আবাহনী? নাকি মোহামেডান?

ফারুক হাসান এর ছবি
লিখেছেন ফারুক হাসান (তারিখ: শুক্র, ২৭/০৩/২০০৯ - ১২:৩৫অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

auto

auto
.

.

.

.

.

আজকে সুপার কাপের ফাইনালে আবাহনী-মোহামেডানের খেলা। পত্রিকাগুলোর কথাবার্তায় মনে হচ্ছে, অনেকদিন পর বাঙ্গালিকে আবার ফুটবলের নেশায় পেয়েছে, ভুলে যাওয়া সেই নেশায়, সেই অনেকদিন আগের মতন।

ছোটবেলায় আমাদের ওয়াপদা কলোনীর এক বর্গকিলোমিটারের দেয়ালঘেরা গন্ডিতে বয়সভেদে আন্ডা-বাচ্চা-পিচ্চি-ছোকড়া-পোলাপাইনদের বেশ কয়েকটা দল ছিল। কিন্তু স্কুল থেকে ফিরে প্রতিদিন বিকেলে যখন সবাই একত্রে ফুটবল খেলতাম, তখন অবধারিতভাবে দুটো দল হয়ে যেত- আবাহনী ও মোহামেডান। আমি ছিলাম (এবং আছি) মোহামেডানের পাঁড় ভক্ত। আমার মতই ছিল সজল-কাজল দুই ভাই, সুইট, মাসুদ, মাসুদের বড় ভাই মামুন, জিয়ারুল, অপু। যেমন মোহামেডানি ওল তেমনি আবাহনী তেতুলের মত বিপক্ষ দলে ছিল কল্লোল, মশা (ভালোনাম মোশাররফ), অমিত, কমল, হাসান-হোসেন দুই ভাই, তাদের ভাগ্নে শাহনূর, এবং আরো অনেকে। কিছু আবাল পোলাপাইন ছিল যারা দল দেখে তারপর নিজের দল ঠিক করত, সেইগুলার নাম এখন একটাও মনে পড়ছেনা। আমাদের মাঠের পাশেই একটু জায়গা নিয়ে সেখানেই হয়ত খেলত কলোনীর একঝাঁক ডানা কাটা পরী, তারা আবাহনী-মোহামেডানে ভাগ না হয়ে কিভাবে দিনের পর দিন দুইজন রাজারানী ঠিক করে জোড়ায়-জোড়ায় আম-জাম, গোলাপ-জবা, ঘাস-মাটি ইত্যাদি ইত্যাদি ডাকাডাকি করে খেলার দল ভাগ করতো আল্লামালুম।

যেদিন মোহামেডান জিতত, আমরা খেলা শেষে পরাজিত আবাহনীকে খ্যাপাতাম, আবাহনী, গুয়ের খনি। মাঝে মাঝে আবার কোরাস মিলাত মাঠের পাশেই হয়তো গোল্লাছুট খেলতে থাকা শম্পা, ঝুম্পা, রানি, মিলি, ঊর্মি, টগর আপা, লক্ষ্মী দিদিরা। যেদিন হারতাম মাথা গরম হয়ে যেত ওদের গান শুনে, দান দান এক দান, হারুপার্টি মোহামেডান, দান দান দুই দান, কাইন্টা মোহামেডান, দান দান তিন দান, গোল খাইছে মোহামেডান। মশা মাইকেল জ্যাকসনীয় ড্যান্স বেশ ভাল দিতে পারত জাস্ট বিট ইটয়ের প্যারডি এই গানের সাথে, গোল খেয়ে নয়, কতদিন যে মারামারি লেগে যেত ওই গান শুনে!

আর সত্যিকারে যদি আবাহনী-মোহামেডান খেলা থাকত কোনোদিন, তাহলে তো কথাই নেই। কলোনীর প্রায় প্রতি বাসাতেই রাখা হত দৈনিক ইত্তেফাক বা সংবাদ। খেলার পাতা সাতদিন আগে থেকেই সবার মুখস্ত থাকত, আমরা বাংলা হাতেরলেখা খাতার ফাঁকে ফাঁকে ভাঁজ করে রাখতাম কায়সার হামিদ, সাব্বির, নকীব, কাননদের পেপারকাট ছবি, আর ওরা জমাত আসলাম, মুন্না, মহসিন, মাসুদ রানাদের ছবি। চোখ বুঁজে বলে দিতাম দলের ১১জন খেলোয়াড়ের নাম, আমাদের আর ওদেরটা সহ। কলোনীতে নতুন কোনো ছেলের আমদানি হলেই তাকে প্রথম প্রশ্ন থাকত, আবাহনী? না মোহামেডান? বেচারা যাই উত্তর দিক না কেন, একদলের কাছ থেকে তাকে প্রথম কিছুদিন এক্সট্রা কিছু ল্যাং, গুতা খেতেই হত।

এখন আর সেইদিন নাই। এখন বার্সা-রিয়েলের দিন, রোনালদো-রুনির দিন।

আমি মাঝে মাঝে আশ্চর্য হয়ে ভাবি, যতই দিন যাচ্ছে আমরা ততই আমাদের নিজেদের সব ঐশ্বর্য ভুলে গিয়ে কিংবা সযত্নে ত্যাগ করে অন্যের ঐশ্বর্যে মাতছি। খেলা, সংস্কৃতি, বিজ্ঞান- সব কিছুতেই। বিদেশি ফুটবল দল কিংবা ক্লাব নিয়ে আমরা সপ্তাহান্তে যত উত্তেজিত সময় কাটাই, আবাহনী-মোহামেডান, কিংবা বাড্ডা-ফরাশগঞ্জ নিয়ে তার এক কানাকড়িও কাটাই না, অথচ ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা হয়ে ম্যানচেস্টার-চেলসি, বার্সা-রিয়েল এদেশে ঢুকার আগে কিন্তু সাদা-কালো আর আকাশী-হলুদ পতাকায় বছরের কিছুকিছু দিন পুরো বাংলাদেশ ছেঁয়ে যেতে দেখেছি আমি নিজেই।

ফুটবলের এখন মান খারাপ- এই বলে এখন আমরা অনেকেই নাক সিঁটকাই। কিন্তু আপনি আমি যদি মাঠে নাই যাই, তাহলে মান ভাল হবে কিভাবে? আর আমার মতে যারা মাঠে গিয়ে দেখে না এসে শুধু পত্রিকা পড়ে একটা রায় দিয়ে দেয় যে ফুটবল রসাতলে গেছে- তাদেরকে প্যাদানি দেয়া উচিত। ব্যাটা নব্বই মিনিট যদি নাই চিল্লাইলি, প্রতিপক্ষ গ্যালারি থেকে উড়ে আসা দুয়েকটা ইটমিসাইল যদি নাই খাইলি, রেফারি আর ম্যানেজমেন্ট গৌষ্ঠিকে যদি উদ্ধার নাই করলি তাইলে তোর তো কথা কওনেরই সাট্টিফিকেট নাই।

আজ সুপারকাপের এই ফাইনাল কি পারবে সেই সোনালী দিনগুলি ফিরিয়ে আনতে? যতই কোটি টাকার পুরস্কার থাকুক না কেন, খোদাবক্সমৃধা-জাফরুল্লাশরাফত-হামিদভাইরা যতই নিত্যনতুন শব্দভান্ডার আর কৌতুক নিয়ে হাজির হোক না কেন, আবাহনী-মোহামেডান খেলা চিরকালই স্নায়ুক্ষয়ী দুর্ধর্ষ লড়াই, হয়ে থাক তাই!

উত্তেজনাটা আমিও টের পাচ্ছি একটু একটু। কিন্তু আফসোস, বিদেশে বসে আজকের খেলা দেখতে পারবো না। কে জিতবে আজ? আবাহনী, নাকি মোহামেডান? যেই জিতুক, আসল জয় হোক বাংলাদেশের ক্লাব ফুটবলের!

************************
কেউ কোনোক্রমে যদি অনলাইন কোনো লিংক পেয়ে যান, তাহলে কমেন্টে ফেলে যাবেন দয়া করে। আর যারা টিভিতে খেলা দেখবেন, আমরা যারা দেখতে পারছিনা তাদের জন্য জাফরুল্লা শরাফতীয় লাইভ কমেন্ট্রি কমেন্টাইবেন আশা করি দেঁতো হাসি


মন্তব্য

আনোয়ার সাদাত শিমুল এর ছবি

দিকে দিকে এ কী শুনি,
আবাহনীর জয়ধ্বনি!!!

রাগিব এর ছবি

আমাদের কলোনীতে মোহামেডানেরা দলে ভারী ছিলো। আমি ছিলাম সংখ্যালঘু আবাহনীর দলে।

এই ক্ষেত্রে ইলিয়াস কাঞ্চন এবং (সুচরিতা?? চম্পা??)র সেই গানটা মনে পড়ে

নায়িকাঃ (লম্ফ সমেত) "আবাহনী আবাহনী"

ইলিস কাঞ্চনঃ (গুরুগম্ভীর স্বরে) "মোহামেডান"

নায়িকাঃ (দাঁত কেলানো সমেত) "কেউ কারে নাহি ছাড়ে"

নায়কঃ (দাঁত খিচানো সমেত) "সমানে সমান"

নায়িকাঃ (তিড়িং করে বিশাল লাফ সমেত) "জয় আবাহনী"

নায়কঃ (হালকা লাফ সমেত) "জয় মোহামেডান"

(এর পর গত বছরের ফেডারেশন কাপ কে পেলো তা নিয়ে পরবর্তী অংশ)।

----------------
গণক মিস্তিরি
ভুট্টা ক্ষেত, আম্রিকা
http://www.ragibhasan.com

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

আনোয়ার সাদাত শিমুল এর ছবি

হা হা। গানটা রেডিওতে শু্নেছিলাম।

৯৩/৯৪ সালে যায়যায়দিনের চিঠিপত্র কলামে একটা চিঠি ছিলো এক শিক্ষকের লেখা। পরীক্ষায় এসেছিলো বিপরীত শব্দ লিখো - 'আবাহন'।
এক ছাত্র/ছাত্রী ভেবেছে প্রশ্নে বানান ভুল আছে। সে ঠিক করে বিপরীত শব্দ লিখেছে - "আবাহনী-মোহামেডান"।
এমনই ক্রেজ দুই দলের!

রেনেট এর ছবি

অনলাইনে কোথাও দেখা যায় না?
আমি আবাহনী হাসি
---------------------------------------------------------------------------
If your father is a poor man, it's not your fault ; but If your father-in-Law is a poor man, it's definitely your fault.

---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

গৌতম এর ছবি

আজকে অবশ্যই আবাহনী জিতবে। অবশ্যই। জয় আবাহনী।
.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

ব্লগস্পট ব্লগ ::: ফেসবুক

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

পাবলিকের সমস্যা কী? সবাই আবাহনী কেন? চিন্তিত

আনোয়ার সাদাত শিমুল এর ছবি

আপনি মোহামেডান নাকি? তাহলে 'জ্বিনের বাদশা'র জন্য অপেক্ষা করেন। উনি মোহামেডানের জানেম্মান ফ্যান চোখ টিপি

ফারুক হাসান এর ছবি

পাবলিকের সমস্যা কী? সবাই আবাহনী কেন?

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আছি, আমি মোহামেডান।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- আমি আছি ব্রাদার্স (ইউরোপিয়ান) ইউনিয়ন। সব ভাইরে ধইরা ইউনাইট কইরা ফালামু কাইজ্যা লাগানির চেষ্টা করলেই।
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

অভ্রনীল এর ছবি

আমিও সাদা-কালো তে আছি!!

_______________

এক ছাগলের দুই কান,
তুই আমার জানের জান।

জেবতিক রাজিব হক এর ছবি

আবাহনী - ১০
মহামদন - ০

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

ইশ্... দারুণ সব অতীতে ফিরায়ে নিয়া গেলেন... উত্তেজনাময় দিন ছিলো সব। বন্ধুত্ব হইতো ফুটবল দলের সাপোর্টার বিবেচনায়... আবাহনী মোহামেডান খেলার অন্তত সপ্তাহখানেক আগে থেকে সে কী উত্তেজনা... বৈকালিক ফুটবল খেলার আসরে কতো কতো কাহিনী... মারামারি... দল বেঁধে খেলা দেখার আনন্দ...
কতো কতো আনন্দ বেদনার কাব্য...

আমি আবাহনীর সাপোর্টার... আজকে অবশ্যই আবাহনী জিতবে...

কালকে একবার মনে হলো মাঠে খেলা দেখতে যাবো... কিন্তু এই খেলা তো দল বেধে না গেলে জমবে না। চারপাশে তাকিয়ে দেখলাম আমিই শুধু এখনো ২৫শে লটকে আছি, বাকি সবার বয়স বেড়ে গেছে... তাই আর যাওয়া হলো না। সকালে মনে হইতেছিলো যাই শালা... একলা একলাই যাই... কিন্তু এখন আর টিকেট নাই... সম্ভবত মন খারাপ
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

অমিত আহমেদ এর ছবি

এইটা কোনো কথা হইলো? টিকেট কোনো ব্যাপার? মাঠে গেলেই টিকেট পাইবেন। ব্ল্যাকাররা আছে। নাইলে অন্য উপায়ও আছে।


ওয়েবসাইট | ব্লগস্পট | ফেসবুক | ইমেইল

তানবীরা এর ছবি

কালকে একবার মনে হলো মাঠে খেলা দেখতে যাবো... কিন্তু এই খেলা তো দল বেধে না গেলে জমবে না। চারপাশে তাকিয়ে দেখলাম আমিই শুধু এখনো ২৫শে লটকে আছি, বাকি সবার বয়স বেড়ে গেছে... তাই আর যাওয়া হলো না।

এইটা আমার সাথে অহরহ হয়। দেশে গেলে আমার বয়সী কাউকে পাই না, সব্বাই বড় হয়ে গেছে আমি বাদে

তানবীরা
---------------------------------------------------------
চাই না কিছুই কিন্তু পেলে ভালো লাগে

*******************************************
পদে পদে ভুলভ্রান্তি অথচ জীবন তারচেয়ে বড় ঢের ঢের বড়

সচল জাহিদ এর ছবি

আমিও আবাহনী ...

-----------------------------------------------------------------------------
আমি বৃষ্টি চাই অবিরত মেঘ, তবুও সমূদ্র ছোবনা
মরুর আকাশে রোদ হব শুধু ছায়া হবনা ।।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

নিবিড় এর ছবি

আবাহনী, আবাহনী, আবাহনী আবাহনী আবাহনী.........দেঁতো হাসি


মানুষ তার স্বপ্নের সমান বড় ।

সুবিনয় মুস্তফী এর ছবি

আবাহনী জিন্দাবাদ!

(যদিও ছড়া হিসাবে ঐ ছড়াটাই সবচেয়ে স্বার্থক -
আবাহনী (___)-এর পানি
মোহামেডান ফুলের বাগান
)
-------------------------
হাজার বছর ব্লগর ব্লগর

ধুসর গোধূলি এর ছবি

"ড্যাশ" এর জায়গায় "ঢাকা ওয়াসা" লেখলেও অনেক বড় অপমান হইয়া যায়! মানব শরীরের আলাদা কোনো গুপ্ত পদার্থের নামোল্লেখ না করলেও চলে। মন খারাপ
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

razib [অতিথি] এর ছবি

mohamedan!!!

ফারুক হাসান এর ছবি

সাব্বাশ, বাঘের বাচ্চা!

লুৎফুল আরেফীন এর ছবি

অবধারিতভাবেই আবাহনী ... মোহামেডান তো হারতে হারতে পার পেয়ে আসছে, চ.মো. ফাইনালে আসলে একটা সম্ভাবনা ছিলো। ঢাকা মোহা'র কোনও আশা নাই হাসি

ফারুক হাসান এর ছবি

তারপরও, আবাহনী-মোহামেডান বলে কথা! শেষ বাশি বাঁজা না পর্যন্ত নাহি দেব সূচাগ্র মেদিনী!

সাদামাটা এর ছবি

আবাহনীরে ঠেকায় কে?হু হাহাহাহাহা

মুস্তাফিজ এর ছবি

দিকে দিকে এ কী শুনি,
আবাহনীর জয়ধ্বনি!!!

...........................
Every Picture Tells a Story

ধুসর গোধূলি এর ছবি
ফারুক হাসান এর ছবি

কড়ড়া ধুগো কড়ড়া!
*********************************
বলে এক আর করে আর এক যারা
তারাই প্রচণ্ড বাঁচা বেঁচে আছে দাপটে হরষে
এই প্রতারক কালে (মুজিব মেহদী)

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

কড়কড়ে। হাসি

ফারুক হাসান এর ছবি

মোহামেডানের ল্যাপটপ কোচ মারুফুল হক কিন্তু বুয়েটের সেই মারুফ ভাই! যাদের হল ফুটবল, এথল্যাটিক্স, এমনকি ফ্যাকাল্টি ক্রিকেটের জন্যও বুয়েট মাঠে কিঞ্চিত যাতায়াত ছিল তারা মারুফ ভাইকে চিনবেন আশা করি দেঁতো হাসি

এক বন্ধুর মুখে শুনেছিলাম, সে নাকি এখন ল্যাপটপ ছাড়া ঘোরেই না! দেখা যাক, আমাদের ফুটবলের বব ওলমার আজকে কিছু করতে পারে কিনা!

সবুজ বাঘ এর ছবি

মোহামেডানের লোগো উপরে ছাপা হইল ক্যা? এইডা কী ধরনের বেদপি?

ফারুক হাসান এর ছবি

চোখ টিপি

সবজান্তা এর ছবি
আবির আনোয়ার [অতিথি] এর ছবি

মোহামেডান মোহামেডান মোহামেডান মোহামেডান মোহামেডান মোহামেডান

সুমন চৌধুরী এর ছবি

আবাহনী......

একসময় আবাহনী মাঠে গিয়া হা কইরা প্র্যাকটিস দেখতাম। সেই যূগে যখন কাজী কামাল, আসলাম, রুমি, মুন্নাদের মতো অসাধারণ ফুটবলাররা খেলতেন...



অজ্ঞাতবাস

শাহান এর ছবি

মোহামেডান না জিতলে খেলুমই না !

অমিত আহমেদ এর ছবি

আবার জিগায়!
আবাহনী! আবাহনী!!


ওয়েবসাইট | ব্লগস্পট | ফেসবুক | ইমেইল

মামুন হক [অতিথি] এর ছবি

সাতাশি সালের ঘটনা , আজন্ম আবাহনীর পতাকাবাহী আমি হঠাত করেই যোগ দিয়ে বসলাম মোহামেডান দলে। পাড়ায় ছি ছি পড়ে গেল , ইয়ার দোস্তরা বেঈমান আখ্যা দিয়ে কথা বারতা বন্ধ করে দিল, ম্যাচের আগের রাতে আমাদের বাড়ীর টিনের চালে বেশ কয়েকটা ঢিলও পড়ল। কিন্তু আমাকে টলাতে পারলনা, মনে গভীর দুঃখ নিয়ে আমার এই দলত্যাগ সেটা কেঊ বুঝতে চাইলনা। ঘটনা হইল আমি ছিলাম আবাহনীর গোলকিপার, ভয় ডর বলে মনে কিছু ছিলনা , ইট পাথর সুরকি পেরেক সব কিছুর উপরেই ঝাপ দিয়া পড়তাম গোল বাচানোর জন্য। মহল্লায় সারা বছর টুক টাক আবাহনী মোহামেডান খেলা লেগেই থাকত, তবে সব চেয়ে বড় খেলাটা হত স্কুলের ফাইনাল পরীক্ষার পর। আমরা সবাই যখন টগবগ করে ফুটছি বছরের সবচেয়ে বড় খেলাটার জন্য ঠিক তখন আমাদের কোচ ( পাড়াতো বড় ভাই, ঢাকা কলেজের ছাত্র) আমাকে এসে বলল যে আমার হাইট কম ( আসলেই কম চার ফুট এগার ইঞ্চি মাত্র) এ বছর আমার দলে যায়গা হবেনা, আমার মাথায় যেন আকাশ ভেঙ্গে পড়ল , অনুনয় বিনয় করে বললাম আমাকে যেন বদলি গোল কিপার হিসাবে দলে রাখা হয় বা অন্য কোন পজিশনে খেলানো হয়, কিছুতেই স্যার আলেক্সের মন গললনা। কাদো কাদো মুখে বাড়ী ফেরার পথে মোহামেডানের কোচ মোরিনহোর সঙ্গে দেখা ( পাড়ার আরেক বড় ভাই, বিজ্ঞান কলেজের ছাত্র), ধুরন্ধর কোচ আবাহনীর টিম স্পিরিটে ভাংগন ধরানোর জন্য আমাকে বলল মোহামেডানে যোগ দিতে, আমাকে নাকি মাঝ মাঠে খেলাবে। মনের দুঃখে আমি রাজী হয়ে গেলাম , আবাহনীকে দেখিয়ে দিব আমাকে বাদ দেয়াটা কত বড় মিসটেক হইছে।
সত্যি স ত্যি পর দিন মোহেমেডানের জারসি গায়ে মাঠে নামলাম, খেলার ফলা ফল মোহামেডান ২ ঃ আবাহনী ১ , আর দুইটা গোলই আমার করা। খেলা শেষে আমারে নিয়া মাতামাতি আর আবাহনীর কোচের মুন্ডুপাত। এর পর থেকে আর কখনই আবাহনী থেকে আমাকে বাদ পড়তে হয়নি। কিন্তু বিরানব্বই সালে আমাদের খেলার মাঠে বিশাল সব দালান কোঠা উঠে খেলা ধুলা চিরতের রসাতলে চলে গেল।
মাঝে মাঝে ভাবি টাইম মেশিনে চড়ে আবার যদি ওই সোনালী দিন গুলিতে ফিরে যেতে পারতাম!
জয় আবাহনী!

ফারুক হাসান এর ছবি

এতকিছুর পরও আবাহনী আবার আপনাকে দলে নিল কস্কি মমিন!
মোহামেডান এককোটি টাকা জিতেছে, আশা করি এখন আর আপনি আবাহনীর সাপোর্টার নন চোখ টিপি

মুস্তাফিজ এর ছবি

আবাহনী মাত্র ১ গোল খাইলো
মন খারাপ

...........................
Every Picture Tells a Story

ফারুক হাসান এর ছবি

মুহাহাহাহা

(তালিয়া) (তালিয়া) (তালিয়া)

নজমুল আলবাব এর ছবি

ফাহা কি একলা হয়ে গেলেন? ঠিকাছে আমি তাইলে মোহামেডান। তয় খেলা কিন্তু দেখতে পারুম না। পাড়ার পোলারা টি২০ খেলতেছে, সেইটা দেখতেছি।

ভুল সময়ের মর্মাহত বাউল

ফারুক হাসান এর ছবি

আপাতত মাইনরিটি, মনে হচ্ছে মোহামেডানের সাপোর্টাররা সিচুয়েশন পর্যবেক্ষনে ব্যস্ত । খালি কাপটা আর কোটিটাকাটা জিতি, দেখবেন কত সাপোর্টার বের হয় চোখ টিপি

জ্বিনের বাদশা এর ছবি

মোহামেডান ! মোহামেডান !! মোহামেডান !!! মোহামেডান !!!! মোহামেডান!!!!!

আপনার পোস্ট পইড়া কতকিছু মনে পইড়া গেলো!!!!!!
আগে কি সোন্দর দিন কাটাইতাম মন খারাপ
========================
যার ঘড়ি সে তৈয়ার করে,ঘড়ির ভিতর লুকাইছে

========================
যার ঘড়ি সে তৈয়ার করে,ঘড়ির ভিতর লুকাইছে

ফারুক হাসান এর ছবি

আরে জ্বীন ভাই আছিলেন কই এতক্ষণ, মাত্র গোল দিছে আর আপনি বারৈছেন চোখ টিপি

তুকতাক যা পারেন কামে লাগান অক্ষন!
*********************************
বলে এক আর করে আর এক যারা
তারাই প্রচণ্ড বাঁচা বেঁচে আছে দাপটে হরষে
এই প্রতারক কালে (মুজিব মেহদী)

তানবীরা এর ছবি

সচলে লগ ইন করতে চাই নাই এখন কিন্তু ফারুক ভাইয়ের জন্য করতেই হলো।

আমি আবাহনী তবে বুইঝ্যা না। আমি যৌথ পরিবারের সন্তান। আমাদের পরিবারেও দুইটা দল ছিল। মনি আপুর দলে আমি ছিলাম। ওরে তখন আমার কাছে রেখার মতো লাগতো। মনি আপু আবাহনী তাই আমিও আবাহনী।

দিনগুলো মোর সোনার খাচায়, রইলো না রইলো না, সেইযে আমার নানা রঙ এর দিন গুলি

তানবীরা
---------------------------------------------------------
চাই না কিছুই কিন্তু পেলে ভালো লাগে

*******************************************
পদে পদে ভুলভ্রান্তি অথচ জীবন তারচেয়ে বড় ঢের ঢের বড়

ফারুক হাসান এর ছবি

মোহামেডানের কাপ্তান নজরুল (আমাদের সচল নজুভাই নয়) কিন্তু একদম শাহরুখ।
untitled10এইবার?!

রাজিব এর ছবি

হৈ হৈ রৈ রৈ!!!!!!!আবাহনী গেলো কৈ????!!!

তানিয়া এর ছবি

মোহামেডান শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত

ধুসর গোধূলি এর ছবি
তানিয়া এর ছবি

ভাইডি তোমারেও দিমুনে দেঁতো হাসি

তানিয়া এর ছবি

ঈঈঈঈঈঈঈঈঈঈঈঈঈঈঈঈইয়য়য়য়য়য়য়য়য়য়য়য়য়য়য়য়য়য়য়য়য়া

জিতসে কারা জিতসে কারা
মোহামেডান মোহামেডান দেঁতো হাসি

ফারুক হাসান এর ছবি

হৈহৈ রৈরৈ
আবাহনী গেল কৈ

তানিয়া এর ছবি

আমার পছন্দের ছড়াটা বলি

ইলিশ মাছের তিরিশ কাঁটা
বোয়াল মাছের দাড়ি
আবাহনী ভিক্ষা খোজে
মোহামেডানের বাড়ি

হি হি হি দেঁতো হাসি দেঁতো হাসি

অভ্রনীল এর ছবি

চলুক চলুক

_______________

এক ছাগলের দুই কান,
তুই আমার জানের জান।

কিংকর্তব্যবিমূঢ় এর ছবি

ইশ ঘুমায় আছিলাম বইলা মজা মিস কর্লাম মন খারাপ

মোহামেডান মোহামেডান দেঁতো হাসি
................................................................................................
খাদে নামতে আজ ভয় করে, নেই যে কেউ আর হাতটাকে ধরা ...

ফারুক হাসান এর ছবি

ব্যাপার্নাহ! জিতসে এইটাই বড় হাসি

ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

জানতাম জিতবেই... তাই নিশ্চিন্তে ঘুম দিয়ে উঠলাম। চোখ টিপি

রাগিব এর ছবি

পাতানো খেলা হয়েছে। রেফারি, লাইন্সম্যান সব মোহামেডানের দলে ছিলো। এই ফলাফল মানি না, "সুক্ষ্ণ কারচুপি" হয়েছে। চোখ টিপি

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

ফারুক হাসান এর ছবি

টেবিলের তলায় এককোটি টাকার ঘুষ বিনিময় হয়েছে চোখ টিপি
পাতিয়ে খেলেও হারায় আবাহনী খেলোয়াড়-কর্মকর্তা-সমর্থক সবার বিচার চাই।

মুস্তাফিজ এর ছবি

এক মাঘে শীত যায়না

...........................
Every Picture Tells a Story

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

হাসি
তবে এরকম একটা বিজয়ের জন্য আরেক বছর অপেক্ষা করতে হবে।

বিপ্রতীপ এর ছবি

শোককে শক্তিতে পরিণত করতে হবে দেঁতো হাসি
~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
খুঁজে যাই শেকড়ের সন্ধান...

অভ্রনীল এর ছবি

হ শক্তির দরকার আছে... সামনের বছর আবার হারনের শোক ধামাচাপা দিতে লাগবো না? দেঁতো হাসি দেঁতো হাসি

_______________

এক ছাগলের দুই কান,
তুই আমার জানের জান।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।