সমালোচনার ঝড় তোলা গুন্টার গ্রাসের সেই কবিতা "যা না বললেই নয়"

পুতুল এর ছবি
লিখেছেন পুতুল (তারিখ: রবি, ০৮/০৪/২০১২ - ৪:৩৪পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে, তবে একলা চলো রে, নীতির গুন্টার গ্রাস এর আগেও সব তীরের নিশানা করে ছিলেন নিজেকে। আমার অর্থলিপ্সু জাতির জন্য আমি লজ্জিত। এমনই বাক্য ব্যয়ে আয় করেছেন অযুত-নিযুত সমালোচনা। কী বর্মে তাঁর আচ্ছাদন তৈরী! সেটা তিনি নিজেই জানেন। কিন্তু আমি অবাক হই কী মানবিক শক্তিতে সব কিছুকে এত তুচ্ছ জ্ঞান করেন তিনি! এতো যে সমালোচনা সবাই তাঁর বিপক্ষে। যে দুএকটা কথা পক্ষে, তারা আবার সংগ্রাম, ইনকিলাব নয়া দিগন্তের মতো পত্রিকা। তার জন্য একটু বিব্রত বোধ করেন বৈকী। তাই বলে যা বলা দরকার তা কী বলবেন না! সাংঘাতিক রকম নির্বিকার রইলেন। এই বারের সমালোচনার টর্নেডোও তাঁকে নড়াতে পারল না।
কবিতাটি অনুবাদের ইচ্ছে ছিল প্রকাশের পরের দিনই। কিন্তু পারলাম না। তীরুদা কালকে বললেন; তিনি অনুবাদ করতে গিয়ে করেন নি। কারণ; তিনি ভেবেছেন, আমি হয়তো করেই ফেলেছি।
বকেয়া কাজ করতেই হয়। আর দেখলাম সবগুলো বাংলা পত্রিকা কবিতাটির পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। অথচ কষ্ট করে কেউ অনুবাদটুকু করেন নি। সচলায়তনের পাঠক অন্তত পুরো কবিতাটি বাংলায় পড়ুক, এই তাগিদ থেকে, এবং বিশেষ করে মূল বিষয় না জেনে অন্যের আলোচনায় বা সমালোচনায় প্রভাবিত না হোক সেই তাগিদ থেকে অনুবাদ করলাম। আমার অনুবাদের যে কোন অসংগতি, দুর্বলতা
ধরিয়ে দেবার জন্য আগাম কৃতজ্ঞতা জানিয়ে রাখলাম।

যা না বললেই নয়

নীরব কেন আমি, নির্বাক অনাদি কাল,
যে উলঙ্গ পরিকল্পনার প্রহসন শেষে
সৌভাগ্যক্রমে বেঁচে যাওয়া
পাদটিকার মতো আমরা।

আক্রমনই আত্মরক্ষার সর্বশ্রেষ্ঠ পন্থা,
নিজেকে তার অধিকারী ভেবে, বাকসর্বস্ব একনায়কের
উন্মাদনায় তুচ্ছ জ্ঞানে আক্রমন,
নিশ্চিহ্ণ করতে পারে ইরানী জনগন।

আক্রমনাত্মক সে দেশটার নাম মুখে নিতে
কুণ্ঠিত কেন আমি, যে দেশে
পারমানবিক মরনাস্ত্র আছে অরক্ষিত ভাবে,
কারণ সেখানে আন্তর্জাতিক আনবিক শক্তি নিরীক্ষকদের
কোন প্রবেশাধিকার নেই।

এই বাস্তব ঘটনা গোপন রাখার অলিখিত আইনে
স্তব্ধ আমি, এ মিথ্যার যাতনা আর ভয় ভাঙ্গার চেষ্টা
শাস্তিযোগ্য অপরাধ, এর বিপক্ষে অবস্থান মানেই
ইহুদী বিদ্বেষ।

কিন্তু এখন, আমারই দেশ, যার অতীত
অপরাধ তুলনা রহিত, উঠে আসে বর্তমানে
যে কোন সুযোগে, শুধুই বানিজ্যিক কারণে, যদিও
আকারে-ইঙ্গিতে বোঝানোর চেষ্টা চলে অতীত পাপের
অনুশোচনায়, ইজরাইলকে দিতে চায় ডুবোজাহাজ।
বিশেষ গুনের সে ডুবোজাহাজ, সর্বনাশী বোমা ফেলবে অভ্রান্ত নিশানায়,
যেখানে অনুমানে পাওয়া গেছে একটি এ্যাটম বোমা। তাই বলি আমি,
যা না বললেই নয়।

এত দিন নীরব ছিলাম কেন?
জন্মসূত্রে প্রায়শ্চিত্তের অতীত যে অপরাধ,
সে পাপী জাতির সন্তান আমার নাই অধিকার,
ইজরাইল রাষ্ট্রকে করব তিরস্কার। যদিও বন্ধনে বন্ধু
রাষ্ট্র ইজরাইল, আশা করি সে বন্ধুত্ব আজ ও আগামীর।

এখন বলছি কেন, শেষ বিন্দু কালি আর বৃদ্ধকালে:
এমনিতেই নব্জু বিশ্বশান্তির জন্য হুমকী
পারমানবিক শক্তিধর ইজরাইল? বলতেই হবে আজ,
কারণ বিলম্ব হয়ে যেতে পারে আগামীকাল।
জার্মান হিসাবে এমনিতেই কলংকিত আমাদের অতীত,
অস্ত্র দিয়ে আরেকটা অপরাধে সহযোগী হয়ে যাওয়ার
অভিযোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার কোন উপায়
তখন আর থাকবে না।

আমি আর চুপ থাকতে চাই না, কারণ
অসহ্য পশ্চিমা তোষণ নীতিতে আমি ক্লান্ত;
আশা করি আরো অনেকে নীরবতা ভঙ্গ করবেন,
ইজরাইলের বল প্রয়োগ নীতি পরিহারের আহ্বান জানাবেন
এবং আন্তর্জাতিক আনবিক শক্তি নীরিক্ষকদের অবাদে
ইরান ও ইজরাইলী আনবিক শক্তি গবেষণা কেন্দ্র
পরিদর্শন নিশ্চিত করার জন্য দাবী জানাবেন।

শুধু এভাবেই ইজরাইলী এবং ফিলিস্তিনীদের,
সর্বোপরি এই অঞ্চলের ভয়ঙ্কর বিবাদমান মানুষদেরকে
তো বটেই, আমাদেরকেও সাহায্য করা সম্ভব।


মন্তব্য

তারেক অণু এর ছবি

চমৎকার, এই নিয়ে লিখতে চাচ্ছিলাম খুব ভালো হল আপনি লিখে ফেলায়।
মূল জার্মান এবং ইংরেজির লিঙ্ক থাকলে দিয়েন এইখানে, আবারো ধন্যবাদ।
এই নিয়ে ২য়বাড় কমেন্ট করলাম, প্রথমটা উধাও হয়ে গেল সব ইমো সহ !

পুতুল এর ছবি

লিংক http://www.zeit.de/news/2012-04/07/literatur-dokumentation-das-gedicht-von-guenter-grass-07203603
ইংরেজীতে মূল কবিতা আছে এমন কোন লিংক পেলাম না!
প্রথমটা মন্তব্য উদাও হওয়ার দায় আমার। সংরক্ষণ হতে দেরী দেখে তিনবার টিপ দিয়েছি।
টিপ দিয়ে দেখি‌, আমার পোষ্ট তিনবার দেখাচ্ছে প্রথম পাতায়, দুটি ঘ্যাচাং করায় তার কোনটাতে করা আপনার মন্তব্যও উদাও। দুঃখিত।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

চরম উদাস এর ছবি

চলুক
পড়েছি মূল কবিতা। ভালো লাগলো।

পুতুল এর ছবি

ধন্যবাদ উদাস ভাই।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

অনার্য সঙ্গীত এর ছবি

দারুণ! মুগ্ধ!
আপনি তা-ও লিখলেন। জার্মানরা সাধারণত ইতিহাস চেপে যেতে চায় বলেই জানি। গুন্টার গ্রাস'কে সালাম!

______________________
নিজের ভেতর কোথায় সে তীব্র মানুষ!
অক্ষর যাপন

পুতুল এর ছবি

ধন্যবাদ অনার্য সঙ্গীত।

জার্মানরা ইহুদী ফরাসীদের চাপেই হোক আর সততার জন্যই হোক ইতিহাস ভালই সংরক্ষণ করছে তো।
গ্রাস সালাম পাবার মত মানুষ।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

অনার্য সঙ্গীত এর ছবি

সংরক্ষণ করা নিয়ে আসলে বলিনি। আমি সবসময় লক্ষ্য করি অনেকেই ইতিহাস লুকোতে/এড়িয়ে যেতে চায়!

______________________
নিজের ভেতর কোথায় সে তীব্র মানুষ!
অক্ষর যাপন

পুতুল এর ছবি

সেটা ঠিক, নিজের অপরাধ কে স্বীকার করতে চায়!
একটা প্রজন্ম আবার বলে, আমি তো তখন ছিলাম না, কাজেই নাৎসীদের দোষ আমার ঘাড়ে নেব কেন!
আরেকটে দল মনে করে, ইহুদীদের ক্ষমতার‌ কারণে জার্মানরাই শুধু দণ্ড ভোগ করছে।
অথচ পুরো দক্ষিণ আমেরিকা স্পেনিশায়ন বা পর্তুগীজ করেও কারো কাছে পর্তুগীজ বা স্পেনিশদের কৈফিয়ৎ দিতে হয়নি। উত্তর আমেরিকা, দক্ষিণ আফ্রিকা, অষ্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যাণ্ড সহ আরো বহু জায়গা সাদা মানুষের দেশ বানাতে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের চেয়ে কম মানুষ মারা হয়নি। অথচ কেউই তার কৈফিয়ৎ দাবী করছে না!

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

তারেক অণু এর ছবি

গ্রাস অনন্য মানুষ এবং লেখক, তার Pilling the Onion নিয়ে রিভিউ লিখে ফেলুন না জার্মানবাসী কেউ, একটা আলাদা ফ্লেবার পাবে লেখাটা! একজন নাৎসি সৈনিক হিসেবে বন্দী হবার পর কি করে মানবতার পথে তার উত্তরণ ঘটল সেই জায়গাগুলো খুবই কৌতূহলদ্দীপক।

পুতুল এর ছবি

গ্রাসের টিন ড্রাম মুখস্ত হয়ে গেছে প্রায়। কিন্তু আর কোন লেখা তেমন করে পড়া হয় নি। কাজটা কেউ করলে ভাল হতো।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

হাসিব এর ছবি

জার্মানরা আসলে ইতিহাস লুকোতে চায় এটা কখনো মনে হয়নি। এদের সমস্যা নতুন ধর্মান্তরিতের মতো। নিজেদের অতীত অপকর্মের গন্ধ ঢাকতে এরা ইজরায়েলের বেশি বেশি বন্ধু হতে চায়। ইজরায়েল হাগলেও আগ বাড়িয়ে বলবে অতি সুন্দর মনোহর সুগন্ধযুক্ত পুরিষ

ইয়াসির এর ছবি

আপনার প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানাচ্ছি

শোয়েব মাহমুদ সোহাগ এর ছবি

জার্মান ভাষা জানিনা। আপনার অনুবাদটা ভালো হইছে কিন্তু বানান ভুলগুলা অনুগ্রহ করে ঠিক করেন।

পুতুল এর ছবি

শোয়েব মাহমুদ সোহাগ ধন্যবাদ ভাই।
বেশ কিছু বানান ভুল ছিল, হয়তো এখনো দুএকটা থাকতে পারে। ঠিক করে দিলাম। লেখাটা শেষ হলে পোস্ট করে খালাস হতে পাগল হয়ে যাই। একটু সময় নিয়ে আবার পড়লে অনেক ভুল এড়ানো সম্ভব। ভুল গুলো ধরিয়ে দেয়ার জন্য ধন্যবাদ।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

পুতুল এর ছবি

ধন্যবাদ ইয়াসির।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

স্বপ্নখুঁজি এর ছবি

খুবই ভাল লাগল।।। ধন্যবাদ সুন্দর অনুবাদের জন্য।

পুতুল এর ছবি

পড়ার জন্য আপনাকেও ধন্যবাদ স্বপ্নখুঁজি।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

প্রদীপ্তময় সাহা এর ছবি

অনুবাদের জন্যে অনেক ধন্যবাদ। চলুক
শুধু কবিতাটার ব্যাপারে শুনেছিলাম কিন্তু পড়া হয়ে ওঠেনি।

যেখানে নিজের জাতিকে কাঠগোড়ায় দাঁড় করাতে হয় সেখানে নিরপেক্ষ অবস্থান
নিতে গেলে বুকের ভেতর একটা ধর্ম বা জাতের ওপরই দৃঢ় বিশ্বাস লাগে, তা মানবতা।

গুণ্টার গ্রাসের প্রতি গুরু গুরু

পুতুল এর ছবি

পড়ার জন্য আপনাকেও ধন্যবাদ প্রদীপ্তময় সাহা।
ইহুদীদের সমালোচনা করলে মানুষ তার মানবতাবাদ হারায়।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

হিমু এর ছবি

সকালে রেডিওতে শুনলাম, ইসরায়েল গ্রাসকে পেরসোনা নন গ্রাতা ঘোষণা করেছে।

পুতুল এর ছবি

আরো কত কত কিছু করবে, তাতে অবাক হইনা। ইসরাঈলের সমালোচনা করা বা অন্য মানুষের সাথে এক করে সাধারণ মানুষ বানিয়ে ফেলা একটা চরম গুনাহর কাজ। ইহুদী হচ্ছে সব চেয়ে পবিত্র প্রাণীর নাম। তাদের মধ্যে চোর, বেশ্য, চাটুকার, বাটপার, এই সব থাকতে পারে এমন সাধারণ মানুষের কাতারে ফেললে অন্য কোন মানুষকে তারা শুলেই চড়াত।
গ্রাস বলে একটু অনুকম্পা করে শুধু অবাঞ্ছিত ঘোষনা করেই ছেড়ে দিল। কিন্তু ইসরাঈলের কাছে যে পারমানবিক অস্ত্র আ্যে এবং তা আন্তর্জাতিক আনুবিক পরিক্ষকদের দেখাতে হবে, সে সব চেপে গেলেন উচ্চ কণ্ঠে গ্রাসকে গালিগালাজ করে।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

ধ্রুব বর্ণন এর ছবি

গুন্টার বস তাদেরকে হাতে নাতে ছাগু প্রমাণ করলেন তাইলে। ওনারে সালাম!

নিলয় নন্দী এর ছবি

আমি আর চুপ থাকতে চাই না, কারণ
অসহ্য পশ্চিমা তোষণ নীতিতে আমি ক্লান্ত।

চলুক

পুতুল এর ছবি

ধন্যবাদ নিলয় নন্দী।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

রণদীপম বসু এর ছবি

লেখক তো বিবেকের কণ্ঠস্বর ! আর বিবেকহীন হলে যে লেখক হওয়া যায় না সেটা সবাই জানেন। অথচ অনেকে আবার এটাও বুঝতে চান না যে বিবেককে চেপে রাখাও বিবেকহীন হওয়ার সামিল। গুন্টার গ্রাস তা হননি। এখানেই লেখকের বিবেকের জয়। এবং বিবেক মানেই মানবতার স্পন্দন।

বড় আঁতেলিয় মন্তব্য হয়ে গেলো মনে হয় ! হা হা হা !

ধন্যবাদ পুতুল দা'কে। সাথে সাথে সেটাও স্মরণ করিয়ে দিতে চাচ্ছি- মন্তব্যের উত্তরগুলো কোত্থেকে নাজেল হয় সেটাও কেউ কেউ স্মরণে রেখেছেন ! হা হা হা !!

-------------------------------------------
‘চিন্তারাজিকে লুকিয়ে রাখার মধ্যে কোন মাহাত্ম্য নেই।’

পুতুল এর ছবি

ঠিক কথাই বলেছেন রণদা। লেখকের বিবেক এমনই হওয়া উচিৎ, এটা আঁতলামী না।
মন্তব্যের উত্তর ঠিক জায়গা থেকে দেয়া হচ্ছে। আজকাল নকলের সুযোগ নাই।
ধন্যবাদ।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

স্যাম এর ছবি

চলুক

পুতুল এর ছবি

ধন্যবাদ স্যাম।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

ধ্রুব বর্ণন এর ছবি

অঘোষিত ট্যাবুটা ভাঙলেন তিনি। ইন্টারনেটের যুগে এসব সোলেমানি মিথ অনেক আগেই ভাঙবে আশা করছিলাম। অবগুণ্ঠন খুলো হে মুক্তবুদ্ধির দল!

পুতুল এর ছবি

না বস, অবস্থা যা দেখছি তাতে মনে হয় না টাবু ভাঙ্গল। প্রগতিশীল মহলে এসব আলোচনা হয় সব সময়ই। কিন্তু ঠিক মূল ধারায় পৌঁছায় না সে আলোচনা। এখন আলোচনার বদলে শুরু হয়েছে গ্রাসকে গ্রাস করা। আজকে ইজরাঈল (পড়ুন আজরাইল) তাদের দেশে সরকারী ভাবে গ্রাসের প্রবেশ নিশিদ্ধ ঘোষনা করেছে।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

ধ্রুব বর্ণন এর ছবি

বোরাত সাগদেয়িভের আগামী টার্গেট দেখবেন গ্রাস।

পুতুল এর ছবি

লোকটা কে, লেখাটেখার লিংক বা নামটা ইংরেজীতে দিন তো, গুতা মেরে দেখি।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

ধ্রুব বর্ণন এর ছবি

borat sagdiyev

বিনোদনের মূল উৎস। কিন্তু ধরে ধরে খালি ইহুদিদের সাথে যাদের যাদের গিয়ানজাম, তাদের মকারি করে।

ধ্রুব বর্ণন এর ছবি

আগামীতে নোবেল দিতে আরও সাবধান হবে লোকে। আর অ্যান্টি-সেমিটিজম কথাটার মধ্যেই কিন্তু একটা রেসিজম আছে। রেসিজম আছেই, সব রেসিজমই গর্হিত। কিন্তু সবগুলারে খালি রেসিজম আর বিশেষ একটারে অ্যান্টি-সেমিটিজম বলা মানে বিশেষ একটা জাতিরে অন্যদের চে একটু বেশি সুবিধাধারী করা। এখন থেকে অ্যান্টি-বেঙ্গালিজম চালু করলাম। ইহুদি প্রফেসর বাঙালি ছাত্র না নিলেও তারে অ্যান্টি-বেঙ্গালিজম বলা হবে।

পুতুল এর ছবি

তাইতো চলছে বস,
যে কোন রেসিজমের ঘটনায় তারা (ইহুদী) নীরব থাকে। নাৎসীরা ঠাণ্ডা মাথায় স্পিলবার্গের চলচিত্রের মতো এক দশক ধরে ৯ জন তুর্কী হত্যা করল। ঘটনা ফাস হওয়ার পরে জার্মান পার্লামেন্ট লজ্জায় ক্ষমা চাইল, কিন্তু ইহুদীরা কিছু বলল না।
অথচ ইহুদী গোরস্থানে কুত্তায় হাগলে তার প্রতিবাদ করে এরা। এন্টি সেমিটিজম ইজ আ রেসিজম।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

বিষাক্ত মানুষ এর ছবি

দারুন কাজ পুতুল ভাই। এইটার অপেক্ষায় ছিলাম চলুক

কেমন আছেন! কয়েক বছর পর দেখলাম আপনাকে হাসি

পুতুল এর ছবি

ধন্যবাদ বিষাক্ত মানুষ,
মাঝে মাঝে আসলে কী এমন ক্ষতি এই পাড়ায়, দেখা সাক্ষাতটা চালু থাকে। বিবি, বাচ্চা নিয়ে সংসারে একমাত্র ব্যস্ত মানুষ আর কী, এক রকম ভালই আছি বলা যায়।

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA