শোষণ দমন রাষ্ট্রশাসন

তীরন্দাজ এর ছবি
লিখেছেন তীরন্দাজ (তারিখ: শুক্র, ০৬/১২/২০১৩ - ৫:৫০অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

শহরে কয়েকটি বাসে আগুন দেবার পর সহিংস অবরোধকারীদের ধরতে গেল পুলিশ। তাদেরকে না পেয়ে বাজারের তরকারী বিক্রেতা সালামকেই পিটাতে পিটাতে ধরে নিয়ে এলো থানায়। পুলিশ বলল, এই অরাজকতার জন্য জনগণই দায়ী। তাই জনগণের অংশ হিসেবে তুমিও দায়ী। আমরা পুলিশ হলেও মানুষ। তাই একটি সুযোগ দিচ্ছি। দৌড় দিতে হবে তোমাকে। যদি দ্রুত দৌড়াও, তাহলে সীমানার দেয়াল অবধি পৌঁছাতে পারবে। যদি খুব বেশী দ্রুত দৌড়াও তাহলে লাফিয়ে দেয়াল পেরিয়ে রাস্তাতেও উঠতে পারবে।

প্রাণপণে দৌড় দিল সালাম। তার দৌড় এত ভালো হল যে, এক লাফে দেয়ালটিও পার হতে পারল সহজেই। লাফিয়েই পড়লো এক বাসে, যেটি পিকেটারদের আগুনে দাউ দাউ করে জ্বলছিল।
____________

ট্রান্সালভানিয়ার বাজারে রক্তের দাম উর্ধ্বমুখী। প্রতিটি পণ্যজাত দ্রব্যের সাথে রক্তও সরকারী কর ও ভেটের আওতায় আনায় সরবরাহও কম। ড্রাকুলা ও তার উত্তরসূরিদের ভয়াবহ সঙ্কট। বেঁচে থাকার জন্যে নূন্যতম পরিমাণ রক্তেরও সরবরাহ হয় না বললেই চলে। এভাবে ধুঁকে ধুঁকে বেঁচে থাকার চাইতে মৃত্যুও ভালো। কিন্তু তাদের তো মরারও জো নেই।

অবশেষে এই সমস্যার সমাধান করলেন ঈশ্বর। ড্রাকুলাদের শাসক বানিয়ে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দিলেন। এই সিদ্ধান্ত নেবার সময় শয়তানের সাথে পরামর্শ করেছিলেন, এমন একটি গুজব শোনা গেলেও গুজবটির সত্যতা আজ অবধি প্রমাণিত হয়নি।
____________

অধিকার নিয়ে দিন কয়েক আগে একটি আইন প্রণয়ন করা হয়। এই পদক্ষেপের পেছনে প্রচ্ছন্ন কারণও রয়েছে। বাঁচার অধিকার, বাসস্থানের অধিকার, খাদ্যের অধিকার, কথা বলার অধিকার, শিক্ষার অধিকার- এসব ইস্যু নিয়ে আজকাল এত বেশি হইহই রইরই যে, এদের তাস্কর্যে চলাফেরাই দুষ্কর। তাই বশে আনার জন্যে আইনের বলে এদের সবাইকে রাষ্ট্রায়ত্ত সম্পত্তি বলে ঘোষণা করা হয়।

প্রতিবাদে তিনদিনের আলোচনা সভার আয়োজন করে অধিকার সংঘ। প্রতিদিনের জ্বালাময়ী বক্তৃতা ও ভোটাভোটির পর গণতান্ত্রিক অধিকারকে সভাপতি করে আইন প্রণেতাদের কাছে প্রতিবাদ-লিপি পাঠানো হয়।

যেহেতু শাসকই গণতান্ত্রিক অধিকারের একচ্ছত্র অধিপতি, তাই প্রতিবাদ লিপির উত্তরটি আজও আসে নি।


মন্তব্য

শাহীন হাসান এর ছবি

বর্তমান সময়েরই নির্মম প্রতিচ্ছবি /
অবশেষে এই সমস্যার সমাধান করলেন ঈশ্বর। ড্রাকুলাদের শাসক বানিয়ে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দিলেন।

....................................
বোধহয় কারও জন্ম হয় না, জন্ম হয় মৃত্যুর !

এক লহমা এর ছবি

মন খারাপ
গণতান্ত্রিক প্রতিবাদ, গণতান্ত্রিক মোকাবিলা, জনগণ তাতে জড়িত কতটা, সে কথা কেই বা জানে!
নানা কিসিমের ষড়যন্ত্রে, রাজনীতি আজ বড়ই রঙ্গিলা, ছোটে ধ্বংসের সন্ধানে!

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

সাক্ষী সত্যানন্দ এর ছবি

মন খারাপ

____________________________________
যাহারা তোমার বিষাইছে বায়ু, নিভাইছে তব আলো,
তুমি কি তাদের ক্ষমা করিয়াছ, তুমি কি বেসেছ ভালো?

প্রোফেসর হিজিবিজবিজ এর ছবি

মন খারাপ

____________________________

অতিথি লেখক এর ছবি

মন খারাপ
অভিমন্যু .
________________________
সেই চক্রবুহ্যে আজও বন্দী হয়ে আছি

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA