অসাম্প্রদায়িক থেকে উগ্র ধর্মীয় পথে প্রিয় স্বদেশ

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: বিষ্যুদ, ১৬/১০/২০০৮ - ১১:৪৮অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

অসাম্প্রদায়িক থেকে উগ্র ধর্মীয় পথে প্রিয় স্বদেশ

পাকিস্তান আমলে ১৯৬৯/১৯৭০ সালে বেতার টিভিতে রবীন্দ্রসংগীত প্রচার বন্ধ করে দেয়া হয়েছিলো।
কারণ, পাকিস্তান মুসলিম দেশ, আর মুসলিম দেশে হিন্দুলোকের লেখা গান কবিতা বাজতে দেয়া যেতে পারে না।
তৎকালীন পশিম পাকিস্তানের শাষকরা হয়ত পূর্ব বাংলার অন্য ধর্মের মানুষগুলোকে মানুষ মনে করতো না।
অনেক সংগ্রাম, অনেক রক্ত, অনেক আত্নত্যাগের বিনিময়ে আমরা পেয়েছিলাম আমাদের প্রিয় স্বদেশ।

আজকে সারাদিন বাইরে ছিলাম। বিকালে ঘরে ফিরে পেপারটা খুলেই একটা খবর পড়ে মনটা খুব খারাপ হয়ে গেলো।
খবরটার সাথে বড় করে একটা ছবি, একদল কওমি মাদ্রাসার ছাত্র এয়ারপোর্টের প্রবেশ পথে নির্মানাধীন "লালন" এর ভাস্কর্য
দড়ি দিয়ে টেনে ভূপাতিত করতে চাইছে। সম্ভবত, সারাদিন এ বিষয়ে ব্লগে অনেক লেখালেখি হয়েছে। তাই আমি নতুন করে
কিছু লিখবো না।

এয়ারপোর্ট একটি দেশের আন্তর্জাতিক প্রবেশ দ্বার। সবাই চাইবে তার দেশের শিল্প-সংস্কৃতি-ঐতিহ্য কে এখানে সংক্ষেপে তুলে
ধরতে। লালন কি কোন ধর্মের মুর্তি? অমার প্রিয় স্বদেশ কি গুটিকয়েক (অসীম!) শক্তির লোকের কারণে অসাম্প্রদায়িক থেকে উগ্র ধর্মীয়
দেশের পরিচয় লাভ করবে?


মন্তব্য

পুতুল এর ছবি

অদ্ভূত উটের পিঠে চলেছে স্বদেশ।
**********************
কাঁশ বনের বাঘ

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

অতিথি লেখক এর ছবি

একদম তাই ।

হিমু এর ছবি

আমার মনে হয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাথে মুজা রাজাকারের সাক্ষাৎকারজনিত বিড়ম্বনা থেকে দৃষ্টি সরানোর জন্যে এটা একটা ওয়ার্মকালারব্লব।


হাঁটুপানির জলদস্যু

অতিথি লেখক এর ছবি

এতো ক্ষমতাধর মুজাহিদ রাজাকাররা?

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

এগুলা সাময়িক বুঝতেই পারেছেন কেন এসব করা হচ্ছে। আমার মনে হয়না দেশ উগ্র ধর্মীয় পথে যাচ্ছে। দেশের সাধারণ মানুষের সাথে এদের আসলে কোন সম্পর্ক আছে বলে আমার বিশ্বাস হয়না। এদেরকে দিয়ে খেলানো হচ্ছে মুজাহিদ বিষয়ক একটা সমস্যার কারণে।

নিঝুম এর ছবি

ধইরা নিলাম সরকার নিজের পিঠ বাঁচানোর লাইগা এসব করতেসে ... একটা যুক্তিতে আইলাম । ওকে । কিন্তু এই চ্যাংড়া হুজুরগো "ভাং গাড়ী " কইয়া কইয়া , তাগোরে ইউজ করাইয়া যে, দৌরাত্ম দিনে দিনে বাড়াইতাসি , সেই খেয়াল কে করে ??? বাংলা ভাইরে কওয়া হইসিলো, তুই চরমপন্থী মার । ভাইজান চরম - নরম -গরম সব মাইরা তাবা করসে । পরে মামুরে ধরতে গিয়া বাবর মিয়া ইংলিশ-বাংলা কইতে কইতে তালগোল পাকাইয়া ফেলসে । ব্যাপারটা অইরকম হইয়া যাইতেসে না ??? এখন কয় লালন ভাং, পরে কইব লালন হুনাও বন্ধ, এতে কইরা যারা মজ্জিদে যায় তারা সূরা পড়তে পারেনা , খালি লালন পড়ে, তখন কি হইব ??? ধরা যাক কুষ্টিয়ার লালন আখড়ার পাশের কোন এক মজ্জিদের কথা... পাবলিক একবার ভাবসেন ???

--------------------------------------------------------
কারও শেষ হয় নির্বাসনের জীবন । কারও হয় না । আমি কিন্তু পুষে রাখি দুঃসহ দেশহীনতা । মাঝে মাঝে শুধু কষ্টের কথা গুলো জড়ো করে কাউকে শোনাই, ভূমিকা ছাড়াই -- তসলিমা নাসরিন

---------------------------------------------------------------------------
কারও শেষ হয় নির্বাসনের জীবন । কারও হয় না । আমি কিন্তু পুষে রাখি দুঃসহ দেশহীনতা । মাঝে মাঝে শুধু কষ্টের কথা গুলো জড়ো করে কাউকে শোনাই, ভূমিকা ছাড়াই -- তসলিমা নাসরিন

rana এর ছবি

adeshe jedin dhormoke (specialy islam) rajniti theke nishiddho kora hobe, sedin e lalon ,rabindronathke nie amra sottikarer gorbo korte parbo. amader sonskritike lalon kore emon kono vaskorjo toiri korte jaoatai desher taka nosto!!!
first ban islam in our politics.
then ..................

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA