বাংলা ভাষায় বিজ্ঞান বিষয়ক সাইট | বিজ্ঞানী.org

বিপ্রতীপ এর ছবি
লিখেছেন বিপ্রতীপ (তারিখ: শুক্র, ২১/০৯/২০০৭ - ২:৩৩পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

"বাংলায় প্রযুক্তিকে জানুন ও বুঝুন। প্রযুক্তি গ্রহণে দেরী করলে দেশ পিছিয়ে যাবে।" … প্রযুক্তির বিশ্বে আমাদের এগিয়ে যাওয়ার সময় এখনই। আর আমাদের এগিয়ে যাওয়ার প্রধান মাধ্যম হবে আমাদের মায়ের ভাষা বাংলা। কারন, প্রযুক্তির কোন কিছু বোঝা বা জানার জন্য মাতৃভাষার চেয়ে সহজ কোন মাধ্যম আর হতে পারে না। এরকম একটি মহৎ উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে এগিয়ে চলেছে দেশ এবং দেশের বাইরে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বাঙ্গালী বিজ্ঞানী, প্রযুক্তিবিদ ও পেশাজীবিদের সোস্যাল নেটওয়ার্ক বিজ্ঞানী.org । বাংলা ভাষায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি চর্চায় এই সাইটটি একটি অনন্য মাইলফলক। ইতোমধ্যেই এই সাইটটি দেশ বিদেশের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মনস্ক ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অজর্ন করতে সক্ষম হয়েছে।

বিজ্ঞানী.org -এর সাথে কাজ করছেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির বিভিন্ন শাখার সফল কিছু মানুষ। এর প্রতিষ্ঠাতা প্রবাসী দু’জন বাঙ্গালী বিজ্ঞানী ড. মশিউর রহমান এবং ড. শফিউল ইসলাম। ড. মশিউর রহমান রহমান জাপান থেকে তড়িৎ কৌশল থেকে স্নাতক ডিগ্রী অর্জনের পর সেখান থেকেই পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেছেন। বতর্মানে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের মার্শাল বিশ্ববিদ্যালয়ে এ সময়ের আলোচিত প্রযুক্তি ন্যানটেকনোলজি নিয়ে গবেষণা করছেন। পেশায় টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার ড. শফিউল ইসলাম যুক্তরাজ্য থেকে টেক্সটাইল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে ডক্টরেট ডিগ্রী অর্জন করেন। স্পাইডার সিল্ক প্রযুক্তির উদ্ভাবক ড. শফিউল কানাডার TexTek Solutions এর পরিচালক এবং Institute of Textile Science এর প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট। তাঁর অনেক গবেষণাপত্র, বই ও প্যাটেন্ট প্রকাশ পেয়েছে। বিজ্ঞানী.org এর এই মহৎ উদ্যোগের সাথে এখন আরোও অনেকেই কাজ করেছেন। যেমনঃ যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ড.ফাহমিদা হোসেন, ডা.সপ্তার্সি মন্ডল , জাপানের মিয়াজকিতে অবস্থানরত পরিবেশ প্রকৌশলী ড. মিয়া মোহাম্মদ হুসাইনুজ্জামান, অস্ট্রেলিয়ায় পিএইচডিরত প্রকৌশলী আলমগীর মোহাম্মদ সহ দেশ বিদেশের আরোও অনেক বাঙ্গালী বিজ্ঞানী এবং গবেষক। যে কোন কাজে সাফল্যের জন্য অভিজ্ঞ মানুষের পাশাপাশি প্রয়োজন নবীনদের আন্তরিক প্রচেষ্টা। বিজ্ঞানী.org এই নীতিতে বিশ্বাসী । তাই বিজ্ঞানী.org সবসময়ই নবীনদের স্বাগতম জানায় এবং তাদের বিজ্ঞানি ও প্রযুক্তি বিষয়ক লেখা প্রকাশ করতে উৎসাহিত করে । এই কথারই বাস্তব প্রতিফলন পাওয়া গেলো বিজ্ঞানী.org টিমের প্রদায়ক তালিকায়। বিজ্ঞানী ও গবেষকদের পাশাপাশি এ তালিকায় রয়েছেন বেশ কয়েকজন তরুন, যারা দেশ এবং দেশের বাইরে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক শ্রেনীতে পড়ছেন।

বাংলায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সাইটের সংখ্যা খুব কম। অল্প যে কয়েকটি আছে তার বেশির ভাগই তথ্যপ্রযুক্তি ভিত্তিক। বিজ্ঞানী.org এ দিক থেকে ব্যাতিক্রম। কারন বিজ্ঞানী.org এ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রায় সব শাখাকেই প্রাধাণ্য দেয়া হয়েছে। ফলে আপনি প্রযুক্তির যেকোন শাখারই হোন না কেন কিছু না কিছু পাবেন এখানে। এখানে তথ্যপ্রযুক্তির পাশাপাশি রয়েছে পদার্থ, রসায়ন,গণিত, চিকিৎসাবিজ্ঞান, ন্যানোপ্রযুক্তি, বায়োটেকনোলজি, ইলেকট্রনিক্স সহ আরোও কয়েকটি বিভাগ। এছাড়াও ছোটদের জন্য রয়েছে ‘ছোটদের জন্য বিজ্ঞান’ নামের একটি বিভাগ। এছাড়া সায়েন্স ফিকশন নামেও একটি বিভাগ আছে যা সব বয়সী পাঠকেরই ভালো লাগবে। এই সাইটের ফোরাম অংশে যে কেউ পাচ্ছেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রশ্ন করার সুযোগ যার উত্তর দেবেন বিজ্ঞানী.org টিমের বিশেষজ্ঞরা । এই সাইটে প্রকাশিত সকল প্রবন্ধগুলোকে ভবিষ্যতে বই বা বিজ্ঞান সাময়িকী আকারে প্রকাশের পরিকল্পনা রয়েছে। বিজ্ঞানী.org সদস্যরা প্রযুক্তি বিষয়ক প্রবন্ধের পাশাপাশি গবেষণাপত্রের উপরেও একটি আর্কাইভ গড়ে তুলছেন, যা আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মের কাজে লাগবে। ইতোমধ্যে এখানে অনেকেই তাদের গবেষণাপত্র জমা দিয়েছেন এবং পাশাপাশি গবেষণাপত্রগুলোকে বাংলায় অনুবাদ করার জন্যও কাজ শুরু হয়েছে।
বিজ্ঞানী.org তৈরিতে ব্যাবহার করা হয়েছে জনপ্রিয় কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম জুমলা।সাইটটি দেখতে কিছুটা সাধামাটা। তবে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মনস্ক সিরিয়াস পাঠকদের কথা মাথায় রেখেই যেহেতু সাইটটি তৈরি করা হয়েছে, তাই ততোটা আকর্ষণীয় না হলেও তেমন কিছু যায় আসে না। তবে সব শ্রেণীর পাঠকের কথা মাথায় রেখে হোম পেইজটিকে অন্তত একটু আকর্ষণীয় করতে পারলে মন্দ হতো না।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মনস্ক মানুষের কাছে এই সাইটটির জনপ্রিয়তা দিন দিন বেড়েই চলেছে। এর প্রধাণ কারন সম্ভবত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সবগুলো শাখাকেই গুরুত্ব দেয়া। আর বড় কথা হলো সবকিছু আছে আমাদের মায়ের ভাষায়। তাই স্বাভাবিকভাবেই পাঠকের ভালোলাগার মাত্রা বেড়ে যায় অনেকগুন। সৈয়দ নাদিম নামের একজন পাঠক সাইটটি দেখে তার উচ্ছাস প্রকাশ করেছেন এভাবে, ‘এক কথায় ... চমৎকার । চীনাদের মত আমরা এখন বাংলায় ওয়েবপেইজ করতে পারছি.....ফাট্টাফাটি......চালিয়ে যান.... কত দিন আর বাংলাদেশীদের বিদেশীরা Corner করবে....আমাদেরও সময় আসছে....বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি দিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। ..... ধন্যবাদ এই মহৎ উদ্যোগের জন্য’।

আমরা সেই সময়ের অপেক্ষায় আছি। শুধু স্বপ্ন দেখলে হবে না, স্বপ্ন পূরনের জন্যও আমাদের এখন থেকেই প্রস্তুতি নিতে হবে। আর সেক্ষেত্রে প্রথম কাজটি হলো বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক লেখাগুলোকে বাংলা ভাষায় লেখা যেন সহজেই তা সাধারন মানুষের বোধগম্য হতে পারে। এক্ষেত্রে বিজ্ঞানী.org এর এই উদ্যোগ সত্যিকার অর্থেই প্রশংসার দাবি রাখে। এর সুফল আমরা খুব তাড়াতাড়ি না পেলেও ভবিষ্যতে যে ভালো কিছু অপেক্ষা করছে সে ব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই। তাই আমাদের প্রত্যাশা, এগিয়ে চলুক সেই সময়ের সন্ধানে... মায়ের ভাষায়...

ওয়েব সাইটঃ http://biggani.org


মন্তব্য

ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

খুব ভাল লাগলো। এরকম একটা সাইটই দরকার!

হিমু এর ছবি

এ ধরনের উদ্যোগকে স্বাগত জানাই।

কখনো কখনো খুব অযোগ্য মানুষের কাছ থেকেও পরামর্শ শুনতে হয়। আপনার এখন এমনই সময়, কারণ আমি কিছু পরামর্শ দিতে চাই।

বিভিন্ন স্কুলে এবং কলেজে বিজ্ঞান ক্লাব থাকে। ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে জানি, এই বিজ্ঞান ক্লাবগুলিতে বিজ্ঞান মেলার আয়োজন করা হয় এবং সেখানে নানাবিধ রাজাউজির বধ করা হয়। আপনারা এই বিজ্ঞান ক্লাব পর্যায়ে বিজ্ঞানী.অর্গের পাঠকভিত্তি প্রসারিত করার উদ্যোগ নিন।

প্রযুক্তি যদি অনুভূতজীবননির্ভর হয়, তাহলে তা সম্পর্কে মানুষের আগ্রহ জাগে সহজে। প্রতিদিনের জীবনের সমস্যাগুলির প্রযুক্তিগত সমাধান নিয়ে আলোচনার সুযোগ দিন বিজ্ঞানী.অর্গে। উদাহরণ, রাস্তায় ট্র্যাফিক জ্যাম, বিদ্যুৎ বা গ্যাসের অপচয় রোধ, আসলেই ট্রাফিক পুলিশের পরিবর্তে প্রযুক্তিগত ঔৎকর্ষ্যের মাধ্যমে রাস্তায় গাড়ি নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব কি না, এ জাতীয় বিষয়ে চিন্তা করতে দিন আগামী দিনের প্রযুক্তিবিদদের। কী হচ্ছে উন্নত বিশ্বে, আমরা জেনে ফেলি, কী হতে পারে নিজের দেশে, তা জানতে হলে নবীনদের প্রযুক্তিভাবনার কথাও জানতে হবে।

আশা করি অভাজনের পরামর্শ শুনে বিরক্ত হয়েছেন। না হলে কিন্তু দুঃখ পাবো হাসি!


হাঁটুপানির জলদস্যু

শোহেইল মতাহির চৌধুরী এর ছবি

লেখাটা 'বাংলা যত ওয়েব সাইট' ই-বইয়ের উপপৃষ্ঠা হিসেবে জুড়ে দিলে খুশি হবো।
চমত্কার একটা সাইট। মহত্ উদ্যোগ।
-----------------------------------------------
সচল থাকুন ---- সচল রাখুন

-----------------------------------------------
মানুষ যদি উভলিঙ্গ প্রাণী হতো, তবে তার কবিতা লেখবার দরকার হতো না

বিপ্রতীপ এর ছবি

@শোহেইল মতাহির চৌধুরী ,
আমি তো এই রিভিউ বাংলা যত ওয়েব সাইট' ই-বইয়ের উপপৃষ্ঠা হিসেবেই লিখেছি। কিন্তু যুক্ত হলো না কেন বুঝলাম না। যুক্ত করে দেয়ার ব্যবস্থা করলে খুশি হবো।

শামীম এর ছবি

আব্বে বিপ্র ... এখন আমি (মিয়া মোহাম্মদ হুসাইনুজ্জামান) আর পিএইডিরত নই খাইছে

কী আর বলবো ... লিখে দিয়েছো যুক্ত আছি ...

কাজটা খুব ভাল হয়েছিল। এই রিভিউ-এর লেখক বিপ্রও এই সাইটের একজন প্রদায়ক।

সুপ্ত ইচ্ছা আছে যে, এটার ভাল ভাল লেখা বাছাই করে একটা ষান্মাষিক সাময়িকি বের করার চেষ্টা করা। এজন্য রিভিউয়ার হবেন, দেশের কিংবা বাইরের সংশ্লিষ্ট বিষয়ের বাঙালী শিক্ষক/গবেষকগণ।

আর এজন্য ইতিপূর্বে রিভিউ লেখা আমাদের প্রযুক্তি ফোরামটি নতুন লেখক তৈরীর বাডিং গ্রাউন্ড হিসেবে কাজ করতে পারে। আমার একটি পোস্টে এ প্রসঙ্গে আলাপ হয়েছিলো।
________________________________
সমস্যা জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ; পালিয়ে লাভ নাই।

________________________________
সমস্যা জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ; পালিয়ে লাভ নাই।

বিপ্রতীপ এর ছবি

শামীম ভাই,
দুঃখিত লেখাটি কয়েকদিন আগে লেখা...তাই খেয়াল করিনি... খাইছে
এখনই ঠিক করে দিচ্ছি...

বিপ্রতীপ এর ছবি

@হিমু ভাই,
আপনার উত্তরটা আগেই দেয়া উচিত ছিল। আমরা আমাদের প্রযুক্তি ফোরামে এ ধরনের উদ্যোগ নেব। আমার মনে হয় মতামত বা চিন্তাভাবনা শেয়ারের জন্য ফোরাম সাইটই বেশি কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারবে। আশা করছি বিজ্ঞানী.org এর প্রতিষ্ঠাতা ড. মশিউর রহমানও থাকবেন আমাদের সাথে।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA