বিচিত্র এ দেশ!

সাবরিনা সুলতানা এর ছবি
লিখেছেন সাবরিনা সুলতানা (তারিখ: বুধ, ২৭/১০/২০১০ - ৮:২৮অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

সাবরিনা সুলতানা

এক চিলতে সোনালী রোদ্দুর আমার মুখের উপরটায় এসে পড়লো ঠিক সক্কালবেলাতে। ঘুমটা ভেঙ্গে গেলো। সে কি রোদ্দুরের দোষ! মোটেই না .....সাত সকালে রোদ্দুর আমার মুখের ওপরে তার আলতো পরশ বুলিয়ে যেনো ভালোবাসা জানিয়ে গেলো। এটাই যে ভাবতে ভালো লাগছে। কিন্তু এই যন্ত্রের যুগে সেই আশ্চর্য্যি ভালো লাগাটা বেশিক্ষন ধরে রাখা দায়। কর্কশ শব্দে মোবাইলের ঘন্টি বেজে সব ভাবনা গুলিয়ে দিলো।
অপরপ্রান্ত থেকে যা বলা হলো তার সারমর্ম এই, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অধিকার নিয়ে আলোচনা অনুষ্ঠান করা হবে। আমি যদি যাই তারা খুশি হবেন।
কিন্তু বিষদ বৃত্তান্ত জেনে আমি ঠিক খুশি হয়ে উঠতে পারলাম না। কারণ, খুব সামান্য। অনুষ্ঠানস্থলটি দোতলায়। আমার বোধগম্য হলো না ঠিক, হুইলচেয়ার সমেত আমি দোতলায় পৌছুই কিভাবে!

হাহ! কি বিচিত্র এ দেশ! তারচে' বিচিত্র এ জাতি!
প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার শীর্ষক এ আলোচনায় প্রতিবন্ধি ব্যক্তির প্রবেশাধিকার নিশ্চিত নয়! আমাদের চিন্তাধারার কোনদিনো কি পরিবর্তন হবে!?


মন্তব্য

সুমিমা ইয়াসমিন [অতিথি] এর ছবি

সত্যি বিচিত্র! সাবরিনা, তারপরও হাল ছাড়লে চলবে না আমাদের। এগোতে হবে...। যেতে হবে বহুদূর।

অতিথি লেখক এর ছবি

হুম ...সত্যিই।
ধন্যবাদ আপনাকে।
ভালো থাকুন। অনেক ভালো।

সাবরিনা সুলতানা

প্রখর-রোদ্দুর এর ছবি

সে সবের কিছুই নয়
অমলাকন্তি কেবল রোদ্দুর হতে চেয়েছিলো ......

অতিথি লেখক এর ছবি

হুম ......আর আমি কেবল সে রোদ্দুরের ছায়া হয়ে থাকতে চাই।
ভালো থাকুন। অনেক ভালো।

সাবরিনা সুলতানা

বিষণ্ণ বাউন্ডুলে [অতিথি] এর ছবি

দুঃখজনক, খুব-ই দুঃখজনক। মন খারাপ

অতিথি লেখক এর ছবি

হুমম ...মন খারাপ

ধন্যবাদ।
ভালো থাকুন।

সাবরিনা সুলতানা

শিশিরকণা এর ছবি

অবশ্যই তুমি যাবে। গিয়ে দোতলার সিড়ির গোড়ায় বসে উদ্যোক্তাদের চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেবে তাদের কী করনীয় তোমাদের জন্য। আসল কাজের চে তারা গলাবাজিতে বেশি সময় ব্যয় করছেন।

~!~ আমি তাকদুম তাকদুম বাজাই বাংলাদেশের ঢোল ~!~

~!~ আমি তাকদুম তাকদুম বাজাই বাংলাদেশের ঢোল ~!~

অতিথি লেখক এর ছবি

আমার জীবনের সবচে' বড় আফসুস আমি এই মূহুর্তে চট্টগ্রাম। নতুবা ঠিকই যেতাম। আমি মনে করি, আমরা যতো বেরিয়ে আসবো মানুষ ততই বুঝবে এবং অনুভব বাড়বে।

ধন্যবাদ আপনাকে।
ভালো থাকুন। অনেক ভালো।

সাবরিনা সুলতানা

সচল জাহিদ এর ছবি

আপনি অবশ্যই যাবেন এবং যেয়ে বক্তৃতা শুরু করবেন আপনার লেখার শেষ দুটি প্যারাগ্রাফ দিয়ে। আশা করি সেই অভিজ্ঞতা আমাদেরকেও জানাবেন কোন একটি লেখায়।

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
সচল জাহিদ ব্লগস্পট


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

অতিথি লেখক এর ছবি

ভবিষতে এমন সুযোগ অবশ্যই হাতছাড়া করবো না।

ধন্যবাদ আপনাকে।
ভালো থাকুন। অনেক ভালো।

সাবরিনা সুলতানা

ইশাণ [অতিথি] এর ছবি

আপনি যেয়ে যদি দুই একটা কথা শুনাই দিয়া আসতে পারতেন তাহলে ভাল হোত।কারণ এই বেকুব গুলিরে জনসম্মুখে লজ্জা না দিলে হুস হবে না।

কৌস্তুভ এর ছবি

আপনার আগের একটি লেখায় আমি এই ধাঁচেই একটা মন্তব্য করেছিলাম, যে আমাদের দেশে এইসব পরিকাঠামোর কত অভাব এখনও। কিন্তু এই অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তারাই এটুকু ভাবেন নি, শুনে অবাক লাগছে।
ভালো থাকুন। আপনাদের উদ্যোগ চালিয়ে যান।

সাইফ তাহসিন এর ছবি

---------------------------------------------------
মন খারাপ
=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

দুর্দান্ত এর ছবি

এর প্রতিকার হল এসব উদ্যোক্তাদের নাম ঠিকানা প্রকাশ করা।
মানি প্রতিবন্ধীদের নিয়ে যথেষ্ট ভাবা হয়না। কিন্তু যেটুকু হয় সেটা যদি এরকম অসংবেদনশীলতা নিয়ে হয়, তাহলে তো একেবারেই না হওয়া ভাল।

তিথীডোর এর ছবি

আমাদের চিন্তাধারার কোনদিন কি পরিবর্তন হবে!?
আলো আসবেই, আজ অথবা কাল...

ভাল থাকবেন।

________________________________________
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

________________________________________
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA