প্যারাডক্স নিয়ে বিভ্রান্তি

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: শুক্র, ৩০/০৭/২০১০ - ৮:১৮অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

প্যারাডক্স, এর শুদ্ধ বাংলা জানি না, তবে সোজা বাংলায় বলতে গেলে এর অর্থ হবে বিভ্রান্তি। বিভ্রান্তি আছে সব জায়গায়। প্রচলিত “ডিম আগে না মুরগি আগে” এর মত বিভ্রান্তি থেকে শুরু করে আছে “এলবার্ট প্যারাডক্স”, যা থেকে এসেছে ক্রমবর্ধমান বিশ্বের থিওরী, পতন হয়েছিল নিউটনের ক্ল্যাসিক মহাবিশ্বের ধারনা। যাই হোক শুরু করি, আমাদের সবার পরিচিত একটি প্যারাডক্স দিয়ে সেটা হল, ডিম আগে না মুরগি আগে। যদি ডিম আগে আসে তাহলে প্রশ্ন হল সেই ডিমটি কে পাড়ল, আর যদি মুরগি আসে তাহলে সে ডিমটি কোন মুরগি পাড়ল। খুবই জটিল বিভ্রান্তি, কয়জন সমাধান করতে পেরেছেন হাত তুলেন। কম্পু বিজ্ঞানের ছাত্র হওয়ার সুবাদে এই রকম ১টি বিভ্রান্তিতে আমিও পরেছিলাম, সেটি হল কম্পাইলার (যেটি দিয়ে অনান্য সফটয়্যার তৈরি করা হয়) আসলো কোথা থেকে। প্রত্যেকটি কম্পাইলারই ১টি প্রোগ্রাম, তার মানে সেই কম্পাইলারটিও অন্য কোন কম্পাইলার দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। তাহলে প্রথম কম্পাইলারটি আসলো কিভাবে। অবশেষে উইকিতে আমার এই জটিল সমস্যার সমাধান পেলাম।

টাইম ম্যাশিন কল্পবিজ্ঞানের অনেক বড় ১টি জায়গা দখল করে আছে। সেই টাইম ম্যাশিন নিয়েও আছে প্যারাডক্স। শুরুতে গ্র্যান্ডফাদার প্যারাডক্স। ধরুন, কোন একজন লোক টাইম ট্রাভেল করতে সক্ষম হলেন, চলে গেলেন অতীতে। সেখানে তিনি তার দাদাকে খুন করলেন তার বাবার জন্ম হবার আগেই। তার মানে, তার বাবা এবং তিনি নিজে জন্মগ্রহন করতে পারতেন না (আর অতীতে গিয়ে খুন করা তো দূরের ব্যাপার)। তার দাদা বেঁচে গেলেন, সেই লোকটিও জন্মগ্রহন করল এবং অতীতে গিয়ে তার দাদাকে খুন করলেন। প্যাঁচ লাগিয়ে ফেললাম । যদিও বিজ্ঞানীরা তার সমাধান দিয়েছেন। সেটা হল মাল্টিভার্স বা সমান্তরাল মহাবিশ্ব।

আরেকটি প্যারাডক্স, আমার খুব প্রিয়, সেটি হচ্ছে “প্রিডেস্টিনেশান প্যারাডক্স”। এর মুল কথা হচ্ছে, “নিয়তিকে কখনোই বদলানো যায় না” করিম সাহেব, জ্যোতষী টিয়া পাখির (পল অক্টোপাস নয় কিন্তু) মাধ্যমে জানতে পারলেন, হার্ট অ্যাটাকে তার মৃত্যু হবে। শুনে তিনি সিদ্ধান্ত নিলেন, ব্যয়াম করে অতিরিক্ত ওজন কমাবেন - হার্ট অ্যাটাকের ঝুকি কমানোর জন্য। বলা বাহুল্য, অতিরিক্ত ব্যয়ামের কারনে তিনি হার্ট অ্যাটাক করেন। ভবিষত্য জেনে যখন নিয়তি পরিবর্তন যখন করা গেল না, তাহলে চেস্টা করা যাক অতীতে গিয়ে নিয়তি পরিবর্তন করা যায় কিনা। করিম সাহেব এবার গেলেন শিকারে, সেখানে ভুল করে অন্য শিকারী তাকে শিকার ভেবে গুলি করে বসেন। গুলিবিদ্ধ করিম সাহেব মৃত্যু আসন্ন জেনে টাইম ট্র্যাভেল করে অতীতে ফিরে গেলেন। না, এবার তিনি ভুল করলেন না, নিজের মৃত্যু ঠেকাতে তিনি গুলি করলেন অন্য শিকারীকে। কিন্তু দেখা গেল যে সেই শিকারী হচ্ছেন অতীতের করিম সাহেব। এখানে শিকারী এবং গুলিবিদ্ধ দুজনই একই ব্যক্তি-করিম সাহেব, কিন্তু দুটি ভিন্ন সময়ের করিম সাহেব। এর ব্যাখ্যাও সমান্তরাল মহাবিশ্ব। এটি খুব জনপ্রিয় ১টি প্যারাডক্স; “অডিপাস” গ্রিক নাটক, “হ্যারি পটার” বই, “প্রিন্স অফ পারসিয়া” গেইম অথবা “ডনি ডার্কো”, “টার্মিনেটার” এর মত মুভিতে আছে প্রিডেস্টিনেশান প্যারাডক্স।

অনেক বড় বড় কথা বলে হাঁপিয়ে গেলাম। শেষ করি নিজের ১টি দোষ স্বীকার করে নেই, আমি মিথ্যা বলি। প্রশ্ন হচ্ছে, “আমি মিথ্যা বলি” কথাটি সত্যি না মিথ্যা?


মন্তব্য

নিয়াজ মোর্শেদ চৌধুরী এর ছবি

লেখাটা আগ্রহ ভরে পড়লাম। কিন্তু লেখকের যে নাম নেই? আশা করছি নামটা কমেন্টে দিয়ে যাবেন।

ভালো লাগলো।

রিয়াদ পারভেজ এর ছবি

দুঃখিত, নাম বলা হয়নি। মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ

রিয়াদ পারভেজ

তুলিরেখা এর ছবি

হায় হায় নাম দিলেও তো সেইটা সত্য নাম হইবে না! ইনি তো নিজেই কইলেন মিথ্যা কন!
হাসি

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

সাবিহ ওমর এর ছবি

লেখা ভাল লাগলো। ডিম আগে না মুরগি আগে, সেটা নিয়ে আমার একটা ক্লাসিক উপন্যাস ছিল, ক্লাস নাইনে থাকতে লেখা। অনেক দিন পর সেটার কথা মনে পড়ে গেল হাসি

হায় হায় নাম দিলেও তো সেইটা সত্য নাম হইবে না! ইনি তো নিজেই কইলেন মিথ্যা কন!

তার মানে "আমি মিথ্যা কথা বলি" এটাও মিথ্যা। তার মানে উনি সত্য কথা বলেন। তার মানে "আমি মিথ্যা বলি" এটাও সত্য। তার মানে উই আসলেই মিথ্যা কথা বলেন। তাহলে "আমি মিথ্যা বলি" এই কথাটাও মিথ্যা। তার মানে আসলে উনি সত্য বলেন। তার মানে উনি মিথ্যুক। তার মানে উনি সত্যুক। তার মানে উনি মিথ্যুক। তার মানে...(ক্রাশ)

অতিথি লেখক এর ছবি

ভাল লাগলো ভাই

অতিথি লেখক এর ছবি

প্যারাডক্স আসলেই একটা মজার বিষয়। আমার প্রিয় হেঁয়ালি বাট্রান্ড রাসেলের প্যারাডক্স। আবার ফার্মি প্যারাডক্সও বেশ ইন্টারেস্টিং। এই বিষয় নিয়ে পড়াশোনা থাকলে লিখে ফেলুন্না একটা সিরিজ, আগ্রহ নিয়ে পড়ব।
-----------------------------------------------------------------------------------------------------
চতুর্বর্গ

অতিথি লেখক  [অতিথি] এর ছবি

সাপ যদি তার লেজ ধরে খাওয়া শুরু করে তো কি হবে ?

লেখক তার নাম দেন নাই ঠিকই আছে।

আমিও একজন অতিথি লেখক ।তাহলে মুল লেখাটা আমার ,কিন্তু এই কমেন্টা কার ?

যাই হোক জটিল হয়েছে ,কিছুক্ষন আপনার লেখার জাদুতে বিভ্রান্তিতে পড়ে ।

বিপ্লব কুমার কর্মকার

সৈয়দ আফসার এর ছবি

প্যারাডক্স। এখানেই লুকালো বোধ করি।
আমি মিথ্যা বলি। প্রশ্ন হচ্ছে, “আমি মিথ্যা বলি” কথাটি সত্যি না মিথ্যা?
ভালো থাকুন।

_________♣♣♣_________
না-দেখা দৃশ্যের ভেতর সবই সুন্দর!

__________♣♣♣_________
না-দেখা দৃশ্যের ভেতর সবই সুন্দর!

পৃথিবী [অতিথি] এর ছবি

প্যারাডক্স, এর শুদ্ধ বাংলা জানি না, তবে সোজা বাংলায় বলতে গেলে এর অর্থ হবে বিভ্রান্তি।

বিভ্রান্তি না, "কূটাভাস" হবে। বিভ্রান্তি হল গিয়ে "confusion", আর কূটাভাস হল এমন কিছু যার অসত্য হওয়াটা যৌক্তিক হওয়া সত্ত্বেও তা সত্য।

বাউলিয়ানা এর ছবি

ইন্টারেষ্টিং।

আরও কিছু প্যারাডক্স নিয়ে লিখুন না।

অতিথি লেখক এর ছবি

আপনার লিখাই তো আমার কাছে প্যারাডক্স মনে হচ্ছে

আমার নিক : সাধারণ

কার এর ছবি

বিবর্তন বলে কিছু থাকলে ডিম আগে

অতিথি লেখক এর ছবি

অনেক ভাল লাগল।অনক কিছু শিখলাম।

অস্পৃশ্য যুবরাজ [অতিথি] এর ছবি

মানুষ নিজেই একটা প্যারাডক্স

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।