আসুন গীতা পাঠ করি-১

শোহেইল মতাহির চৌধুরী এর ছবি
লিখেছেন শোহেইল মতাহির চৌধুরী (তারিখ: মঙ্গল, ০৭/০৩/২০০৬ - ৫:১৬পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:


আসুন ব্লগে এখন শান্তি। সুতরাং কিছুক্ষণ গীতা পাঠ করি। বিটিভি-তে দেখতাম বিশেষ বিশেষ দিনে গীতা পাঠ হতো। সপ্তাহের সব দিনে তাদের সুযোগ হতো না। কারণ বাইবেল, ত্রিপিটকের জন্য সময় ছেড়ে দিতে হতো। সুতরাং আমার গীতা-সম্পর্কিত জ্ঞানের স্বল্পতা নিয়ে যদি আপনারা দোষ ধরেন তবে আমি বিটিভি-কে সাক্ষী মানবো। তবে শেখার তো কোনো বয়স নেই। সুতরাং সময় পেলেই বিভিন্ন অমৃতবচন পাঠ করা যায়। কিন্তু সনাতন ধর্মগুলোর ভাষা বড় খটমটে। ধর্মবিশ্বাসীরা কেন যে সেগুলো সহজ ভাষায় অনুবাদ করে রাখে না। আসলে পৃথিবীতে নি:স্বার্থ ধার্মিকদের সংখ্যা কমে যাচ্ছে দ্রুত।
সে যাক এখানে অনেক জ্ঞানী-গুণির সাথে পরিচয় হলো। গীতা পাঠ আর এর তর্জমা এদের সানি্নধ্যেই তো করা উচিত। তাহলে বুঝতে সুবিধা হয়। তো আজকের জন্য আমি যে শ্লোকটি বেছে নিতে চাই তার সংখ্যা হলো 2/31।
পড়ার আগেই সন্দেহ দেখা দিলো যে এতে কেমন যেন ইসলামী জিহাদের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। তবে কি সব ধর্মেই জিহাদ থাকে। দুর্বল ধর্মানুরাগীরা সেসব পথ পরিহার করে পৃথিবীতে মৌজে লিপ্ত হয়। হানাহানিতে যায় না। কি জানি! সরাসরি শ্লোকটিতেই যাই।

স্বধর্মমপি চাবেক্ষ্য, ন বিকস্পিতুমর্হসি।
ধমর্্ম্যাদ্ধি যুদ্ধাচ্ছ্রেয়োহন্যৎ, ক্ষত্রিয়স্য ন বিদ্যতে।

এ ভাষা আমার বোধের অতীত। তবে অমল চ্যাটার্জি মহাশয়ের অনুবাদ অনুসরণ করলে এর অর্থ দাঁড়ায়:
ধর্মের আলোচনায় তুমি বিচলিত বা ভীত হয়ো না, কারণ ধর্মসংক্রান্ত যুদ্ধ ছাড়া ক্ষত্রিয়ের জন্য মঙ্গলজনক আর কিছু কি আছে। যুদ্ধ করাই ক্ষয়িত্রের ধর্ম, পাপ নয়। বরং যুদ্ধ না করাই পাপ, কারণ তা হবে নিজ ধর্ম পরিত্যাগ।

কথা খারাপ না। জিহাদের গন্ধ আছে। তবে বড় কঠিন করে বলা। (সুমন বা রাসেল নিশ্চয়ই এ থেকে সহজ ছড়া বানাতে পারবে।)
দেখা যাক গীতা পাঠে আগ্রহ কেমন। তার উপর নির্ভর করবে ভবিষ্যত পোস্টিং। কিন্তু এখানেও যুদ্ধের কথা। ধর্মে কি যুদ্ধের কথা থাকতেই হয়?


মন্তব্য

বুদ্ধুরাম এর ছবি

গীতা পাঠের ইচ্ছা, ব্লগে সার্চ দিতেই এই লেখা টা পেয়েগেলাম। ক্ষত্রিয়ত্য তথা জাতিভেদে মান্যতা থাকলে স্লোকটা দাঁড়ায়।
বস্তু, জীব সবার ধর্ম তারা পালন করে। মানুষের ধর্ম মানুষ মেনে নিতে পারছে না, ধর্মএর খোঁজে ধর্ম বানাচ্ছে। খোদার ওপর খোদকারির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, চলুক যতদিন চলে। (এটাও হয়তো মানুষের ধর্ম।)
দেখি নেটে আর কি আছে।

প্রাণাদিশ্বর পাল এর ছবি

আমাদের দেশে অনেক লোক প্রথমে চিন্তা না করেই অনেক কিছু বলেন। এটা স্বাভাবিক, কিন্তু আমার মনে হয় শ্রদ্ধেয় মতাহির সাহেবের ভগবত গীতার পুরোটাই অনুবাদ সহ পাঠ করা উচিত। তাই গীতায় শেষ ভাগে স্পষ্ট লিখা আছে, শুধু গীতা পাঠ করলেই হবে না তা বুঝতে হবে। শ্রদ্ধেয় মতাহিল সাহেবের কাছে একটি প্রশ্ন "যদি কোন নাটকের মাঝা মাঝিতে আপনি এসে তার একটি উক্তিকে অবলম্বন করে কারো কাছে আপনার মতভাব প্রকাশ করেন তিনি আপনাকে অবশ্যই পাগল বা মাথায় গন্ডোগল আছে বলে আক্ষায়ীত করবে। কারণ আপনার উচিত পুরো নাটকটি দেখে মন্তব্য করা। তাই আপনার নিকট প্রার্থনা থাকল আপনি প্রথমে ভগবদ গীতার প্রথম থেকে শেষ শ্লোক পর্যন্ত বাংলায় অর্থ পড়ে নেবেন। অনেক ব্যাক্তির এতে অসুবিধা হয় তবে আপনাকে অবলম্বন হিসাবে হিন্দি ভাষায় মহাভারতের ১০টি ডিভিডির প্যাকেজ পাওয়া যায়। পুরোটি দেখে নেবেন। আবার একটি কথা আপনার কাছ থেকে নিশ্চয় আমার শুনতে হবে না সেটা হল আমি হিন্দি ভাষা জানি না। আপনি অনেক মর্ডান তাই আমার বিশ্বাস হিন্দি বা উর্দূতে আপনি শুনলেই আপনার জ্ঞানকে বর্ধিত করতে পারবেন।
এবার আসছি উপরের শ্লোকের বিশ্লেষণে-
এই শ্লোকের অর্থ আপনার আরো বোধ গম্য হবে যদি আপনি ক্ষত্রিয়দের ধর্ম সম্বন্ধে জানেন। তারা অর্ধমের বিরুদ্ধে যুদ্ধ না করাকে অর্ধম বলে আখ্যায়িত করেছেন। যদি কেউ অন্যায় করে তবে সাধারণের উচিত তাকে বাধা দেওয়া আর ক্ষত্রিয়দের উচিত তা দমন করা " যা মহা ভারতে লিখা রয়েছে "
যাই হোক আমার উপরের বাক্যগুলো যদি আপনাকে শুলে গাঁথা বলে মনে হয় তবে ক্ষমা করবেন। তবে অনুরোধ থাকল যা জানননা, যা বোঝেন না সেখানে মাথার ইভেষ্টমেন্ট করতে যাবেননা। এতে আপনার উপর খারা প্রভাব পড়তে পারে। এমন যায়গায় ইনভেস্ট করুন যেখানে লাভ হয়।

nupur kanti das এর ছবি

@ প্রাণাদিশ্বর পাল:

যা জানননা, যা বোঝেন না সেখানে মাথার ইভেষ্টমেন্ট করতে যাবেননা

এটা কেমন কথা ভাই! যা কিছু অজানা বা যা কিছু দুর্বোধ্য, সেখানেই তো মাথা ঘামাতে হবে।

খোকন নস্কর এর ছবি

না জানাকে জানা, না চেনাকে চেনা এবং না দেখাকে দেখার ইচ্ছে মানুষের স্বাভাবিক প্রবৃত্তি..........................................

Pinaki এর ছবি

আপনি কিস্সই জানেন না।

রাজীব কুমার দাশ Rajib kumar das. এর ছবি

আমি গীতা পড়ি। কিন্তু বড় বানানের জন্য পড়া সমস্যা হয়। এটা কি এক দিনে এক অধ্যয় পড়তে হয়?

SHUVAM এর ছবি

গুরু গুরু গীতা পাঠ আমি রোজ করি।''‌‌‌‌য‌ত মত তত প।।

পাঠক এর ছবি

আমি মনেকরি সববিসয়ে কিছুজেনে রাখা ভাল কিনতু পূর্ণ ভাবে তা নাজেনে অন১কে নাবলতে যাওয়া বা কোন মনত১ব না করাই ভাল

তষার কান্তি ঘোষ এর ছবি

মহাশয় মাতাহির, আমার মতো আরো অনেকেই খূশি যে আপনি শ্রীমদ্ভাগবত গীতা পাঠ করেন, ভগবান নিশ্চয় আপনার ভাল করবেন। অনুরোধ নিয়মিত পাঠ করার জন্য, এক সময় সত্যিকারের সঠিক জ্ঞান আপনার নিকট প্রকাশিত হবে। দৃশ্যত যে ভাবনা আপনার মনে উদয় হয়েছে তা অবশ্যই ভূল প্রমাণিত হবে।
আসুন আমারা সকেলেই নিয়মিত শ্রীমদ্ভাগবত গীতা পাঠ করি। প্রতিদিন সম্পূ্ণ সম্ভভ নাহলে, অন্তত একটি অধ্যায় পাঠ করুন,অন্তত একটি শ্লোক পাঠ করুন, এবং গীতার মাহাত্য অবশ্যি প্রতিদিন পাঠ করুন।
মহানাম পাঠ করুন প্রতিক্ষণে,
" হরে কৃষ্ণ, হরে কৃষ্ণ, কৃষ্ণ কৃষ্ণ, হরে হরে ।
হরে রাম, হরে রাম, রাম রাম, হরে হরে ।।"

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA