রবিন হল-এর বই 'দি কার্টুনিস্ট'স ওয়ার্কবুক' এর ভূমিকা | অনুবাদ প্রচেষ্টা

কনফুসিয়াস এর ছবি
লিখেছেন কনফুসিয়াস (তারিখ: সোম, ১১/০৩/২০১৯ - ৭:২৮পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

(যে কোন বইয়ের ভূমিকা পড়তে আমার খুব ভালো লাগে। লম্বা দৌড়ের আগে খানিকটা ওঠবস করে গা-গরম করে নিতে হয় যেমন, বইয়ে ঢুকবার আগে লেখকের নিজের লেখা ভূমিকাটুকু অনেকটা সেরকম আমার কাছে। বইয়ের মূল লেখার চেয়ে কোন অংশেই কম উপভোগ করি না আমি সেটা। তারচেয়ে বড় কথা, এগুলোকে আমার কাছে অনেকটা, ঠিক কৈফিয়ত বা কনফেশান নয়, বরং ‘সত্যকথন’ শব্দটাই ভালো মানাবে হয়ত, সেরকম লাগে। অল্প কিছু পছন্দের বইয়ের ভূমিকা এরকম অনুবাদ করেছি আমি। সেগুলোর কিছু কিছু ঝালাইমতন করে ব্লগে দিব ঠিক করলাম। অনুবাদের ব্যাপারে আমি এখনো দ্বিধায় আছি। ভাষান্তর নাকি রূপান্তর, এই দ্বন্ধে ভুগি সর্বদাই। সেবা প্রকাশনীর মত রূপান্তর ভালো লাগে, কিন্তু ভাষান্তরে মূলের যে স্বাদটুকু থাকে, সেটার লোভও কম নয় আমার। এই সব কিছু মিলিয়ে মিশিয়ে কোন নির্দিষ্ট সিদ্ধান্তে আসা সহজ নয়। এগুলো তাই কোনটাই ঠিক অনুবাদ হবে না হয়তো, বরং অনুবাদ-প্রচেষ্টা নাম দেয়াই ভালো হবে এদের।)

ভূমিকাঃ দি কার্টুনিস্ট’স ওয়ার্কবুক | রবিন হল

কার্টুন আঁকার ব্যাপারটা আমার কাছে চিরকালই খুব আকর্ষণীয় মনে হয়েছে, কারণ আমার ধারণা ছিল অন্য চাকুরেদের মত কার্টুনিস্টদের নিশ্চয়ই রোজ সকালে ঘুম ভেঙ্গে উঠে কাজে যেতে হয় না। অবশ্য, এটাই একমাত্র কারণ নয়। এটা ভেবে আমি রীতিমতন মুগ্ধ হই, কেবল একটা কার্টুন দিয়েই কেমন করে আমাদের জীবনের প্রায় সব রকম দৃষ্টিভঙ্গি ফুটিয়ে তোলা যায় - খুব গম্ভীর কোন ব্যাপার থেকে শুরু করে খুব মজার কিছু- অথবা দুনিয়া কাঁপানো কোন ঘটনাই হোক বা খুব সাধারণ কোন ব্যাপার- সব কিছু কেবল একটা ছবিতেই কেমন এঁকে ফেলা যায়।
        যাই হোক, আমি সেই ভাগ্যবানদের দলে পড়ি না যারা নানা রকম সৃজনীশক্তি নিয়ে জন্মেছে। সত্যি বলতে কি, আমার আঁকা ছবিও একেবারেই ভাল ছিল না; এমনকি খুব প্রাথমিক পর্যায়ের আঁকাআঁকিও দেখতে কাকের ঠ্যাং বকের ঠ্যাং মনে হতো। সুতরাং কার্টুনিং যদি করতে চাই, আমাকে যে খুব ভালমতন উঠে পড়ে লাগতে হবে সেটা আমি বেশ বুঝতে পেরেছিলাম। তাই হাতের কাছে আমি যা কিছু কার্টুন পেতাম সব ভাল করে দেখা শুরু করলাম, শত শত কার্টুন। আর সেগুলো দেখে দেখে আঁকা অনুশীলন করতে থাকতাম আমি, করেই যেতাম করেই যেতাম।
       অল্প অল্প করে যখন আমার আঁকা ভাল হতে শুরু করলো, আমি বুঝতে পারলাম যদি কার্টুন আঁকবার সময় আমি কিছু নির্দিষ্ট পদ্ধতি আর ধরাবাঁধা উপায় অনুসরণ করি, তাহলে সেগুলো সত্যিই ভাল হতে বাধ্য। সময়ের সাথে সাথে এই পদ্ধতি বা উপায়গুলোকেই আমি একটা কার্যপ্রণালীতে পরিণত করে ফেললাম, যেটা শেষমেশ আমাকে কার্টুনিং জগতের দরজা খুলে দিলো।
       এই বইটি মূলত সেই পদ্ধতিগুলোকে ভাগ করে নেবার একটা চেষ্টা, বিশেষত তাদের সাথে যাদের আমার মতই উৎসাহের কোন কমতি নেই, কমতি আছে সৃজনীশক্তিতে। যারা মাত্রই শুরু করতে যাচ্ছেন এবং যারা ইতিমধ্যেই পেশাদার কার্টুনিস্ট, তাদের সবার জন্যেই আমি বেশ কিছু প্রাসঙ্গিক ছবি যোগ করে দিয়েছি এখানে, সেগুলো আশা করি সবার কাজে আসবে।
     সবশেষে সকল নব্য কার্টুনিস্টদের জন্যে আমার শুভ কামনা রইলো। সেই সাথে বলে রাখি ঐ কথাটি কিন্তু মিথ্যে নয়। কার্টুনিস্টদের আসলেই রোজ সকালে ঘুম ভেঙ্গে উঠতে হয় না।
- রবিন হল


মন্তব্য

অবনীল এর ছবি

অনুবাদ ভালো হয়েছে। তবে মজার ব্যাপার হলো রবিন হল ভালো কার্টুন আকার জন্য যে কার্যপ্রণালীটা দিয়েছেন, ওটা অনুবাদের বা লেখালেখির ক্ষেত্রেও ব্যবহার করা যায়। তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে গেলো। আরো চাই।

___________________________________
ঈশ্বরের মত, ভবঘুরে স্বপ্নগুলো।

কনফুসিয়াস এর ছবি

কয়েকটা জমেছে। আনবো আস্তে আস্তে। অনুবাদে সাবলীলতা না পেলে ধরিয়ে দিবেন অবশ্যই। আমার কাজে লাগবে।
মন্তব্যের জন্যে অনেক ধন্যবাদ।

-----------------------------------
বই,আর্ট, নানা কিছু এবং বইদ্বীপ

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

ইয়ো কনফুসিয়াস, খবর কিতা? ছবির সাইজটা ঠিক করে দিলাম।

কনফুসিয়াস এর ছবি

থ্যাংকু মুর্শেদ ভাই। হাসি
আশা করি ছবি দিয়ে সাইটে গোলমালটা আমিই লাগাই নাই। ইয়ে, মানে...

-----------------------------------
বই,আর্ট, নানা কিছু এবং বইদ্বীপ

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

হা হা হা না তুমি ঠিকাছো

জি.এম.তানিম এর ছবি

অনুবাদ নিয়ে শুরুতে যেই দ্বিধার কথা বলেছেন, সেটার সাথে একমত। আমার স্বল্প লেখালেখির চেষ্টার একটা বড় অংশ কিছু গদ্য ও পদ্যের অনুবাদ নিয়ে। মূল লেখার কোনো একটা ছাপ রাখতে চাই, সেটা প্রায়ই সম্ভব হয় না।

বইয়ের প্রারম্ভ পড়ে বেশ ভালো লাগলো। বাকি লেখা কি অনুবাদে পড়তে পারব?

-----------------------------------------------------------------
কাচের জগে, বালতি-মগে, চায়ের কাপে ছাই,
অন্ধকারে ভূতের কোরাস, “মুন্ডু কেটে খাই” ।

কনফুসিয়াস এর ছবি

না, বইটা অনুবাদের তেমন কিছু নেই। টিউটোরিয়াল ধরণের বই। কিন্তু অনেক কাজের। এমাজন থেকে কেনা।
আরও কিছু অনুবাদ নিয়ে আসবো, কিন্তু বেশিরভাগই আমার পছন্দের ভূমিকা-গুলো।

-----------------------------------
বই,আর্ট, নানা কিছু এবং বইদ্বীপ

ষষ্ঠ পাণ্ডব এর ছবি

শুরুতে অনুবাদ/রূপান্তর করা প্রসঙ্গে যা কিছু বলেছেন সেটা যে কী পরিমাণে কঠোর বাস্তবতা তা অনুবাদকারী/রূপান্তরকারী মাত্র জানেন। এই প্যাঁচে পড়ে আজকাল আর কোন কিছু অনুবাদ করতে আগ্রহ পাই না। অথচ লেখার চেষ্টা করেন এমন সবার জন্য অনুবাদ একটা জরুরী বিষয়। তাছাড়া অন্য ভাষার বই বাংলায় নিয়মিত অনুবাদ হওয়াটাও জরুরী।

রবিন হল-এর লেখা যেটুকু অনুবাদ করেছেন সেটা বেশ সাবলীল লেগেছে, অনুবাদের সহজাত আড়ষ্টতা নেই। আমি আপনার গদ্যের সাথে কিঞ্চিত পরিচিত, সেই সুবাদে আরও বলতে পারি এখানে আপনার গদ্যরীতি রবিন হলের ভাষা-বর্ণনাকে ঢেকে ফেলেনি।


তোমার সঞ্চয়
দিনান্তে নিশান্তে শুধু পথপ্রান্তে ফেলে যেতে হয়।

কনফুসিয়াস এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ পান্ডবদা। অনুবাদের রকমফের নিয়ে ভাবতে ভাবতে একটা জিনিস মাথায় এসেছিল আমার হুট করে। ছোটবেলায় পড়া 'মিথ্যেবাদী রাখাল আর বাঘের গল্প' যখন পরে ইংরেজিতে পড়েছি, তখন দেখি এটা হলো- The boy who cried wolf. আমার মনে হলো, Wolf-এর জন্যে বাঘের বদলে যদি নেকড়ে পড়তাম, আমাদের দেশের প্রেক্ষিতে এই গল্পটার আবেদন অনেক কমে যেত। বাঘ হিসেবে wolf এই রূপান্তরের কারণেই গল্পটা এভাবে দাগ কেটেছে মনে।
এখন আবারও সেই দ্বন্ধ, মনে দাগ কাটা অনুবাদ ভালো, নাকি লেখকের মূল লেখার সাথে সৎ থাকা ভালো। হাসি
আমি নিজের মত করে একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, কয়েকটা অনুবাদ করে দেখি ওভাবে, দেখি শেষমেশ কী দাঁড়ায়।

-----------------------------------
বই,আর্ট, নানা কিছু এবং বইদ্বীপ

তাহসিন রেজা এর ছবি

অনুবাদ ভালো লেগেছে। কিছুদিন কার্টুনিস্ট হবার ব্যর্থ চেষ্টা করেছিলাম। ভূমিকাটুকু পড়ে সেই ইচ্ছে আবার মনে উঁকি দিচ্ছে হাসি

------------------------------------------------------------------------------------------------------------
“We sit in the mud, my friend, and reach for the stars.”

অলীক জানালা _________

কনফুসিয়াস এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ। সামনে আরও আসছে, ভুলভাল পেলে ধরিয়ে দিবেন নির্দ্বিধায়। হাসি
অনলাইনে খুঁজলে বইটা পেয়ে যাবেন সম্ভবত, খুব কাজের জিনিস। আবার শুরু করে দিন কার্টুন আঁকা।

-----------------------------------
বই,আর্ট, নানা কিছু এবং বইদ্বীপ

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।