চড়ুইভাতি

সুরঞ্জনা এর ছবি
লিখেছেন সুরঞ্জনা (তারিখ: বিষ্যুদ, ২৫/১১/২০১০ - ৪:৩৮অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

 
দুপুরের খাওয়ার পর থেকে তুলিকে কেউ বাড়িতে খুঁজে পায় না।
আগে দুপুর বেলা খাওয়ার পর ঘুমানোর নিয়ম ছিল। শক্ত নিয়ম।
এখন সময় অন্যরকম। এখন হয়তো অনিয়ম করাই নিয়ম।
 
তুলিকে পেতে হলে ছাদে যেতে হবে। যদি কেউ পেতে চায় অবশ্য। চায় কি?
তুলির মনে হয় চায়। আর তাই ও ছাদে থাকে।
পাখিরা ঘরে গিয়ে তুলিকে ডেকে আনবে, এটা তুলি ঠিক আশা করে না।
 
পাখিরা বেশি শব্দ পছন্দ করে না।
তাই যখন ওরা ছাদে চড়ুইভাতি করতে যেত, তখন তুহিন দাদা তুলিকে মুখে আঙুল দিয়ে বসে থাকার কড়া নির্দেশ দিতো।
 
চড়ুইভাতি শব্দটাই একসময় নতুন ছিল!
তুলি ভেবেছে চড়ুইভাতি মানে চড়ুইপাখি ধরে ভাত দিয়ে খেতে হবে বোধহয়।
দাদা বলেছে, তোর মাথা।
 
আসলে চড়ুইভাতি হল আম্মার কাছ থেকে ভাত আর মাসিমার কাছ থেকে তরকারি নিয়ে এসে দুপুরবেলা ছাদে খাওয়া।
তুলি বেজার হয়ে বলে, তাহলে চড়ুইভাতি তে চড়ুই আসলো কই থেকে?
তুহিন দাদা বলে, হাঁদারাম হলে আসবে না বইকি।
 
তারপর তো মুখে আঙুল দিয়ে বসে থাকতে হতো।
তখন তুহিন দাদা ভাত ছড়াবে। কিছুক্ষণ বসে থাকলে চড়ুই পাখিরা খেতে আসবে।
 
এই জন্য চড়ুইভাতি, বোকারাম।
তুলি মাথা নাড়ে।
 
তারপর তো একদিন খুব শব্দ হল রাতে। খুব খুব খুব।
তুলি কানে হাত চাপা দিয়েও শব্দ শুনেছে।
সেই শব্দে তাঁতিবাজার থেকে সব চড়ুইপাখি চলে গেল। মানুষও চলে গেল।
তুলিরাও চলে গিয়েছিল। কিছুদিন পর আবার ফিরে এলো।
আস্তে আস্তে মানুষজন ফিরে আসে তাঁতিবাজারে।
 
শুধু... চড়ুই পাখিরা আসে না এখনো।
তুলি জানে আসবে নিশ্চয়ই।
কারণ তুহিন দাদা ওদের খুঁজতে গিয়েছে।
 
তাই তুলি এখন ছাদে থাকে।
 
সবাই জানে যে তাঁতিবাজারে এখন আর শব্দ হয় না।
শুধু পাখিরাই বোধহয় জানে না।

তাই ওরা এখনো ফেরে না, তুহিন দাদাও ফিরতে পারে না। 

 

* * *

 

[ফুটনোটঃ শুভ জন্মদিন আমার তুহিন দাদাকে। যার আকারটা দানবের, আত্মাটা পাখির। ]

হাসি


মন্তব্য

দুর্দান্ত এর ছবি

চলুক । তুহিন দাদা কোথায় হারিয়ে গেল?

সুরঞ্জনা এর ছবি

হুম। মন খারাপ
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

সুরঞ্জনা এর ছবি

হা হা! খাইছে
গুণের ব্যাপারটুকু সত্যি না হলেও, গল্প পছন্দ করেছেন বলে অনেক ধন্যবাদ। হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

যাযাবর ব্যাকপ্যাকার এর ছবি

তুহিনের জন্মদিনে মন খারাপ করা গল্প? আমি ভাবলাম বুঝি তুহিনের ছবিটাই দেবে... চিন্তিত

শুধু... চড়ুই পাখিরা আসে না এখনো।
তুলি জানে আসবে নিশ্চয়ই।
কারণ তুহিন দাদা ওদের খুঁজতে গিয়েছে।
এটুকু ছুঁয়ে যায়...

কিন্তু

সবাই জানে যে তাঁতিবাজারে এখন আর শব্দ হয় না।
শুধু পাখিরাই বোধহয় জানে না।
তাই ওরা এখনো ফেরে না, তুহিন দাদাও ফিরতে পারে না।
এটুকু একটু খাপছাড়া লেগে গেল, মানে পাখিরা, জীব-জন্তুরা পরিবেশ শান্ত হলে আবার ফিরে আসে তো নিজের বাসভূমে, তবে পাখিরা যে ফিরছিল না তা বলেছ আগেই... আর তুহিনেরা ফিরে না অবশ্য...

সবসময়েই খালি ভালো বলি আজ একটু সমালোচনা করলাম! হাসি

___________________
ঘুমের মাঝে স্বপ্ন দেখি না,
স্বপ্নরাই সব জাগিয়ে রাখে।

___________________
ঘুমের মাঝে স্বপ্ন দেখি না,
স্বপ্নরাই সব জাগিয়ে রাখে।

সুরঞ্জনা এর ছবি

সমালোচনাটাও ভাল বলেছ। হাসি
কই যেন পড়েছিলাম, ২৫ শে মার্চের পর থেকে ঢাকায় আর পাখি দেখা যায় নি অনেক দিন। খুব সম্ভব '৭১ এর দিনগুলিতে। ঠিক মনে নেই অবশ্য। তাই এমন ভেবেছিলাম।:)
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

দময়ন্তী এর ছবি

কি মিত্তি গপ্পো| ভাল্লাগ্লো| হাসি
-----------------------------------------------------
"চিলেকোঠার দরজা ভাঙা, পাল্লা উধাও
রোদ ঢুকেছে চোরের মত, গঞ্জনা দাও'

-----------------------------------------------------
"চিলেকোঠার দরজা ভাঙা, পাল্লা উধাও
রোদ ঢুকেছে চোরের মত, গঞ্জনা দাও'

সুরঞ্জনা এর ছবি

হা হা!
ধন্যবাদ! খাইছে
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

রাতঃস্মরণীয় এর ছবি

মন ছুঁয়ে যাওয়া লেখা। চড়ুইভাতি থেকে তুহিন দাদার হারিয়ে যাওয়া। হারিয়ে যাওয়া তুহিন দাদারা আর ফিরবেনা জানি কিন্তু যে তুহিনদাদারা বেচে আঁছে তাদের মরিয়া হয়ে লড়তে হবে পাখিদের নির্ভয়ে গান গাওয়াতে। শতকোটি পাখির কলরবের মাঝে তুহিন বাঁচুক।

======================================
অন্ধকারের উৎস থেকে উৎসারিত আলো, সেইতো তোমার আলো।
সকল দ্বন্ধ বিভেদ মাঝে জাগ্রত যে ভালো, সেইতো তোমার ভালো।।

------------------------------------------------
প্রেমিক তুমি হবা?
(আগে) চিনতে শেখো কোনটা গাঁদা, কোনটা রক্তজবা।
(আর) ঠিক করে নাও চুম্বন না দ্রোহের কথা কবা।
তুমি প্রেমিক তবেই হবা।

সুরঞ্জনা এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ।
সুন্দর মন্তব্য ভাই। হাসি
আর পাখিরা তো পাখিদের কলরবের মাঝে বাঁচবেই, হা হা! খাইছে
আবারো ধন্যবাদ, আমার দাদাটার ভাল চাইলেন বলে। হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

অনিন্দ্য রহমান এর ছবি

তাঁতিবাজার বললেই চোখে সোনা দেখি। জানিনা তুমি কোথাকার কথা বললা। আর স্বপ্নদেখানো দুপুরগুলাকে আমিও খুব খুঁজতেসি।


রাষ্ট্রায়াত্ত শিল্পের পূর্ণ বিকাশ ঘটুক


রাষ্ট্রায়াত্ত শিল্পের পূর্ণ বিকাশ ঘটুক

সুরঞ্জনা এর ছবি

তাঁতিবাজার মনে হয় কমন পড়েছে দেঁতো হাসি
ঢাকা শহরে তো একটাই আছে বলে জানি খাইছে

অনেক দিন ধরে গল্প দেখছিনা আপনার অনিন্দ্যদা। মন খারাপ
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

নিবিড় এর ছবি
সুরঞ্জনা এর ছবি

ধন্যবাদ। হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

আনন্দী কল্যাণ এর ছবি

চমৎকার গল্প সুরঞ্জনা।
টুকটাক ছোট ছোট কথা বুনে একদম মুগ্ধ করে দিলে হাসি

সুরঞ্জনা এর ছবি

অনেক, অনেক ধন্যবাদ
হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

ওডিন এর ছবি

গল্প দুর্দান্ত!

চড়ুইপাখি ধরে ভাত দিয়ে খেতে হবে বোধহয়
ইয়ে, মানে... ইয়ে মানে আমিও একসময় এইরকমটাই ভাবতাম।

ফুটনোটে দ্বিমত, ওর আত্মাটাও ওর সাইজের মতন। হাসি

______________________________________
যুদ্ধ শেষ হয়নি, যুদ্ধ শেষ হয় না

সুরঞ্জনা এর ছবি

হুম, চড়ুইভাতি একটা কনফিউজিং শব্দ। চিন্তিত

আর বাহ রে! অ্যাঁ
আমি কবে বললাম আত্মা একটা ছোট সাইজের পাখি? খাইছে
অনেক ধন্যবাদ।
হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

ছিমছাম গল্পটা। ভালো লেগেছে।

_________________________________________

সেরিওজা

সুরঞ্জনা এর ছবি

ধন্যবাদ সুহান। হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

রানা মেহের এর ছবি

সুর তো রীতিমতো অসুর হয়ে গেছে দেখছি।
কী সব আসুরিক ভালো গল্প লেখে
-----------------------------------
আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস

-----------------------------------
আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস

সুরঞ্জনা এর ছবি

হা হা! খাইছে
এই অসুর নামটার প্রতি বড় লোভ ছিল জানেন।
নিবন্ধন করার সময় কেন অসুর নিকটা দিলাম না, সেই আফসোসে এখন হাত কামড়াই। মন খারাপ
অনেক ধন্যবাদ হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

শাহেনশাহ সিমন এর ছবি

বাহ! চলুক
_________________
ঝাউবনে লুকোনো যায় না

_________________
ঝাউবনে লুকোনো যায় না

সুরঞ্জনা এর ছবি

ধন্যবাদ! হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

দৃশা এর ছবি

বেহুদা কথা কইয়া কাম নাই, আগে আসল কথার হিসাব লই। হেই মিয়া গতবারতো ডিসেম্বরের অমুক তারিখে খাওয়ায়ছিলা। এইবার কবে? তারিখ আর সময়টা ঠিক কইরা জানাও, আমি না হয় ম্যেনু আর ভ্যেনু ঠিক কইরা তোমার কষ্ট কমাইয়া দিমু। ঠিক আছে?

সুরঞ্জনা, দাদা ভাইয়ের জন্য লেখা গল্প উমদা হইছে।

দৃশা

সুরঞ্জনা এর ছবি

খাওয়া দাওয়ার ব্যাপার নাকি? দেঁতো হাসি
বেশ বেশ, আমিও মেন্যু আর ভেন্যু শব্দগুলো খুব পছন্দ করি। দেঁতো হাসি

ধন্যবাদ! হাসি
আপনার গান খুবই দারুণ হয়েছে। হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

সবজান্তা এর ছবি

দারুণ। পরপর দুইটা অণুগল্পই খুব ভালো লাগলো। জলদি আরো লিখে ফেলুন।


অলমিতি বিস্তারেণ

সুরঞ্জনা এর ছবি

অনেক
অনেক ধন্যবাদ। হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

তাসনীম এর ছবি

চমৎকার।
________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

সুরঞ্জনা এর ছবি

ধন্যবাদ, ভাইয়া।
হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

দ্রোহী এর ছবি

আপনি দেখি প্রতি বলেই ছক্কা হাঁকাচ্ছেন!

দেঁতো হাসি


কাকস্য পরিবেদনা

সুরঞ্জনা এর ছবি

হেহ ! খাইছে
এর পরের বলেই পতন আন্দাজ করি। মন খারাপ

ধন্যবাদ! দেঁতো হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

সুলতানা পারভীন শিমুল এর ছবি

তুলি ভেবেছে চড়ুইভাতি মানে চড়ুইপাখি ধরে ভাত দিয়ে খেতে হবে বোধহয়। হাসি
অল্প কথায় কি মিষ্টি একটা লেখা!
আপনার দাদার জন্মদিন শুভ হোক, সুরঞ্জনা। হাসি

...........................

একটি নিমেষ ধরতে চেয়ে আমার এমন কাঙালপনা

...........................

একটি নিমেষ ধরতে চেয়ে আমার এমন কাঙালপনা

সুরঞ্জনা এর ছবি

আমার দাদাটাই মিষ্টি তো ! হাসি
অনেক ধন্যবাদ।

............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি

প্রতিমন্তব্যে এক জায়গায় বললা, একাত্তরের মার্চের কথা। গল্পের প্রেরণা কি সেখান থেকেই এলো। কিন্তু পড়ে আমার তো মনে হলো, তুমি পার করে আসা কোনো এক সময়ের কথা বলতে চেয়েছ। আর 'চড়ুইভাতি' মোড়কে সেই সময়ের চিত্রটাও দারুণভাবে ধরতে পেরেছ।
তোমার গল্প-বিশ্ব চমৎকার হচ্ছে। চালিয়ে যাও নিয়মিত।

সুরঞ্জনা এর ছবি

না, প্রেরণা সেখান থেকে না। তবে অনেক শব্দ দরকার ছিল, তাই মার্চের কথা ভেবেছিলাম।
হা হা! পার করে আসা সময় না বলে পার করতে পারা যায় নি সময় বললে সত্যের কাছাকাছি হয়। হাসি
গল্প জগত।

অনেক অনেক অনেক ধন্যবাদ। এত সুন্দর করে ভেবে মন্তব্য করারর জন্যে। হাসি

............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

সুরঞ্জনা দেখি সব বলেই ছক্কাইতেছে... গঠনা কী? দারুণ লাগলো
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

সুরঞ্জনা এর ছবি

হা হা! খাইছে
ধন্যবাদ নজু ভাই। হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

অতিথি লেখক এর ছবি

চমৎকার! আমি আপনার লেখার একজন মুগ্ধ পাঠিকা

- মেঘলা

সুরঞ্জনা এর ছবি

এহ, কি যে বলেন! মন খারাপ
তবে, আপনার ভাল লেগেছে জেনে খুব খুশি হলাম। হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

বইখাতা এর ছবি

চলুক

সুরঞ্জনা এর ছবি

হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

অনিকেত এর ছবি

আমাদের সচলায়তনে একসময় গল্পের মানে দাঁড়িয়ে গিয়েছিল শ্লেষাত্মক বিদ্রুপাত্মক লেখার মোড়কে কিছু চটুল কাহিনী বর্ণনা। ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ সাহিত্যের একটা সমাদৃত আঙ্গিক হলেও অতি ব্যবহারে আর সবকিছুর মতই এতে জীর্ণতা আসে, দীনতা আসে---সবশেষে আসে বিরক্তি। অন্যদের কথা জানিনা, এক সময় এই অন্তহীন বিদ্রুপ সাহিত্যের ঠেলায় গল্প পড়তে বিরক্ত লাগত--শেষের দিকে ভয় লাগত। যে ক'জন অল্পসংখ্যক প্রতিভাবান লেখক আমাদের সেই বিদ্রুপ সাহিত্যের নিগড় থেকে মুক্তি দিয়েছেন--তাঁদের সবাইকে আমার অফুরান শুভেচ্ছা।

এবং বিশেষ করে সুরঞ্জনা তোমাকে ধন্যবাদ...

ধন্যবাদ আমাদের দেখিয়ে দেয়ার জন্য যে গল্প লেখা এখনো কত মানবিক হতে পারে, এখনো কত অল্প কথায় গুনী মানুষেরা স্পর্শ করে দিতে পারেন মানুষের হৃদয়তন্ত্রী।

তোমার লেখার ভক্ত হয়ে গেছি----

জয় হোক!

সুরঞ্জনা এর ছবি

... অনিকেত দা, আপনি এমন ভাবে বলেন, যে এর পর কথা বলার ভাষা হারিয়ে যায়। কি বলব...
অনেক, অনেক ধন্যবাদ।
...............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

শুভাশীষ দাশ এর ছবি

আমাদের সচলায়তনে একসময় গল্পের মানে দাঁড়িয়ে গিয়েছিল শ্লেষাত্মক বিদ্রুপাত্মক লেখার মোড়কে কিছু চটুল কাহিনী বর্ণনা।

আমি এক বছরের কিছুটা বেশি সময় ধরে সচলায়তনের লেখা পড়ছি। এখানে গল্প লেখেন অল্প কয়েকজন। তাঁরা নানা ধারায় গল্প লিখেন। বিশেষ কোনো ধারায় নয়।

আপনার বক্তব্য অনুসারে, সচলায়তনে কোনো বিশেষ সময়ে গল্পের মানে দাঁড়িয়ে গিয়েছিল শ্লেষাত্মক বিদ্রুপাত্মক লেখার মোড়কে কিছু চটুল কাহিনী বর্ণনা ?

এটা এই কম্যুনিটির গল্পকারদের বিরুদ্ধে একটা সরাসরি অভিযোগ।

কোন সেই সময় এবং ঐ ধারায় কোন কোন ব্লগার লেখেন- দয়া করে একটু জানাবেন।


-----------------------------------------------------------------
অভ্র আমার ওংকার

অনিকেত এর ছবি

এখানে গল্প লেখেন অল্প কয়েকজন। তাঁরা নানা ধারায় গল্প লিখেন। বিশেষ কোনো ধারায় নয়।

আমি আপনার মতের সাথে একমত নই। নানামুখী গল্প যারা লিখতেন তাদের অনেকেই এখন আর লিখেন না। উদাহরণ স্বরূপ --জাহিদ ভাই, তীরন্দাজ'দা, মৃদুল'দা, কীর্তিনাশা প্রমুখ আছেন। এঁরা আসলেই নানান প্রেক্ষাপটের এবং নানা আঙ্গিকের গল্প লিখতেন। বর্তমানে তাদের প্রায় সকলেই অনুপস্থিত।

এদের অনুপস্থিতিতে গল্প নিয়মিত লিখেছেন এবং লিখছেন যারা এর মাঝে আপনি আছেন, মুখফোঁড় আছেন, হিমু আছেন। আপনার গল্প লেখার স্টাইল আলাদা--আপনাকে আমি বিদ্রুপাত্মক কিছু লিখতে দেখিনি। কিন্তু বাকী দুইজন (মুখফোঁড় এবং হিমু) বেশির ভাগ সময়ে ঐ ধারার গল্প লিখেন। বিশেষ করে সচলের অথবা সাম্প্রতিক রাজনৈতিক অঙ্গনের নানান ঘটনা তাদের গল্পের উপজীব্য হয়। এবং সেগুলো বহুলাংশেই বিদ্রুপাত্মক ঘরাণার। আমি নিজে এই ঘরাণার ভক্ত নই খুব একটা। মাঝে মাঝে মনে হয় আরো অনেক কিছু নিয়েই এই দুই কৃতী লেখক লিখতে পারতেন। কিন্তু কেন জানি তারা এই বিশেষ ধারায় ঘোরপাক খেয়ে চলেছেন।

সচলে যে কোন বিতর্কিত ঘটনা ঘটলেই সবাই অনুমান করে নিতে পারেন যে হয় মুখফোঁড় না হয় হিমু এইগুলোকে নিয়ে গল্প লিখবেন। এইসব অনিবার্যতা এক ধরনের একঘেয়েমি নিয়ে আসে। অন্তত আমার কাছে মনে হয়।

আমার কাছে মনে হয় এইগুলো তাদের প্রতিভার ঠিক সুবিচার করে না। তাদের আরো অনেক ভাল লেখার ক্ষমতা আছে।

খুব সাম্প্রতিক সময়ে আমি কিছু নতুন লেখকদের দেখছি---যারা এই ধাঁচের বাইরে লিখছেন। সুরঞ্জনা, তিথীডোর এই ধারার মাঝে অগ্রগণ্য বলে আমার মনে হয়। আমার কাছে মনে হচ্ছে, মাঝে হারিয়ে যাওয়া গল্প বৈচিত্র্য আবার ফিরে আসছে সচলে। সেইজন্যেই কথাগুলো বলা।

এইখানে যা বললাম--সেটা একেবারেই আমার নিজস্ব মতামত। আপনার সেটা মানতে হবে এমন তো কোন কথা নেই, তাই না?

শুভেচ্ছা জানবেন।

তুলিরেখা এর ছবি

সুরঞ্জনা,
এমন সুন্দর লেখা পড়লে মনে হয় হ্যাঁ, এর জন্য বেঁচে থাকা যায়। প্রত্যেকটা কঠিন দেহমনপ্রাণপোড়ানো দিনের শেষে যখন মনে হবে, আর দরকার কী, অনেক তো হলো, এবার দুনিয়াকে বলে দিই বাই বাই। তখন এই লেখাটা মনে পড়লে মনে হবে থাক, আরেকটা দিন থাকি, হয়তো আগামীকাল আবার এমন লেখা তো আসতে পারে!
অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইলো।

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

সুরঞ্জনা এর ছবি

আবারো ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। কি যে বলব... মন খারাপ
তুলি আর তুহিন দাদার পক্ষ থেকে অনেক ধন্যবাদ !
হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

চলুক

খুবই ভালো হয়েছে লেখাটা। হাসি

সুরঞ্জনা এর ছবি

দেঁতো হাসি
থ্যাঙ্কিউ। হাসি
..........................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

খেকশিয়াল এর ছবি

ওরেএএএ!! দারুণ হইছে!! চলুক

-----------------------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

-----------------------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

সুরঞ্জনা এর ছবি

থ্যাঙ্কিউ দাদা!
হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

রাহিন হায়দার এর ছবি

দেরিতে হলেও ভাগ্যিস পড়লাম! চমৎকার!!
________________________________
মা তোর মুখের বাণী আমার কানে লাগে সুধার মতো...

________________________________
মা তোর মুখের বাণী আমার কানে লাগে সুধার মতো...

সুরঞ্জনা এর ছবি

ধন্যবাদ! হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন আমার জোনাকি
দীপ্ত প্রাণের মণিকা,
স্তব্ধ আঁধার নিশীথে
উড়িছে আলোর কণিকা।।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

মেঘা এর ছবি

কি সুন্দর মিষ্টি একটা গল্প। অনেক ভালো লেগেছে আপু।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।