সেইসব লাল পিঁপড়া

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি
লিখেছেন অতন্দ্র প্রহরী (তারিখ: বিষ্যুদ, ১৩/০৮/২০১৫ - ১১:৩৫অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

কালো পিঁপড়া ভালো পিঁপড়া, লাল পিঁপড়া খারাপ। কারণ কালো পিঁপড়া কামড়ায় না, শান্তনিরীহ প্রকৃতির; আর লাল পিঁপড়া অনেক খারাপ, কামড়ায়, ব্যথা দেয়। কালো পিঁপড়া মুসলমান, লাল পিঁপড়া হিন্দু। কালো পিঁপড়া মারা যাবে না, মারতে হবে লাল পিঁপড়া।

ছোটবেলায় এরকম আপাতনিরীহ অনেক তুলনা দেখেছি। বড় হয়ে বুঝেছি এগুলো আসলে অল্পবয়সে ভেতরে মৌলবাদের বীজ বোনার স্বার্থান্বেষীদের এক ধরনের চেষ্টা। লাল পিঁপড়া পিষে মেরে ফেলা শিশুকিশোররা বেড়ে উঠবে হিন্দুদের প্রতি এক ধরনের বিরূপ মনোভাব নিয়ে, তাকাবে বিতৃষ্ণার সাথে। হিন্দুদের নির্যাতন করলে, তাদের জায়গাজমিবাড়িঘর দখল করে নিলে, মেরে দেশ থেকে তাড়িয়ে দিলে এইসব মনে হয়ত সবার আগে ভেসে উঠবে লাল রঙের বিষপিঁপড়ার কথা। সেই ব্যথা, লাল হয়ে ফুলে যাওয়া স্ফীত চামড়ার কথাই মনে পড়বে শুধু। সহানুভূতি জাগবে না, প্রতিবাদ করবে না কেউ। কারণ মুসলমানরাই কেবল ভালো, হিন্দুরা খারাপ।

যুগে যুগে এই "কালো পিঁপড়া" একদম অপরিবর্তিত থেকে যায়। অপরিবর্তিত থাকে "লাল পিঁপড়া"রাও। সময়ের সাথে শুধু নামটা বদলায়। এখন যেমন তাদের ডাকা হয় "ব্লগার" নামে!


মন্তব্য

নজমুল আলবাব এর ছবি

পরিমিত, লক্ষ্যভেদী। চলুক

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

ধন্যবাদ, বাউল ভাই। হাসি

রানা মেহের এর ছবি

আরো কিছু আছে রে। চল তালিকা করি।

১) ছোট থাকলে ভয় পেলে একটা ছড়া বলতাম

ভুত আমার পুত পেত্নী আমার ঝি
রাম লক্ষণ বুকে আছে ভয় আমার কী?

পরে বোন শিখিয়ে দিল রাম লক্ষণ হিন্দুরা বলে। আমরা বলবো,

ভুত আমার পুত পেত্নী আমার ঝি
আল্লাহ রসুল বুকে আছে ভয় আমার কী?

পরে আরো মনে হলো বলে যাবনে।

-----------------------------------
আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

এরকম একটা তালিকা হলে মন্দ হয় না আসলেই। অন্য কেউও যদি মনে করতে পারেন এরকম কিছু এবং মন্তব্যের ঘরে যোগ করে দেন তো বেশ হবে, রানা'পা।

আর জল/পানি, দাদা/ভাই - এসবের মাঝেও হিন্দু-মসুসলমান দেখে বড় হয়েছি আমরা। ভাবলেও অদ্ভুত লাগে! :-/

রানা মেহের এর ছবি

তুই আমার সাথে এত আদব লেহাজের সাথে কথা বললি দেখে আমি বাকরহিত হয়ে গেলাম!

-----------------------------------
আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

ময়মুরুব্বিদের সাথে আদবলেহাজতমিজের সাথে কথা বলতে হয়, ছোটবেলায় শিখসি! দেঁতো হাসি

এক লহমা এর ছবি

চলুক

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

হাসি

অতিথি লেখক এর ছবি

চলুক

দেবদ্যুতি

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

হাসি

মুস্তাফিজ এর ছবি

ব্লগার শব্দের অর্থটাই আসলে বদলে যাচ্ছে। কেউ কেউ বদলে দিতে চাচ্ছে আর আমরা তাতে নিয়মিত বাতাস দিয়ে যাচ্ছি।

...........................
Every Picture Tells a Story

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

ঠিক বলেছেন, মুস্তাফিজ ভাই।
আর কতদিন পর যে আপনার দেখা মিলল! খুবই ভালো লাগল মন্তব্যটা দেখে। ভালো আছেন আশা করি। হাসি

মুস্তাফিজ এর ছবি

ভালো আছি।
চেষ্টায় আছি নিয়মিত হতে। চোখ টিপি

...........................
Every Picture Tells a Story

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

হাহাহা। একই চেষ্টা তো আমারও। যাই হোক, আশা করা যায় এখন থেকে আপনার নিয়মিত দেখা পাওয়া যাবে। হাসি

Sohel Lehos এর ছবি

ভাই, মাথা কালো পাছা লাল ঢাউস সাইজের আরেক কিসিমের যে পিপড়া আছে তার কথাতো বললেন না। উনারা মোনাফেক পিঁপড়া নামে পরিচিত হাসি

সোহেল লেহস
----------------------------------------------
হে দূর্দান্ত ভাবনারা, হেয়ালি করো না। এসো এ বাহুডোরে।

শাব্দিক এর ছবি

ব্লগার শব্দের অর্থটাই আসলে বদলে যাচ্ছে। কেউ কেউ বদলে দিতে চাচ্ছে আর আমরা তাতে নিয়মিত বাতাস দিয়ে যাচ্ছি।

সহমত।

---------------------------------------------------------
ভাঙে কতক হারায় কতক যা আছে মোর দামী
এমনি করে একে একে সর্বস্বান্ত আমি।

সাক্ষী সত্যানন্দ এর ছবি

এতদিন পরে এই পিঁপড়া সাইজের লেখা? (বিন্দুতে সিন্ধু যদিও)

____________________________________
যাহারা তোমার বিষাইছে বায়ু, নিভাইছে তব আলো,
তুমি কি তাদের ক্ষমা করিয়াছ, তুমি কি বেসেছ ভালো?

শিশিরকণা এর ছবি

ছোটবেলায় আরও কত কিছু মাথায় ঢুকানো হয়েছে।
ভাত খাওয়ার সময় একটা ভাতও ফেলা যাবে না। প্রতিটা ফেলা ভাত নাকি কব্বরে সাপ হয়ে এসে কামড়াবে।
প্লেট হাত ধুয়ে সেই পানি খাইলে নাকি সর্বরোগ ভালো হয়।
টিকটিকি ডাকলে নাকি ঠিক তার আগে মূহুর্তে বলা কথা খাটি সত্য।

~!~ আমি তাকদুম তাকদুম বাজাই বাংলাদেশের ঢোল ~!~

শিশিরকণা এর ছবি

বাচ্চাদের নিয়ন্ত্রণ করতে অনেক অযথা ভয় মাথায় ঢুকানো হয়।
দুষ্টুমি করলে ছেলেধরা এসে ধরে নিয়ে যাবে।
জুজুবুড়ি এসে দুষ্টু বাচ্চাদের কচমচ করে খেয়ে ফেলবে।
এইসব আজাইরা ভয় দেখিয়ে বাচ্চাদের মানসিকতায় যথেষ্ট সমস্যা তৈরি করা হয়। এর চেয়ে ছেলেধরা বা যৌন নির্যাতন কারী নিয়ে সঠিক শিক্ষা দিলে কি হয়? সেটা বেশিরভাগ বাপ মা দেন না, কারণ তাহলে নিজেদের কাজ বাড়ে। বাচ্চাকে ভচকায় ফেলেও নিজেদের আরাম হইলে তাই সই।

~!~ আমি তাকদুম তাকদুম বাজাই বাংলাদেশের ঢোল ~!~

তাহসিন রেজা এর ছবি

আমাদের বাসার ছাদে মা কিছু তুলসী লাগিয়েছিলেন। একজন এসে বললেন-"এসব হিন্দুয়ানি গাছ লাগিয়েছ কেন?"

আমার ছোটভাই আমাকে দাদা বলে ডাকে। একজন আমার ওই ছোট্ট ভাইটিকে বলল, ভাইকে দাদা ডাক কেন? ওটা তো হিন্দুরা বলে।

------------------------------------------------------------------------------------------------------------
“We sit in the mud, my friend, and reach for the stars.”

অলীক জানালা _________

শিশিরকণা এর ছবি

হিন্দু কারও সাথে পরিচিত হলে কেন ভাই না ডেকে দাদা ডাকি এইটাও ছোটবেলার প্রোগ্রামিং। কিংবা সিঁদুর পরা কোন মহিলাকে বৌদি ডাকা। কি ডাকবো এটা ব্যক্তিকে জিজ্ঞেস করে নেয়র অভ্যাস করতে হবে।

~!~ আমি তাকদুম তাকদুম বাজাই বাংলাদেশের ঢোল ~!~

তিথীডোর এর ছবি

আমার ছোটভাই আমাকে দাদা বলে ডাকে। একজন আমার ওই ছোট্ট ভাইটিকে বলল, ভাইকে দাদা ডাক কেন? ওটা তো হিন্দুরা বলে।

আমার ছোটবোনও ভাইকে দাদা বলে। তবে বিপক্ষ মন্তব্য শুনিনি।

যদিও সুজন দাশ/নন্দিতা ভাদুড়ীকে দাদা/দিদি আর রাজিব হক/সুমাইয়া শারমিনকে ভাই/আপু ডাকার ব্যারাম আমারই আছে। অভ্যাসজনিত সমস্যা।

________________________________________
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

মন মাঝি এর ছবি

যদিও সুজন দাশ/নন্দিতা ভাদুড়ীকে দাদা/দিদি আর রাজিব হক/সুমাইয়া শারমিনকে ভাই/আপু ডাকার ব্যারাম আমারই আছে। অভ্যাসজনিত সমস্যা।

এটা আমার কাছে এমন কোন 'ব্যারাম', সমস্যা বা দোষনীয় ব্যাপার বলে মনে হয় না। বরং একটা ভালো অভ্যাস বলেই মনে হয় যার পিছনে হয়তো কিছুটা উদার "Empathy"-ই হয়তো কাজ করে, সাম্প্রদায়িকতা বা সঙ্কীর্ণতা নয়। আমরা মনে হয় ভিন্ন ধর্মাবলম্বী বাঙালিদের তাঁদের নিজেদের কম্যুনিটিতে বেশি ব্যবহৃত সম্বোধন ধরে ডাকি (অন্তত আমি এই কারনেই করি), কারন আমরা ধরে নেই তাঁরা ঐ সম্বোধনেই বেশি অভ্যস্ত (যা ভুল না) এবং আমাদের নিজস্ব কম্যুনিটিতে ব্যবহৃত ভিন্ন ধরণের সম্বোধনে তিনি বা তাঁরা হয়তো অস্বস্তি বোধ করতে পারেন, কিম্বা অস্বস্তি যদি নিতান্ত বোধ নাও করেন - অন্তত তাঁদের কম্যুনিটিতে ব্যবহৃত বেশি অভ্যস্ত ও আপন সম্বোধনে সম্বোধিত হলে একটু বেশি আরাম পাবেন, স্বচ্ছন্দ বোধ করবেন। এই শেষের ধারণাটা কতটা সঠিক জানি না, কিন্তু সঠিক না হলেও সম্বোধনকারীর দিক থেকে এর পিছনের উদ্দেশ্যটা পরিষ্কার এবং মহৎ - এবং Empathetic। সুতরাং এটাকে আমি খারাপ বলবো না।

****************************************

মন মাঝি এর ছবি

প্রোগ্রামিংটা আমার কাছে তো খারাপ মনে হচ্ছে না! কেন মনে হচ্ছে না তার কারন নিচে তিথীডোরের মন্তব্যের জবাবে বলেছি। আমি এর মধ্যে কোন প্রচ্ছন্ন সাম্প্রদায়িকতা বা সঙ্কীর্ণতা দেখি না।

****************************************

অতিথি লেখক এর ছবি

চলুক

ফাহমিদুল হান্নান রূপক

মরুদ্যান এর ছবি

লিখাটাও পিঁপড়া সাইজের! হাসি

-----------------------------------------------------------------------------------------------------------------
যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে তবে একলা চল রে

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।