আবু হাসান শাহরিয়ার এর কবিতা

তারেক এর ছবি
লিখেছেন তারেক (তারিখ: বিষ্যুদ, ১৪/০৮/২০০৮ - ১২:১৩অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

আবু হাসান শাহরিয়ার আমার প্রিয় কবি। এবারের একুশে বইমেলায় প্রকাশিত তাঁর "তোমাদের কাচের শহরে" বই থেকে ভালো লাগা কিছু কবিতা তুলে দিলাম সচলের পাঠকদের জন্য। কিছু পুরনো কবিতাও সূচিবদ্ধ হয়েছে এই বইয়ে। সে যাই হোক, আমার খুবই প্রিয় এই কবিতাগুলো...

চালাও গুলি, আমরা ও বুকের তুষে চোখের আগুন জ্বালাতে জানি
__________________________

তোমাদের হাতে দেশ
পায়ে কানুনের চাকা
যেভাবে গড়িয়ে নেবে
সেভাবেই বেঁচে থাকা

তার মানে এই নয়, আমাদের অন্য কোনও বেঁচে থাকা নেই

নতুন জমিনে ফের
পুরানো গাঁজার চাষ
তোমাদের সবই ভালো
বাকি সবই মুথা ঘাস

তার মানে এই নয়, তোমরা যা বলবে, সবই মেনে নিতে হবে

তোমরা ক্ষমতাধর
একে ধরো ওকে মারো
ব্যথা পেলে যদি কাঁদি
ছুটে আসে হুঙ্কারও

তার মানে এই নয়, আমাদের কান্না একদিন স্লোগান হবে না

আমাদের বুকে তুষ
চোখে আগুনের শিখা
তোমাদের হাতে ঐ
রাইফেলও মরীচিকা

চালাও গুলি, আমরাও বুকের তুষে চোখের আগুন জ্বালাতে জানি

ফের যদি কড়া নাড়ি
____________________

তোমাকে মানায় ভালো ভয় ও সংকোচহীন আইহনের ঘরে
তবে যে বারান্দা জুড়ে হেঁটেছিল পরকীয়া মেঘ ?
সিড়ি ভেঙে উঠেছিল বেণীবাঁধা হরপ্পার চাঁদ ?

যে-রাতে গুঁজেছ চুলে বেগুনী রিবনবাঁধা ভাঁট
সে-রাতে নরক ও ছিল প্রেমের তল্লাট।

তাতে কী, কানুও জানে, এই রাধা গৃহসন্ন্যাসিনী
একদা সে নদী ছিল, কানু বিনে মজে গেছে জল
এখন কেবলই পলি; কামেও শীতল।

তার মানে এই নয়, নৌকাখন্ড লেখা বারনীয়
ফের যদি কড়া নাড়ি, শীতলতা মুছে সাড়া দিও।

ক্ষমতা ও শীর্ষ
_________________

এক.
শীর্ষে ওঠা কঠিন
শীর্ষে টিকে থাকা কঠিনতর

দুই.
গাছের শীর্ষে থাকে মুকুল মুকুল কোমলস্বভাবী
পর্বতের চূড়ায় থাকে তুষার তুষার কোমলস্বভাবী

কঠিনস্বভাবী ক্ষমতা নিজের ভারেই শীর্ষচ্যূত হয়

নদীর পাশে একা
_________________

আমার জন্য দাঁড়িয়ে ছিল পথ
পথের পাশে নদী
নদীর পাশে নৌকাবাঁধা ঘাট
ঘাটের পাশে শেষপারানির কড়ি
গাছঠাকুরের পূজো
দাঁড়িয়ে ছিল হাজার অমারাত
দেউটি হাতে একলা মাঠের চাঁদ
দূরে কোথাও বৃষ্টিভেজা ঘর
টিনের চালে বিঠোফেনের চিঠি
কোথাও একটা জানলা খুলে রাখা
কোথাও একটা কাঁকনপরা হাত
কোথাও একটা উড়ে একটা যাওয়ার সাধ
দাঁড়িয়ে ছিল কেমন-করা মন
মনের তলে মনের তলদেশ
তার অতলে হঠাৎ কারও মুখ
হঠাৎ কারও রাত্রিচেরা ডাক
হঠাৎ কোনও নারিকেলের পাতা
ঠান্ডা লাগা একজোড়া টনসিল
দাঁড়িয়ে ছিল ভুবনজোড়া মায়া
অষ্টরাণীর মৃত স্বামীর ছবি
শাদা ফ্রকের রিবন-বাঁধা চুল
কোলবদলের ধূসর ছেলেবেলা
অতীত-করা হাজার গতকাল
আষাঢ়-করা শ্রাবণ-করা মন

আমার জন্য দাঁড়িয়ে ছিল পথ
পথের পাশে নদী
নদীর পাশে মানুষ কেন একা?

মানুষ কেন একা?


মন্তব্য

তারেক এর ছবি

... "কবিকে কথা বলতে দাও" - আমার ভীষণ প্রিয় একটি কবিতা, আরো কিছু আছে। একটু বড় বলে টাইপ করি নাই আলসেমি করে।

কপিরাইট বিষয়ক ঝামেলায় পড়লে এই ব্লগ মুছে দিব। তবে এটা তো পুনঃপ্রকাশ নয়, একজন পাঠকের উচ্ছ্বাসমাত্র। পরিচয় থাকলে তবু কবির অনুমতি নিয়ে নিতাম হাসি
_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

আরিফ জেবতিক এর ছবি

তারেক এর ছবি

_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

দৃশা এর ছবি

কবিতা জিনিসটা আমি কোনকালেই খুব একটা এনজয় করিনি...বলা ভাল বুঝি না। মাঝে মাঝে সাহস করে দু একটা কবিতা পড়ে দেখি । আপনার দেওয়াগুলো ও পড়লাম সাহস করে। ভালই লাগল...একটা পড়ার পর আর একটাতে যাওয়ার বেলায় সাহস আরো খানিকটা বেড়ে গেল। এভাবে সাহস বাড়ারবার জন্য জ্ঞাতি ভাইরে ধন্যবাদ।
------------------------------------------------------
দুঃখ তোমায় দিলেম ছুটি...
বুক পাঁজর আজ ফাঁকা।
দুঃখ বিদায় নিলেও সেথায়...
দুঃখের ছবি আঁকা।

দৃশা

কনফুসিয়াস এর ছবি

চমৎকার সব কবিতা!
তারেক- অসংখ্য ধন্যবাদ। খুব ভাল লাগলো।
-----------------------------------
... করি বাংলায় চিৎকার ...

-----------------------------------
ব্লগস্পট

গৌতম এর ছবি

কিছু কিছু লাইনের গতি দেখে থমকে যেতে হয়...
.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

ব্লগস্পট ব্লগ ::: ফেসবুক

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

সৌরভ এর ছবি

কৃতজ্ঞতা।


আবার লিখবো হয়তো কোন দিন

পলাশ দত্ত এর ছবি

কবি আবু হাসান শাহরিয়ারকে আমি ব্যক্তিগতভাবে চিনি। তার সঙ্গে প্রবল সখ্যও ছিল একদা। এখন কেমন একটা দূরত্ব যুক্ত হয়েছে।

তার সামগ্রিক কবিতায় চি র কা লী ন তা / ক্ল্যা সি ক গুণের একটু অভাব ঝিলিক দেয় নাকি!

এই মন্তব্য যেনো আবু হাসান শাহরিয়ারের প্রতি ব্যক্তিগতভাবে নেবেন না তারেক। শাহরিয়ারের কবিতার উছিলায় আমি আসলে সাম্প্রতিক বাংলা কবিতা সম্পর্কেই একথাটা বলতে চাই।

==========================
পৃথিবীর তাবৎ গ্রাম আজ বসন্তের মতো ক্ষীণায়ু

হাসান মোরশেদ এর ছবি

চিরকালীনতা কিভাবে ব্যাখ্যা করেন পলাশ?
সমকাল বাদ দিয়ে কি চিরকাল রচিত হয়?
-------------------------------------
"এমন রীতি ও আছে নিষেধ,নির্দেশ ও আদেশের বেলায়-
যারা ভয় পায়না, তাদের প্রতি প্রযোজ্য নয় "

-------------------------------------
জীবনযাপনে আজ যতো ক্লান্তি থাক,
বেঁচে থাকা শ্লাঘনীয় তবু ।।

তারেক এর ছবি

কিছু মনে করার প্রশ্নই ওঠে না হাসি

তবে, চিরকালীনতা কে আপনি কিভাবে ব্যাখ্যা করেন সেই প্রশ্নটা আমারও জাগলো...
এখানে যে কয়টা কবিতা দিয়েছি আমার কাছে সবগুলোই ক্ল্যাসিক মনে হয়েছে, সমকাল ধরে রেখেও কালোত্তীর্ণ কবিতা লেখা সম্ভব। আর কালসচেতন না হলে সে কবি কিসের কবি? কবিরাই তো আমাদের জাগাবেন, যেই সময় নির্মাণে কবি অপাংক্তেয়, সে সময় দুঃসময়।

আবু হাসান শাহরিয়ার সমকাল সচেতন কবি, এই জন্যই তিনি প্রিয়।
_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

হাসান মোরশেদ এর ছবি

এই প্রবাসে ও যে কজন কবির কবিতা হাতছাড়া করিনি, আবু হাসান শাহরিয়ার তাদের একজন ।

বলতে দ্বিধা নেই, শাহরিয়ার ভাইয়ের সাম্প্রতিক কবিতাগুলো প্রবচনের মতো মনে হয় ।

-------------------------------------
"এমন রীতি ও আছে নিষেধ,নির্দেশ ও আদেশের বেলায়-
যারা ভয় পায়না, তাদের প্রতি প্রযোজ্য নয় "

-------------------------------------
জীবনযাপনে আজ যতো ক্লান্তি থাক,
বেঁচে থাকা শ্লাঘনীয় তবু ।।

তারেক এর ছবি

আমার ও... এই যে
"আমাদের কালের সবচেয়ে অন্ধকার গলিটির নাম প্রথম আলো"
_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

পলাশ দত্ত এর ছবি

যে-মানুষ প্রথম আলো সম্পর্কে জানে না এই পঙক্তি পড়ে তার কী মনে হবে?

==========================
পৃথিবীর তাবৎ গ্রাম আজ বসন্তের মতো ক্ষীণায়ু

পলাশ দত্ত এর ছবি

কবিতাগুলো প্রবচনের মতো মনে হয়

তাহলে
প্রবচন = কবিতা?

আজকে হাতে সময় প্রায় নাই। চি র কা লী ন তা নিয়ে কথা হবে শিগগিরই।।

==========================
পৃথিবীর তাবৎ গ্রাম আজ বসন্তের মতো ক্ষীণায়ু

তারেক এর ছবি

ঠিক আছে হাসি
_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

নিঘাত তিথি এর ছবি

আবু হাসান শাহরিয়ারের কবিতা, লেখা ভালো লাগে আমারও। কবিতাগুলোর জন্য অনেক ধন্যবাদ তারেককে। প্রথম কবিতাটা যেন বুকের ভেতর থেকে উঠে আসা নিরব শ্লোগান-প্রতিজ্ঞা।
----------------------------------------------------
আমার এই পথ চাওয়াতেই আনন্দ

----------------------------------------------------
আমার এই পথ চাওয়াতেই আনন্দ

তারেক এর ছবি

আরিফ ভাই, দৃশা, কনফু দা, গৌতম দা, সৌরভ ভাই, তিথিপু, পলাশ দা, মোরশেদ ভাই এবং আরো যারা পড়লেন শুভেচ্ছা সবাইকে হাসি
_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

তারেক এর ছবি

আরিফ ভাইয়ের কথামতো মেইল করেছিলাম কবি -কে। আজ উনার উত্তর পেয়ে আমি রীতিমত অভিভূত। ভীষণ এক্সাইটেড ও। উনি এই লিঙ্ক অনুসরণ করেছেন, পড়েছেন এবং এই আলোচনায় যারা অংশগ্রহণ করেছেন সবাইকে কৃতজ্ঞতাও জানিয়েছেন। আমিও ফিরতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি তাঁর প্রতি। শুভেচ্ছা রইল।

_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

পরিবর্তনশীল এর ছবি

খুব ভাল্লাগলো।
---------------------------------
ছেঁড়া স্যান্ডেল

---------------------------------
ছেঁড়া স্যান্ডেল

ঝরাপাতা এর ছবি

কবিতাগুলান যখন দিছিলেন তখনই পড়ছি অফলাইনে। ২ নম্বর কবিতাটা প্রথম আলোতে পড়া, যেটা পরে আমি সিগনেচারে ব্যবহার করি। আর ৪ নম্বরটা আগের একটা বইয়ে ছিলো (নাম মনে পড়তেছে না) এবং এই কবিতাটা আমার খুবই প্রিয় একটা কবিতা।


যে রাতে গুঁজেছো চুলে বেগুনি রিবন বাঁধা ভাট,
সে রাতে নরকও ছিলো প্রেমের তল্লাট।
. . . . . . . . . . . . . . . . . . (আবু হাসান শাহরিয়ার)


বিকিয়ে যাওয়া মানুষ তুমি, আসল মানুষ চিনে নাও
আসল মানুষ ধরবে সে হাত, যদি হাত বাড়িয়ে দাও।

তারেক এর ছবি

"নদীর পাশে একা" আমারও ভীষণ ভীষণ পছন্দের কবিতা! প্রথম পড়েছিলাম "অর্ধসত্য" - এ। "শ্রেষ্ঠ কবিতা"র দ্বিতীয় সংস্করণেও এটি অন্তর্ভুক্ত হয়েছে
_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

সবজান্তা এর ছবি

যে-রাতে গুঁজেছ চুলে বেগুনী রিবনবাঁধা ভাঁট
সে-রাতে নরক ও ছিল প্রেমের তল্লাট।

লাইন দুইটা এমন ভাবে মাথায় ঢুকসে। বিশেষত প্রেমের তল্লাট শব্দযুগল দুর্দান্ত।


অলমিতি বিস্তারেণ

রূপক কর্মকার এর ছবি

পলাশ দত্তর চিরকালীনতার ব্যাখ্যা তো পেলাম না। 'তোমাদের কাঁচের শহরে' ছাড়াও আবু হাসান শাহরিয়ারের 'ফিরে আসে হরপ্পার চাঁদ' ও 'বালিকা আশ্রম'ও আমার পড়া আছে বলে সে-ব্যাখ্যার তেমন দরকার নেই। তবু পলাশ দত্ত কী বলেন, শোনার আগ্রহ ছিল। অবশ্য শাহরিয়ারের কবিতায়ই আছে : 'লঘু মেঘে বৃষ্টি হলে কবিতার বাড়াভাতে ছাই' এবং ‌'ছোট-ছোট কবিদের বড়-বড় কথা থাকে মুখে'। সেরকম কিছু নয় তো?

____________________________
বন্ধুত্ব মানেই তুমি বিচ্ছেদের চুক্তি মেনে নিলে
[আবু হাসান শাহরিয়ার]

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA