কীর্তিনাশা এর ব্লগ

আমি এখন বাবা হবার আনন্দে বিভোর.........

কীর্তিনাশা এর ছবি
লিখেছেন কীর্তিনাশা (তারিখ: বিষ্যুদ, ১৬/০৭/২০০৯ - ১১:৪৪পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

ঠিক এক সপ্তাহ আগে, বুধবারে অফিসে কাজ করছিলাম। তখন দুপুর পেরিয়ে বিকেল হয়েছে সবে মাত্র। হঠাৎ বাসা থেকে বোনের ফোন - তাড়াতাড়ি বাসায় চলে আয়। সাথে অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে আসবি অবশ্যই।

বুঝলাম সময় এসে গেছে। দ্রুত বাসার উদ্দ্যেশে ছুটলাম। জরুরী ফোনগুলো দ্রুত সেরে ফেললাম পথে। বাসায় পৌঁছেই বউকে নিয়ে হাসপাতালে রওনা হলাম।

তারপর বিকেল পেরিয়ে সন্ধ্যা হলো। সন্ধ্যা পেরিয়ে রাত। রাত পেরিয়ে সকাল...


ভূতুড়ে ছড়া

কীর্তিনাশা এর ছবি
লিখেছেন কীর্তিনাশা (তারিখ: মঙ্গল, ০৭/০৭/২০০৯ - ৪:২৩অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

ইদানিং ভীষণ দৌড়ের উপর আছি। লেখালেখি করার সময় পাই না। তাই বলে সচলে পোস্টানো বন্ধ থাকবে তা তো হতে পারে না। নিজের ব্লগ ঘাটতে গিয়ে দেখলাম একটা ছড়া অনেক দিন ধরে আমার ব্লগেই পড়ে আছে মুল পাতাতে দেয়া হয়নি অথবা আসেনি কোন কারণে।

অতএব এই সুযোগ কে ছাড়ে? খড়ার সময় ফাঁকিবাজি ভরসা দেঁতো হাসি

--------------------------------------------

ভূতুড়ে ছড়া

শ্যাওড়া গাছের পলকা ডালে
পেত্নী দোলে হাওয়ার তালে
ছাতিম গাছের লম্বা চূড়া...


ছড়া : প্যাঁচার কান্না

কীর্তিনাশা এর ছবি
লিখেছেন কীর্তিনাশা (তারিখ: বিষ্যুদ, ০২/০৭/২০০৯ - ৮:৩৯পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

বিষুদ বারে নিশুত রাতে বসে ছিলাম ছাদে
হঠাৎ শুনি শিরিষ গাছে একটা পেঁচা কাঁদে
কি হয়েছে? কাঁদিস কেন? বলছি যখন ডেকে
কাঁদলো আরো ফ্যাঁচ-ফেঁচিয়ে চোখের পানি মেখে
অনেক করে কেঁদে-কেটে বলল - মামা জানো?
বেড়াল আমায় ঠকিয়েছে, ভীষণ ঠকানো!

ঠিক দশ দিন আগে এক সাঁঝে ছাদে এসে
আমায় ডেকে বলল হেকে - আম গাছটা ঘেসে
দেখ কি রকম চাঁদ উঠেছে রুপোলি রং মেখে
চাস যদি বল আনবো পেড়ে, দিবি - নিজের কাছে রেখে।

অত্ত বড় চাঁদ...


নিশুত রাতের অতিথি - শেষ পর্ব

কীর্তিনাশা এর ছবি
লিখেছেন কীর্তিনাশা (তারিখ: বুধ, ১০/০৬/২০০৯ - ৯:৩৬পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

১ম পর্ব

পনের বছর পরের কথা – জোনাব আলীর বয়স এখন ষাট। রিটায়ারমেন্টের পর আজ তার বিদায় সংবর্ধণা হয়েছে স্কুলে। ছাত্র শিক্ষক মিলে তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছে। মঞ্চে উঠে তাঁর সহকর্মীরা বক্তৃতা দিতে গিয়ে কেঁদে বুক ভাসিয়েছে। ছাত্র-ছাত্রীরাও চোখের পানি ফেলেছে। তাদের এতো প্রিয় অঙ্কের শিক্ষক আজ বিদায় নিচ্ছেন।

এখন সন্ধ্যা ঘানিয়েছে। তিনি স্কুলের পাশে তাঁর ...


একটি সম্ভাব্য মারাত্মক ভৌতিক গল্প : নিশুত রাতের অতিথি

কীর্তিনাশা এর ছবি
লিখেছেন কীর্তিনাশা (তারিখ: সোম, ০৮/০৬/২০০৯ - ১২:৫৫অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

আলতাখালি গ্রামের একমাত্র হাইস্কুলের একমাত্র অঙ্কের শিক্ষক জোনাব আলী। স্কুলের একমাত্র আবাসিক শিক্ষকও তিনি। বয়স চল্লিশোর্ধ হয়ে গেলেও এখনো বিয়ে করেননি। স্কুলের পাশেই ছোট্ট টিনের চালাঘরে তার একাকি বসবাস। জোনাব আলী যুক্তিবোধ সম্পন্ন মানুষ। ভূত প্রেত জাতিয় অতিপ্রাকৃত বিষয়ে তার কোনরূপ বিশ্বাস নেই। তাই স্কুলের এই বিশাল নির্জনতায় রাত-বিরেতে একা থাকতে তার মোটেও সমস্যা হয় না।

এক...


বিনম্র শ্রদ্ধা জানাই সারদানন্দ দাস : একজন নিভৃতচারী শিক্ষক

কীর্তিনাশা এর ছবি
লিখেছেন কীর্তিনাশা (তারিখ: রবি, ০৭/০৬/২০০৯ - ২:৪২অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

গতকাল পত্রিকাতে খবরটা পড়েই মনটা অদ্ভুত ভালোলাগায় ভরে উঠলো। এরকম মানুষ তাহলে এখনো আছে পৃথিবীতে ! - ভেবে মানুষটির প্রতি শ্রদ্ধায় অবনত থাকলাম অনেক ক্ষণ।

তাঁর নাম সারদানন্দ দাস। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বালুরঘাট অঞ্চলের খাদিমপুর হাইস্কুলের শিক্ষক ছিলেন তিনি ১৯৬৫ থেকে ১৯৯৫ সাল পর্যন্ত। আজীবন নিভৃতচারী এই শিক্ষক চিরকুমার । সাদাসিধে আর মিতব্যয়ী ছিলেন সব সময়। কর্মজীবনে একজন আদর্শ শ...


এক সংসারে এক সন্ন্যাসী ছিল..................

কীর্তিনাশা এর ছবি
লিখেছেন কীর্তিনাশা (তারিখ: বুধ, ০৩/০৬/২০০৯ - ৩:৩৫অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

এক দেশে এক সন্ন্যাসী ছিলেন। তিনি গেরুয়া রঙের কাপড় পরিধান করতেন না। নির্জন গাছের তলায় বসে ওম্ শান্তি ওম্ বলে ধ্যান করতেন না। যত্র-তত্র যাকে তাকে যেখানে সেখানে শাপ অথবা বর দিতেন না। সন্ন্যাসী হলেও তিনি ছিলেন পুরো মাত্রায় সংসারী। তাই জনগণ আদর করে তাঁকে সংসারে এক সন্ন্যাসী বলে ডাকতো।

তিনি নিয়মিত আসর জমাতেন - কখনো দারুণ সব ছোট গোল-গাল রুটির মতো সুস্বাদু গল্পে, কখনো কামরাঙা ছড়ায় আবা...


কর্পোরেট গল্প : মোরগ, শিয়াল আর পাখির কাহিনী..........

কীর্তিনাশা এর ছবি
লিখেছেন কীর্তিনাশা (তারিখ: মঙ্গল, ১৯/০৫/২০০৯ - ৪:৪৭অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

চাকরির সুবাদে মাঝে মাঝে এখানে ওখানে ট্রেনিং করতে যেতে হয়। সে সব ট্রেনিং-এর প্রত্যেকটার জবরদস্ত সব নাম - কমিউনিকেশন স্কিল, এক্সিলেন্স ইন অপারেশন, টাইম ম্যানেজমেন্ট, টিম বিল্ডিং, লিডারশিপ আরো যে কত কী তার হিসেব নেই। তো এসব ট্রেনিং-এ আর কিছু না হোক মাঝে মাঝে মজাদার সব গল্প শোনা যায়।

এসব গল্পের বৈশিষ্ট্য হচ্ছে - প্রতিটা গল্পেই শিক্ষনীয় কিছু মেসেজ থাকে। আর গল্পের আকারও বেশ ছোট, যাতে অ...


কী চমৎকার দেখা গেল !! ......................

কীর্তিনাশা এর ছবি
লিখেছেন কীর্তিনাশা (তারিখ: সোম, ১৮/০৫/২০০৯ - ৩:৫০অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

এক বন্ধুর কাছ থেকে পাওয়া ছবিগুলো। কে তুলেছে জানিনা। ছবিগুলো এতই মজার যে পোস্টানোর লোভ সামলাতে পারলাম না। ফটোগ্রাফির মান নিয়ে প্রশ্ন না করাই বাঞ্ছনীয় হাসি

ছবি দেখতে ব্লগে ঢুকুন। ছবি দেখতে ব্লগে ঢুকুন। ছবি দেখতে ব্লগে ঢুকুন। ছবি দেখতে ব্লগে ঢুকুন। ছবি দেখতে ব্লগে ঢুকুন। ছবি দেখতে ব্লগে ঢুকুন। ছবি দেখতে ব্লগে ঢুকুন। ছবি দেখতে ব্লগে ঢুকুন। ছবি দেখতে ব্লগে ঢুকুন। ছবি দেখতে ব্ল...


একটি রূপকথা : ধুগো রাজা, বীর রায়হান ও বন্দী রাজকন্যা কঙ্কাবতি (শেষপর্ব)

কীর্তিনাশা এর ছবি
লিখেছেন কীর্তিনাশা (তারিখ: শনি, ১৬/০৫/২০০৯ - ৯:৫৩পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

১ম পর্ব

এই রূপকথায় উল্লেখিত চরিত্রগুলোর সহিত বাস্তবের কিংবা পরাবাস্তবের কোন চরিত্রের কোন প্রকার মিল নাই। যদি কোন পাঠক তাহার পরেও মিল খুঁজিয়া পান তবে তাহা একান্ত ভাবে উক্ত পাঠকের দুরভিসন্ধিমূলক মনের পরিচায়ক হইবে। ইহাতে অধম লেখককে কোন প্রকারেই দায়ী করা যাইবে না।

---------------------------------------------------

রায়হান আবীর সপ্তডিঙ্গা লইয়া সাগরে ভাসিয়াছে প্রায় বছর খানেক হইয়াছে। কি...