সাত্যকি(৫)

তুলিরেখা এর ছবি
লিখেছেন তুলিরেখা (তারিখ: সোম, ২৮/১২/২০০৯ - ১১:২৫অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

এখানে আগের পর্ব

রাতে ঘুমিয়ে পড়ার আগে সত্যককে ফোন করে রুবেন। আস্তে আস্তে বলে, "স্যর, কালকে সকালে যদি তাড়াতাড়ি না উঠতে পারি, যদি দেরি হয় ... আগে থেকে মাফ চেয়ে রাখছি৷ আসলে এরকম যেদিন হয়, তার পরদিন খুব ক্লান্তি লাগে, মাথায় ব্যথা ... আমি তবু যাবো, কিন্তু যদি ঠিক সময়ে না পারি ... " রুবেনের গলা কাঁপছিলো৷

"ওহ্‌ হো, তখন মনের ভুলে বলে ফেলেছি কালকে কাজ৷ না না রুবেন, আসতে হবে না৷ কালকে ছুটি তোমার৷ বুঝেছ? কালকে তোমার কাজ করতে হবে না৷ ভালো লাগলে কালকে বাগানে বেড়াবে, আমিও তোমার সঙ্গে বেড়াবো ", বলে সত্যক হাসলো৷

রুবেন খুব কৃতজ্ঞ গলায় বলে, " থ্যাংক ইউ৷ আপনি খুব ভালো৷ আপনার অনেক ভালো হবে, দেখবেন৷"

"হোহোহো, তাই নাকি? অনেক ভালো হবে? আর আমি যে এত ভালো, তা তো আগে জানতাম না৷"

"আমি ... আমি আপনার কাছে আরেকটা অনুরোধ করলে রাখবেন?"

"কী অনুরোধ? রাখার মতন হলে রাখবো অবশ্যই৷"

"জানালা দিয়ে আকাশ দেখা যায় এমন কোনো ঘরে ঘন্টাখানেক থাকতে দেবেন? আমার দম বন্ধ হয়ে আসছে কেন জানি৷ আপনি হয়তো ভাববেন ন্যাকামো, বন্ধ গ্রহে থাকি ... কিন্তু বিশ্বাস করুন ... আহ, মাত্র আধা ঘন্টা হলেও হবে ... "

"আমি আসছি রুবেন, এক্ষুনি আসছি৷ ফোন রেখে দাও, সেরকম ঘরে তোমাকে আজকে রাতে কালকে রাতে সব রাতে থাকতে দেবো৷ তারা দেখতে চাও, আগে কেন বললে না?"

খানিকক্ষন পরেই সত্যক আর রুবেন হাজির সবচেয়ে উপরতলায় গোল ছাদ ওলা ঘরে, ছাদটা স্বচ্ছ, দক্ষিণের বড়ো বড়ো জানালা দিয়ে হাওয়া আসছে ফুরফুর করে, বড়ো খোলা ছাদ ঐ গোলঘরের চারপাশ ঘিরে ছড়ানো৷

রুবেন অবাক, মুগ্ধ ও বাকরুদ্ধ৷ মেঝেতে বিছানো মাদুরে শুয়ে পড়ে অস্ফুটে ধন্যবাদ দিলো খুব আন্তরিক গলায়। সত্যক ঘরের ক্ষুদ্র বাতিটি নিভিয়ে দিতেই তারাময়ী রাত্রি ঘিরে এলো৷ কালো আকাশে আলোর দাগ টেনে দিয়ে জ্বলে উঠলো একটা উল্কা৷

ফিসফিস করে স্বগতোক্তির মতন রুবেন বলে, "এমন তারাঘর ... আহ, কী সুন্দর! আগে কেন জিগ্গেস করিনি! ঈশ!" নক্ষত্রালোকে আবছা দেখা যায় রুবেনের মুখ, সত্যক দেখতে দেখতে ভাবে কেন এমন আত্মীয় মনে হয় এই সম্পূর্ণ অনাত্মীয় ছেলেটাকে?

রুবেনকে তারাঘরে একা রেখে সত্যক নেমে গেলো নিজের ঘরে, যাবার আগে কম্বল বের করে দিয়ে বললো, "শেষরাত্রে শীত লাগলে কম্বল গায়ে দিও৷ আমি এখন গেলাম৷ এনজয় ইয়োরসেল্ফ৷৷"

রুবেন আধো-ঘুমের মধ্য থেকে কইলো," অনেক অনেক ধন্যবাদ৷ আপনার তুলনা নেই৷"

সত্যক কইলো," ধন্যবাদ গৃহীত হলো৷ শুভ রাত্রি৷"


মন্তব্য

মাহবুব লীলেন এর ছবি

সত্যক কইলো," ধন্যবাদ গৃহীত হলো৷ শুভ রাত্রি৷"

মুই কহিলাম: গল্প পঠিত হইল। শুভরাত্রি

তুলিরেখা এর ছবি

পাঠের জন্য ধন্যবাদ। সুপ্রভাত। মানে সকাল হয়ে গেল কিনা আবার। হাসি
-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

তীরন্দাজ এর ছবি

এমন তারাঘর ... আহ, কী সুন্দর!
, সত্যিই সুন্দর!
**********************************
কৌনিক দুরত্ব মাপে পৌরাণিক ঘোড়া!

**********************************
যাহা বলিব, সত্য বলিব

তুলিরেখা এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ তীরুদা।
ভালো আছেন?
-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।