অটোলোড এবং প্রথম পাতায় লেখার সংখ্যা

সন্দেশ এর ছবি
লিখেছেন সন্দেশ (তারিখ: বিষ্যুদ, ১৬/০২/২০১২ - ৪:৫৩পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

সচলায়তনে প্রথম পাতায় একই লেখকের একাধিক লেখা প্রকাশে নিরুৎসাহিত করা হয়। কিন্তু সচলায়তনে এখন থেকে দ্বিতীয় পাতা বলে কোনো পাতা থাকছে না। স্ক্রল ডাউন করলেই একে একে লেখাগুলো লোড হতে থাকবে।

এক্ষেত্রে "প্রথম পাতায় এক লেখকের একটি লেখা" এই নিয়মটি বদলে সমতুল্য নতুন নিয়ম করা হলো। এখন থেকে "এক লেখকের দুটি লেখার মধ্যে অন্যান্যদের নয়টি লেখা প্রকাশিত থাকতে হবে"। অর্থাৎ আপনার একটি লেখার প্রকাশের পর নয়টি লেখা প্রকাশিত হলেই তবে দশম লেখা হিসেবে পরের পোস্টটি প্রকাশ করতে পারবেন।

যেহেতু এই বিষয়টি নতুন। এতে পরিবর্তন আসার সুযোগ রয়েছে।

সচল থাকুন, সচল রাখুন।


মন্তব্য

চরম উদাস এর ছবি

খাইছে, সন্দেশ মামা আন ফায়ার। এক্কের পর এক আপডেট দিয়াই যাইতেছে হাততালি

দ্রোহী এর ছবি

দুর্ধর্ষ!

ডেভুরামেরে চুম্মা চুম্মা।

সাফি এর ছবি

এখন দ্রোহী লিখে ফাটায় ফেলবে।

দ্রোহী এর ছবি

কেমনে লেখব? প্রথম পাতায় নিচের দিকে যাইতে থাকলে আমার লেখা খুঁজে পাওয়া যাবে তো।

চরম উদাস এর ছবি

আমিও লিখে ফাটাবো। খালি বইসা বইসা গুনতেছি, প্রতি ৯ টা লেখার মাঝখানে একটা কইরা দুই লাইনের পদ্য পোস্ট করবো।

Ezaz এর ছবি

একেবারে প্রথ্মদিকের লেখা গুলোকে দেখব কি করে? একটা লিন্ক থাকলে ভাল হত।

সচল জাহিদ এর ছবি

সাইডবারে একটি আর্কাইভ লিষ্ট রাখা যেতে পারে পুরোনো লেখা দেখার জন্য।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

তুলিরেখা এর ছবি

লেখা এডিট করতে পারছি না। মন খারাপ

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

সাফি এর ছবি

এই ফিচারটা আপাতত কয়েকদিন বন্ধ আছে।

মৃত্যুময় ঈষৎ(অফলাইন) এর ছবি

স্ক্রল করলে দেখতেছি অতল সমুদ্রে হারায় যেতে হয়, কোন কুল-কিনারা নাই!!! ভয়ংকর!!! দেঁতো হাসি

অতিথিঃ অতীত এর ছবি

পোস্টগুলো দেখার জন্যে আরেকটা সিস্টেম করা যেতে পারে। লিস্ট করে শিরোনাম এবং লেখকের নাম হেডিং আকারে রাখা। মাউস ঐটার উপরে ধরলে জুম করে ক্যাটেগরি এবং প্রথম প্যারা (এখন যেটা নীড়পাতায় দেখায়) দেখাবে লেখার। পুরো লেখা পড়তে ক্লিক করে আলাদা লিংকে যাওয়া। তাহলে একই পাতায় একসঙ্গে বহু পোস্ট রাখা যায়। লিস্টে থাকলে একই লেখক একাধিক পোস্ট দিলেও আর তেমন ফ্লাডিং বলে মনে হবে না। সেসাথে মডুরামরা তো আছেনই। আগে পিছে করে পোস্ট লিস্টে সাজায় দিবেন যদি সেরকম সম্ভাবনা জাগে। আর এই এক পাতার দৈর্ঘ্য হতে পারে মাসিক বা পাক্ষিক ভাবে, অর্থাৎ এরকম, ডিসেম্বরের সব পোস্ট এক পাতায় বা দুই পাতায় (পোস্টের সংখ্যাধিক্য অনুযায়ী)। আর্কাইভও হয় মাস কিংবা লেখক অনুযায়ী সাজানো যেতে পারে।

যাইহোক, পাঠকের এবং লেখকের সহজবোধ্যতার জন্যে সচলের করা এই প্রয়াসগুলোর সাধুবাদ জানাই।
আর আপাতত সচল রাখা, থাকা না, সচল হওয়ার অপপ্রয়াস লই। দেঁতো হাসি

অতীত

একলব্য এর ছবি

মুবাইলে তো অটোলোড হৈতেছে না! খ্যাল্তাম না।

একলব্য এর ছবি

মুবাইলে তো অটোলোড হৈতেছে না! খ্যাল্তাম না।

প্রদীপ্তময় সাহা এর ছবি

হাততালি
খুব ভালো লাগল এই পরিমার্জন ।

মোখলেছুর রহমান সজল এর ছবি

ক্লিক করে করে পৃষ্ঠা পরিবর্তনের চেয়ে স্ক্রল করে অতলে যাওয়াটাই ভাল লাগছে।

অরফিয়াস এর ছবি

হাচল একাউন্ট এর সদস্যদের প্রকাশিত লেখা সম্পাদনা করার অপশনটি আপাতত বন্ধ আছে কি?? কেউ কিছু জানলে, জানাবেন| কিছুদিন আগেও প্রকাশিত লেখা সম্পাদনা করতে পারলাম, কিন্তু এখন প্রকাশিত লেখার ভুল বানান সম্পাদনা করতে গিয়ে অপশন পাচ্ছিনা মন খারাপ

----------------------------------------------------------------------------------------------

"একদিন ভোর হবেই"

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

সবার জোননো বোনঢো আছে

অরফিয়াস এর ছবি

হাচল একাউন্ট এর সদস্যদের প্রকাশিত লেখা সম্পাদনা করার অপশনটি আপাতত বন্ধ আছে কি?? কেউ কিছু জানলে, জানাবেন| কিছুদিন আগেও প্রকাশিত লেখা সম্পাদনা করতে পারলাম, কিন্তু এখন প্রকাশিত লেখার ভুল বানান সম্পাদনা করতে গিয়ে অপশন পাচ্ছিনা মন খারাপ

----------------------------------------------------------------------------------------------

"একদিন ভোর হবেই"

দ্রোহী এর ছবি

আপাতত সচল, হাচল, মডুরাম, ডেভুরাম সবার জন্যই সম্পাদনা অপশন বন্ধ। গুল্লি একবার করছুইন তো শ্যাষ!

পরিবর্তনশীল এর ছবি

চলুক

মাহবুব লীলেন এর ছবি

লেখাখেলাপিরা বকেয়া সময়ের লেখা সুদ আসলে একসাথে দিতে পারবে না? মানে কারো যদি আগের লেখা থেকে বর্তমান লেখা পর্যন্ত ৯০০ টা পোস্ট পার হয়ে যায় তাহলে কি একসাথে ১০০টা লেখা দেয়া যাবে না?

মর্ম এর ছবি

পুরনো লেখা খুঁজে নেয়ার জন্য 'তারিখ', 'লেখা ও লেখকের নাম', 'লেখার ট্যাগ'-ভিত্তিক খোঁজব্যবস্থা চালু করা যায় না?

ইচ্ছামত লেখা খুঁজে বের করতে খুব সুবিধা হয় তাহলে!

~~~~~~~~~~~~~~~~
আমার লেখা কইবে কথা যখন আমি থাকবোনা...

রুদ্রপলাশ এর ছবি

পড়ে আছি অচল অবস্থায় মন খারাপ

তাপস শর্মা এর ছবি

সিস্টেমটা দারুন। তবে আমার কাছে আগের পদ্ধতিটাই ভালো লাগতো।

রাতঃস্মরণীয় এর ছবি

দ্বিভাষিক লেখার জন্যে কি ব্যাপারটা এমন হবে যে যে কোনও একটি ভাষার লেখার তালিকায় দুটি লেখার মাঝে অন্য লেখকের ৯টি লেখা আসতে হবে নাকি উভয় ভাষাতেই এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে?

পরেরটা হলেই খাইছে।

------------------------------------------------
প্রেমিক তুমি হবা?
(আগে) চিনতে শেখো কোনটা গাঁদা, কোনটা রক্তজবা।
(আর) ঠিক করে নাও চুম্বন না দ্রোহের কথা কবা।
তুমি প্রেমিক তবেই হবা।

দ্রোহী এর ছবি

আমরেজি ব্লগে গিয়া দেখি আমনে আর মুর্শেদ ছাড়া কেউ নাই। সেইখানে আমনের সব লেখাই প্রথম পাতায়। দেঁতো হাসি

রাতঃস্মরণীয় এর ছবি

হ, তাইতো জিগাইলাম।

------------------------------------------------
প্রেমিক তুমি হবা?
(আগে) চিনতে শেখো কোনটা গাঁদা, কোনটা রক্তজবা।
(আর) ঠিক করে নাও চুম্বন না দ্রোহের কথা কবা।
তুমি প্রেমিক তবেই হবা।

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

উভয় ভাষায় এই নিয়ম প্রযোজ্য। তবে ইংরেজী ব্লগের সংখ্যা কম বলে এখন এটা খানিকটা শিথিলযোগ্য।

প্রতিফলন এর ছবি

উপরের দিকে স্ক্রল করলেও নিচে নতুন লেখা লোড হতে থাকে। এটা ঠিক করলে এই অপশনটা আরো ভাল লাগবে।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

এইটা আমিও বলতে চাচ্ছিলাম। প্রতিবার স্ক্রলে ৫টা করে পোস্ট লোড হয় নিচের দিকে।

অন্ত আফ্রাদ এর ছবি

উন্নয়নের জোয়ারে দেখি সচলায়তন ভাইসা যাইতেছে। হো হো হো

পরিবর্তনে ওঁয়া ওঁয়া । অনেক মেগাবাইট উধাও হইয়া গেলো হঠাৎ কইরা। ওঁয়া ওঁয়া

নিঃসঙ্গ পৃথিবী এর ছবি

অন্ত আফ্রাদ বলেছেন,

উন্নয়নের জোয়ারে দেখি সচলায়তন ভাইসা যাইতেছে।

হো হো হো দেঁতো হাসি শয়তানী হাসি খাইছে হাততালি

মেঘলা মানুষ এর ছবি

স্ক্রলে লোড - ব্যাপারটা ভালো।

তবে, এটাতে একটা সমস্যা আছে।
যেমন, আমি একটা লেখায় মন্তব্য করলাম ১ সপ্তাহ আগে। আমি ১ সপ্তাহ পর ফিরে এসে দেখতে চাই কি জবাব পেলাম। আগে হলে দুম করে ৫ নম্বর পাতায় চলে গিয়ে খুঁজতাম সেই লেখাটা। এখন স্ক্রল করে করে খুঁজতে হবে।
[আমি পূর্ণ সচল কই , কাজেই পূর্ণ সচলদের মন্তব্যের লগ থাকে কিনা জানি না]

ঝরাপাতা এর ছবি

নতুন ফিচারটা বেশ ভালো লাগলো ..... থ্যাংক্স মুর্শেদ ভাই.....


বিকিয়ে যাওয়া মানুষ তুমি, আসল মানুষ চিনে নাও
আসল মানুষ ধরবে সে হাত, যদি হাত বাড়িয়ে দাও।

মন মাঝি এর ছবি

নতুন ফিচারটা যেভাবে ডাটা খাচ্ছে তাতে আমার মত গ্রামীণ ইত্যাদির সীমিত ডাটা প্যাকেজের গ্রাহকদের রক্তশুন্যের মত ডাটাশুন্য হয়ে দ্রুত অচল হয়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে!!!

****************************************

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

আপাতত বন্ধ রাখলাম।

অন্যকেউ এর ছবি

অটোলোডটা ভালোই ছিলো। এখন নাই দেইখা বিরহবেদনা খাইলাম। ওঁয়া ওঁয়া

_____________________________________________________________________

বরং দ্বিমত হও, আস্থা রাখো দ্বিতীয় বিদ্যায়।

নুসায়ের এর ছবি

কমেন্ট উলটা লোড হয় ক্যান? মানে স্ক্রল করলে নতুন কমেন্ট আগে দেখা যায়, পুরান গুলা পরে। এইভাবে তো তাল রাখতে গিয়া বেতাল হইয়া যাইতেছি। আগে লিখা পইড়া তারপরে এক্কেরে নিচে নাইমা আবার আস্তে আস্তে উপরে স্ক্রল করতে হয়। বিষয়টা ঠিক স্বাভাবিক লাগতেছে না।

নাকি নতুন কমেন্ট আগে পড়ার অন্য কোন মাজেজা আছে?

দ্রোহী এর ছবি

কমেন্ট উল্টা লোড হওয়ার সুবিধা আছে তো। একবার কষ্ট করে কমেন্টগুলো পড়ে নিলে পরবর্তিতে পোস্টে এসে ঢুকলে আর স্ক্রল করে একেবারে নিচে যেতে হয় না।

তবে জিনিসটা একটু বেখাপ্পা লাগতেছে এইটাও ঠিক।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।