২০০৬ - ৩:২৮অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

ডেনমার্কের পেপারে প্রকাশিত কার্টুন নিয়ে একটা বিশাল কেচাল শুরু হয়েছে,
আমি অনেকক্ষন ধরে খুজছি কাটূন গুলো, না দেখে বলা যাচ্ছে না আপত্তিকর কিছু আছে কি না, মধ্যপ্রাচ্যের মানুষজনের বিবেচনার উপর আমার আস্থা তলানির পর্যায়ে,

আমার প্রশ্ন হলো মোহাম্মদকে নিয়ে কার্টুন করা যাবে না কেনো। আমি বাকি সব ধার্মের লোকদের নিয়ে কার্টুন দেখছি, আদম হাওয়া, মুসা, ইসা, শয়তান, ইশ্বর সবাই যদি কার্টুনিস্টদের লক্ষ্য হতে পারে , যদি মুসলিম সন্ত্রাসী আর আরবের শেখেরা বিষয়বস্তু হতে পারে , তবে মোহাম্মদের জন্যে ব্যাতিক্রম হবে কেনো?

আমি জানি না কেনো তবে আমি ছোটো থেকে শুনছি আলী ওমর আবুবকর সবার প্রতিকৃতি থাকলেও মোহাম্মদের ছবি আকানো পাপের পর্যায়ে পরে,

আমি নিশ্চিত


নিলয় দাশ

অপ বাক এর ছবি
লিখেছেন অপ বাক (তারিখ: মঙ্গল, ৩১/০১/২০০৬ - ৮:৫৮পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

লিখব ভেবেছিলাম আগেই। নিলয় দাশ মারা গেছে 11ই জানুয়ারি। বেচারা তেমন খবরের শিরোনাম ছিলো না। আমার শোনা একটা এলবাম এর বাইরে হয়তো আরও কিছু গান থাকতে পারে। কত যে খুজেছি তোমায় আমার খুব পছন্দের গান নয় তবে অনেকের পছন্দ।


ব্যাক্তিগত লজ্জা

অপ বাক এর ছবি
লিখেছেন অপ বাক (তারিখ: সোম, ৩০/০১/২০০৬ - ১১:২২পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

কোনরকম রাখঢাক না করে বলা যায় আমার দাদারা কট্টর মুসলিম লীগার। তারা 71এ শান্তিবাহিনীর সদস্য ছিলো। তাদের মধ্যে রাজনীতিতে সক্রিয় মানুষটা পরে আহলে হাদিস আন্দোলনের সদস্য । এবং আশ্চর্য এই প্রায় 28বছরতারা তাদের অবস্থান অক্ষুন্ন রেখেছে। তাদের বিশ্বাস জাহানারা ইমামের চরিত্রের গোলমাল আছে। এবং মুজিব স্বায়ত্বশাসন চায় নি পাকিস্তানের ধ্বংস চেয়েছিলো।
তাদের সবচেয়ে ছোট জনের সাথে আমার একদিন সারাদিন তর্ক হয়েছে। অবশেষে তিনি স্বীকার করলেন কিছুটা ভুল আল বদর আল শামসেরা করেছিলো।এটা উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া লজ্জা ।


ব্লগ: কি লিখবেন কিভাবে লিখবেন?

শোহেইল মতাহির চৌধুরী এর ছবি
লিখেছেন শোহেইল মতাহির চৌধুরী (তারিখ: রবি, ২৯/০১/২০০৬ - ৮:২৫পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:


আগের লেখায় আমি যখন বলি যে ব্লগে কি লিখবেন তার একটি নির্দেশিকা থাকা দরকার, তখন অনেকেই একে অপ্রয়োজনীয় বলে মন্তব্য করেছেন। কিন্তু এর যে প্রয়োজনীয়তা রয়েছে তা ক্রমশ: আরো তীব্রভাবে অনুভূত হচ্ছে।
জ্যোতির্ময় ঘোষবাবুর স্প্যাম-মত ব্লগ সমস্যা তো আমরা দেখলাম। জাকিরুল হক তালুকদারের লেখা নিয়েও একই সমস্যা দেখা দিয়েছে। অনেকে তার লেখা নিয়ে প্রশ্ন তোলায় তিনি পালটা একটি লেখা লিখেছেন আগে ব্লগের সংজ্ঞা জেনে আসুন।
সুতরাং এই যে সংজ্ঞা নিয়ে বিরোধ তার একটা সমাধান


ব্লগ: কি লিখবেন কিভাবে লিখবেন?

শোহেইল মতাহির চৌধুরী এর ছবি
লিখেছেন শোহেইল মতাহির চৌধুরী (তারিখ: রবি, ২৯/০১/২০০৬ - ৮:২৫পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:


আগের লেখায় আমি যখন বলি যে ব্লগে কি লিখবেন তার একটি নির্দেশিকা থাকা দরকার, তখন অনেকেই একে অপ্রয়োজনীয় বলে মন্তব্য করেছেন। কিন্তু এর যে প্রয়োজনীয়তা রয়েছে তা ক্রমশ: আরো তীব্রভাবে অনুভূত হচ্ছে।
জ্যোতির্ময় ঘোষবাবুর স্প্যাম-মত ব্লগ সমস্যা তো আমরা দেখলাম। জাকিরুল হক তালুকদারের লেখা নিয়েও একই সমস্যা দেখা দিয়েছে। অনেকে তার লেখা নিয়ে প্রশ্ন তোলায় তিনি পালটা একটি লেখা লিখেছেন আগে ব্লগের সংজ্ঞা জেনে আসুন।
সুতরাং এই যে সংজ্ঞা নিয়ে বিরোধ তার একটা সমাধান


আমার বন্ধু শ্যাম

অপ বাক এর ছবি
লিখেছেন অপ বাক (তারিখ: শনি, ২৮/০১/২০০৬ - ৮:৪৬অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

শ্যাম, আমার স্কুলজীবনের বন্ধু।একই পাড়ায় থাকা,একই মাঠে খেলা। পরে আমি অন্য স্কুলে চলে গেলাম, আর সে স্কুল , পাড়া ছেড়ে গেল গ্রামে। কাঞ্চন গ্রাম, তার নানা বাড়ি। বছরখানেক পরে দেখা, স্কুলের বেতন দিতে পারবে না তাই তার শিক্ষাজীবনের সমাপ্তি, শোলা দিয়ে বিভিন্ন খেলনা তৈরী করছে। আমি হাতের কাজে পটু না তাই চেষ্টা করেও খেলনা তৈরীর বিদ্যা শিখতে পারি নি। পাখি তৈরীটা আমার লোভের জিনিষ ছিলো। ওটার সাথে একটা ধনুকের মতো কঞ্চি থাকতো, চাপ দিলে পাখি মাথা নাড়াতো। তখন বিশাল বন্যা। 88 , স্কুল বন্ধ। শ্যামে র সাথে দেখা, যাচ্ছে গ্রামে। বললাম আমিও যাবো। চল, বলে রওনা হলো। রেল লাইন ধরে হাটা। হাটতে হাটতে রেল ব্রীজ, শিমুল তলা, শ্মশানের হাট, আমার দুরত্বের সব সীমা শেষ। যতবার বলি


আলো কি করে নিষিদ্ধ করি

শোহেইল মতাহির চৌধুরী এর ছবি
লিখেছেন শোহেইল মতাহির চৌধুরী (তারিখ: শনি, ২৮/০১/২০০৬ - ১১:০৬পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:


ভুল বুঝবেন না আড্ডাবাজ। জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ নামের রাজনৈতিক দলটির প্রতি আপনার বিরাগ আমার বোধের অতীত নয়। কিন্তুতাদের সদস্যদেরকে আপনার লেখা ব্লগ থেকে দূরে রাখার কৌশল আমি গ্রহণ করতে পারছি না।
ইসলাম ও কোরান-সুন্নাহর আইন প্রতিষ্ঠার কথা বলেই তারা সাধারণ ধর্মপ্রাণ মানুষের সমর্থন জয় করে থাকে। তাদের কূটকৌশল সাধারণ মানুষের কাছে ধরা পড়ারও কথা নয়। সুতরাং তাদের সদস্যদের মধ্যেও অনেকে আছেন যারা বিভ্রান্ত। পূর্ণাঙ্গ সত্য জানার সুযোগ তাদের হয়নি। তারা সরল ব


আলো কি করে নিষিদ্ধ করি

শোহেইল মতাহির চৌধুরী এর ছবি
লিখেছেন শোহেইল মতাহির চৌধুরী (তারিখ: শনি, ২৮/০১/২০০৬ - ১১:০৬পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:


ভুল বুঝবেন না আড্ডাবাজ। জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ নামের রাজনৈতিক দলটির প্রতি আপনার বিরাগ আমার বোধের অতীত নয়। কিন্তুতাদের সদস্যদেরকে আপনার লেখা ব্লগ থেকে দূরে রাখার কৌশল আমি গ্রহণ করতে পারছি না।
ইসলাম ও কোরান-সুন্নাহর আইন প্রতিষ্ঠার কথা বলেই তারা সাধারণ ধর্মপ্রাণ মানুষের সমর্থন জয় করে থাকে। তাদের কূটকৌশল সাধারণ মানুষের কাছে ধরা পড়ারও কথা নয়। সুতরাং তাদের সদস্যদের মধ্যেও অনেকে আছেন যারা বিভ্রান্ত। পূর্ণাঙ্গ সত্য জানার সুযোগ তাদের হয়নি। তারা সরল ব