বাজে গল্প ০৩

দ্রোহী এর ছবি
লিখেছেন দ্রোহী (তারিখ: বিষ্যুদ, ১০/০২/২০১১ - ১০:৫৬পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

পচা গল্প। ভদ্রলোকেরা দূরে গিয়া খ্যালেন। দেঁতো হাসি

দুই বন্ধু ছিল, একজন ফুকো আর একজন হুকো। দুইজনে বিয়াপক গিয়ানজাম। হুকো বিজ্ঞাপনে পড়িল আর ফুকো লোকমুখে শুনিল, মেহেরজানোয়ার নামে একটা যুদ্ধ ও প্রেমের সিনামা মুক্তি পাইয়াছে।

হুকো বলিল, “ফুকো ভাই চলো, সিনামা হলে গিয়া মেহেরজানোয়ার দেখি”। ফুকো ডিসকোর্স নাড়িয়া বলিল, “হুকো ভাই চলো, সিনামা হলে গিয়া যুদ্ধ ও প্রেম দেখি।”

দুইজনে সিনামা হলে গিয়া বসিল। ভরপুর নাচ–গান–যুদ্ধ চলিল, তারপর হুকো বলিল, “বন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ দেখিলে কেমন?”

হুকো বলিল, “আজকে তো চোদাচুদি দেখিলাম, যুদ্ধ বোধহয় সিক্যুয়েলে হইবে।” ফুকো ঘনঘন মাথা নাড়িয়া বলিল, “মুর্খ তুমি! আজ হইল মুক্তিযুদ্ধ, চোদাচুদি বোধহয় সিক্যুয়েলে হইবে।”

হুকো চটিয়া গেল। ফুকো বলিলো, “ডিকনস্ট্রাকশন, গ্র্যান্ড ন্যারেটিভ, কাউন্টার ন্যারেটিভ বোঝ না তুমি, মুক্তিযুদ্ধের সিনামার মর্ম জানিবে কী?” হুকো স্বীয় ফুকোয় আঙুল ঢুকাইয়া বলিল, “গুয়ে বাড়া দিয়ে বসিয়া আছ, চোদাচুদির সিনামার তুমি কাঁচকলা বুঝিবে কী?” ফুকো চিৎকার করিয়া বলিল, “এইটা যুদ্ধের সিনামা, পরেরটা হবে চোদাচুদির।” হুকো ডিসকোর্স নাচাইয়া বলিল, “এইটা চোদাচুদির সিনামা, পরেরটা হবে মুক্তিযুদ্ধের।”

সেই হইতে দুইজনের ছাড়াছাড়ি। হুকো বলে, “ফুকোটা এমন গুয়েবাড়া, সে পুটকিমারা খেয়েও রিকনসিলিয়েশন করিতে পারে।” ফুকো বলে, “হুকোটা যদি রিকনসিলিয়েশন বুঝিত, তবে তার পকেটেও দুই–চার–দশ টাকা থাকিত!”

নোট:

  • রায় সাহেবের “বাজে গল্প ১” থেকে সুকুমারকৃত
  • মেহেরজানোয়ার [কপিরাইট: হিমু]


মন্তব্য

আব্দুর রহমান এর ছবি

এত্ত বাজে গল্প আমি জীবনে পড়ি নাই।

------------------------------------------------------------------
এই জীবনে ভুল না করাই সবচেয়ে বড় ভুল

সবুজ পাহাড়ের রাজা এর ছবি

হিমু এর ছবি

আরে সুকোর লেখা গল্পটাকে ফুকো আর হুকোর গল্প বানিয়ে দিল রে মেম্বর! রিকনসিলিয়েশনের গমের ভাগ দিতে হবে কিন্তু!

কৌস্তুভ এর ছবি

হাস্তে হাস্তে বিষম খেয়ে গেলাম - সত্যিই খুব্বাজে গল্প!

অতিথি লেখক এর ছবি

ভয়াবহ রকমের বাজে গল্প। গন্ধ বের হচ্ছে। গড়াগড়ি দিয়া হাসি

জয়

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

নাহ, না হেসে থাকতে পারলাম না। সুকুমার রায়ও হাসতেন নিশ্চিত দেঁতো হাসি

মেমনন এর ছবি

যাদের লুকানো লেজ পিছন পায়ের ভাজে,
লাদ ছাড়ায়ে,
পোঁ* মারায়ে-
রিকন্সিলেশন গোঁজে পোঁ*-এর খাঁজে
গল্প কি আর লাগবে তাদের কাজে?
বরং আমার, আমজনতার-
মুখটা যে ভাই রাংগা হল লাজে-
গল্প এমন বাজের বাজে। চোখ টিপি

নিবিড় এর ছবি
রাতঃস্মরণীয় এর ছবি

দ্রোহী একদা বলিয়াছিলো যে হাসির শেষ হয় 'ইয়ের' মধ্যে দিয়ে। আমারও তাহাই হইলো। খাইছে

কিঞ্চিত দুর্গন্ধ বিস্তার ঠেকাইতে পারিলাম না।

------------------------------------------------
প্রেমিক তুমি হবা?
(আগে) চিনতে শেখো কোনটা গাঁদা, কোনটা রক্তজবা।
(আর) ঠিক করে নাও চুম্বন না দ্রোহের কথা কবা।
তুমি প্রেমিক তবেই হবা।

অতিথি লেখক এর ছবি

খাইছে! সিক্যুয়েলও বাইর হইব নাকি? চিন্তিত

সেই হইতে দুইজনের ছাড়াছাড়ি। হুকো বলে, “ফুকোটা এমন গুয়েবাড়া, সে পুটকিমারা খেয়েও রিকনসিলিয়েশন করিতে পারে।” ফুকো বলে, “হুকোটা যদি রিকনসিলিয়েশন বুঝিত, তবে তার পকেটেও দুই–চার–দশ টাকা থাকিত!”

গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি

-অতীত

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

একটু বেশী ইয়ে। ভালো লাগলো না। মন খারাপ

দ্রোহী এর ছবি

সামান্য ইয়ে হয়ে গেছে। ২৪ ঘন্টা পর ফের পড়তে গিয়ে আমারও তাই মনে হল। মন খারাপ

অতিথি লেখক এর ছবি

গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি গড়াগড়ি দিয়া হাসি
--------------------------------
Lover of Sadness

সচল জাহিদ এর ছবি

আফনে খুব খ্রাপ লুক দেঁতো হাসি


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

অদ্রোহ এর ছবি

গুণীজনদের নিয়ে ঠাট্টা মস্করার জন্য আপ্নারে তীব্র দিক্কার!!

--------------------------------------------
যদ্যপি আমার গুরু শুঁড়ি-বাড়ি যায়
তথাপি আমার গুরু নিত্যানন্দ রায়।

অতিথি লেখক এর ছবি

ভাই এত বাজে গল্প কেন দিলা?? এহন দেহি আমার লেপটপ্টারে গোসল দিতে হইব ওঁয়া ওঁয়া

খেকশিয়াল এর ছবি

হো হো হো

-----------------------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

ভ্রান্তি বিলাস এর ছবি

গড়াগড়ি দিয়া হাসি

ঘটনা আরও জানবার জন্য পরের সিকুয়েলের অপেক্ষায় রইলাম...

অতিথি অন্যকেউ এর ছবি

কঠিন গিট্টুযুক্ত বাঁশ!

পাঠক এর ছবি

হাততালি

মামুন এর ছবি

সত্যি

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।