রুশদের সঙ্গে মদ খাবার সময় করণীয়: বিদেশীদের জন্য নির্দেশিকা

সংসারে এক সন্ন্যাসী এর ছবি
লিখেছেন সংসারে এক সন্ন্যাসী (তারিখ: বুধ, ১৪/১১/২০০৭ - ১১:০১পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

আমার গত পোস্টের মতামতগুলো পড়ে নিশ্চিত হয়েছি, সচলায়তনে পানরসিক লেখক-পাঠক আছেন। ভোদকা পানের রুশ পদ্ধতিটি জানতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন তাঁদের অনেকেই। অতএব জনসাধারণের বিশেষ অনুরোধে... হাসি

নিম্নোক্ত পদ্ধতিটি কতোটা স্বাস্থ্যবান্ধব ও বিজ্ঞানসম্মত, তা বিচারের দায়িত্ব আমি নিতে চাই না। তবে নিশ্চিতভাবে বলতে পারি, পদ্ধতিটি কার্যকর। এই সিদ্ধান্তে এসেছি স্বেচ্ছায় বহুবার গিনিপিগ হবার পর।

লেখাটির বাকি অংশটুকু ঠিক অনুবাদ নয়। তাতে প্রাণভরে আপন মনের মাধুরী মেশাতে দ্বিধা করিনি আমি। প্রয়োজনে-অপ্রয়োজনে নিজের মতামত জাহির করেছি। ভাবখানা এমন, যেন মহা এক বিশেষজ্ঞ এই লাইনে! হে পাঠক, নিজগুণে পরদোষ ক্ষমা করবেন।

_____________

রুশদের সঙ্গে মদ খাবার সময় করণীয়: বিদেশীদের জন্য নির্দেশিকা

অধিকাংশ রুশের ধারণা, বিদেশীরা মদ খেতে পারে না। কিংবা খেতে জানে না। রুশরা নিরেট ভোদকা একবারে ঢেলে দেয় গলায়। আর বিদেশীরা ভোদকা মেশায় অন্য কোনও পানীয়ের সঙ্গে, তারপর খায় চুকচুক করে। বিদেশীরা অবাক হয়, আকণ্ঠ ভোদকা গিলেও কী করে দিব্যি বেঁচে-বর্তে থাকে রুশরা? কারণ তারা (সকলেই নয় অবশ্য। অ্যালকোহলিকদের কথা আলাদা। ) কিছু নিয়ম পালন করে থাকে। মদ খাবার রিচুয়াল, বলা চলে। রুশদের সঙ্গে মদ খেতে বসলে বা ভোদকার এফেক্ট মিনিমাইজ করতে হলে সেসব জানা প্রয়োজন। এই পদ্ধতি মেনে চললে নিজের ওপর নিয়ন্ত্রণ পুরোপুরি হারানোর সম্ভাবনা অনেকখানি কমে আসবে।


ভোদকা-পূর্ববর্তী সময়ে:

ভোদকা খাবার আধাঘণ্টা থেকে একঘণ্টা আগে খেয়ে নিন গোটা দুয়েক সেদ্ধ আলু অথবা দুটো কাঁচা ডিম অথবা দু'চামচ ভেষজ তেল বা সমপরিমাণ মাখন।


ভোদকা খাবার সময়:

. চুক চুক করে না খেয়ে ঢক করে খেয়ে ফেলুন।

. ভোদকা গলায় চালান করে দেয়ার অব্যবহিত পরে জুস বা অন্য পানীয় খাবেন না। আর সোডা ওয়াটার বা গ্যাসমিশ্রিত কোনও পানীয় তো একবারেই হারাম! ভাবছেন, ভোদকা খাবার পর পানীয় মুখে দেবো না, তা কী করে হয়? বলছি।

. টেবিল-উপচানো খাবার নিয়ে ভোদকা খেতে বসে রুশরা এবং ভোদকা গিলে ফেলেই হাত বাড়িয়ে দেয় খাদ্যের দিকে। ভোদকা-পরবর্তী খাদ্যকে তারা বলে ZAKUSKA (খুব সম্ভব, একদা মস্কোবাসী শ্রদ্ধেয় হায়াৎ মামুদ এই শব্দটির অনুবাদ করেছিলেন 'অনুপান')। আপনিও পানীয় পান করার দুর্দম্য বাসনা ত্যাগ করে ZAKUSKA মুখে দিন। কোন ধরনের খাবার এ-ক্ষেত্রে উপযুক্ত? সাধারণত টক বা নোনতা খাবার। তবে যতো সুস্বাদুই হোক, চানাচুর বা চিপসের ZAKUSKA হবার কোনও যোগ্যতা নেই। রুশরা খায় PICKLED শশা-টমেটো-বাধাকপি, স-ক্যাভিয়ার বা ক্যাভিয়ারহীন পুরু করে মাখন মাখানো রুটি (ব্রাউন ব্রেড হলে ভালো হয়), নোনতা হেরিং মাছ - ঠাণ্ডা সেদ্ধ আলু অথবা স-মেয়নেজ কোরানো সেদ্ধ বীট সহযোগে, CANNED SPRAT অথবা সারডাইন মাছ, সসেজ, স্যালামি, স্মোকড মাংস, পনির ইত্যাদি। এসবে রুচি না হলে 'অলিভিয়ে' নামের একটি অতি উপাদেয় সালাদ (ভোদকার টেবিলে প্রায় অনিবার্য একটি পদ) দিয়ে কাজ চালানো যেতে পারে। উপরোক্ত উপকরণগুলো সহজলভ্য না হলে সেদ্ধ আলু, স-মেয়নেজ সেদ্ধ ডিম, কষানো মাংস, টাটকা টমেটো, শশা দিয়ে ZAKUSKA-র কাজ চালানো সম্ভব। অতি সামান্য পরিমাণে ভাত চলতে পারে, তবে বাঙালিরা অল্প ভাত খেয়ে অভ্যস্ত নয় হেতু সে-পথে না যাওয়াই শ্রেয় হবে। কারণ পেট ভর্তি ভাত আর ভোদকার সহাবস্থান প্রকৃতিবিরোধী এবং তা আপনার অস্বস্তির উদ্রেগ করবে।

. একেক পেগ যেন ২০-২৫ মিলিলিটারের বেশি না হয়, যাতে এক ঢোকে গেলা যায়। এবং প্রতি পেগের পর ZAKUSKA সেবন কম্পালসারি। তবে পেট ভর্তি করে ZAKUSKA খেলে ভোদকা খাওয়ার আনন্দ ওখানেই শেষ।

. ভোদকা দিয়ে শুরু করেছেন, ভোদকা দিয়েই শেষ করুন। ওয়াইন, বীয়ার, কনিয়াক টেবিলে থাকলেও সেদিকে প্রলুব্ধ হবেন না।

. রুশরা পানপাত্র তুলে ধরে টোস্ট বলে একসঙ্গে পান করে অভ্যস্ত। প্রথম তিন পেগ সবার সঙ্গে পান করে পরের দু'-একবার 'গ্যাপ' দিতে পারেন। 'দুর্বল বিদেশী' হিসেবে ওই কনসেশনটুকু আপনি পাবেন। এই বিরতির সময়টুকুতে শক্তি সঞ্চয় করে আবার যোগ দিন পানোৎসবে।

. নাচের ব্যবস্থা থাকলে মদ খাবার ফাঁকে ফাঁকে লজ্জা-শরম ঝেড়ে ফেলে শরীর ঝাঁকাঝাঁকি করে আসুন একটু। ভোদকার প্রতিক্রিয়া কিছুটা হ্রাস পাবে।

. টেবিলে ভোদকা ঢালাঢালির কাজটি বরাবর একজনই করে। তাই উদ্যোগ নিয়ে নিজেকে বা অন্য কাউকে ঢালার কাজটি না করাই উচিত হবে। অনেক রুশের ভিত্তিহীন বদ্ধমূল ধারণা: বদলি 'ঢালক'-এর ঢালা মদ শরীরে খারাপ প্রতিক্রিয়া ফেলতে পারে।

. ZAKUSKA শেষ হবার আগেই সার্ভ করা হয় মেইন কোর্স। খুব ইচ্ছে না করলেও অল্প অল্প করে খেতে থাকুন। ভোদকার সঙ্গে সলিড খাবার অপরিহার্য।

১০. অনুষ্ঠানের শেষে প্যাস্ট্রি বা স-ক্রীম কেক সহযোগে চা-কফি দিয়ে আপ্যায়ন করা হয়ে থাকে। ভোদকার পরে মিষ্টান্ন যথাসম্ভব কম খাওয়া বা না খাওয়াই শ্রেয় হবে। চা-কফি খাওয়া যেতে পারে চিনিহীন।


হ্যাংওভারে (ঝুলনমায়ায়) করণীয়:

ফ্রিজে আগে থেকেই অন্তত আধা লিটার বীয়ার রেখে দিন। গভীর রাতে ভয়াবহ তেষ্টায় ঘুম ভেঙে যেতে পারে। উঠে বীয়ারটা সাবাড় করে ফেলে আবার ঘুমোতে যান। এতেই মোটামুটি কাজ হবার কথা। না হলে এক মুঠো গুড়, এক চিমটি লবণ...। না, হাসির কথা নয়, ডিহাইড্রেশনে ওরস্যালাইন কাজ দিতেই পারে! গুড়, ওরস্যালাইন হাতের কাছে না থাকলে তেষ্টা পেলেই চিনি-লবণ মিশ্রিত পানি খেতে থাকুন।


বিশেষ দ্রষ্টব্য: লেখা শেষ করে বুঝলাম, মূল রুশ লেখাটির প্রতি অনুগত থাকতে পারিনি একেবারেই। এখন বলা যেতে পারে, "একটি রুশ কাহিনীর ছায়া অবলম্বনে রচিত"। দেঁতো হাসি


মন্তব্য

ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

'আমার এই দুর্দশার জন্য সংসারের এক সন্ন্যাসী দায়ী'

-- লিখে রেখে গেলাম, হু! বুড়া বয়সে মায়ের ঠ্যাঙানি খেতে হলে কিন্তু সব দোষ আপনার! চোখ টিপি

বিপ্লব রহমান এর ছবি

হুমম। ...এখন রুশ, ভদকা আর অনুপান পাবো কোথায়? চোখ টিপি


আমাদের চিন্তাই আমাদের আগামী: গৌতম বুদ্ধ


একটা ঘাড় ভাঙা ঘোড়া, উঠে দাঁড়ালো
একটা পাখ ভাঙা পাখি, উড়াল দিলো...

সংসারে এক সন্ন্যাসী এর ছবি

রুশ পেতেই হবে, এমন কোনও কথা তো নেই। বিকল্প ও সহজলভ্য অনুপান কী কী হতে পারে, তার লিস্টিও দিয়েছি। তবে ভোদকা কোথায় পাবেন, এটা তো, ভাই, কইতাম পারতাম না মন খারাপ

দেশে এখন মদ-বিরোধী অভিযান চলছে বটে, তবে জলপাইদের অনেকেই যে বরাবরের মতোই নিয়মিত পাগলা পানি সেবন করে চলেছে, তাতে আমার বিন্দুমাত্র সন্দেহ নেই।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
টাকা দিয়ে যা কেনা যায় না, তার পেছনেই সবচেয়ে বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয় কেনু, কেনু, কেনু? চিন্তিত

সংসারে এক সন্ন্যাসী এর ছবি

খাইছে! জনহিতকর কাজ করতে গিয়া ধরা খাইলাম, মনে হইতাছে... হাসি

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
টাকা দিয়ে যা কেনা যায় না, তার পেছনেই সবচেয়ে বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয় কেনু, কেনু, কেনু? চিন্তিত

সংসারে এক সন্ন্যাসী এর ছবি

আমার লেখাটা আপনার কাছে 'টীজিং'মনে হয়ে থাকলে সত্যিই আন্তরিকভাবে দুঃখিত।

রাষ্ট্রযন্ত্র এখন কাজের কাজ কিছু না করে অকাজে সময় আর শ্রমের অপচয় করছে।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
টাকা দিয়ে যা কেনা যায় না, তার পেছনেই সবচেয়ে বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয় কেনু, কেনু, কেনু? চিন্তিত

মাহবুব লীলেন এর ছবি

সংসার আর সন্যাস একসঙ্গে হলে যে কী ভয়াবহ অবস্থা দাঁড়ায় তার প্রমাণ আপনি স্বয়ং
এই বাংলাদেশে মদের টাকা জোগাড় করা যায় তো মদ জোগাড় করা যায় না
তার উপরে আপনি আবার এক ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের বিজ্ঞাপন করে বসলেন
ইহার পরে ইহা খাইতে হইবে....

বাংলাদেশের ভোদকা জরিনা এখন নাকি রাশিয়াতেও যায়
এই জরিনা একপেগ গলায় ঢেলে শুধু লবণ দিয়ে ছোলা সেদ্ধ করা গরম ছোলা..
আর প্রতি তিন পেগের পরে কড়া জর্দা দিয়ে পান
নো সিগারেট
নো পানি- নো কোক-টোক

(ভোদকার এই রেসিপিটা গরিব দেশের মানুষ দ্বারা আবিষ্কৃত। কিন্তু খোদ রাশিয়াতেও রপ্তানিযোগ্য)

সংসারে এক সন্ন্যাসী এর ছবি

সংসার আর সন্যাস একসঙ্গে হলে যে কী ভয়াবহ অবস্থা দাঁড়ায় তার প্রমাণ আপনি স্বয়ং

দেঁতো হাসি

জরিনার কথা কিন্তু আগে কখনও শুনিনি। চেখে দেখার শখ হচ্ছে। কিন্তু এ দেশে সজর্দা পান পাবো কোথায়?

পানের কথা বলতে মনে পড়লো। দেশে নেমন্তন্নের খাওয়া শেষে প্রায়ই প্রস্তাব আসে, "ভাই, পান খাবেন?" আমার বলতে ইচ্ছে করে, "আমি তো, ভাই, পান খাই না, পান করি।"

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
টাকা দিয়ে যা কেনা যায় না, তার পেছনেই সবচেয়ে বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয় কেনু, কেনু, কেনু? চিন্তিত

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

এই তরিকাতো যেকোন পানীয়ের ক্ষেত্রে খাটবে বলে মনে হয় না!!
====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

সংসারে এক সন্ন্যাসী এর ছবি

ঠিক ধরেছেন। এটা ভোদকা পানের তরিকা।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
টাকা দিয়ে যা কেনা যায় না, তার পেছনেই সবচেয়ে বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয় কেনু, কেনু, কেনু? চিন্তিত

হাসান মোরশেদ এর ছবি

সর্বনাশ ।
আমার পানপর্ব তো আপনারে উৎসর্গ করতে হয়
-----------------------------------------
'প্রিয়তম পাতাগুলো ঝরে যাবে মনে ও রাখবেনা
আমি কে ছিলাম,কি ছিলাম--কেন আমি
সংসারী না হয়ে খুব রাগ করে হয়েছি সন্ন্যাসী
হয়েছি হিরন দাহ,হয়েছি বিজন ব্যথা,হয়েছি আগুন'

-------------------------------------
জীবনযাপনে আজ যতো ক্লান্তি থাক,
বেঁচে থাকা শ্লাঘনীয় তবু ।।

সংসারে এক সন্ন্যাসী এর ছবি

আপনার পানপর্বের আমি মুগ্ধ পাঠক। এ প্রসঙ্গে বলে রাখি, কিছু টোস্ট অনুবাদ করার পরিকল্পনা আমার আছে। এ দেশে এবং বিশেষ করে ককেশিয়ান অঞ্চলে প্রচলিত অসাধারণ কিছু টোস্ট রেখেছি আমার সংগ্রহে।

অতএব আমার টোস্ট চলবে আপনার পান-এর আগে দেঁতো হাসি

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
টাকা দিয়ে যা কেনা যায় না, তার পেছনেই সবচেয়ে বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয় কেনু, কেনু, কেনু? চিন্তিত

হিমু এর ছবি

গুট! ভোদকার আবহাওয়া আসিতেছে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জসহ সারা কাসেলে।

কোন রুশ তরুণীর সাথে খাতির জমাতে হবে। "আমি তোমার কাছে ভোদকা খাওয়া শিখতে চাই" বলে একটা চেষ্টা করে দেখা যেতে পারে। পরে ভোদকার পাশাপাশি অন্যান্য গুরুপাচ্য পানীয় (যেমন অধররস) পান করার সুমহান প্রচেষ্টাও চলতে পারে, সেটা এই প্রবন্ধবিরোধী হলেও।

শীত পড়লে ভালো দেখে এক বোতল বগলে নিয়ে হাঁটতে হাঁটতে চলে আসেন এদিকে।


হাঁটুপানির জলদস্যু

সুমন চৌধুরী এর ছবি

দেঁতো হাসি



ঋণম্ কৃত্বাহ ঘৃতম্ পীবেৎ যাবৎ জীবেৎ সুখম্ জীবেৎ

সংসারে এক সন্ন্যাসী এর ছবি

পরে ভোদকার পাশাপাশি অন্যান্য গুরুপাচ্য পানীয় (যেমন অধররস) পান করার সুমহান প্রচেষ্টাও চলতে পারে, সেটা এই প্রবন্ধবিরোধী হলেও।

ভোদকা পানের নির্দেশিকা বাতলে দিয়েছি। অন্যান্য পানীয় (যেমন গুরুপাচ্য অধররস) পানের পদ্ধতি 'কামসূত্রে' পেতে পারেন দেঁতো হাসি

শীত পড়লে ভালো দেখে এক বোতল বগলে নিয়ে হাঁটতে হাঁটতে চলে আসেন এদিকে।

বোতল বগলে নিয়ে আপনার ওদিকে যাবার দ্বিতীয় আহ্বান পেলাম আপনার কাছ থেকে। ধন্যবাদ অতি অবশ্য। কিন্তু মশাই, আপনার দেশে তো গেছি বহুবার, তবে আপনি নিশ্চয়ই এদিকে আসেননি। তো সময় বুঝে চলে আসুন এদিক পানে। বগলে কিছুই নিয়ে আসতে হবে না। 'প্রবন্ধটির'(নাম দিলেনও একখান!) প্র্যাকটিক্যাল ক্লাস এখানে সেরে ফেলবেন।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
টাকা দিয়ে যা কেনা যায় না, তার পেছনেই সবচেয়ে বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয় কেনু, কেনু, কেনু? চিন্তিত

হিমু এর ছবি

অতি উত্তম প্রস্তাব। আপনার এই উদার আহ্বানে একটা বাস্তব সাড়া দেয়া যায় কি না তা নিয়ে আসছে গ্রীষ্মে গুরুতর চিন্তাভাবনা করবো।

কিন্তু আমি আপনাকে উত্তমের ওপরে আরো একধাপোত্তম প্রস্তাব দিতে চাই, যার মূল আপনার কথার ভেতরেই প্রোথিত ... আর বিলম্ব নয়, এখনই শুরু করে দিন আপনার নিয়মিত সিরিজ, "পানসূত্র"!

পানসূত্রে থাকবে বিভিন্ন পান বিষয়ক ব্যকরণ ও ন্যায়শাস্ত্র। পানের বিভিন্ন কারকাদি আরক সহযোগে এখানে বিস্তারিত করা হবে। প্রয়োজনে সূক্ষ্মাতিসূক্ষ্ম নুয়্যান্স যোগ করতে পারেন। পোলিশ ভোদকার সাথে ইউক্রেনের ভোদকার গুণগত পার্থক্য বা পার্থক্যগত গুণ নিয়ে কিছু আলোচনা হয়ে যেতে পারে (উদাহরণ)।

কী বলেন?


হাঁটুপানির জলদস্যু

তীরন্দাজ এর ছবি

ভদকা ভাল লাগেনা। বাভারিয়ান বিয়ারই ভাল লাগে বেশী।

**********************************
যাহা বলিব সত্য বলিব

**********************************
যাহা বলিব, সত্য বলিব

হিমু এর ছবি
তীরন্দাজ এর ছবি

তবে আপনার টিপগুলো ভাল এ কাজের, এটা স্বীকার করতে বাধ্য।

**********************************
যাহা বলিব সত্য বলিব

**********************************
যাহা বলিব, সত্য বলিব

সংসারে এক সন্ন্যাসী এর ছবি

ধন্যবাদ রইলো স্বীকৃতির জন্য।

আমি সব ধরনের পানীয়তেই অভ্যস্ত। তবে বীয়ারপ্রীতি আমার সবচেয়ে প্রবল। বাভারিয়া তো বীয়ারের রাজধানী আর প্রতি বছর সেখানে বীয়ার উৎসব (যদি লিখতাম 'বিয়ার উৎসব', বিবাহোৎসব বলে ভুল বোঝার সুযোগ থাকতো) হয় বলেই জানি। আর চেক বীয়ারও কিন্তু অসাধারণ। পরীক্ষা প্রার্থনীয়।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
টাকা দিয়ে যা কেনা যায় না, তার পেছনেই সবচেয়ে বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয় কেনু, কেনু, কেনু? চিন্তিত

সংসারে এক সন্ন্যাসী এর ছবি

ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে বলি।

বিনা নোটিশে হুটহাট মদ খাওয়া পড়লে যা অবশ্য করণীয়, তা হচ্ছে - খালি পেটে মদ না খাওয়া। আগে কিছু খেয়ে নিন (পেট ভর্তি করে নয়) অতি অবশ্য - আগেই যেমন লিখেছি - পনির, মাখন সহযোগে রুটি, চর্বিযুক্ত মাংস, সেদ্ধ আলু বা আলুর ম্যাশ, কাঁচা ডিম ইত্যাদি। এর অন্তত পনেরো মিনিট পর মদ খেতে শুরু করুন।

এর পরে মেনে চলুন ১,২,৪,৫,৭ এবং ১০ নাম্বার পয়েন্টগুলো। কাজ দেবে।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
টাকা দিয়ে যা কেনা যায় না, তার পেছনেই সবচেয়ে বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয় কেনু, কেনু, কেনু? চিন্তিত

সুমন চৌধুরী এর ছবি

নাজদারুভিয়ে!



ঋণম্ কৃত্বাহ ঘৃতম্ পীবেৎ যাবৎ জীবেৎ সুখম্ জীবেৎ

সংসারে এক সন্ন্যাসী এর ছবি

রুশ বালিকাদের সঙ্গে মিশে রুশ ভাষা রপ্ত করছেন। বুঝতে পারছি দেঁতো হাসি

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
টাকা দিয়ে যা কেনা যায় না, তার পেছনেই সবচেয়ে বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয় কেনু, কেনু, কেনু? চিন্তিত

সুমন চৌধুরী এর ছবি

নয়া সচলগণ ইহা পড়িল কি?



ঈশ্বরাসিদ্ধে:

সংসারে এক সন্ন্যাসী এর ছবি

‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍উহারা, ধারণা করি, মদ্যপান করে না হো হো হো

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
মৌমাছির জীবন কি মধুর? চিন্তিত

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
টাকা দিয়ে যা কেনা যায় না, তার পেছনেই সবচেয়ে বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয় কেনু, কেনু, কেনু? চিন্তিত

সুমন চৌধুরী এর ছবি


পোলাপান সব উচ্ছন্নে গেছে



ঈশ্বরাসিদ্ধে:

সংসারে এক সন্ন্যাসী এর ছবি

‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍ঠিকি কৈসেন। আমার সিরাতুল মুস্তাকিন পৈড়া বিপথ ছাইড়া সত্পথে আওনের মওকা কামে লাগাইলো না হো হো হো

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
মৌমাছির জীবন কি মধুর? চিন্তিত

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
টাকা দিয়ে যা কেনা যায় না, তার পেছনেই সবচেয়ে বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয় কেনু, কেনু, কেনু? চিন্তিত

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

যেহেতু নিজেকে গিনিপিগ বানিয়ে নিয়মগুলোর সত্যতা যাচাই করেছেন, তাহলে তো এগুলো নিঃসন্দেহে কাজের, মানতেই হবে। নিজেও কখনো পরখ করে দেখতে পারলে হয়তো আরো ভাল বুঝতাম, কিন্তু সব বিদ্যার তো আর ব্যবহারিক প্রয়োগ থাকে না, আর সবার সব বুঝেও কাজ নেই। চোখ টিপি
_______________
বোকা মানুষ মন খারাপ

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।