ত্রিবেণীসঙ্গম--

অনিকেত এর ছবি
লিখেছেন অনিকেত (তারিখ: বিষ্যুদ, ০৫/০১/২০১৭ - ১০:১২পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

আমার একটা ২০০৯ সালের ল্যাপ্টপ আছে। এটাতেই আমি আমার যাবতীয় সাঙ্গীতিক দুষ্কর্ম গুলো করে থাকি। ইন্টেলের প্রথম জেনারেশানের i7 প্রসেসর। কুলিং সিস্টেম অপর্যাপ্ত। ল্যাপ্টপ চালু করার অল্প কিছুখনের মাঝেই বিশাল শোঁ শোঁ আওয়াজ করে ফ্যান চালু হয়। এই ফ্যান আবার আমাদের দেশের নাপিতের মত---নাইন্টি পার্সেন্ট কাঁচির বাদ্য আর টেন পার্সেন্ট চুল কাটা। ফলে যেকোন প্রসেসর ইন্টেন্সিভ কাজ--যেমন মিউজিক করা, ছবি এডিট করা--করতে গেলে কিছুখনের মাঝে প্রসেসর এমন গরম হয়ে ওঠে যে আমার এক বন্ধুর ভাষায় বলতে গেলে বলতে হয় যে---ল্যাপটপের উপর ডিম ছেড়ে দিয়ে অনায়াসে ডিম ভাজি করে ফেলা যাবে!

ল্যাপিটা ঠান্ডা রাখার জন্যে আমার একটা ছোট্ট কমলা রঙ্গের ফ্যান ছিল। এক সুদিনে সেইটাও ইন্তেকাল ফরমালেন। তখন মিউজিক করাটা খুব ইন্টারেস্টিং হয়ে উঠল। যা করার ১৫ মিনিটের মধ্যে করতে হবে। নাহলে ল্যাপি গরম হয়ে তেতে উঠে আপনা-আপনি বন্ধ হয়ে যায়।

বোঝেন অবস্থা---মিউজিক করা এম্নিতেই দুঃসাধ্য--তার উপরে যদি এইরকম ১৫ মিনিটের টাইম ফ্রেম থাকে--তাহলে তো বলাই বাহুল্য।

এই গানটা অনেক দিন ধরে ১৫ মিনিট করে করে তৈরি করা।

গানটা এখনকার হালের ভাষায় Mashup বলা যেতে পারে। বাংলায় বলা যেতে পারে--গানান্তরী!

তিন ভাষায় তিনটা গান। এক সাথে গাওয়া। গান তিনটার মাঝে একটা অন্তর্লীন মিল আছে---গান তিনটিরই বিষয়বস্তু ---বিরহ--সাদা বাংলায় 'ছ্যাকামাইসিন' গান!

আরো একটা মিল আছে---সেইটা অবশ্য নেহায়েতই আমার দাবী! আমার অসংস্কৃত কানে এই তিনটা গানের ভিত্তি দাঁড়িয়ে আছে রাগ মিশ্র ভৈরবীর ওপর। আমি রাগ সঙ্গীতের কিছুই জানিনা--বিষম অনুরাগী বলা যায় হয়ত। আমার সব সময়ে মনে হয় ভারতীয় মার্গীয় সঙ্গীতের রাগ-রাগিনীর সাথে পাশ্চাত্যের গান গুলোর মিল থাকা অসম্ভব কিছু নয়। পাশ্চাত্যের কিছু গানের কর্ড প্রগ্রেসনের সাথে আমাদের মার্গীয় সঙ্গীতের চাল ও চলনের মিল থাকতে পারে। আমার কাছে মনে হয় সঙ্গীত জিনিসটা সার্বজনীন এবং সর্বজনীন। আর এই সার্বজনীনতাটুকুর উদ্ভব খুব সম্ভবত এই কারণে যে---যে যেখানেই থাকিনা না কেন, সাদা-কালো-বাদামি যে রঙ্গেরই হই না কেন---দিন শেষে আমরা সকলেই এই ধরিত্রীপুত্র! লোককবি যেমন বলেছিলেনঃ

"নানান বরণ গাভীরে, তার একই বরণ দুধ
জগত ভরমিয়া দেখলাম সব একই মায়ের পুত"

আনন্দম !!


মন্তব্য

সোহেল ইমাম এর ছবি

ভালো লাগলো।

---------------------------------------------------
মিথ্যা ধুয়ে যাক মুখে, গান হোক বৃষ্টি হোক খুব।

অনিকেত এর ছবি

ধন্যবাদ---শুভেচ্ছা জানবেন !

এক লহমা এর ছবি

মিউজিক ভাল লেগেছে। গান শুনতে শুনতে ব্রুক বেনটন-এর গান মনে পড়ে গেল।

--------------------------------------------------------

এক লহমা / আস্ত জীবন, / এক আঁচলে / ঢাকল ভুবন।
এক ফোঁটা জল / উথাল-পাতাল, / একটি চুমায় / অনন্ত কাল।।

এক লহমার... টুকিটাকি

অনিকেত এর ছবি

ধন্যবাদ দাদা--
শুভেচ্ছা জানবেন!

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA