লেখাপড়া আর পুলিশ

খেকশিয়াল এর ছবি
লিখেছেন খেকশিয়াল (তারিখ: বিষ্যুদ, ২২/১০/২০০৯ - ৩:৪৪পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

ভিডিওটা পেলাম ফেইসবুকে, মনে হল সবার সাথে শেয়ার করা কর্তব্য। আমি জানি না এটা আগে কেউ দেখেছেন কিনা। আমি এও জানি না এটা দেখার পর সবার প্রতিক্রিয়া কী হয়েছিল বা কী হবে। একটা টিভির নিউজে যখন এইরকম ব্যাপার দেখা যায় তখন মনে হয় অনেকেই দেখে থাকবেন। দেখে হয়তো অনেকেই কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে বসে থাকবেন, ছাগু হলে হাসবেন, অনেকেই ফুঁসবেন। আমি জানি না আমরা কোথায় এগুচ্ছি। আসলেই জানি না। কিছু করতে না পারি একটু মাতম করে গেলাম..
হায় লেখাপড়া
হায় পুলিশ


মন্তব্য

মূলত পাঠক এর ছবি

কিছুই বলার নাই।

সচল জাহিদ এর ছবি

কিছু বলার ভাষা হারিয়ে ফেলেছি।

----------------------------------------------------------------------------
zahidripon এট gmail ডট কম


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

অতিথি লেখক এর ছবি

দেঁতো হাসি
ঠোলারা ক্যাম নে এই কথা কইল আর
টিভি চ্যানেল কিভাবে এইটা প্রচারের উপযুক্ত মনে করল??
বোকা.. বইনা গ্যালাম

স্পার্টাকাস

অতিথি লেখক এর ছবি

নিজেরা লেখাপড়া করে নাই তো তাই এর মর্যাদাও বুঝতে পারে না।
খবিশের দল।
/
ভণ্ড_মানব

হাসান মোরশেদ এর ছবি

হায় লেখাপড়া
হায় পুলিশ
হায় বাংলাদেশ...
-------------------------------------
জীবনযাপনে আজ যতো ক্লান্তি থাক,
বেঁচে থাকা শ্লাঘনীয় তবু ।।

-------------------------------------
জীবনযাপনে আজ যতো ক্লান্তি থাক,
বেঁচে থাকা শ্লাঘনীয় তবু ।।

অবাঞ্ছিত এর ছবি

সবচেয়ে দু:খজনক যা তা হল যে এই লোকের কিছুই হবে না...

__________________________
ঈশ্বর সরে দাঁড়াও।
উপাসনার অতিক্রান্ত লগ্নে
তোমার লাল স্বর্গের মেঘেরা
আজ শুকনো নীল...

__________________________
ঈশ্বর সরে দাঁড়াও।
উপাসনার অতিক্রান্ত লগ্নে
তোমার লাল স্বর্গের মেঘেরা
আজ শুকনো নীল...

হিমু এর ছবি

কোচিং সেন্টারগুলির বিরুদ্ধে কোনো আইনী সংগঠন কি মামলা করতে পারে না?

পুলিশের এই কর্তার পশ্চাদ্দেশ দিয়ে কোচিং সেন্টার মালিকেরা কী ঢুকিয়েছে কে জানে।



হাঁটুপানির জলদস্যু আলো দিয়ে লিখি

মামুন হক এর ছবি

মামলা মোকাদ্দমা করে তেমন কিছু হয়নারে ভাই। এর উপরে ওরা ছাত্র মানুষ আইন-আদালতের খরচ কে চালাবে? সরকারের দায়িত্ব এদের আগলে রাখার, পড়াশুনার পরিবেশ নিশ্চিত করার।

সাইফ তাহসিন এর ছবি

এই ব্যাটা তো মনে হয় আগে জনসন রোডে ডিউটি করত অথবা টান বাজারে হো হো হো

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

বিপ্রতীপ এর ছবি

হুম...
~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
ব্যাক্তিগত ব্লগ | আমার ছবিঘর

নৈষাদ এর ছবি

আমি আইনের ব্যাপারে খুব ভাল কিছু জানিনা। তবে আমার মনে হয়েছে আইনের মাধ্যমেই এগুলোর সমাধানে আসতে হবে। (প্রশাসনের নাকের ডগায় এসব অদ্ভুত ঘটনা ঘটে। দেখুন জমি ব্যবসায়ীরা পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়ে প্লট বিক্রী করছে, রাজউক মিঁউ মিঁউ করে বলছে অনুমোদন নেই, ক্রেতাদের সাবধান হতে হবে।)। প্রশাসনের 'টনক' নামক বস্তুটি নাড়াতে হলে আদালতই ভরসা।

একজন অপেক্ষাকৃত নতুন ব্যারিস্টারের কাছে জানতে চেয়েছিলাম (অন্য একটা ব্যাপারে) যে 'পাবলিক ইন্টারেস্ট লিটিগ্যাশনের' আওতায় আমি একজন সাধারন নাগরিক হিসাবে আদালতে এসবের বিরুদ্ধে মামলা করতে পারি কিনা? (যদিও তিনি আমার ইন্টারেস্টটা কী বুঝতে পারেননি)। তাঁর কথা অনুযায়ী 'রাম শ্যাম যদু মধু' আম পাবলিকের জন্য এধরনের মামলা করা খুব কঠিণ, অথবা সম্ভবই না (আদালত নাকি নিতে চায় না)। আইন ও সালিশ কেন্দ্র বা বেলার মত প্রতিষ্ঠান অবশ্যই পারে এবং সেক্ষেত্রে আদালত গুরুত্ব দিবে।

দেখতে ইচ্ছে হয়...।

সচেতন নাগরিক এর ছবি

এই পুলিশ কর্মকর্তার অশোভন, অশ্লীল বক্তব্যের ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে চাই না।

তবে যেসব ছাত্রছাত্রীরা প্রতারিত হয়েছে তারা কি একটু কষ্ট করে নিজেরা ফর্ম জোগাড় করতে পারত না? আপনারা অনেকে-ই জানতে চাইবেন - চট্টগ্রামের যে থাকে সে কেমন করে রাজশাহীতে গিয়ে ফর্ম তুলবে? ভাই, বিষয়টা তো এইখানে আমার নিজের ক্যারিয়ারের। কোচিং যদি ফর্ম জমা দিতে গিয়া হারায়ে ফেলে তাহলে ক্ষতি কার? আমি আমার নিজের জীবনের এইরকম একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বাংলাদেশের মত একটা সব সম্ভবের অসম্ভব দেশে কোচিং সেন্টারের মত একটা অনিয়ন্ত্রিত(যার নিয়ন্ত্রণের ব্যাপারে কোনো আইন নেই) প্রতিষ্ঠানের(কি ধরনের প্রতিষ্ঠান???) হাতে তুলে দিয়ে নিশ্চিন্ত থাকতে পারিনা।

এইবার জালিয়াতি টা একটু বড় স্কেলে(২০,০০০) হয়েছে বলে খবর হয়ে মিডিয়াতে এসেছে, কিন্তু আমার জানামতে প্রতি বছরই এই জালিয়াতি ছোটোখাটো স্কেলে প্রায়ই ঘটে। আমি নিজেও ২০০৩ সালে ভর্তিযুদ্ধে অংশ নিতে ময়দানে নেমেছিলাম এবং ফর্মগুলা নিজেই জোগাড় করেছিলাম। আমার জীবনের এই গুরুত্নপূর্ণ বিষয়টি আমি কোচিং ব্যবসায়ীর হাতে তুলে দিয়ে নাকে তেল দিয়ে ঘুমাতে চাইনি!!

আর এখন বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ভর্তি ফরমের দাম ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। আমাদের সময় এতো দাম ছিলোনা। আমার মনে হয় একসাথে এতোগুলো টাকা হাতে পেয়ে যাকে কোচিং থেকে ফরম কিনতে পাঠানো হয়েছিল সে ভেগে গেছে!! আমার জানামতে এবং দেখামতে কোচিং এর মালিক বা কোচিং এর দায়িত্বপূর্ণ কাউকে ফরম কিনতে পাঠানো হয়না।
"ওহ্‌ দোস্তো তোর তো কোনো কাজ নাই, বইসা আছস, যা খুলনা থেকে ঘুরে আয় আর এই ফরমগুলাও নিয়া আয়। আমাদের টাকাতে যাবি,খাবি সব ফ্রি!!" এইসব ফ্রি খাওয়া দোস্তোরা স্বাভাবিক ভাবেই দায়িত্বহীন এবং লোভী হয়। টাকা নিয়ে ভেগে যাওয়া আর ফরম জমা দিতে গিয়ে হারিয়ে ফেলা দুইধরনের ঘটনা-ই আমার চাক্ষুষ করার সৌভাগ্য হয়েছিলো।

বুয়েটের ছাত্র হওয়ার কল্যাণে আমি নিজে আমার জেলা শহরে জাতীয় পর্যায়ে বিখ্যাত ১টা ইঞ্জিনিয়ারিং ভর্তি কোচিং সেন্টারে প্রায় ৩বছর মাষ্টারী করার সুযোগ পেয়েছিলাম এবং তখন এইসব বেশ কাছ থেকে দেখেছি।

দুষ্ট বালিকা এর ছবি

ইয়াল্লা! :|

----------------------------
ইহাসনে শুষ্যতু মে শরীরং
ত্বগস্থিমাংসং প্রলয়ঞ্চ যাতু।
অপ্রাপ্য বোধিং বহুকল্পদুর্লভাং
নৈবাসনাৎ কায়মেতৎ চলিষ্যতি।।

- ললিতবিস্তর

**************************************************
“মসজিদ ভাঙলে আল্লার কিছু যায় আসে না, মন্দির ভাঙলে ভগবানের কিছু যায়-আসে না; যায়-আসে শুধু ধর্মান্ধদের। ওরাই মসজিদ ভাঙে, মন্দির ভাঙে।

মসজিদ তোলা আর ভাঙার নাম রাজনীতি, মন্দির ভাঙা আর তোলার নাম রাজনীতি।

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি

হতবাক!
.........................................................................................

আমি অতো তাড়াতাড়ি কোথাও যেতে চাই না;
আমার জীবন যা চায় সেখানে হেঁটে হেঁটে পৌঁছুবার সময় আছে,
পৌঁছে অনেকক্ষণ ব'সে অপেক্ষা করার সময় আছে।

দৃশা এর ছবি

মাঝখান দিয়া এই ঠোলা কুতুবডা বিখ্যাত হইয়া গেল। হেইডা যেমনেই হউক।
হের মনের আশা তো ফুরাইল। দেঁতো হাসি

দৃশা

নাভেদ এর ছবি

এই বেটা মনে হয় ঐ দিক দিয়াই পড়াশুনা করছে হাহাহাহাহাহাহা

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।