ছড়ামালা ২: হারান হারায়া গেলো ক্যাম্নে?

মূলত পাঠক এর ছবি
লিখেছেন মূলত পাঠক (তারিখ: বিষ্যুদ, ০৯/০৪/২০০৯ - ২:১৮পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:


হারানদা সুখে ছিলো স্বদেশের মাটিতে
দেশ ছাড়লেন কোন্ মামদোর চাঁটিতে
গল্প শোনাবো তার আজকের সভাতে,
সার দিয়ে ব'সে যাও, হ্যাংলা ও হাভাতে।


বালক বয়স ছিলো, সবার কনিষ্ঠ,
সকলেই গুরুজন, সকলেই জ্যেষ্ঠ।
তরুণ অরুণ আলো মুখে মেখে দাঁড়ালেই
এটা চাই ওটা চাই, ব'লে হাত বাড়ালেই
সার বেঁধে চলে আসে উপহার গুচ্ছ,
শিশুর হাসির কাছে সব কিছু তুচ্ছ!


যা চায় তা পেয়ে যায...


হারানদা সুখে ছিলো স্বদেশের মাটিতে
দেশ ছাড়লেন কোন্ মামদোর চাঁটিতে
গল্প শোনাবো তার আজকের সভাতে,
সার দিয়ে ব'সে যাও, হ্যাংলা ও হাভাতে।


বালক বয়স ছিলো, সবার কনিষ্ঠ,
সকলেই গুরুজন, সকলেই জ্যেষ্ঠ।
তরুণ অরুণ আলো মুখে মেখে দাঁড়ালেই
এটা চাই ওটা চাই, ব'লে হাত বাড়ালেই
সার বেঁধে চলে আসে উপহার গুচ্ছ,
শিশুর হাসির কাছে সব কিছু তুচ্ছ!


যা চায় তা পেয়ে যায়, সন্দেশ চকলেট,
ব্যাটবল সাইকেল রঙপেনসিল সেট,
আবদার না করলে যদি কেউ ব্যথা পায়,
সেই ভে'বে যোগ করে চাহিদার তালিকায়
ক্যারম খেলার বোর্ড, গোয়েন্দা গল্প,
ভালোবেসে যে যা দেয়, অধিক বা অল্প।


ক্যালেন্ডারের পাতা উলটিয়ে যায় দিন,
মাস যায়, বৎসর, রাম এক দুই তিন।
গোকুলে কেষ্টা বাড়ে, দাদা বাড়ে বাড়িতে,
প্রমাণ তাহার মেলে গোঁফে আর দাড়িতে।
সে দিনের ছোটো খোকা আর তো সে খোকা নাই,
ছোটো ছোটো ভাই বোনে ডাকে তারে 'দাদাভাই'।


সে তো তাও ভালো ছিলো, কিন্তু যা আবদার!
জগতের যা যা ভালো, সব না কি দরকার!
নচ্ছার খচ্চর বিচ্ছু ও বজ্জাত,
চড় মেরে ফেলে দেবো ব্যাটাদের সব দাঁত!
দাঁতে দাঁত চেপে ভাবে, কবে এরা বাড়বে,
অন্যায় চাহিদার অভ্যেস ছাড়বে।


বাঁদরেরা বড়ো হয়, দাদার ভোগান্তি
শেষ হয় অবশেষে, আহা সে কী শান্তি!
হাত পা ছড়িয়ে বসে, সিগারেট ধরিয়ে
সুখটানে এইভাবে দিন যাবে গড়িয়ে
এমনটা আশা ছিলো, হতোস্মি হায় রে,
হারানে আরামে রাখা বিধাতার দায় রে!


এসে যায় হনুমান নতুন প্রজন্ম
ভাতিজা ভাগ্নে আদি নিতে থাকে জন্ম।
কেউ ডাকে চাচামিয়া, মামু কেউ ডাকে রে,
দাদার সুখের দিন সে কি আর থাকে রে!
শিশুর ফোকলা হাসি, বদামির কারবার,
হাজার বায়না করে, একই সুরে, বারবার-
(এইখানে ৩নং অংশটা আবার পড়তে পারেন)


দুখের কাহিনী ভায়া, কতো বা শোনাবো আর
বুড়া বুড়া নামে ডাকে, তার সাথে আবদার।
অবশেষে এ পরাণ থাকিতে না পারিয়া,
'ত্রাহি হে মধুসূদন' ব'লে ডাক ছাড়িয়া
কম্বল লোটা ল'য়ে পাড়ি দেয় বিদেশে
মার্কিন মুলুকেতে পৌছায় সিধে সে।


মিটে গেছে বায়নার ঝঞ্ঝাট ঝক্কি,
এইখানে ছেলেপিলে সব খুব লক্ষ্মী।
এইখানে ছেলেপিলে কোল ঘেঁসে রয় না,
ফার্স্ট নেমে ডাকে তারে, চাচামিয়া কয় না।
'হারান' হারিয়ে গেছে, আজকাল 'হ্যারি' সে
ঘুরে ঘুরে বেড়াচ্ছে লন্ডন প্যারিসে।


মন্তব্য

স্নিগ্ধা এর ছবি

নচ্ছার খচ্চর বিচ্ছু ও বজ্জাত,
চড় মেরে ফেলে দেবো ব্যাটাদের সব দাঁত!

বাহ্‌, হারান তো মেজাজে দেখি একদম আমার ভায়রাভাই! দেঁতো হাসি

আঁকা আর ছড়া, দুটোই ............ চোখ টিপি

মূলত পাঠক এর ছবি

সর্বনাশ, আপনি এই রকম বিপজ্জনক নাকি? আপনাকে রাগালে দাঁত খোয়ানোর সম্ভাবনা আছে বলছেন? তাহলে তো সামলে-সুমলে চলতে হবে!

থাংকু হাসি

খেকশিয়াল এর ছবি

হাহা জটিল দাদা!

------------------------------
'এই ঘুম চেয়েছিলে বুঝি ?'

-----------------------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

মূলত পাঠক এর ছবি

হা হা ভাল্লাগছে নি? গুড গুড, থাংকু দাদা হাসি

রানা মেহের এর ছবি

আত্মজীবনী? চোখ টিপি
-----------------------------------
আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস

-----------------------------------
আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস

মূলত পাঠক এর ছবি

হা হা, নাঃ আমার নাম তো হারান না!

আলাভোলা এর ছবি

জীবন থেকে নেয়া ? হাসি

মূলত পাঠক এর ছবি

তা তো বটেই, তবে কিনা সেইটা আমার জীবন না। ঐ যে বোল্লাম, আমার নাম হারান না। হাসি

জুলফিকার কবিরাজ [অতিথি] এর ছবি

ভাই/ভাবী
তুমি কি সুকুমার রায়ের প্রপৌত্র/প্রপৌত্রী?
ছড়া বড্ড ভাল লাগিল।
অধিক দিন সচল থাক।

মূলত পাঠক এর ছবি

আমার একখানি খোমাছবি লটকানো আছে তো, জেন্ডার-কনফ্যুশন কেন! ছবিটা যে একটু ঘাঁটামতো যদিও। মূলত পাঠক নেহাৎই পাঠক, পাঠিকা-টাঠিকা নয়। হাসি

নাঃ, আমি সুকুমার রায়ের (লেখার) ভক্তের অধিক কিছু নই। তবে ছড়া যে এমন ভালো লেগেছে যে তাঁর কথা মনে এসেছে, এতে আমি যারপরনাই সম্মানিত ও আহ্লাদিত বোধ করছি। বিশেষতঃ কবিতার প্রশংসা যদি আসে কবিরাজের কাছ থেকে। হাসি

আকতার আহমেদ এর ছবি

ছড়া অতীব কড়া হইসে। থামায়া দিয়েন্না আবার.. নিয়মিত লেইখেন

মূলত পাঠক এর ছবি

না থামামু না, ঘুম পাইলেই য্যামন ঘুমাই ত্যামন ছড়া পাইলেই লিখ্যা ফালামু। আপনার ভাল্লাগছে জাইন্যা ভালা পাইলাম। হাসি

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি

হ্যারি হওয়ার আগেই তো হারান মিয়া ভালো ছিল। দেঁতো হাসি
আমগো হারান মিয়া হ্যারি হলো, কিন্তু আমরা আকিকার দাওয়াত পেলাম না। দাওয়াত না পেয়ে গভীর দুঃখ পেলাম। চোখ টিপি

মূলত পাঠক এর ছবি

বলতে গেসিলাম হ্যারে আপনের দুঃখের কথা, পাত্তা দিলো না বিশেষ। তা হ্যায় নিজের ভাইভাতিজাদেরই খেদায় দিসে, আমাগো কথা কি আর শুনবো? হাসি

কীর্তিনাশা এর ছবি

আরি শাবাশ !!

পুরা সেইরম ছড়া!! চলুক

পাঠক ভায়া থামাবেন না। চলতে থাকুক ছড়ার গাড়ি হাসি

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

মূলত পাঠক এর ছবি

নিশ্চই নিশ্চই, আপ্নাদের ভাল্লাগ্লে থামার প্রশ্নই ওঠে না।

লীনা ফেরদৌস এর ছবি

Lina Fardows

ছড়াটিতে ভেসে ঊঠে জমজমাট নাটক
বুঝলাম আপনি আসলেও- মূলত পাঠক ।

Lina Fardows

মূলত পাঠক এর ছবি

বাঃ বাঃ খাসা খাসা,
জবাবের নাই ভাষা। হাসি

মুশফিকা মুমু এর ছবি

হাহাহাহাহা মজার তো, সবচেয়ে মজা পেলাম শেষের প্যারাতে খাইছে

------------------------------
পুষ্পবনে পুষ্প নাহি আছে অন্তরে ‍‍

মূলত পাঠক এর ছবি

হুম হুম, বুঝলাম রহস্যটা, আপনি আসলে মনে মনে বিদেশি তাই লাস্ট প্যারাতে বিদেশের গল্প ভাল্লাগে বেশি।

হুম হুম।

মুশফিকা মুমু এর ছবি

হাহাহাহা আরেহ না না, আমি বাইরে বাইরে বিদেশি, ভিতরে ভিতরে অবিদেশি

------------------------------
পুষ্পবনে পুষ্প নাহি আছে অন্তরে ‍‍

মূলত পাঠক এর ছবি

তাইলে চিন্তা নাই হাসি

শাহেনশাহ সিমন [অতিথি] এর ছবি

খাসা চলুক

মূলত পাঠক এর ছবি

থাংকু হাসি

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

না-হারান ভাই, ছড়াটা খুবই চমৎকার লাগল হাসি

আপনার এত্তো প্রতিভা যে, কোন ক্ষেত্রে আপনি বেশি দক্ষ, তা এখনো বুঝে উঠতে পারলাম না। আপনার নাম 'মূলত লেখক' করার জোর দাবি জানালাম দেঁতো হাসি

চালিয়ে যান...

মূলত পাঠক এর ছবি

থাংকু দাদা, এই রকম ঢালাও সাট্টিফিকেট পেলে চলবে তো বটেই, দৌড়োবে একেবারে ! হাসি

আপনারা যে নিয়মিত পড়ছেন তাতে খুবই আনন্দ পাচ্ছি।

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

হুম... মডুদেরকে বলতে হবে আপনারে যাতে ব্যাণ করে দেয়... চোখ টিপি
এত প্রতিভাওয়ালা লোকজনরে আমি আবার ঠিক সহ্য করতে পারি না...
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

মূলত পাঠক এর ছবি

আমারে ব্যান করলে আপনেরই লোসকান, মাগনায় ভাড়া করা মাস্তান পাইবেন কই আর?

রায়হান আবীর এর ছবি

দারুন ... চলুক

মূলত পাঠক এর ছবি

ধন্যবাদ আপনাকে হাসি

তুলিরেখা এর ছবি

খুব ভালো লাগলো পাঠক মহাশয়। ঘন ঘন লিখুন।

হারান তো হারায় নাই, ব্লগে গেছে পড়িয়া
ভাগিনাভাগিনীরা বসিবে মাথায় চড়িয়া।
হাসি

-----------------------------------------------
কোন দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

মূলত পাঠক এর ছবি

ধন্যবাদ, নিশ্চয়ই লিখবো।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।