প্রকৃতি বিষয়ক বাংলা ওয়েবসাইট | নিসর্গ

বিপ্রতীপ এর ছবি
লিখেছেন বিপ্রতীপ (তারিখ: শুক্র, ০৫/১০/২০০৭ - ৮:২১অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

শহরের ইট-পাথরের আকাশচুম্বী দালানের ভীড়ে ক্রমশ হারিয়ে যাচ্ছে প্রকৃতি। জানালায় দাঁড়িয়ে একটি সবুজ দেখবেন, সে সুযোগটিও নেই। প্রিয় পাঠক, আপনাকে প্রকৃতির কাছাকাছি নিয়ে যেতে রয়েছে একটি প্রকৃতি ও পরিবেশ বিষয়ক বাংলা ওয়েব সাইট ‘নিসর্গ’। নিসর্গ মূলত বাংলা ভাষায় প্রকৃতি ও পরিবেশ বিষয়ক পোর্টাল। এই সাইটটে জীবজগৎ, প্রবন্ধ, ভ্রমন, প্রকৃতি সংবাদ, সাইট রিভিউ ছাড়াও রয়েছে বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত প্রকৃতি ও পরিবেশ বিষয়ক প্রবন্ধ ও সংবাদ সংরক্ষণ করে রাখার জন্য আলাদা আর্কাইভ। বাংলাদেশ এবং বিশ্বের উদ্ভিদ ও প্রাণিদের সাথে পাঠকদের পরিচয় করিয়ে দেয়ার জন্য রয়েছে জীবজন্তু নামে একটি বিভাগ।
‘কেন নিসর্গের জন্ম?’ কথা হচ্ছিল নিসর্গের উদ্যোক্তাদের সাথে। তারা জানালেন তাদের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যের কথা। প্রথমত, প্রকৃতির প্রতি ভালোবাসা থেকেই এমন একটি উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। প্রকৃতির যা কিছু সুন্দর তা ইন্টারনেটে বাংলা ভাষায় প্রকাশ করা ছিল আরেকটি উদ্দেশ্য। নিছক বিনোদন নয়, বরং প্রকৃতির সৌন্দর্য তুলে ধরার মাধ্যমে প্রকৃতির প্রতি মানুষকে ভালোবাসা সৃষ্টি করাই মূল লক্ষ্য। দ্বিতীয়ত, নিসর্গকে প্রকৃতি বিষয়ক বাংলা খবরের একটি আর্কাইভ হিসেবে গড়ে তোলা। এছাড়াও সাইটটিকে সমৃদ্ধ করতে দেশী লেখার পাশাপাশি প্রকৃতি ও পরিবেশ বিষয়ক বিভিন্ন বিদেশী লেখার অনুবাদ প্রকাশেরও পরিকল্পনা রয়েছে তাদের।
এ ধরনের ওয়েব সাইটের পেছনে কিছু গল্প থাকে, কিছু মানুষের স্বপ্ন জড়িয়ে থাকে। নিসর্গেরও তেমন একটা গল্প আছে। গল্পটা বেশ পুরনো। ২০০১ সাল...। প্রকৃতি ও পরিবেশ বিষয়ক লেখা প্রকাশের স্বপ্ন নিয়ে নিসর্গ সবর্প্রথম আত্মপ্রকাশ করে। এর নেপথ্যে ছিলেন ঐতিহ্যবাহী নটরডেম কলেজের ন্যাচার স্টার্ডি ক্লাবের কয়েকজন সদস্য। সেই সময়েই nishorga.com নামে একটি ডোমেইন কেনা হয়। ধীরে ধীরে অনেকেই নিসর্গের সাথে যুক্ত হন। ২০০৩ থেকে ২০০৬ সময়কালীন নিসর্গে যারা লেখালেখি করেছেন তার মধ্যে শেখর রায়-এর কথা বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। তবে তাদের এই প্রয়াসটি বর্তমান অবস্থানে আসতে অনেক দীর্ঘ সময় লেগে যায়। অনেক চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে ২০০৬ সালে এর উদ্যোক্তারা এর পরিধি বাড়ানোর চিন্তাভাবনা করেন। এই চিন্তাধারা থেকেই nature.com.bd নামে একটি নতুন ডোমেইন কেনা হয় এবং পাশাপাশি nishorga.com ডোমেইনটিও চালু থাকে। এভাবে অনেক চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে অসংখ্য পাঠক ও লেখকের অনুপ্রেরণায় নিসর্গের পথচলা।
বতর্মানে এই সাইটটির যাবতীয় দেখাশুনা করছেন দু’জন-এনায়েতুর রহিম এবং নুরুল আমীন রাসেল। সাইটটি তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছে জনপ্রিয় কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম জুমলা। এই সাইটে ইউনিকোড প্রযুক্তি ব্যবহার করায় আপনি খুব সহজেই বাংলায় আপানার লেখা প্রকাশ করতে পারবেন। এছাড়া RSS ফিডের সুবিধা থাকায় সাইটে প্রবেশ না করেও গুগল রিডার বা অন্য কোন আর এস এস (RSS) ফিডারের মাধ্যমে আপনি এই সাইটের লেখা পড়তে পারবেন এবং নতুন কোন লেখা প্রকাশ হলে তা জানতে পারবেন। সাইটটি দেখতে কিছুটা সাধামাটা কিন্তু দৃষ্টিনন্দন। এই সাইটের ডাটাবেজ-ভিত্তিক ডিজাইন প্রথমে করেছিলেন নুরুল আমীন রাসেল। সাইটের অসাধারন লেগোটিও তার তৈরি করা। এককথায় বলা যায়, সাইটটি যেকোন পাঠকেরই দৃষ্টি আকর্ষন করতে সক্ষম হবে। তবে বিষয়বস্তুর উপর ভিত্তি করে বিভাগগুলো আরেকটু গোছানো হলে ভালো হতো। যেমনঃ পরিবেশ দূষন নিয়ে পরিবেশ বিপযর্য় নামে কোন বিভাগ রাখা যেতো। তাছাড়া জীবজগৎ বিভাগটির বদলে উদ্ভিদ ও প্রানী নামে আলাদা বিভাগ হলে পাঠকদের যেকোন তথ্য খুঁজে পেতে আরোও সুবিধা হতো। যেহেতু প্রকৃতি বিষয়ক সাইট তাই ছবির জন্য একটি আলাদা বিভাগ রাখলে বেশ ভালো হতো। আর সাইটটি নিয়মিত হালনাগাদ করার বিষয়টিও লক্ষ্য রাখা প্রয়োজন। নাহয় পাঠকের আগ্রহ কমে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে।
এই ওয়েব সাইটের মাধ্যমে আপনি আপনার মনিটরে চোখ রেখেই চলে যেতে পারবেন প্রকৃতির কাছাকাছি। নিসর্গে আপনি বিনামূল্যে সদস্য হবার পাশাপাশি প্রকৃতি ও পরিবেশ বিষয়ক সংবাদ ও ছবি প্রকাশ করতে পারবেন। ইচ্ছে হলে ভ্রমন কাহিনীও প্রকাশ করতে পারেন। এছাড়াও রয়েছে বিনামূল্যে বিজ্ঞাপন প্রকাশের সুযোগ। তাহলে আর দেরি কেন? এই মহান উদ্যোগকে এগিয়ে নিয়ে যেতে আপনার চারপাশের প্রকৃতিকে তুলে ধরুন নিসর্গে...
ওয়েব সাইটঃ http://www.nature.com.bd/

----------------------------------
রিভিউটি এর আগে আমাদের প্রযুক্তি ফোরামে প্রকাশ করা হয়েছিলো।


মন্তব্য

ফারুক হাসান এর ছবি

লিংকের জন্য ধন্যবাদ।
আর পোস্ট টাও ভালো লেগেছে।
-----------------------
আমাকে নিঃশব্দে অনুসরণ করে একটা নদী-
সাথে নিয়ে একটা পাহাড় আর একটা নিঃসঙ্গ মেঘ।

বিপ্রতীপ এর ছবি

ধন্যবাদ ফারুক হাসান

ফারুক হাসান এর ছবি

হাসি
-----------------------
আমাকে নিঃশব্দে অনুসরণ করে একটা নদী-
সাথে নিয়ে একটা পাহাড় আর একটা নিঃসঙ্গ মেঘ।

হিমু এর ছবি
ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

ভাল সাইট, লেখা।

রাহা এর ছবি

ভুইয়া স্যার কি এখনও নেচার স্টাডি ক্লাবের সাথে আছেন ??

..হৃদি ভেসে যায় অলকানন্দার জলে...

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আছেন মানে, আলবাত আছেন। ভালমতই আছেন। কেবল নাই তার সেই সব মহান প্রকৃতিপ্রেমিকেরা।

বিপ্রতীপ এর ছবি

সবাইকে মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ

একটি কথা বলতে ভুলে গেছি...এই সাইটের একজন উদ্যোক্তা 'প্রকৃতিপ্রেমিক' ভাই আমাদের এখানে সচল। তিনি এই সাইট সম্পর্কে আরোও কিছু বলতে পারবেন।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA