নতুন সরকারের কাছে আমাদের প্রথম প্রত্যাশা হোকঃ সবার আগে , সবকিছুর আগে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চাই ।

রাহা এর ছবি
লিখেছেন রাহা (তারিখ: মঙ্গল, ৩০/১২/২০০৮ - ৬:৪৪অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

নতুন সরকারের কাছে আমাদের প্রথম প্রত্যাশা হোকঃ সবার আগে , সবকিছুর আগে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চাই ।

মানুষ পরিবর্তন চায়, সেই পরিবর্তনের পক্ষে জনগন যে রায় দিয়েছে তা বলা যায় ঐতিহাসিক । এই ঐতিহাসিক রায় দিয়েছে মানুষ খুবই সুস্পষ্ট কারণে । বিগত সরকারের আমলের সীমাহীন দুর্নীতি, দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন উর্দ্ধগতি, দলীয় সন্ত্রাস, চাঁদাবাজী আর প্রশাসনে স্বজনপ্রীতির বিপক্ষে । বিগত বিএনপি-র আমলে মানুষের অসহনীয় দুর্ভোগ আর সরকারের নিলর্জ্জ মিথ্যাচার, "মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বেড়েছে" কিংবা "আল্লাহর মাল নিয়েছে" এর বিপক্ষে মানুষ ভোট দিয়েছে । মানুষ তার মতামত ব্যক্ত করেছে ব্যালট পেপারে । তারা স্বস্তি চায়, যুদ্ধাপরাধীদের চায় না, জঙ্গীবাদ চায় না । চায় দুমুঠো খাবারের সংষ্থান ।

তাই বিগত আমলের সম্পূর্ণ ব্যর্থ আর দুঃশাসনের জমে ওঠা পাহাড়কে ছুড়ে ফেলতেই তাদের এমন ভোট দান । ভুলে গেলে চলবে না আবার আগামী নির্বাচনেও মানুষ আবার ভোট দেবে, সেই ভোটই তারা চলমান পাচ বছরের ক্ষমতার মূল্যায়ণ করবে । কেননা, জনগনই সকল ক্ষমতার উৎস ।

নতুন নির্বাচিত সরকারের কাছে মানুষের চাওয়া গুলো কিন্তু সুস্পষ্ট । মানুষের চাওয়া খুবই সামান্য , তারা শান্তি চায় না চায় একটু স্বস্তি আর নিরাপদ বেচে থাকার অধিকার । যেখানে রাজনীতির নামে সংখ্যালুঘুদের নির্যাতন করা হয় না, বিরোধীদলকে নিশ্চিহ্ন করতে দলীয় সন্ত্রাস হয় না, যে দেশে যুদ্ধাপরাধীরা মাথা তুলে দাড়াতে পারে না, ধর্মের নামে সন্ত্রাস হয় না ।

মানুষের প্রত্যাশা অনেক । তবে আমাদেরও ভুলে গেলে চলবে না ব্যালট এর রায় দিয়েই নতুন সরকার এসে রাতারাতি সব বদলে ফেলবে, তাদের কে যথেষ্ট সময় দিতে হবে । এই অসহনীয় পরিস্থিতি সামলে উঠার সময় দিতে হবে ।

তবে যাই হোক, সবার আগে , সবকিছুর আগে এবার আসুন আমরা এই নবনির্বাচিত সরকারের কাছে দাবী জানাই, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চাই । সবার আগে , সবকিছুর আগে নতুন সরকার যুদ্ধারাধীদের বিচার করবে । নতুন সরকারের কাছে আমাদের প্রথম প্রত্যাশা হোক , যুদ্ধাপরাধীদের বিচার । আর সেজন্য সবাইকে সমস্বরে, সম্মিলিতভাবে দাবী জানাতে হবে, আসুন আমরা এই একটি চাওয়াকে এবার বাস্তবায়িথ করি । সমস্বরে আওয়াজ তুলি সবার আগে , সবকিছুর আগে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চাই ।


মন্তব্য

নিবিড় এর ছবি
এনকিদু এর ছবি

সহমত ।

বিচার চাই ।


অনেক দূরে যাব
যেখানে আকাশ লাল, মাটিটা ধূসর নীল ...


অনেক দূরে যাব
যেখানে আকাশ লাল, মাটিটা ধূসর নীল ...

নাগরিক এর ছবি

নিয়ম সবার জন্য সমান হওয়া বান্ঞনীয়। এই লেখা সামু বলগেও দেখলাম।

নিঝুম এর ছবি

আগে ব্লগ বানান ঠিক কইরা আসেন । তারপর কি বলেন অথবা বলতে চান , শোনা যাবে ।
--------------------------------------------------------
কারও শেষ হয় নির্বাসনের জীবন । কারও হয় না । আমি কিন্তু পুষে রাখি দুঃসহ দেশহীনতা । মাঝে মাঝে শুধু কষ্টের কথা গুলো জড়ো করে কাউকে শোনাই, ভূমিকা ছাড়াই -- তসলিমা নাসরিন

---------------------------------------------------------------------------
কারও শেষ হয় নির্বাসনের জীবন । কারও হয় না । আমি কিন্তু পুষে রাখি দুঃসহ দেশহীনতা । মাঝে মাঝে শুধু কষ্টের কথা গুলো জড়ো করে কাউকে শোনাই, ভূমিকা ছাড়াই -- তসলিমা নাসরিন

নাগরিক এর ছবি

নিয়ম সবার জন্য সমান হওয়া বান্ঞনীয়। এই লেখা সামু বলগেও দেখলাম।

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

নাগরিক নামের অতিথিকে ৩৫০ টি কমেন্ট (কমেন্ট ফ্লাডিং) এর কারনে আইপি সহ ব্যান করা হল।

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

নিঝুম এর ছবি

এই লেখাটা আমি মনে করি সব ব্লগে ব্লগেই ছড়িয়ে দেয়া প্রয়োজন । এইটা আমাদের প্রাণের দাবী । এখানে ডাবল ,ডুয়াল, কিংবা ৭২ ঘন্টার নিয়ম কানুন , এই সব পোস্টিং এর রুলস্‌ গুলো মডারেটররা একটু লিনিয়েন্টলি দেখবেন ।

এই আশা ।
--------------------------------------------------------
কারও শেষ হয় নির্বাসনের জীবন । কারও হয় না । আমি কিন্তু পুষে রাখি দুঃসহ দেশহীনতা । মাঝে মাঝে শুধু কষ্টের কথা গুলো জড়ো করে কাউকে শোনাই, ভূমিকা ছাড়াই -- তসলিমা নাসরিন

---------------------------------------------------------------------------
কারও শেষ হয় নির্বাসনের জীবন । কারও হয় না । আমি কিন্তু পুষে রাখি দুঃসহ দেশহীনতা । মাঝে মাঝে শুধু কষ্টের কথা গুলো জড়ো করে কাউকে শোনাই, ভূমিকা ছাড়াই -- তসলিমা নাসরিন

স্পর্শ এর ছবি

সহমত।
....................................................................................
ইচ্ছার আগুনে জ্বলছি...


ইচ্ছার আগুনে জ্বলছি...

রণদীপম বসু এর ছবি

চলুক

-------------------------------------------
‘চিন্তারাজিকে লুকিয়ে রাখার মধ্যে কোন মাহাত্ম্য নেই।’

শান্ত [অতিথি] এর ছবি

আমার এক কথা বিচার, শাস্তি। সরকারকে বাধ্য করতে হবে বিচারের জন্য।

ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

সহমত

বিপ্রতীপ এর ছবি

সহমত...
কিন্তু আজ সংবাদ সম্মেলনে যুদ্ধাপরাধী বিচারের ব্যাপারে শেখ হাসিনা স্পষ্ট কিছু নাকি বলেননি...দেখা যাক কি হয়... এবার না হলে আর হবে না। লীগ যদি ভাবে ৫ বছর পর আবার এইটাকে ইস্যু করে নির্বাচন জিতবে তাইলে বিরাট বোকামি করবে।

কল্যাণ এর ছবি

মন খারাপ

______________
আমার নামের মধ্যে ১৩

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।