ঈশপের গল্প (৯১ - ৯৫)

এক লহমা এর ছবি
লিখেছেন এক লহমা [অতিথি] (তারিখ: শুক্র, ১৬/০৫/২০১৪ - ২:৪০অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

ঈশপের গল্পগুলি একই সাথে সমকালীন এবং চিরকালের। বারে বারে পড়ার মত গল্পগুলিকে একালের বাংলা ভাষায় আমার নিজের মত করে ধরে রাখার ইচ্ছের ফসল এই লেখা।

অনুবাদ ইংরেজী পাঠের অনুসারী, আক্ষরিক নয়। সাথে আমার দু-এক কথা।

গল্পসূত্রঃ R. Worthington (DUKE Classics)-এর বই এবং আন্তর্জাল-এ লভ্য http://www.aesop-fable.com -এ ইংরেজী অনুবাদের ঈশপের গল্পগুলি।

গল্পক্রমঃ R. Worthington-এর বইয়ে যেমন আছে।

(৯১)
The Fowler and the Ringdove

পাখি শিকারী ও রাজঘুঘু

এক পাখী শিকারী একদিন বন্দুক নিয়ে জঙ্গলে ঢুকেছে, পাখী মারবে। নজরে এল ওকগাছের আগায় বসে থাকা একটা রাজঘুঘু, গলায় সুন্দর আংটির মত চিত্র করা তার। সেটাকেই সে শিকার করবে বলে ঠিক করল। প্রথমে বন্দুকটাকে কাঁধে আটকে নিল যুত করে, তারপর পাখীটার দিকে নিশানা করল। কিন্তু নিশানা করবার সময় কখন যে ঘাসের নীচে শুয়ে থাকা একটা কেউটে সাপকে সে মাড়িয়ে ফেলেছে সেটা সে বুঝতে পারে নি। ঠিক বন্দুকের ঘোড়াটা টানবার মুহূর্তে কেউটেটা তার পায়ে ভীষণ জোরে ছোবল মারল। ব্যাথার চোটে শিকার করা ভুলে বন্দুক মাটিতে ছুঁড়ে ফেলে দিল শিকারি। তীব্র বিষ দ্রূত মিশে যাচ্ছে তার রক্তে। গোটা শরীরটা অবশ হয়ে পড়ছে। সে বুঝল, মরণ ঘনিয়ে এসেছে তার, কিন্তু করতে পারল না কিছুই। “আমার ভাগ্য”, বিড়বিড় করল সে, “আমাকেই শেষ করে দিল যখন আমি কিনা অন্য কাউকে শেষ করার যোগাড় করছিলাম। "

প্রাচীন বচনঃ যারা অন্যের জন্য ফাঁদ বানায়, অনেক সময় তারা নিজেরাই তাতে আটকা পড়ে।

আমি বলিঃ লক্ষ্যে স্থির থাকার অর্থ এই নয় যে চারপাশের বিপদ থেকে নজর সরিয়ে রাখতে হবে।

(৯২)
The Kid and the Wolf

রাখাল ছেলে ও নেকড়ের গল্প

এক রাখাল ছেলে একদিন বনের পথ ধরে ঘরে ফিরছিল, একা একা, সাথে অস্ত্র-শস্ত্রও কিছু নেই। এক নেকড়ে তার পিছু নিল। রাখাল ছেলে একসময় বুঝে গেল আর রক্ষা নেই। সে বেচারী তখন ঘুরে নেকড়ের মুখোমুখি হয়ে বলল, “নেকড়ে দোস্ত, আমি বুঝতে পারছি, আজ আমায় তোমার শিকার হতেই হবে। কিন্তু মরবার আগে আমার একটা অনুরোধ আছে তোমার কাছে। তুমি যদি একটু বাঁশী বাজিয়ে শোনাও, আমি তা’হলে তোমার সুরের সাথে সাথে শেষবারের মত একটু নেচে নিই।” নেকড়ে মেনে নিল। তার বাঁশীর সুরের তালে তালে নাচতে থাকল রাখাল ছেলে। এদিকে, একদল শিকারী কুকুরের কানে গেল সেই সুর। তারা ছুটে এসে নেকড়েকে দেখতে পেয়েই তাড়া করল তাকে। নেকড়ে তখন পালাতে পালাতে রাখাল ছেলের দিকে ফিরে বলল, “যেমন কর্ম করেছি, হাতে হাতে তার ফল পেলাম। আমার দরকার ছিল ঝাঁপিয়ে পড়ে তোমায় খেয়ে ফেলা, তার বদলে তোমায় খুশী করার জন্য বাঁশী বাজাতে বসে গেলাম। একেবারেই ঠিক হয়নি সে কাজটা।"

প্রাচীন বচনঃ যার যেটা কাজ তার সেটাই করা উচিত।

আমি বলিঃ শয়তানের সাথে সোজা পথে চলে নয়, বাঁকা পথে তাকে ফাঁদে ফেলেই তার হাত থেকে বাঁচতে লাগে।

(৯৩)
The Blind Man and the Whelp

এক অন্ধ ও এক নেকড়ের ছানা

এক অন্ধ মানুষের একটা বিশেষ গুণ ছিল। জন্তু-জানোয়ারের গায়ে হাত বুলিয়ে সে বলে দিত পারত কোন প্রাণী সেটা। একদিন একজন একটা নেকড়ের ছানা এনে তার হাতে দিল। অনুরোধ করল যদি সে প্রাণীটার গায়ে হাত বুলিয়ে বলে দিতে পারে ঠিক কোন জানোয়ার বাচ্চা সেটা। লোকটি প্রাণীটির গায়ে হাত বুলিয়ে বুলিয়ে পরীক্ষা করল। পুরোপুরি নিশ্চিত হতে না পেরে বলল সে, “বুঝতে পারছি না ঠিক কোন জন্তুর বাচ্চা এটা - শিয়ালের না নেকড়ের। কিন্তু এই ব্যাপারটায় আমার কোন সন্দেহ নেই যে, এটাকে ভেড়ার পালের মধ্যে ছেড়ে দিলে ভেড়াগুলোর বিপদ হয়ে যাবে। "

প্রাচীন বচনঃ শয়তানীর লক্ষণ ছোট থাকতেই নজরে পড়ে।

আমি বলিঃ এখনো পুরো মুর্ত্তি ধরেনি তাই চিন্তার কিছু নেই, এই ভাবনায় বুঁদ হয়ে নেতৃত্ব যখন শয়তানকে তুচ্ছ বলে হিসাব করে , নেতৃত্বের উপর নির্ভর করা মানুষগুলির জন্য তখন সর্বনাশ ঘনিয়ে আসে।

(৯৪)
The Geese and the Cranes

হাঁস ও সারসের গল্প
এক মাঠে চরে বেড়াত কিছু রাজহাঁস আর সারস। তাদের ধরবে বলে একদিন এক পাখীশিকারী জাল নিয়ে ঐ মাঠে এসে হাজির। সারসদের হাল্কা ডানা। শিকারীকে আসতে দেখেই তারা চটপট উড়ে চলে গেল। রাজহাঁসেরা অত তাড়াতাড়ি উড়তে পারে না। আর, তাদের শরীর ও অনেক ভারী। ফলে, সমস্ত রাজহাঁসেরা জালে ধরা পড়ল, বন্দী হল তারা।

প্রাচীন বচনঃ অনেক সময়ই সবচেয়ে বেশী অপরাধীরাই যে ধরা পড়েছে, ঘটনা তা নয়।

আমি বলিঃ আরামে আয়েসে থেকে থেকে রাজনীতিকরা যখন দ্রুত মাঠ-ঘাটের আন্দোলন গড়ে তুলতে ভুলে যান, আমলা-নির্ভরতার ফাঁদে ধরা পড়া থেকে নিজেদের বাঁচানো তখন তাদের পক্ষে একন্তই কঠিন হয়ে যায়।

(৯৫)
The North Wind and the Sun

উত্তুরে বাতাস আর সূর্যের গল্প

উত্তুরে বাতাস আর সূর্যের মধ্যে প্রবল তর্ক বেধে গেল - কার জোর বেশী তাই নিয়ে। সেই সময় রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল এক লোক। বাতাস আর সূর্য একমত হল যে, তাদের মধ্যে যে জন ঐ লোকের গা থেকে অন্যজনের আগে জামা-কাপড় খুলে ফেলাতে পারবে, তাকেই বেশী শক্তিমান বলে ধরা হবে। উত্তুরে বাতাস তার সমস্ত শক্তি নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ল। কিন্তু বাতাসের পরাক্রম যত বেড়ে উঠল, লোকটি তার পোষাকগুলোকে তত বেশী করে আঁকড়ে ধরল। একসময় বাতাস হাল ছেড়ে দিয়ে সূর্যকে ডাকল তার ক্ষমতার পরীক্ষা দেওয়ার জন্য। সুর্য চড়চড় করে হঠাৎ একেবারে তীব্র গরম হয়ে উঠল। লোকটা সেই গরমে হাঁসফাঁস করতে করতে একটার পর একটা তার সমস্ত জামা-কাপড় খুলে ফেলতে থাকল। শেষে একসময় রোদের তাপে অস্থির হয়ে গায়ের সমস্ত পোষাক খুলে ফেলে সে পথের ধারের এক জলাশয়ে স্নানে নেমে পড়ল।

প্রাচীন বচনঃ বুঝিয়ে বলায় জোর করার থেকে বেশী কাজ পাওয়া যায়।

আমি বলিঃ হৃদয়ের উষ্ণতা খসিয়ে দেয় অবিশ্বাসের আবরণ। আর, এ ধারা ও ধারার দমন পীড়নে নেতৃত্বের শক্তি প্রদর্শন হয় বটে হুদো হুদো, কিন্তু কাজের কাজ কিছু হয়না। মানুষ বরং তাতে আরো দূরে সরে যায়।


মন্তব্য

মেঘলা মানুষ এর ছবি

৯৪>> আমি বলি: ছাত্রজীবনে অনেককেই দেখা যায় বন্ধু বান্ধবদের সাথে মাস্তি করে সময় কাটাতে, এর মাঝেই কিন্তু কেউ কেউ ঠিকই জীবন গুছিয়ে নেয় (কেউ বুদ্ধির জোরে, ভাগ্যে, কেউ উত্তরাধিকারে পাওয়া সম্পদে), আর কারও কারও জীবনে নেমে আসে ব্যর্থতা।

শুভেচ্ছা হাসি

এক লহমা এর ছবি

সেই, হক কথা। আপনারে অসংখ্য -ধইন্যাপাতা-
অনেক শুভেচ্ছা আপনাকেও।

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

অতিথি লেখক এর ছবি

শিখলাম কিছু।।। হাততালি

সচলায়তনে আরও একজন ভাল লেখকের আগমন হতে যাচ্ছে।।।। হাততালি

------------------------------
---- সোহেল মাহামুদ 0অতি ক্ষুদ্র একজন0
------------------------------

এক লহমা এর ছবি

আপনারে অসংখ্য -ধইন্যাপাতা-
আগমন ত ঘটিয়েছিলাম ৩৪ পোস্ট আগেই। মুস্কিল হচ্ছে, 'ভাল' লেখক হওয়া। সে কি আর হয়ে উঠতে পারব, কে জানে! উৎসাহ দেওয়ার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

অতিথি লেখক এর ছবি

অ্যাঁ! এইটা কি বললেন আপনি সোহেল মাহামুদ? আরও একজন ভালো লেখকের আগমন হতে যাচ্ছে মানে কি আপনি 'এক লহমা'র ভালো লেখকরূপে আগমনের কথা বললেন? নাকি আপনার নিজের আগমনের কথা?
আপনি 'এক লহমা' কে বলছেন, আগমন হতে যাচ্ছে? গোটা বিশেক পোস্ট, কয়েকশ কমেন্টের পর ওনার তো আগমন হবার কথা না, উনি তো আগত হয়ে, মাদুর পেতে বসেই আছেন সচলে!

নাম/নিক প্রকাশে অনিচ্ছুক

এক লহমা এর ছবি

"মাদুর পেতে বসেই আছেন সচলে!" দেঁতো হাসি
দোষ ত আমারই। বর্ষপূর্তির পর থেকেই সময়ের এত টানাটানিতে পড়ে গেছি যে লেখার পরিমাণ কমতে কমতে শূন্যের দিকে চলেছে। একেক সময় নিজেরই সন্দেহ হয়, আমার বোধ হয় প্রস্থান ঘটতে চলেছে! কাজেই আমাকে নজরে না পড়া খুবই স্বাভাবিক। ভাল লাগল যে আপনার নজরে আছি হাসি । দেখি, আর এট্টু হাজিরা বাড়ানো যায় কি না!
(কিন্তুক, আপ্নের নাম/নিক প্রকাশে অনিচ্ছুক থাকার গপটা কি?)

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

দীনহিন এর ছবি

চলুক, লহমা!

.............................
তুমি কষে ধর হাল
আমি তুলে বাঁধি পাল

এক লহমা এর ছবি

ধন্যবাদ দীনুদাদা (আপনার সাথে কথা কইতে আমার এই ডাকটাই পছন্দ হাসি । আমি তাই আপনারে এই নামেই ডাকবার চাই, পিলিজ লাগে)।

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

প্রোফেসর হিজিবিজবিজ এর ছবি

ইয়ে, দীনুদা হলে কেমন লাগে, এ্যাঁ?

____________________________

এক লহমা এর ছবি

ভালই ত লাগে মনে হয়। দীনুদাও তো আপত্তি করেন নাই। দীনুদাই থাক তা হইলে!

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

অতিথি লেখক এর ছবি

চলুক -- ভাল লাগছে লহমা! আপনার নামটা কী অপূর্ব! হাসি

-আনন্দময়ী মজুমদার

এক লহমা এর ছবি

চলুক তা'হলে, লইজ্জা লাগে হাসি

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

অতিথি লেখক এর ছবি

অনেক কিছু শিখলাম। ধন্যবাদ।
-এ এস এম আশিকুর রহমান অমিত

এক লহমা এর ছবি

ধন্যবাদ অমিত, ভাল থাকবেন।

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

প্রৌঢ় ভাবনা এর ছবি

ভালইতো লাগে আপনার ঈসপের গল্পের অনুবাদ আর সাথে আপনার দু-একটি কথা। চলুক

এক লহমা এর ছবি

ধন্যবাদ ভাবনা-দাদা! মাঝে মাঝে মনে হয়, কে জানে, একই রকমের কথা বলে বলে ব্যাপারটাকে বোধহয় বিরক্তিকর জায়গায় নিয়ে যাচ্ছি!

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

অতিথি লেখক এর ছবি

দাদা, আপনার সবগুলো ঈশপ আমি একখানে করছি।
ছেলেদের অবসর সময়ে শোনাবো।
আজকের ৯২ আর ৯৩ আমার কাছে দূর্দান্ত লেগেছে।

ভালো থাকবেন দাদা। অনেক শুভকামনা।

------------------------------
কামরুজ্জামান পলাশ

এক লহমা এর ছবি

খুব ভালো লাগল পলাশ! ছেলেদের যদি ভাল লাগে, বিরাট প্রাপ্তি হবে সেটা। হাসি
ভালো থাকি আর না থাকি, শুভকামনাটায় পুরাই আকাঙ্খা রাখি!
আপনিও ভাল থাকুন, যতটা সম্ভব! অনেক শুভেচ্ছা রইল।

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

নীড় সন্ধানী এর ছবি

আপনার এই সিরিজ শেষ হয়ে গেলে সব লেখা দিয়ে একখানা ইবুক করে ফেলেন। বাচ্চাদের কাজে লাগবে। হাসি

‍‌-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.--.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.
সকল লোকের মাঝে বসে, আমার নিজের মুদ্রাদোষে
আমি একা হতেছি আলাদা? আমার চোখেই শুধু ধাঁধা?

এক লহমা এর ছবি

থেঙ্ক্যু, থেঙ্ক্যু নীড়ুদা। সিরিজের এখনো মধ্যপথেও বোধ হয় পৌঁছতে পারিনি চিন্তিত

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

নীলাচল এর ছবি

ভাল লিখেছেন গুরু
নিন সামান্য বেল আর নারু হাসি

প্রথম গল্পটি ভাল্লাগছে ।তবে আপনার ঈসপের গল্পের ১১১-১১৫ সবগুলা গল্প আর আপনার সারমর্মগুলা বেশি জুস ছিল। আরো চাই ।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA