উইকিলিকসে বাংলাদেশ

সাঈদ আহমেদ এর ছবি
লিখেছেন সাঈদ আহমেদ (তারিখ: শনি, ১৮/১২/২০১০ - ৭:৪৭পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

কেবলগেটের শুরুতেই উইকিলিকস প্রকাশিতব্য আড়াই লক্ষাধিক বাতার্র একটি তালিকা দিয়েছিল, যেখানে বাংলাদেশস্থ মার্কিন দূতাবাস থেকে প্রেরিত প্রায় দুই হাজার বার্তাও আছে বলে জানানো হয়েছিল। এই বার্তাগুলি এখনোও প্রকাশিত হয়নি।

গতকাল বিডিনিউজ যে বার্তাগুলি নিয়ে রিপোর্ট করেছে, তার কোনটিই “এক্সক্লুসিভলি” তাদেরকে দেয়া হয়নি, বরং তা এ মাসের শুরু থেকেই উইকিলিকসের সাইটে ঝুলছে। বিভিন্ন দেশের মার্কিন দূতাবাস থেকে পাঠানো যেসব বার্তা উইকিলিকস প্রকাশ করেছে, সেখানে বাংলাদেশের কিছু ঘটনার উল্লেখ আছে। গতকাল থেকে বিডিনিউজ “ওয়ার্ল্ড এক্সক্লুসিভ” দাবী করে যে বার্তাগুলি নিয়ে রিপোর্ট করছে, সেগুলিও তাই। এগুলি বাংলাদেশস্থ মার্কিন দূতাবাস থেকে প্রেরিত বার্তাগুলির অংশ নয়।

উইকিলিকসের লক্ষাধিক বার্তার মধ্য থেকে বাংলাদেশ সংক্রান্ত বার্তা বের করতে মাত্র কয়েক সেকেন্ড সময় লাগে। আপনি এখানে ক্লিক করলেই বাংলাদেশ সংক্রান্ত অধিকাংশ বার্তা পেয়ে যাবেন; বা গুগলে site:wikileaks.ch Dhaka OR Bangladesh লিখে সার্চ দিলেই গুগল আপনাকে একটি লিস্ট দিয়ে দিবে। এখন যে কোন বার্তায় গিয়ে শুধু ctrl+F চেপে Dhaka বা Bangladesh খোঁজ করুন, পেয়ে যাবেন। চাইলে অন্য যেকোন শব্দ বা শব্দবন্ধ দিয়েও সার্চ করতে পারেন।

আমি ব্যক্তিগত ভাবে সচলের কয়েকজনকে জানি যারা একই পদ্ধতি অনুসরণ করে উইকিলিকসে নিয়মিত নজর রাখছেন বাংলাদেশস্থ মার্কিন দূতাবাস থেকে পাঠানো বার্তাগুলির জন্য। তাহলে এখানে এই সহজলভ্য বিষয়টির অবতারনা কেন?

কারন এখানে দেখুন। আদিখ্যেতা কোন পর্যায়ে পৌছুলে ইতমধ্যে প্রকাশিত একটি বিষয় “এক্সক্লুসিভলি হস্তগত হয়েছে” দাবী করে প্রায় এক হাজার শব্দের একটি ভুমিকা দেয়া সম্ভব? এ নিয়ে আর কিছু না বলে সচল পাঠকদের এই লিংক থেকে ভুমিকাটা একটু পড়ে দেখবার অনুরোধ করছি, যা এই লেখাটি প্রকাশের পর বিডিনিউজ থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে* হাসি

এক্সক্লুসিভনেস প্রমাণে বিডিনিউজ মূল বার্তাগুলির উইকিলিকসের লিংক প্রদান থাকেও বিরত থেকেছে।

***
প্রশ্ন হলো কেন অন্য কেউ এটা নিয়ে রিপোর্ট করছে না?

এর উত্তরে এক সাংবাদিক বন্ধু জানালেন, তারা বাংলাদেশস্থ মার্কিন দূতাবাস থেকে প্রেরিত মূল বার্তাগুলির জন্য অপেক্ষা করছেন।

আরেক বন্ধু সেদিন দৈনিক এজ-এ প্রকাশিত রাহনুমা আহমেদের একটি লেখার প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করলেন। রাহনুমা ইসরায়েল সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশে উইকিলিকসের সম্ভাব্য স্বাআরোপিত সেন্সর এবং উইকিলিকসের ইসরায়েল প্রীতি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। আমি জানি অনেকেই উইকিলিকসের প্রতি এধরনের অভিযোগ তুলে এটিকে পরিহার করার পক্ষ নিয়েছেন।

আমার এক কোরীয় বন্ধুর সাথে ফেসবুকে "দেশ চালনায় গোপনীয়তার প্রয়োজনিয়তা" নিয়েও বেশ আলোচনা হলো। আমি ব্যক্তিগত এবং রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তার পক্ষে। তথাপি, রাষ্ট্র যখন গোপনীয়তাকে সাধারন জনগনের বিপক্ষে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করে অথবা নিজে গোপনে অন্যের তথ্য সংগ্রহ করে, তখন তার সেই তথ্য প্রচার কতটা অনৈতিক তা নিয়ে আমার প্রশ্ন আছে।

অনেকেই উইকিলিকস প্রকাশিত বার্তায় আরব-বিশ্ব আর ইসলামী জঙ্গীবাদ সংক্রান্ত তথ্যের আধিক্য নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। উইকিলিকস ইচ্ছাকৃত ভাবে এটা করছে, তা নিয়ে আমি নিশ্চিত নই। এমনও তো হতে পারে যে বিশ্বজুড়ে মার্কিন দূতাবাসগুলির বার্তায় আরব-বিশ্ব আর ইসলামী জঙ্গীবাদই প্রাধান্য পেয়েছে আর উইকিলিকস তাই প্রকাশ করছে। এক্ষেত্রে উইকিলিকসের বার্তা ব্যবহার করেই বরং মার্কিনিদের এই একচোখা নীতির সমালোচনা করা যায়।

তবে বাংলাদেশ নিয়ে উইকিলিকসের বার্তা প্রকাশে আরেকটি সমস্যা আছে। অধিকাংশ বার্তাই বাংলাদেশ সম্পর্কে মার্কিন দূতাবাসের কর্মকর্তাদের নিজস্ব মতামত, যা অনেক ক্ষেত্রে নেতিবাচকও হতে পারে। যেমন, অধিকাংশ বার্তায়ই বাংলাদেশে ইসলামী জঙ্গীবাদ নিয়ে আশংকা প্রকাশ করা হয়েছে। এ ধরনের বার্তার প্রচার কি আমাদের দেশের ভাবমূর্তির জন্য খারাপ?

কারো মতে, দেশে কোন জঙ্গী নেই এবং “বাংলাভাই মিডিয়ার সৃষ্টি” ধরনের অবস্থান নেয়া দেশের জন্যই ক্ষতিকর। আবার কারো মতে, এগুলির প্রচার বাংলাদেশের জন্য আফগানিস্তানের ন্যায় সমস্যা বয়ে আনতে পারে।

এদিকে ভাবমূর্তি ঠিক রাখার একটি অভিনব পদ্ধতি ভারতের পত্রিকাগুলি দেখিয়েছে। গতকালের সবচে’ বড় লিকস ছিল কাশ্মীরের সাধারন জনগনের উপর ভারতীয় সরকারী বাহিনীগুলোর নির্যাতনের খবর। কিন্তু ভারতের অনেক পত্রিকাই দেশের ভাবমূর্তি ঠিক রাখতে “ভারতে হিন্দু-মুসলিম সম্প্রীতি” সংক্রান্ত একটি বার্তাকে বেশি প্রধান্য দিয়েছে।

এই দুয়ের সমাধানে কেউ আবার মনে করেন, দেশের অভ্যন্তরে জঙ্গী দমনে কঠোর কর্মসূচী নিতে হবে, কিন্তু দেশের বাইরে ভাবমূর্তি ঠিক রাখতে হবে।

আমার মতে, চোখ বন্ধ করে রাখলে যেহেতু প্রলয় বন্ধ হয় না, তাই সবকিছু সরাসরি মোকাবেলা করাই শ্রেয়।

***
এবার কিছু বার্তার সরাসরি লিংক দিচ্ছি---
ক. ইসলামী ডেমোক্রাটিক পার্টির গঠনে ডিজিএফআই-এর সমর্থন ও হুজির কার্যক্রম: http://wikileaks.ch/cable/2008/11/08STATE116943.html#par29

খ. গত নির্বাচন নিয়ে জনমত, যেখানে ৮০ ভাগ মত দিয়েছিল যে তারা কোন দলের নির্বাচন বয়কট সমর্থন করে না, এবং এক-তৃতীয়াংশ উত্তরদাতা প্রয়োজনে নির্বাচন বাতিল বিরোধী আন্দোলনে অংশ নেয়ার জন্য রাজী বলে জানিয়েছিলেন:
http://wikileaks.ch/cable/2008/11/08STATE116943.html#par30

গ. ইসলামী হেরিটেজ সোসাইটির-র অর্থায়ন ও কার্যক্রম:
http://wikileaks.ch/cable/2007/05/07KUWAIT808.html#par3

ঘ. বাংলাদেশের জাঙ্গীবাদে পাকিস্তানের অর্থায়ন:
http://wikileaks.ch/cable/2009/05/09RIYADH716.html#par7

[সূত্র: http://wikileaks.ch/cablegate.html]

*আপডেট ১:
সচলায়তনে লেখাটি প্রকাশের পর বিডিনিউজ সম্প্রতি ভুমিকা নামক পারিবারিক ইতাহাসের আলোচিত অংশটুকু সরিয়ে ফেলেছে। সেজন্য বিডিনিউজকে ধন্যবাদ। পাঠক চাইলে এখানে সরিয়ে ফেলা অংশটি দেখতে পারেন
*আপডেট ২:
পারিবারিক ইতাহাস সংক্ষেপিত হয়ে "ব্যক্তিগত নোট" হিসেবে ফিরে এসেছে হাসি চলতে থাকুক।


মন্তব্য

হিমু এর ছবি

এমনও হতে পারে, আলাদিন সাহেব মিশন ইম্পসিবল স্টাইলে রাতের আঁধারে ঘুলঘুলি দিয়ে ঢুকে দড়ি দিয়ে ঝুলে ঝুলে একটা সাইবার ক্যাফের পিসিতে ঢুকে গুগলে উইকিলিক্স আর বাংলাদেশ লিখে সার্চ মেরে এইসব এক্সক্লুসিভ লেখা বগলস্থ করেছেন।



বুকে BOOK রেখে বন্ধু চলো আজ যাবো বরাহশিকারে মোরা ধার ধার ধার দিও বল্লমে ♪♫

অনিন্দ্য রহমান এর ছবি

"I have viewed and will précis these; they cover the period October-November 2008 and none other exists."

আলাদিন সাহেব লিক্সেন, none other exists। এইটা সত্য কিনা বুঝতে আরো কয়েকদিন অপেক্ষা করতে হবে।

কেবলের সাথে স্পাইডারম্যানটা ভালো যায়।


রাষ্ট্রায়াত্ত শিল্পের পূর্ণ বিকাশ ঘটুক


রাষ্ট্রায়াত্ত শিল্পের পূর্ণ বিকাশ ঘটুক

হিমু এর ছবি

হয়তো সাইবার ক্যাফেতে কারেন্ট চলে গেছিল তারপর। উনি কপালের ঘাম মাটিতে পড়তে দিতে চান নাই বলে হুড়াহুড়ি করে দড়ি বেয়ে উঠে বেরিয়ে এসেছেন (সাসপেন্স মিউজিক হবে এইখানে)।



বুকে BOOK রেখে বন্ধু চলো আজ যাবো বরাহশিকারে মোরা ধার ধার ধার দিও বল্লমে ♪♫

রহমান এর ছবি

উইকিলিকস সার্চের টিপসের জন্য ধনেপাতা।

আর কেউ যেহেতু রিপোর্ট করেনি, তাই বিডিনিউজ এমনিতেই বাহবা নিতে পারতো। এরজন্য স্বপ্নে পাওয়া মহৌষধের মত এক্সক্লুসিভলি পাবার মিথ্যে নাটক সাজানোর দরকার ছিলনা।

আলাদিন সাহেবের ঠাকুর্দার ঠিকুজিও যে কেন জাতিকে জানতে হলো, তা বুঝলাম না মন খারাপ

হিমু এর ছবি

বাংলাদেশে সবই বংশের খেল রে ভাই। বলদিয়ার সিদ্দিকি বংশ, শর্ষিনার পীর বংশ, শেখ বংশ, রহমান বংশ। কলিমুদ্দি সলিমুদ্দির বংশধররা এইসব ডেলিকেট ডিপ্লোম্যাটিক জিনিস হ্যাণ্ডল করতে পারবে না, কী না কী লিখে ফেলবে। এসব আসতে হবে রইস ঘরানার লোকজনের হাত দিয়ে, যারা কূটনৈতিক আবহাওয়ায় বড় হয়েছে, রাষ্ট্রদূতদের সাথে ওঠবোস করেছে ছোটো বেলা থেকে, দুই সেকেণ্ডের বাতকর্ম সেরে মিনিটব্যাপী এক্সকিউজ মি বলতে বলতে ছোটো থেকে বড়টি হয়েছে। উইকিলিক থেকে লিক করে তথ্য যতোই চুঁইয়ে পড়ুক না কেন, সেটাকে সোনার বদনা দিয়ে কালেক্ট করতে হবে। যাদের নানাদাদা আদাড়েবাদাড়ে হাগু করেছে, তারা কি এইসব কূটনৈতিক ইয়ের মর্ম বুঝবে?



বুকে BOOK রেখে বন্ধু চলো আজ যাবো বরাহশিকারে মোরা ধার ধার ধার দিও বল্লমে ♪♫

সাঈদ আহমেদ এর ছবি

হাহাহা.... কতগুলো নাম মনে পড়লো একই ঘরানার হাসি
-----------
চর্যাপদ

-----------
চর্যাপদ

রাগিব এর ছবি

ইংরেজি উইকিতে আলাদিন ওরফে ইনাসুল ফতেহ এর আত্মজীবনী নিয়ে অনেক কাণ্ড হয়েছিলো। আজ বিডিনিউজ দেখে সেই কথা মনে পড়লো। হাসি

তবে উইকিলিকস নিয়ে বিডিনিউজের রিপোর্টে আসান্জের ছবির বদলে আলাদিনের ছবি দেখানোতে আশ্চর্য হইনি, আগের অভিজ্ঞতার আলোকেই।

----------------
গণক মিস্তিরি
মায়ানগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | টুইটার

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

হিমু এর ছবি

auto

আলো আঁধারিতে ঘেরা এক রহস্যপুরুষ। ওনার জ্বিনের নাম গুগল। চেরাগে ঘষা দিলেই জ্বিন নানা উইকিলিক ডকুমেন্ট বের করে দেয়।



বুকে BOOK রেখে বন্ধু চলো আজ যাবো বরাহশিকারে মোরা ধার ধার ধার দিও বল্লমে ♪♫

শুভাশীষ দাশ এর ছবি

উলে বাপ্রে। এডিতর এমারিতাস বলে কথা!

হিমু এর ছবি

সম্পাদকের সদরঘাট শাখাগুলিরে নিয়া জাতি বিষম বিপদেই আছে। বামন্দার কথা মনে পড়ে গ্যালু।



বুকে BOOK রেখে বন্ধু চলো আজ যাবো বরাহশিকারে মোরা ধার ধার ধার দিও বল্লমে ♪♫

শুভাশীষ দাশ এর ছবি
ওসিরিস এর ছবি

আলাদিনের চাইতে তো 'আবু'-র সাথেই এনার বেশি মিল।
_______________________________________________
সিগনেচার কই??? আমি ভাই শিক্ষিৎ নই। চলবে টিপসই???

সাঈদ আহমেদ এর ছবি
অনিন্দ্য রহমান এর ছবি

ক-চিহ্নিত কেবলটা আগে পাড়সিলাম। ঐ একই পদ্ধতিতে। তবে, উইকিলিক্সের একেক মিররের একেক রেজাল্ট আসে। যেমন, ch এর জায়গায় nl দিলে ৩টা কম পাওয়া যায়। আবার de বা eu দিলে কিছুই পাওয়া যায় না। কিন্তু কোনোভাবেই এইগুলাকে এক্সক্লুসিভ বলা যাইতেসে না।

সার্বিকভাবে উইকিলিক্সের নিজস্ব উদ্দেশ্য বিবেচনায় রেখেও বাংলাদেশের অন্যান্য গণমাধ্যমগুলা এটা প্রকাশ করতে পারত। আমার মনে হয়, তারা এইটা করে নাই সিম্পলি তাদের অথর্বতার জন্য (গুগল সার্চ দেয়ার মতো সহজ কাজও তারা অনেক ক্ষেত্রে পারেন না)। কোনো পলিটিকাল/ইথিকাল জাজমেন্ট থেকে না। এক্ষেত্রে বিডিনিউজই এটা প্রথম ছাপাইসে। তারা চোখকান খোলা রাখসিল। যেমন, হুজি-বিষয়ক কেবলটা ডিসেম্বরের ৪ তারিখের রিলিজ। ৪ তারিখের আগে এইটা পাওয়া যাওয়া কথা না।(তাছাড়া হুজির সাথে ডিজিএফআই-র সংশ্লিষ্টতা নিয়ে বক্তব্য অনেক পত্রিকাই হয়ত ছাপতে চাইবে না। যেরকমটা ইউনুস-নোরাডের কেসে হইসে।)

দীর্ঘ অপ্রয়োজনীয় ভূমিকায় পরিমিতিবোধের অভাব প্রকট। আলাদিন সাহেবের ফ্যামিলি হিস্ট্রি, সেটা যতই মহান হোক, এই প্রকাশনার সাথে চূড়ান্তভাবে অপ্রাসঙ্গিক। হাস্যকর।


রাষ্ট্রায়াত্ত শিল্পের পূর্ণ বিকাশ ঘটুক


রাষ্ট্রায়াত্ত শিল্পের পূর্ণ বিকাশ ঘটুক

অতিথি লেখক এর ছবি

এইটা হল আসল কথা। বিডিনিউজের রঙ ইদানিং বেশ হলুদ। কিন্তু আমাদের আলু-পটলরা বদলে দেয়ার নাম করে যে কি ফালায় তা বোঝা গেছে। যাই হোক আমরা অতিরিক্ত হিসেবে পাত্রের বায়োডাটা দেখলাম।

অনন্ত

সাঈদ আহমেদ এর ছবি

সার্বিকভাবে উইকিলিক্সের নিজস্ব উদ্দেশ্য বিবেচনায় রেখেও বাংলাদেশের অন্যান্য গণমাধ্যমগুলা এটা প্রকাশ করতে পারত। আমার মনে হয়, তারা এইটা করে নাই সিম্পলি তাদের অথর্বতার জন্য (গুগল সার্চ দেয়ার মতো সহজ কাজও তারা অনেক ক্ষেত্রে পারেন না)

- সম্ভবত এটাই ঠিক। যাক, অবশেষে ডেইলিস্টারও রিপোর্ট করেছে, তবে ইউএনবি-র বরাত দিয়ে। গুগলসার্চের জয় হোক হাসি
-----------
চর্যাপদ

-----------
চর্যাপদ

রুশো এর ছবি

সাঈদ ভাই

তবে বাংলাদেশ নিয়ে উইকিলিকসের বার্তা প্রকাশে আরেকটি সমস্যা আছে। অধিকাংশ বার্তাই বাংলাদেশ সম্পর্কে মার্কিন দূতাবাসের কর্মকর্তাদের নিজস্ব মতামত, যা অনেক ক্ষেত্রে নেতিবাচকও হতে পারে। যেমন, অধিকাংশ বার্তায়ই বাংলাদেশে ইসলামী জঙ্গীবাদ নিয়ে আশংকা প্রকাশ করা হয়েছে। এ ধরনের বার্তার প্রচার কি আমাদের দেশের ভাবমূর্তির জন্য খারাপ?

আপনি কিভাবে নিশ্চিত হলেন অধিকাংশ বার্তাই বাংলাদেশে ইসলামী জংগী বাদ নিয়ে এবং তা বাংলাদেশের ভাবমূর্তির জন্য খারাপ হবে ?বাংলাদেশের ব্যাপারে অপ্রকাশিত তথ্যের ব্যাপারে আপনার সুনিশ্চিত ধারণার কারণটা কি, তা ঠিক বুঝলাম না।
এটা ঠিক বাংলাদেশে জংগীবাদের উথানের শুধু পদধ্বনি শোনা গেছে তাই নয়, বাংলাদেশের দুটি প্রধান দলই এদের মদদ দিতে গিয়ে ধরা খেয়েছে, সাধারণ জনগণ আত্মঘাতী বোমা হামলার শিকার হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী আক্রান্ত হয়েছেন, বিরোধী দলীয় নেত্রীর উপরো হামলার চেষ্টা হয়েছে, বিচার বিভাগ আক্রান্ত হয়েছে। পাশাপাশি সেই সাথে জংগী দমনে আমাদের সাফল্য ও আছে, যা অনেক দেশের নেই।বাংলাদেশের মত হতদরিদ্র অর্ধশিক্ষিত ধর্মান্ধ মুসলিম প্রধান দেশে এই ব্যাপারটা এখনো এদেশের সচেতন মানুষের অবস্থান ব্যাপারটিকে সীমা নিয়ন্ত্রণের বাইরে যেতে দেয়নি।

বরং আপনার এই কথাটিই ঠিক, আমার মতে, চোখ বন্ধ করে রাখলে যেহেতু প্রলয় বন্ধ হয় না, তাই সবকিছু সরাসরি মোকাবেলা করাই শ্রেয়।

লেখাটার জন্য ধন্য বাদ। বিডি নিউজ আজকাল কেমন যেন অপ্রয়োজনীয় ভাবে হাস্যকর করে তুলতে চাইছে। ডঃ ইউনুস্র ব্যাপারে যেমন অনেক ঢোল বাজিয়ে রিপোর্ট করলেও, তার সংবাদ সম্মেলনে দেয়া বক্তব্য সম্পর্কে নিষ্পফ ভাব দেখা গেছে।
ধন্য বাদ আবারো।

সাঈদ আহমেদ এর ছবি

আপনি কিভাবে নিশ্চিত হলেন অধিকাংশ বার্তাই বাংলাদেশে ইসলামী জংগী বাদ নিয়ে এবং তা বাংলাদেশের ভাবমূর্তির জন্য খারাপ হবে ? বাংলাদেশের ব্যাপারে অপ্রকাশিত তথ্যের ব্যাপারে আপনার সুনিশ্চিত ধারণার কারণটা কি, তা ঠিক বুঝলাম না।

- লেখায় দেয়া উইকিলিকসের লিংকে যতগুলো কেবল আছে, অধিকাংশইতো জংগীবাদ নিয়ে।
- অপ্রকাশিত তথ্যের ব্যাপারেতো কিছু বলিনি। যা বলেছি, তা প্রকাশিত বার্তাগুলো নিয়ে।
- বাংলাদেশের ভাবমূর্তির জন্য খারাপ হবে তা তো দাবী করিনি। আমি একটি প্রশ্নবোধক চিহ্ন দিয়ে শেষ করেছি, কারন এগুলোই আমাদের জানানো হয়েছিল বাংলাভাই-এর সমসাময়িক ঘটনা নিয়ে। কিন্তু ব্যক্তিগত উত্তর হিসেবে আমার অবস্থান তো পরিষ্কার-- "চোখ বন্ধ করে রাখলে যেহেতু প্রলয় বন্ধ হয় না, তাই সবকিছু সরাসরি মোকাবেলা করাই শ্রেয়"।
-----------
চর্যাপদ

-----------
চর্যাপদ

অতিথি লেখক এর ছবি

আচ্ছা... আলাদিন ভাইয়ের জুতার ময়লা কি সিডনী থেকে আসে?

--- থাবা বাবা!

দ্রোহী এর ছবি
আরিফ জেবতিক এর ছবি

বাপ্রে!!

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

ছবিটা দেখে বিরাট ডরাইছি হাসি
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

ধুসর গোধূলি এর ছবি
দ্রোহী এর ছবি

হা হা হা হা ....

Wikileaks Expose: Bangladesh নিজেই হারায় গেছে। মনে হয় আলাদিন সাহেবের চেরাগের জ্বীন আকামটা করছে!

সাঈদ ভাই, আপনাকে উত্তম জাঝা।


কাকস্য পরিবেদনা

সাঈদ আহমেদ এর ছবি

ধুগো/দ্রোহী,
মাত্র দেখলাম। Prelude নামে যে "সূচনা সঙ্গীত" ছিল, তার পুরোটাই সরিয়ে ফেলা হয়েছিল।
সেটা বদলে এখন যে ভুমিকাটা দেয়া হয়েছে, তাই যদি শুরু থেকে দিত, তাহলে পেশাদার সাংবাদিকতা মনে হতো।

তবে, একটু পরে আবার দেখলাম একটি সংক্ষেপিত "ব্যক্তিগত নোট" যুক্ত করা হয়েছে। মন্দের ভালো হাসি
-----------
চর্যাপদ

-----------
চর্যাপদ

কনফুসিয়াস এর ছবি

ব্যাপক মজা পেলাম। হাসি
-----------------------------------
আমার জানলা দিয়ে একটু খানি আকাশ দেখা যায়-

-----------------------------------
বই,আর্ট, নানা কিছু এবং বইদ্বীপ

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।