সাভার ভবন ধ্বসে আহতদের জন্য সাহায্য করবেন কিভাবে?

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি
লিখেছেন এস এম মাহবুব মুর্শেদ (তারিখ: শুক্র, ২৬/০৪/২০১৩ - ২:৪৮পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

সাভারের দূর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা এখন আড়াইশত ছাড়িয়ে গেছে, আহত দ্বিসহস্রাধিক। এক্ষেত্রে আমাদের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের কাদা ছোঁড়াছুঁড়িকে ইগনোর করে আমাদের জনগনকেই এগিয়ে আসতে হবে। দেশে যারা আছেন তাদের সাহায্যের পাশাপাশি প্রবাসী বাঙ্গালীদের একটি গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার প্রয়োজন রয়েছে এক্ষেত্রে।

কিন্তু অনেকেই কনফিউজড কিভাবে, কার মাধ্যমে সাহায্য পাঠানো যাবে সে ব্যাপারে। প্রথম দিন সাহায্যার্থে এগিয়ে আসা উদ্ধার কর্মীর টর্চলাইট পর্যন্ত চুরি হয়ে গিয়েছে যেখানে সেখানে এই বিষয়ে একটু সাবধাণতার প্রয়োজন রয়েছে। তবে সাবধাণতার মানে এই নয় যে সাহায্য করতে আমাদের পিছিয়ে যেতে হবে। একটু সর্তকভাবে ডোনেশন করলে সেই ডোনেশনের একটা অংশও যদি কাজে আসে সেটুকুও যথেষ্ট।

প্রথমে কয়েকটি বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে অনুরোধ করবো:

১) কোনো ব্যক্তিকে ডোনেশন করলে তাকে ব্যক্তিগত ভাবে চিনেন কিনা সেটা লক্ষ্য রাখুন। ব্যক্তিগত ভাবে না চিনলে তাকে টাকা না পাঠানোই ভালো। বিশ্বাসটা খুব গুরুত্বপূর্ণ এক্ষেত্রে।

২) ব্যক্তিগত পরিচয়ের ভিত্তিতে কাউকে ডোনেশন করলে তাকে জিজ্ঞেস করুন টাকাটা কিভাবে দূঘর্টনাগ্রস্তদের কাছে পৌঁছাবে।

৩) নিজেদের উদ্যোগে টাকা সংগ্রহ করার আগে ঠিক করে নিন কার মাধ্যমে টাকাটা সঠিক জায়গায় পৌঁছে দিবেন।

৪) প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহ করলে তাদের আসল অ্যাজেন্ডা সর্ম্পকে জেনে নিন। যেমন একটা প্রতিষ্ঠান যদি ব্যবসায়ীদের জন্য তৈরী হয় তাহলে তারা হঠাৎ এ ব্যাপারে আগ্রহী কেনো?

৫) অতীত কোনো অভিজ্ঞতা আছে কিনা জিজ্ঞেস করুন।

৬) প্রতিষ্ঠানকে জিজ্ঞেস করুন তাদের কর্মসূচী কি?

আমি এই পোস্টটিতে চেষ্টা করব ডোনেশন গ্রহণ করছে এমন প্রতিষ্ঠানগুলোর একটি তালিকা তৈরী করতে। মন্তব্যে প্রতিষ্ঠানটির ব্যাপারে আপনার সন্দেহ বা পজেটিভ বক্তব্য জানিয়ে দিন। প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকে ক্রমাগত সেই হিসেবে সর্ট করে দেবো। যেমন একটি প্রতিষ্ঠান তিনটি পজিটভ রিপোর্ট, একটি নেগেটিভ রিপোর্ট পেলে এবং দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠান চারটি পজিটিভ রিপোর্ট পেলে এবং দুটি নেগেটিভ রিপোর্ট পেলে দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠন অগ্রাধিকার পাবে।

এ পর্যন্ত নীচের কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের খবর পাওয়া গেছে যারা সাভার দূঘর্টনার জন্য অর্থ সংগ্রহ করছে। তালিকাটি নিয়মিত আপডেট করা হবে।

১) স্নেহা ফাউন্ডেশন

Sneha Foundation is an independent non-profit social development organization that mainly works with disadvantaged, orphaned and abandoned children in Bangladesh. We treat all with respect and dignity irrelevant to their religious background and social segments. We work in the spirit of UN convention of the rights of children.

বয়স: ছয় বছর। ২০০৭ থেকে প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম চালু করেছে।

ডোনেশনের উপায়: পেপ্যাল। বিস্তারিত এখানে

পাঠকের মন্তব্য: +২, -০

২) স্পন্দন বি

SpaandanB is a nonprofit organization listed under section 501(c) (3) of the US Internal Revenue Code and incorporated in the State of California of the United States of America. It is head-quartered in San Francisco Bay Area. SpaandanB (pronounced spon-don bee) is dedicated to better the lives of the less advantaged people in Bangladesh. SpaandanB initiates and implements projects in the area of establishment of education, remedy for health needs, and promotion of sustained subsistence. The organization sprouted from the vision of a handful of expatriate Bangladeshi in year 1998 and has since grown manifold in size and scope. The projects and operations of SpaandanB are funded by conscionable and generous donors from all over the world. Expatriate Bangladeshis living in the USA constitute a major portion of the donors.

SpaandanB helps the under-privileged people regardless of their religion, color, age, disability or sex. Its donors do not receive any goods or services in return of their contributions.

বয়স: অজানা

ডোনেশনের উপায়: চেক আর পেপ্যাল বিস্তারিত এখানে

পাঠকের মন্তব্য: +২, -০

৩) বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি

The MISSION of the BDRCS is to improve the situation of the vulnerable people by mitigating their sufferings caused by diseases and disasters in accordance with the fundamental principles of the Movement by mobilizing the power of humanity.

বয়স: চল্লিশ বছর। মার্চ ৩১, ১৯৭৩ থেকে কার্যক্রম চালু হয়েছে।

ডোনেশনের উপায়: স্ট্যার্ন্ডাড চার্টাড ব্যাঙ্ক। বিস্তারিত এখানে

পাঠকের মন্তব্য: +১, -০

৪) জাগো বিডি

JAAGO aims to bring about a substantial improvement in the lives of disadvantaged people with a special emphasis on their literacy and nourishment.

বয়স: ছয় বছর। নভেম্ভর ২০০৭ থেকে।

ডোনেশনের উপায়: বাংলাদেশীরা ব্র্যাক, SCB, DBBL, UCBL এবং HSBC ব্যাংকের মাধ্যমে অর্থ পাঠাতে পারবেন। প্রবাসীরা ওয়েলস ফার্গো ব্যাঙ্কের মাধ্যমে অর্থ পাঠাতে পারবেন। এছাড়া বাংলাদেশ থেকে মোবাইলে টাকা পাঠাবার ব্যবস্থা আছে। বিস্তারিত এখানে পাবেন

পাঠকের মন্তব্য: +০, -০

৫) বুয়েট ৮৭ ফাউন্ডেশন

We are a group of Engineers and Architects from Bangladesh University of Engineering and Technology (BUET) who started the BUET classes on Aug 10, 1988 in session 1987-88. We have come together to form a charitable organization, BUET 87 Foundation to help change millions of lives of poor people in Bangladesh and around the world. BUET 87 Foundation is a registered non-profit organization in the state of Arizona, USA and exempt from Federal income tax under section 501 (c) (3) of the Internal Revenue Code. Contributions to BUET 87 Foundation are deductible under section 170 of the code.

BUET 87 Foundation is working on different projects in Bangladesh on Education, Health, Science and Technology, Research, Social and Development work etc.

বয়স: অজানা

ডোনেশনের উপায়: বাংলাদেশ থেকে ব্যাঙ্ক এশিয়া এবং আমেরিকা থেকে পেপ্যাল এবং ব্যাঙ্ক অভ আমেরিকার মাধ্যমে টাকা পাঠাতে পারবেন। বিস্তারিত এখানে

পাঠকের মন্তব্য: অজানা

৬) অঙ্কুর ইন্টারন্যাশনাল

Mission: Support emergency relief to people who are affected by flood, winter, or any other natural disasters. Support locally or internationally for proper healthcare, education, and training to the orphan, abandoned, and destitute children and mothers to make them contributing members of society. Support local people who needs food and shelter.

বয়স: ছয় বছর। মার্চ ২৮, ২০০৭।

ডোনেশনের উপায়: পেপ্যাল এবং চেকের মাধ্যমে টাকা পাঠাতে পারবেন। বিস্তারিত এখানে

পাঠকের মন্তব্য: অজানা

আঞ্চলিক প্রতিষ্ঠান
শুরুতে আঞ্চলিক প্রতিষ্ঠান এবং ব্যক্তিগত প্রচেষ্টা এই তালিকায় অর্ন্তভুক্ত করতে চাইনি। আমি এই প্রচেষ্টাগুলোকে ক্ষুদ্র করছি না, বরং তালিকা ব্যবহারকারীর জন্য সাবধানতা অবলম্বন করছি।

আমার কাছে যেসমস্ত অনুরোধ এসেছে তার মধ্যে কিছু এখানে উল্লেখ করছি। কারণ হলো আঞ্চলিক প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তিগত প্রচেষ্টা অনেক ক্ষেত্রে অনেক বেশী এফেক্টিভ। তবে আমি আমার পরিচিত বিশ্বস্ত সুত্রের মাধ্যমে যাচাই করে নিতে চেষ্টা করেছি প্রতিষ্ঠানগুলোকে।

১) কানাডা ভিত্তিক অনলাইন প্রতিষ্ঠান প্রজন্ম কানাডা
মূলত শাহবাগ মুভমেন্ট/ প্রজন্ম চত্বরের গণজমায়েতের সাথে একত্বতা প্রকাশ করতে আমাদের এই গ্রুপের যাত্রা শুরু। যুদ্ধাপরাধীদের দ্রুত বিচার এবং কার্যকর করা, জামাত-শিবির নিষিদ্ধ করা ইত্যাদি দাবিতে কাজ করা, এবং কানাডায় বাংলাদেশের একটা সুন্দর ইমেজ তৈরি করার উদ্দেশ্য কাজ করা গ্রুপটির লক্ষ্য।

বয়স: অজানা

ডোনেশনের উপায়: কানাডা ট্রাস্ট ব্যাঙ্ক। বিস্তারিত এখানে

পাঠকের মন্তব্য: +৩, -০

লেখকের মন্তব্য: একটি সুত্র আমাকে নিশ্চিত করেছেন। আপনাকে যাচাই করে নিতে অনুরোধ করছি।


মন্তব্য

ধ্রুব বর্ণন এর ছবি

এটার খুব প্রয়োজন ছিলো।

স্নেহাতে দেখা যাচ্ছে নিচের পেইজে গিয়ে পেপালে ডোনেশান করার ব্যবস্থা আছে।

http://www.snehafoundation.org/get-involved/donate/
(click on 'Make a single donation')

বুয়েট ৮৭ এর পেইজটাতেও পেপালে ডোনেট করার বাটন দেখা যাচ্ছে।

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

জুড়ে দিয়েছি। ধন্যবাদ।

স্যাম এর ছবি

ভীষন প্রয়োজনীয় পোস্ট মুর্শেদ ভাই - আপনার চেক লিস্ট এর সাথেও সহমত - কিন্তু সময় স্বল্পতার কথা মাথায় রেখে আমি আরেকটি সাজেশন রাখতে চাই - কাছের বন্ধুকে বিশ্বাস করা - মানে সবাই আলাদা যাচাই এর দরকার নাই - মানে হিমু, আপনি, নজ্রুল ভাই বা পান্ডব্দা যদি ডোনেট করেই ফেলেন আমি আলাদা ভাবে আর যাচাই এর দরকার নাই - চাকা সবাই আবিস্কারের দরকার নাই - এরকম একটা পয়েন্ট কেউ যদি ভাল করে লিখতে পারত মন্তব্যে - দুঃখিত আমার অক্ষমতার জন্য।

আমাদের সবার সময় খুব কম - আবার সুপরিকল্পনাও প্রয়োজন - আমরা যেন দ্রুত সৃজনশীল কিছু একটা করতে পারি।

সত্যপীর এর ছবি

স্নেহা ফাউন্ডেশন চালান হেমা হেলাল। আমার পরিচিত বেশ কিছু ব্যক্তি স্নেহার মাধ্যমে নিয়মিত টাকা পাঠান, স্নেহার নাম অনেক আগে থেকেই শুনেছি।

..................................................................
#Banshibir.

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

ধন্যবাদ আপনার মন্তব্যের প্রক্ষিতে রেটিং জুড়ে দিলাম।

চরম উদাস এর ছবি

চলুক

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

সুমন জানতে চেয়েছিলেন:

Which is preferable? I go to Enam Medical and donate Medical aids I buy myself from Uttara vs Give money to someone (to some bank account). Please suggest. I am moving to a new place tomorrow, want to save time. I am in Uttara.

আমার উত্তর:

বাংলাদেশ থেকে রেড ক্রিসেন্ট আর জাগো এই দুইটা প্রতিষ্ঠানের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট আছে দেখছি। রেড ক্রিসেন্ট পুরোন বলে আশা করছি বিশ্বস্ত। জাগোর ব্যাপারে বেশী জানি না, তবে এদের ব্যাঙ্কের সংখ্যা বেশ অনেকগুলো। কনভেনিয়েন্স চিন্তা করলে জাগো, আর বিশ্বস্ততার কথা চিন্তা করলে রেড ক্রিসেন্ট।

সশরীরে যেতে পারেন। তবে এই অবস্থায় গিয়ে কতখানি সাহায্য করতে পারবেন সে ব্যাপারে নিশ্চিত নই।

শিশিরকণা এর ছবি

অঙ্কুর থেকেও সাহায্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।
http://ankur-international.org/Savar_rana_plaza_victim_help.htm

প্রতিষ্ঠানটি আছে অন্তত ৩-৪ বছর ধরে জানি, এর আগেও ২-৩ বার এদের মাধ্যমে সাহায্য পাঠিয়েছি। এটাও সম্ভবত বুয়েট ৮৭ ব্যাচের সাথে যুক্ত ব্যাক্তিরা চালান।

~!~ আমি তাকদুম তাকদুম বাজাই বাংলাদেশের ঢোল ~!~

nowreen haq এর ছবি

অনেক ধন্নবাদ।

জোহরা ফেরদৌসী এর ছবি

খুব কাজের পোস্ট। শেয়ার করলাম। কিছুইতো করতে পারছি না...

__________________________________________
জয় হোক মানবতার ।। জয় হোক জাগ্রত জনতার

তারিক এর ছবি

বোস্টনে হার্ভার্ড আর এমআইটির শিক্ষার্থীরা টাকা তুলছেন সাহায্যের জন্য। টাকা কিভাবে পাঠানো যাবে এবং কিভাবে ব্যবহার হবে তার বিস্তারিত এই লিংকে: tarikmoon.com/fundraiser-for-savar/

রাগিব এর ছবি

স্পন্দন-বি এর সাথে আমি ২০০৫ সালে অন্তত কাজ করেছি। সেসময় বুয়েটের একজন ছাত্রের চিকিৎসার টাকা তোলার কাজটাতে তারা সাহায্য করেছিলো। মূলত বে এরিয়াতে এর মূল কর্মীরা আছেন।

প্রশ্ন হলো এদের হাতে টাকা দিলে কত দ্রুত যাবে দেশে আর টাইমলি হবে কতটা।

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

মিনা এর ছবি

প্রজন্ম কানাডা জিন ইসলাম এর মাধ্যমে আমি পাঠালাম। উনাদের উপর আমার আস্থা আছে। ধন্যবাদ এই পোস্ট দেয়ার জন্য। প্রজন্ম কানাডা কে ধন্যবাদ এগিয়ে আসার জন্য।

সত্যপীর এর ছবি

প্রজন্ম কানাডার অ্যাডমিনদের অন্তত দুজনকে চিনি বছর দশেকের উপর।

..................................................................
#Banshibir.

Rahat এর ছবি

I have collected some money from friends and handed over to Projonmo Canada. Know them personally. Keep up the good work. Thank you for the post. Very informative.

একা একজন এর ছবি

রেড ক্রিসেন্ট এর ভলান্টিয়ার হিসাবে অনেকদিন কাজ করার সুবাদে বলতে পারি, রেড ক্রিসেন্ট এর বিশ্বস্ততা নিয়ে কোন সন্দেহ নাই। কিন্তু আমার জানা মতে তাদের ফান্ড কালেকশন কোন নির্দিষ্ট দুর্যোগের জন্য না করে নিয়মিত ভাবে করা হয়।

কেউ যদি নির্দিষ্ট করে সাভার ট্র্যাজেডির জন্য সাহায্য করতে চান, তাহলে মনে হয় রেড ক্রিসেন্ট এর চেয়ে জাগো ভাল হবে, কিন্তু যদি সেটা বাংলাদেশ এর যে কোন দুর্যোগ এ ব্যবহার করলে আপত্তি না থাকে তা হলে আমার মতে রেড ক্রিসেন্ট সবচেয়ে ভাল।

নজরুল ইসলাম এর ছবি

এই লিঙ্কটা ফেসবুকে শেয়ার দিয়ে ছড়িয়ে দিন সবাই

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

ছাইপাঁশ  এর ছবি

চলুক

তারেক অণু এর ছবি
ধুসর জলছবি এর ছবি

ধন্যবাদ।

লুব্ধক এর ছবি

এই পোস্টটির জন্য অনেক ধন্যবাদ। দেশে এবং বিদেশে- যে যেখানেই আছেন, যারা সাহায্য করতে চান তাদের সবার কাজে লাগবে এই পোস্টটি।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA