পেছনের পৃষ্ঠাগুলি

তানভীর এর ছবি
লিখেছেন তানভীর (তারিখ: রবি, ১৭/০৭/২০২২ - ১০:২৩পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

কর্ণছোঁয়া লাল লেলিহান শিখা
ঘুরছে উঁচু, শক্তিশালী ফাঁদ
আদর্শ আমার মানচিত্র হয়ে
জ্বলছে আগুন রাস্তা থেকে ছাদ।
"প্রান্তসীমায় দেখা হবে শিগগীর"
তপ্ত ভুরুর নিচে আমার গর্বিত উচ্চারণ,
আহ, কিন্তু তখন অনেক বুড়ো ছিলো মন
এখন আমি তার চেয়ে তরুণ।

এগিয়ে যায় যত অর্ধ-বিধ্বস্ত সংস্কার
"নিভিয়ে ফেলো সব ঘৃণা" আমার চিৎকার
জীবন যে সাদা-কালো এমন মিথ্যাগুলি
বলছে যেন আমার মাথার খুলি।
গভীর কোন ভিত্তি থেকে
বিপ্লবীদের নিয়ে দেখেছিলাম রোমান্টিক স্বপন,
আহ, কিন্তু তখন অনেক বুড়ো ছিলো মন
এখন আমি তার চেয়ে তরুণ।

চলার পথে এলো কত নারীমুখ
মেকি ঈর্ষা থেকে মুখস্থ প্রাচীন ইতিহাসের রাজনীতি
চাপা দেয় যেন মৃতদেহের ধর্মপ্রচারকেরা
যদিও তা ছিলো অভাবনীয়,
আহ, কিন্তু তখন অনেক বুড়ো ছিলো মন
এখন আমি তার চেয়ে তরুণ।

স্বনিয়োজিত অধ্যাপকের বাণী
বোকা বনে যায় লোকে শুনে
ছড়িয়ে যায় বিদ্যালয়ের কোণে
স্বাধীনতা আর সমতা একই মানে।
"সমতা" আমি জোর দিয়ে বলি
যেন তা পরিণয়ের ব্রত,
আহ, কিন্তু তখন অনেক বুড়ো ছিলো মন
এখন আমি তার চেয়ে তরুণ।

সৈনিকের মতো দাঁড়িয়ে, হাতের নিশানা করি
সেই জারজ সারমেয়দের প্রতি
যারা শিক্ষা দেয় ভয় না পেতে
যে নিজেই নিজের শত্রু হয়ে যাব
মূহুর্তে যে প্রচার করি আমি।
আমার অস্তিত্ব চালিত করেছিলো সংশয়ের নৌকা
কঠোর থেকে নত হয়েছিলাম বিদ্রোহে,
আহ, কিন্তু তখন অনেক বুড়ো ছিলো মন
এখন আমি তার চেয়ে তরুণ।

হ্যাঁ, বিমূর্ত হুমকিতে আমি শক্ত হয়ে
গড়েছিলাম প্রতিরোধ
অবহেলা না করার মতো এতই ছিলো তা মহৎ
আমার রক্ষা করার মতো কিছু ছিলো
এমন চিন্তায় হয়েছিলাম প্রতারিত।
ভালো এবং মন্দ, পরিস্কার করে
আমি কোনভাবে করেছিলাম নির্ধারিত।
আহ, কিন্তু তখন অনেক বুড়ো ছিলো মন
এখন আমি তার চেয়ে তরুণ।


মন্তব্য

ষষ্ঠ পাণ্ডব এর ছবি

শুভ জন্মদিন!


তোমার সঞ্চয়
দিনান্তে নিশান্তে শুধু পথপ্রান্তে ফেলে যেতে হয়।

Suhed এর ছবি

বেশ

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।