মাছ এবং শিকারী

Sohel Lehos এর ছবি
লিখেছেন Sohel Lehos [অতিথি] (তারিখ: শনি, ১৭/০৮/২০১৯ - ১২:১২অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

বড়শি ফেলে বসে আছে লোকটি। নদীর পরিষ্কার পানিতে মাছখানা দেখা যাচ্ছে। বড় এক সরপুটি। লোকটার মুখে মৃদু হাসি ফুটে উঠে। মনেমনে সে বলে,"ধরা তোকে দিতেই হবে।"

নদীর ধারে বসে থাকা লোকটিকেও পরিষ্কার দেখতে পাচ্ছে সরপুটিটি। লোকটির উদ্দেশ্য দিনের আলোর মতোই পরিষ্কার তার কাছে। তার মুখেও হাসি ফুটে উঠলো। বড়শিতে বিঁধে থাকা আধারটুকু কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই খেয়ে ফেলা তার লক্ষ্য। মনেমনে মাছটি বলল,"ওরে মুর্খ, ধরা তুইই খাবি।"

মাছটি একটু ঠোকর দেয় বড়শিতে। লোকটি অল্প একটু সুতো টেনে আনে। মাছটি আরেকটু ঠোকর দেয় বড়শিতে। লোকটি আরেকটু টান দেয় সুতোয়। দুজনের ভেতর চলে এক মজার খেলা। লোকটির মুখের হাসি তীর্যক থেকে তীর্যকতর হয়। মাছটির হাসি সেই তীর্যকতাও হার মানায়।

মাছটি এখন লোকটির থেকে হাত ছয়েক দূরে। আর বড়শির আধার এখন আগের তুলোনায় অর্ধেক। বাকিটুকু ইতিমধ্যে মাছের পেটে। লোকটি উত্তেজনায় পানিতে এক পা ডুবিয়ে রাখা কোন বকের মত স্থির থাকে। মাছটিও সুচতুর এক খেলোয়াড়ের মত ঠুকে ঠুকে আধার খায়।

মাছটি এখন হাত চারেক দূরে। আধার এখন অর্ধেকেরও কম। লোকটা প্রস্তুত যে কোন মুহুর্তে হ্যাচকা টানে মাছটিকে বড়শিতে গেঁথে ফেলার। মাছটিও তৈরী এক ঠোকরে বাকি আধারটুকু গিলে নেয়ায়। লোকটি সুতায় টান দেয়। মাছটি আরো আগায়। মাছটি আধারে ঠোকর দেয়। লোকটি সর্ব শক্তিতে বড়শিতে হ্যাচকা টান দেয়।

পানির উপরিভাগে চলে আসা সরপুটিটিকে পরিষ্কার দেখা যাচ্ছিল। মুহুর্তের মধ্যে তাকে ছোঁ মেরে নিয়ে গেল এক হতচ্ছাড়া চিল।


মন্তব্য

মেঘলা মানুষ এর ছবি

পড়তে পড়তে ভাবছিলাম যে, কে জিততে যাচ্ছে এই দ্বৈরথ?
সেখানে যে তৃতীয় কারো আগমণ ঘটবে, সেটা কল্পনা করিনি।

লেখাটা উপভোগ্য ছিল!

শুভেচ্ছা হাসি

Sohel Lehos এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ

সোহেল লেহস
----------------------------------------------
হে দূর্দান্ত ভাবনারা, হেয়ালি করো না। এসো এ বাহুডোরে।

এক লহমা এর ছবি

ফাঁকিবাজি হইচ্চে। চোখ টিপি
যাউকগা, আপনি ত লিখছেন, লিখে চলেছেন। আমি ত শুধুই ফুটকড়াই। মন খারাপ

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

Sohel Lehos এর ছবি

আরে ফাকিবাজি না। এই লেখা একটু অন্য রকম করা যেত। কিন্তু এভাবে শেষ করার পেছনেও কারণ আছে। যাহোক আপনি ফাকিবাজি বাদ দিয়ে নিয়মিত লিখা শুরু করেন হাসি

সোহেল লেহস
----------------------------------------------
হে দূর্দান্ত ভাবনারা, হেয়ালি করো না। এসো এ বাহুডোরে।

হাসনাইন এর ছবি

আপনার লেখা পড়ার শুরু থেকেই টুইসটের জন‌্য তাকিয়ে থাকি। পরের লেখার অপেকষায় থাকলাম।

Sohel Lehos এর ছবি

আমার লেখা পড়েন জেনে বেশ ভাল লাগলো। অনেক ধন্যবাদ হাসি

সোহেল লেহস
----------------------------------------------
হে দূর্দান্ত ভাবনারা, হেয়ালি করো না। এসো এ বাহুডোরে।

অতিথি লেখক এর ছবি

প্রথমে মনে হচ্ছিল লোকটা জিতে যাব,এরপর মনে হল না,মাছটাই জিতবে..শেষের দিকে এসে আবার মনে হল লোকটা জিতবে,কিন্তু যেটার কথা মাথায়ই আসে নি,তৃতীয় পক্ষ জিতে গেল!
অসাধারণ ❤

টাইটা

Sohel Lehos এর ছবি

আপনি গল্পের মূল নির্যাসটুকু অনুধাবন করেছেন। অনেক ধন্যবাদ আপনাকে।

সোহেল লেহস
----------------------------------------------
হে দূর্দান্ত ভাবনারা, হেয়ালি করো না। এসো এ বাহুডোরে।

সোহেল ইমাম এর ছবি

একটু জোরে সোরে টুইস্ট দেওয়া ছেড়ে দিরৈন নাকি ভাই। হাসি

---------------------------------------------------
মিথ্যা ধুয়ে যাক মুখে, গান হোক বৃষ্টি হোক খুব।

Sohel Lehos এর ছবি

ট্যুইস্টের আকাল চলতেছেরে ভাই খাইছে

সোহেল লেহস
----------------------------------------------
হে দূর্দান্ত ভাবনারা, হেয়ালি করো না। এসো এ বাহুডোরে।

সৌখিন  এর ছবি

অদ্ভুত লেখা। ভালো লেগেছে।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।