ইচ্ছেকথা: মধ্যরাতে ফুলডাঙায় বকুলের সরা উল্টে তীব্র গন্ধ আসে

আশরাফ মাহমুদ এর ছবি
লিখেছেন আশরাফ মাহমুদ (তারিখ: বুধ, ২৭/০১/২০১০ - ৮:৫৬পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

=================================

ইচ্ছেকথা ১
=================================

১১
মধ্যরাতে ফুলডাঙায় বকুলের সরা উল্টে তীব্র গন্ধ আসে।
একটি দোয়েল ডেকে উঠে নিউরনের সবুজবাড়িতে; সেই দোয়েলের বুক হলদে-সাদা, কেবল কোমরে নোনতা লাল রঙ লেগে আছে। এইসব রঙ আবার দিনচক্রের উপর নির্ভর করে বিবিধ প্রকারে ধরা দেয় এবং পাপ হয়। পাপের রঙ প্রকৃত-প্রস্তাবে সাদা।

ঈশ্বর নিরাকার নন। তার আকার বিষয়ক গবেষণার মুখে ছাই-ভাত দিতেই তিনি নিরাকারধর্মী গল্প ফাঁদছেন।

১২
বাতাসের ডিক্রি মেনে নিয়ে কতিপয় পাতা ঝরে পড়ে; ঝাউের পাতা। সেই সব পাতা জলের খাদ্য হয়ে একদিন প্রবাল হয়ে গেছে! তাই নারীদের বুকে দুধের স্বাদ কমে আসছে।
চাঁদ ও জোছনা দেখে যারা লুঙ্গির কোঁচ বেঁধে কবিতা ও নারীসামগ্রী লিখতে বসেন সেই সব ঠাউরে-কবিদের বৃষ্টিতে ভেজার সময় এসেছে।
শক্তি চট্টোপাধ্যায়ের মতো আমরা-ও একটি অতর্কিত বর্ষার অপেক্ষায় আছি।

১৩
শিল্প উপজাতদ্রব্য। জগতের সকল শিল্পী মাত্রই লোভী- মহাকালে নিজের কর্মের বিনিময়ে অমরতার চুষিকাঠি চায়। কসম কেটে না বলুক তো কোন শালা! বলবে না কেউ, কারণ শিল্পীরা কসম কাটে না।

১৪
ঈশ্বর বুদ্ধিমান। তার একটা দাবার বোর্ড ছিল- যেহেতু একা একা দাবা খেলতে যুৎ আসে না তাই তিনি নিজের প্রতিপক্ষ তৈরী করলেন। তবে প্রতিপক্ষকে নিজের উন্নতি নিজেই করতে হবে। আমরা উন্নতি করছি। শেষ কুস্তিবুলিটা দেখে যেতে পারলাম না...অভাগা.....।

১৫
ব্যাঙাচি-পোনার মতো মানুষজন লাফাচ্ছে, কবি হয়ে যাচ্ছে। ভাগ্যিস সকলে কবি হলে-ও কেউ কেউ কবিতা লিখে! অনেকে বকের ঠ্যাং-ই লিখবে, কবিতার চাষ করবে কেবল গুঁটি কয়েক। ডারউইন বলে গেছেন, আমরা প্রমাণ হাজির করেছি। সাহিত্যের ক্ষেত্রে-ও বিবর্তন কাজ করে! কোন ব্যাপারেই কাজ করে না বলেন! অর্থনীতি, রাষ্ট্র-প্রকরণ, ধনতন্ত্র সব জায়গায়। মানুষ আর শয়তান অনেক চালাক; কেউ বিশ্বস্ত কুকুর-ও হতে পারল না।

১৬
আমি বাঙলায় লিঙ্গ, যৌনাঙ্গ, ও যৌনতা শব্দগুলোর মাঝে পার্থক্য করতে চাই। শব্দগুলোর ইংরেজি রূপের অর্থানুসারে। যেমন- লিঙ্গ (gender), যৌনাঙ্গ: পুং অথবা স্ত্রী (sex), এবং যৌনতা (sexual orientation): উভয়কামী, সমকামী ইত্যাদি। আরো ব্যাপকভাবে বোঝালে: এক পুরুষ (পুং যৌনাঙ্গ) সমকামী (যৌনতা) হলে-ও তার লিঙ্গধারণা (লিঙ্গ) বিভিন্ন প্রভাবক ভেদে বিভিন্ন হতে পারে।
একটা আদিরসাত্নক কৌতূক করি- এক কবি বিবাহ করেছে সদ্য। যথারীতি বাসরে উভয়ের অবস্থা নাজুক। সবকিছু ছাড়িয়ে কবিমশাইয়ের চোখ গেল স্তনের উপর। কবিতা এলো- 'তার ক্রমশ চমকপ্রদ আপেল দুটি আমার চোখকে ডাকছে সূর্যের আলো ঢেলে।' উপযুক্ত উপমা, শব্দচয়নে কবিতার রচনা করতে মিনিট পনের লাগল। ততক্ষণে বউ পাথরশীতল আর সূর্যজ্বলারাগ নিয়ে বসা। ললনাদের উচিত কবিদের স্বামী হিসেবে বেছে না নেয়া। ললনারা মানুষ নয়, পুরুষরা-ও মানুষ নয়। লিঙ্গধারী মানুষরা মানুষ হয়ে উঠে না।

১৭
নৈতিকতা প্রাকৃতিক-সামাজিক। প্রকৃতি প্রদত্ত নৈতিকতার অঙ্কুরকে বিকাশিত করে সমাজই।

১৮
শীত আসো, এসে পথের ক্লান্তিতে ছড়িয়ে দাও জুঁইয়ের মিছিল। আঙুলে শিশিরঘুম তুলে আনি; মালা গেঁথে সমার্থক করে দিই কারো খোঁপা।
খোঁপাটির মালকিন হলো নৃত্যরাতের নারী।

১৯
বাসে বসার সিট না পেলে আফসোস করি না। বাইরে দৃশ্যজন্ম হয় অনেক। মাঝে মাঝে চোখ পচে যায়। তখন মেঘে দিয়ে দিই দৃষ্টি। রোদ এসে বাহাস করে, সার্কাস খেলে মেঘগঞ্জে- মানুষ চিরকালই সার্কাসের উৎসাহী দর্শক।

২০
নয়নতারা ফুলের পাপড়িতে পাঁচটি উঠোন আছে। আমার চোখের তারায় একটি উঠোন। আমি হেরে গিয়েছি।
নয়নতারাতে খোঁপা বাঁধে না কেউ। নয়নতারা বিজিত। আমি নয়নতারা ভালবাসি- নদী ও সমুদ্র বরাবরই পাহাড়ের ঘ্রাণ চিনে।

১২/০৭/২০০৯


মন্তব্য

নীড় সন্ধানী এর ছবি

‍‌খুব ভালো লাগলো ইচ্ছে কথা গুলো। অনেকগুলো প্যারা কোট করার মতো। অসাধারন!!!

-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-
সেই সুদুরের সীমানাটা যদি উল্টে দেখা যেত!

‍‌-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.--.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.
সকল লোকের মাঝে বসে, আমার নিজের মুদ্রাদোষে
আমি একা হতেছি আলাদা? আমার চোখেই শুধু ধাঁধা?

আশরাফ মাহমুদ এর ছবি

আপনার নিকটা দেখলে আমার প্রায় "পাখির নীড়ের মত চোখ তুলে" এই লাইনটা মনে পড়ে যায়!

==============================
ঢাকার মৌন ঘ্রাণে বকুলফুলের নাভি
==============================
হা-তে এ-ক প্র-স্থ জো-ছ-না পা-ড়ে-র ঘ্রা-ণ

শেখ নজরুল এর ছবি

ঈশ্বর বুদ্ধিমান। তার একটা দাবার বোর্ড ছিল- যেহেতু একা একা দাবা খেলতে যুৎ আসে না তাই তিনি নিজের প্রতিপক্ষ তৈরী করলেন। তবে প্রতিপক্ষকে নিজের উন্নতি নিজেই করতে হবে। আমরা উন্নতি করছি। শেষ কুস্তিবুলিটা দেখে যেতে পারলাম না...অভাগা.....।

ঈশ্বর আবার একা হচ্ছেন। দুঃসংবাদ
শেখ নজরুল

শেখ নজরুল

আশরাফ মাহমুদ এর ছবি

পাঠ করার জন্য ধন্যবাদ।

==============================
ঢাকার মৌন ঘ্রাণে বকুলফুলের নাভি
==============================
হা-তে এ-ক প্র-স্থ জো-ছ-না পা-ড়ে-র ঘ্রা-ণ

অতিথি লেখক এর ছবি

খুব অন্যরকম একটা লেখা।
মধুবন্তী

আশরাফ মাহমুদ এর ছবি

মেঘকে রোদের শুভেচ্ছা।

==============================
ঢাকার মৌন ঘ্রাণে বকুলফুলের নাভি
==============================
হা-তে এ-ক প্র-স্থ জো-ছ-না পা-ড়ে-র ঘ্রা-ণ

অতিথি লেখক এর ছবি

"লিঙ্গধারী মানুষরা মানুষ হয়ে উঠে না" - মানুষের সংঙ্গা তাহলে কি?

-আতিউর
atiurrs from the gmail.com

আশরাফ মাহমুদ এর ছবি

মানুষের পূর্ণাঙ্গ সংজ্ঞা (জৈবিক, দার্শনিক, বৈজ্ঞানিক সব রকমের) আমি নিজে-ও জানি না! জানতে চেষ্টা করছি। তবে মানুষের কিছু বৈশিষ্ট্য জানা যায়। তার একটা হলো 'লিঙ্গধারী মানুষরা মানুষ হয়ে উঠে না।' এসব বৈশিষ্ট্যগুলো মিলিয়ে একদিন 'মানুষ'কে সংজ্ঞায়িত করে ফেলা যাবে বা আমরা 'পূর্ণ মানুষ' পেয়ে যাব!
আপনার মন্তব্যের প্রেক্ষিতে আমি মূল-পোস্টে কিছু কথা সংযোজন করেছি। নিবিষ্টপাঠের জন্য কৃতজ্ঞতা জানাই।

==============================
ঢাকার মৌন ঘ্রাণে বকুলফুলের নাভি
==============================
হা-তে এ-ক প্র-স্থ জো-ছ-না পা-ড়ে-র ঘ্রা-ণ

তিথীডোর এর ছবি

মালিকিনী নাকি মালকিন??
বৈয়াকরণ সাজছি ভাববেন না আবার, আমি নিতান্তই মূর্খ মানুষ!

শেষ প্যারাটা অসাধারণ!!

--------------------------------------------------
"আমি তো থাকবোই, শুধু মাঝে মাঝে পাতা থাকবে সাদা/
এই ইচ্ছেমৃত্যু আমি জেনেছি তিথির মতো..."
*সমরেন্দ্র সেনগুপ্ত

________________________________________
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

আশরাফ মাহমুদ এর ছবি

আরে, লেখকরা তো ভুল করবেই, সমালোচকরা দিক-নির্দেশনা না দিলে তো চলে না! চোখ টিপি

==============================
ঢাকার মৌন ঘ্রাণে বকুলফুলের নাভি
==============================
হা-তে এ-ক প্র-স্থ জো-ছ-না পা-ড়ে-র ঘ্রা-ণ

অতিথি লেখক এর ছবি

"শিল্প উপজাতদ্রব্য। জগতের সকল শিল্পী মাত্রই লোভী- মহাকালে নিজের কর্মের বিনিময়ে অমরতার চুষিকাঠি চায়।"

খুব সুন্দর। শুভ কামনা।

অতিথি লেখক এর ছবি

"শিল্প উপজাতদ্রব্য। জগতের সকল শিল্পী মাত্রই লোভী- মহাকালে নিজের কর্মের বিনিময়ে অমরতার চুষিকাঠি চায়।"

খুব সুন্দর। শুভ কামনা।

শেখ আমিনুল ইসলাম

আশরাফ মাহমুদ এর ছবি

প্রিয় আমিনুল, উৎসাহ দেয়ার জন্য ধন্যবাদ।

==============================
ঢাকার মৌন ঘ্রাণে বকুলফুলের নাভি
==============================
হা-তে এ-ক প্র-স্থ জো-ছ-না পা-ড়ে-র ঘ্রা-ণ

তুলিরেখা এর ছবি

ভালো লাগলো।

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

আশরাফ মাহমুদ এর ছবি

বিনীত।

==============================
ঢাকার মৌন ঘ্রাণে বকুলফুলের নাভি
==============================
হা-তে এ-ক প্র-স্থ জো-ছ-না পা-ড়ে-র ঘ্রা-ণ

অনার্য সঙ্গীত এর ছবি

দুয়েক জায়গায় একটু ধোঁয়াশা ছাড়া ভালো লেগেছে...
____________________________
নিজের ভেতর কোথায় সে তীব্র মানুষ !

______________________
নিজের ভেতর কোথায় সে তীব্র মানুষ!
অক্ষর যাপন

আশরাফ মাহমুদ এর ছবি

ধোঁয়াশাটুকুতে আলোকপাত করলে উপকার হত! হাসি

==============================
ঢাকার মৌন ঘ্রাণে বকুলফুলের নাভি
==============================
হা-তে এ-ক প্র-স্থ জো-ছ-না পা-ড়ে-র ঘ্রা-ণ

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।