#আমি_অভিজিৎ_রায়

অরফিয়াস এর ছবি
লিখেছেন অরফিয়াস (তারিখ: শুক্র, ২৭/০২/২০১৫ - ১২:২৫পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

না, আজকে হতাশার কথা লিখতে বসি নাই। এর আগে এই সচলেই বহুবার লিখেছি এই দেশের কিচ্ছু হবেনা। কথা সত্য, কিচ্ছু হবেনা, এই দেশের মূল সমস্যা মৌলবাদীরা না, মূল সমস্যা মধ্যপন্থা অবলম্বনকারী চুতিয়া নাগরিকেরা, যারা দুধে-গুয়ে মিলিয়ে থাকতে আগ্রহী। আমাদের দেশের ধার্মিকেরা ধর্মকে বুফ্যের মত মানে, যার পোলাউ ভাল লাগে সে পোলাউ নেয় যার বিরিয়ানি সে বিরিয়ানি, কিন্তু যখন মাদ্রাসার শিক্ষিত জঙ্গিরা ভাল মানুষের কল্লা নামায় তখন 'কিন্তু', 'তবে' এসব বলে নিজের বুফ্যে ধার্মিকতার পাছা বাঁচায়। যখন চার্লির অফিসে ইসলামি জঙ্গিরা মানুষ মারল তখন আমারই কিছু ধার্মিক বন্ধু এই 'কিন্তু', 'তবে' বয়ান রেখেছিল, কিছু বলা হয়ে উঠে নাই, খালি একদলা থুথু ফেলা হয়েছিল। এখন যখন অভিজিৎ রায়কে কুপিয়ে মেরে ফেলল আর তাঁর সহধর্মিণী বন্যাকে গুরুতর আহত করল তখনও এই দল 'কিন্তু', 'তবে'র পসরা নিয়ে বসবে। তার উপরে অভিজিৎ রায় মালাউন-নাস্তিক, সে ইসলামের বিরুদ্ধে লেখে, এরে কোপালে তো বেহেশত পাক্কা। সবই জানি, সব শালাকে চেনা আছে। তাই যুদ্ধটা এইবারে মুখোমুখি হোক। দেশের রন্ধ্রে রন্ধ্রে যে সাম্প্রদায়িকতা আর মৌলবাদের রাজত্ব তাকে বিনা প্রতিরোধে জয়ী হতে দেয়া যাবে না।

একজন হুমায়ূন আজাদ, একজন রাজীব হায়দার, একজন অভিজিৎ রায়ের মূল্য বোঝার মত মেরুদণ্ড আর জ্ঞান বাংলাদেশের মানুষের আছে এ আমি বিশ্বাস করিনা, বাংলাদেশের মানুষ বরং পীর-হুজুরদের বেশি মানে। স্বাভাবিক, প্রত্যেকটা সরকার এই দেশে নিজেদের স্বার্থে মৌলবাদের প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ সমর্থক। এরা কোন দিনই এদের বিরুদ্ধে যাবেনা। যাবেই বা কিভাবে, যে দেশের শতকরা ৯০ ভাগ নাগরিক মৌলবাদের সমর্থক সে দেশে সরকার তো শুধুমাত্র তাদের প্রতিফলন। এই দেশ পাকিস্থানের থেকেও দ্রুত গতিতে একটি সন্ত্রাসী রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশের পথে এগোচ্ছে। বিগত বছর দশেকের মধ্যে রাজনীতিতে যেভাবে ধর্মীয় মেরুকরণ হয়েছে এবং যেভাবে তা সফলভাবে দেশের তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে তাতে এই অগ্রগতিতে অবাক হওয়ার কিছু নেই। কিন্তু এই মেরুকরণ যেভাবে বিভিন্ন দেশের জন্য ধ্বংস নিয়ে এসেছে ঠিক একইভাবে বাংলাদেশের কপালেও খুব একটা ভিন্ন পরিনতি আছে বলে মনে হয়না।

কিন্তু এই হুমকি আর খুনের ভয়ে মুক্তমনাদের পথ চলা বন্ধ হবেনা। ক্যাথলিক চার্চ ব্রুনোর মত বহু মানুষকে পুড়িয়ে মেরেছে তাদের বিরুদ্ধাচারনের কারনে, তাই বলে জ্ঞান-বিজ্ঞানের চর্চা থেমে থাকেনি। একইভাবে ইসলামিক দেশগুলোতে প্রতি বছর অসংখ্য মানুষকে হত্যা করা হচ্ছে বিরুদ্ধ মত প্রকাশের জন্য, তাই বলে মত প্রকাশ বন্ধ হয়ে যায়নি। কারন মুক্তবুদ্ধি চর্চার শক্তি মৌলবাদীদের জানা নেই, যারা মানুষকে হত্যা করা, বই পুড়িয়ে ফেলা, বিদ্যালয় বন্ধ করাকে শক্তিশালী মনে করে তারা জানেনা, পৃথিবীর ইতিহাস মৌলবাদীদের কথা বলে না, পৃথিবীর ইতিহাস মুক্তমনাদের কথা বলে কারন এই মানব সভ্যতার ভর তারাই বহন করে, মৌলবাদীরা নর্দমার কিছু কীট মাত্র।

অস্ত্রের বিরুদ্ধে, চাপাতির কোপের বিরুদ্ধে, মৌলবাদীদের হুঙ্কারের বিরুদ্ধে, মুক্তবুদ্ধির চর্চা চলবে। একজন অভিজিৎ রায়ের রক্তের স্রোত থেকে আরও দশজন উঠে দাঁড়াবে। কুপিয়ে মানুষ মারা গেলেও, তার মুক্তচিন্তার প্রভাবকে মেরে ফেলা যায় না। অভিজিৎ রায় তাঁর কাজের মাধ্যমেই বেঁচে থাকবেন আমাদের মাঝে। নপুংসক জাতি যখন নিজেদের শ্রেষ্ঠ সন্তানদের শ্রদ্ধা করতে শিখে না, সেই জাতির দুর্যোগ অনিবার্য। কিন্তু তাই বলে হতাশায় কলম-কিবোর্ড বন্ধ থাকবেনা। মৌলবাদী শক্তির বিরুদ্ধে সরবে আন্দোলন চলবে। হত্যা-নির্যাতনের বিরুদ্ধে কলম চলবে, চলুক।

সংযুক্ত ছবিটি একজন পাঠকের অবদান, নাম না জানা তাকে ধন্যবাদ।

ছবি: 
02/12/2009 - 12:37পূর্বাহ্ন

মন্তব্য

কানা বাবা এর ছবি

কলম চলবে, চলুক।

/----------------------------------------------------
ওইখানে আমিও আছি, যেইখানে সূর্য উদয়
প্রিয়দেশ, পাল্টে দেবো, তুমি আর আমি বোধহয়
কমরেড, তৈরি থেকো,গায়ে মাখো আলতা বরণ
আমি তুমি, আমি তুমি, এভাবেই লক্ষ চরণ।।

ঈয়াসীন এর ছবি

চলুক

------------------------------------------------------------------
মাভৈ, রাতের আঁধার গভীর যত ভোর ততই সন্নিকটে জেনো।

অতিথি লেখক এর ছবি

যুদ্ধটা ঘোষিত হয়েছিল আগেই। আমরা এড়িয়ে যাচ্ছিলাম বারবার, যুক্তির কথা বলে, মুক্তমনের কথা বলে। কিন্তু এভাবে আর চলতে পারে না। প্রতিশোধ না, প্রতিরোধ চাই। যদি ধর্মবাদীরা এক হয়ে আওয়াজ দিতে পারে তাহলে মুক্ত মনের চর্চাকারীরা কেন পারবে না। নিজ নিজ ভাবনা, দার্নিক দ্বন্দ্ব পাশে রেখে এক হওয়ার সময় এসেছে।

স্বয়ম

অতিথি লেখক এর ছবি
অরফিয়াস এর ছবি

ধন্যবাদ ছবিটির জন্য।

----------------------------------------------------------------------------------------------

"একদিন ভোর হবেই"

ক্রেসিডা এর ছবি

লেখার শব্দগুলো যেভাবে পাশাপাশি বসে থাকে একটার পর একটা, এরকম একাত্ন না হতে পারলে কোনদিনই এসব বন্ধ হবে না; বরং ধারাবাহিকতায় রূপ নেবে। কিন্তু, ওইযে, মধ্যপন্থা অবলম্বনকারী চুতিয়া আমাদেরই সমস্যা; আমরা শুধু চায়ের টেবিলে, ডায়নিং টেবিলে আর মাঝে মাঝে সিনেমা হলে ক্ষনিকের জন্যে এক হতে পারি; রাজপথে চুপসে যাই; একের পর এক ঠায় দাড়িয়ে শক্ত প্রতিরোধ করি না। এই ফাঁক-ফোকর দিয়েই তখন হায়েনারা নখের আঁচড় দিয়ে যায়।

__________________________
বুক পকেটে খুচরো পয়সার মতো কিছু গোলাপের পাঁপড়ি;

অতিথি লেখক এর ছবি

ফেসবুক-টুইটারে যেসব ছবি পোস্ট হয়েছে (নীচের লিঙ্ক দ্রষ্টব্য), সেগুলি দেখে তো মনে হয় ঘটনার সময় আশেপাশে লোকজন ছিল। দুজন মানুষকে যখন কোপানো হচ্ছিল, তখন তারা দাঁড়িয়ে গুপ্তকেশ উৎপাটন করছিল!

Emran

https://www.facebook.com/events/1550449951901104

রানা মেহের এর ছবি

এই দেশের মূল সমস্যা মৌলবাদীরা না, মূল সমস্যা মধ্যপন্থা অবলম্বনকারী চুতিয়া নাগরিকেরা, যারা দুধে-গুয়ে মিলিয়ে থাকতে আগ্রহী।

-----------------------------------
আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস

Ayan Kumar Biswas এর ছবি

লেখকের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষন করছি, অভিজিৎ দা, নিজের নাম "অভিজিৎ রায়" লিখতেন । সংশোধন করার অনুরোধ রইল।

স্বপ্নের ফেরিওয়ালা  এর ছবি

এই দেশের মূল সমস্যা মৌলবাদীরা না, মূল সমস্যা মধ্যপন্থা অবলম্বনকারী চুতিয়া নাগরিকেরা, যারা দুধে-গুয়ে মিলিয়ে থাকতে আগ্রহী

চলুক

প্রোফেসর হিজিবিজবিজ এর ছবি

আমরা একজোট হয়ে প্রতিবাদ করবো -

____________________________

অতিথি লেখক এর ছবি

টার্গেট তো হুমায়ুন আজাদ স্যার যারা হাজারো অভিজিত হয়ে জন্মায়!
------------------
রাধাকান্ত

এক লহমা এর ছবি

কুপিয়ে মানুষ মারা গেলেও, তার মুক্তচিন্তার প্রভাবকে মেরে ফেলা যায় না। চলুক

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

ফাই সিদ্ধি এর ছবি

সব কিছ নষ্টদের অধিকারে চলে গেল

আয়নামতি এর ছবি

চলুক

abul kasem এর ছবি

শার্লি এবদো হত্যাকাণ্ডের পর সমগ্র ফরাসি জাতি এক বাক্যে বলেছিল
আমি শার্লি আমি শার্লি আমি শার্লি আমি শার্লি...
সেই ভাবেই চলুন আমরা বলি এবং আমাদের টি সার্টে লিখি
আমি অভিজিত... আমি অভিজিত... আমি অভিজিত... আমি অভিজিত... আমি অভিজিত... আমি অভিজিত... আমি অভিজিত...
আমি লক্ষ-কোটি অভিজিত
দেখে যাও অভিজিত...তোমার প্রতিটি রক্তবিন্দু থেকে জন্ম নিচ্ছে এক এবং অদ্বিতীয় অভিজিত।
অভিজিত তুমি মর নাই। তুমি যে কোটি কোটী অভিজিত হয়ে গেছ।

অরফিয়াস এর ছবি

আপনার চিন্তা মহৎ কিন্তু এটা বাংলাদেশে হবে না কেন বলি, কারন বাংলাদেশিরা আগে মুসলমান পরে বাঙ্গালি, তবে বাঙ্গালি শব্দটায় হিন্দুয়ানি ভাব থাকায় অনেকেই বাংলাদেশি বলতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন। কাহিনী হল, যে জাতি নিজেদের শেকড় নিয়ে এত সন্দিহান সে জাতি অভিজিৎ নাম লিখবে এটা চিন্তা করে লাভ নাই। কেউ কেউ লিখবে এটাই অনেক।

----------------------------------------------------------------------------------------------

"একদিন ভোর হবেই"

এক লহমা এর ছবি

মর্মান্তিক ভাবে একমত।

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

অতিথি লেখক এর ছবি

অরফিয়াস আপনার কথা ঠিক আছে তবে আমরা তো এগুতে পারি । পারি কি? যে দেশে ৯০ ভাগ মানুষ কিছু না দেখেও কিছু না বুঝেও চাদে সাঈদিকে দেখা যায় শুধু এটা শুনেই দৌড় দেয় চাদ দেখার জন্য সেই দেশে বাঙ্গালী শব্দ হিন্দুয়ানি ভেবে বাংলাদেশী লিখবে তাতে আর আশ্চর্য কি!

-------------
রাধাকান্ত

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA