বিদেশে বাংলাদেশ অ্যাম্বাসেডর(বৃন্দ)

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি
লিখেছেন এস এম মাহবুব মুর্শেদ (তারিখ: সোম, ০১/০৮/২০১১ - ১০:০৮পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

ফেইসবুকে একটা ভাইরাল ভিডিও ছড়িয়েছে। ওমানে বাংলাদেশ অ্যাম্বাসেডর নুরুল আলম চৌধুরী একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য রেখেছেন। ভিডিও কবে ধারণ করা সেটা নিশ্চিত না হলেও ইউটিউবে জুন ২০১১ তে আপলোড করা হয়েছে। কথা না বাড়িয়ে প্রথমে ভিডিওটি শেয়ার করি।

সাড়ে তেরো মিনিটের এই বিরক্তিকর ভিডিও পুরোপুরি দেখা প্রায় দুঃসাধ্য। বহু কষ্ট করে দেখবার পর মহা বিরক্তি লাগল। ভুল ইংরেজী, আধো আধো বোলে হিন্দী, বাংলা আর অতি দূর্বল আরবী মিশিয়ে কি বক্তব্য দিতে চেয়েছেন পরিষ্কার নয়। বক্তব্যের মাঝে অনুষ্ঠানে আগত শিশুদের এই পর্যায়ে খুব করে বকে দিলেন। মাঝখানে কোনো একটি বিষয়ের ইঙ্গিত দিয়ে কার সাথে একটা বিষয় নিয়ে আলোচনায় বসবেন বলে জানালেন। শেষমেষ বঙ্গবন্ধু নিয়ে একটা গতানুগতিক বক্তব্য জুড়ে শেষ করলেন।

ভিডিওটা দেখে আপনার বিরক্তি আর বিস্ময় মাখা একটা অনুভুতি হবে। ইংরেজিতে যাকে বলে হোয়াদ্দা ফা..!

দুষ্ট ছেলেরা এই ভিডিওর উল্লেখযোগ্য অডিও অংশ নিয়ে একটি অডিও রিমিক্স করেছে। সেটা শোনা যাবে এখানে (ডাউনলোড):

ফেইসবুকে গণ শেয়ার আর আর হাসাহাসির ফাঁকে আরেকজন অ্যম্বাসেডরের আরেকটি খবর শেয়ার হতে শুরু হল। ১৮ ই জুলাই ২০১১ তে প্রকাশিত এই খবরে জানা যায় যে নেপালে বাংলাদেশের আম্বাসেডর নীম চন্দ্র ভৌমিককে নেপাল সরকার ফিরিয়ে নিতে অনুরোধ জানিয়েছে। নেপালের অভ্যন্তরীন রাজনৈতিক বিষয়ে হস্তক্ষেপ, নারী ঘটিত বিষয়ে অভদ্র আচরন ইত্যাদি কারন দেখিয়েছে নেপাল সরকার।

এক্ষেত্রে যদিও বাংলাদেশ অ্যম্বাসেডরের কতখানি দোষ আছে সে বিষয়ে আমি সন্দিহান, তবু দায় যে খানিকটা আছে সেটা এড়ানো যাবেনা। ঠিক একই রকম বিরক্তি আর বিস্ময় মাখা অনুভুতি হবে এখানেও।

বাংলাদেশে নির্বাচনে জেতার পর গুরুত্বপূর্ণ পদে সরকারী দলের "নিজেদের" লোক নিয়োগ দেবার গল্প অনেক শুনেছি। কিন্তু সব সময় ভেবেছি "নিজেদের" লোক নিয়োগ দিলেও নিশ্চয়ই যোগ‌্য লোককেই নিয়োগ দেয়া সেখানে। আজ আমার ভুল ভাঙ্গলো। বাংলাদেশকে রিপ্রেজেন্ট করে এমন পদে এই ধরণের লোক নিয়োগ করে আওয়ামী লিগ সরকার পরিমান নিবুর্দ্ধিতার পরিচয় দিয়েছে সেটা বলাই বাহুল্য। বোঝা যাচ্ছে আওয়ামী লিগ সরকারের কয়েকশত ভুলের মাঝে এই ভুলটাও একটা বিষকাঁটা হয়ে থাকবে আগামী নির্বাচনে।

প্রতিবেশী দেশ ভারতে যেখানে শশী থারোরের মতো শিক্ষিত স্মার্ট লোক গুরুত্বপূর্ণ পদে যাচ্ছে সেখানে আমরা এখনো পড়ে আছি লেজুড় বৃত্তিতে। তুলনা করার জন্য শশী থারোরের একটি ভিডিও দিলাম এখানে।

তবে সরকার কিংবা অ্যম্বাসেডর কারোরই চক্ষুলজ্জ্বা কিংবা ন্যুনতম কমন সেন্স যে নেই সেটা বুঝতে বিশাল পন্ডিত হবার দরকার নেই। যে সরকারই আসুক, বঙ্গবন্ধু কিংবা স্বাধীনতার ঘোষকের গুণগান করতে পারলেই আপনার অ্যম্বাসেডরের পদ নিশ্চিত। আমরা সাধারণ জনগন যতই ব্যাথিত কিংবা লজ্জ্বিত হই তাতে কারোরই কিছু এসে যায় না। ধিক আমাদের সরকারকে। ধিক আমাদের দলীয় প্রভাব বিস্তার করার ঘৃণ্য মনোভাবকে।


মন্তব্য

দিহান এর ছবি

ধিক।

ইস্কান্দর বরকন্দাজ এর ছবি

ধিক্কার...

..................................................................
আমি ছুঁয়ে দিতে চাই সেই বৃষ্টিভেজা সুর...

স্বাধীন এর ছবি

এই লেখাটির দরকার ছিল চলুক

কয়লা বাবা এর ছবি

এই লজ্জা কই রাখি... মন খারাপ

মৃত্যুময়-ঈষৎ এর ছবি

আমরা সাধারণ জনগন যতই ব্যাথিত কিংবা লজ্জিত হই তাতে কারোরই কিছু এসে যায় না। ধিক আমাদের সরকারকে। ধিক আমাদের দলীয় প্রভাব বিস্তার করার ঘৃণ্য মনোভাবকে।

পূর্ণ সহমত মুর্শেদ ভাই। চলুক দরকারী লেখাটির জন্য ধন্যবাদ।

মুস্তাফিজ এর ছবি

নুরুল আলমের ব্যাকগ্রাউন্ড জানেন কেউ? মানে বর্তমান দায়িত্বে আসার আগে উনি কী করতেন?

...........................
Every Picture Tells a Story

আশালতা এর ছবি

এঁরাই দেশের মুখপাত্র ভেবে আরও একবার মাথা হেঁট করে দীর্ঘশ্বাস ফেলতে হল। ধিক দলীয় প্রভাব বিস্তার করার ঘৃণ্য মনোভাবকে।

----------------
স্বপ্ন হোক শক্তি

অনিন্দ্য রহমান এর ছবি

শশী থারুর সুসাহিত্যিকও। তার গ্রেট ইন্ডিয়ান নভেল মহাভারতের আধুনিক পাঠ। তবে আইপিএল কেলেঙ্কারিতে জড়াইছিলেন গতবার। কেউ কেউ ইন্ডিয়ান মিডিয়ার 'সফট' টার্গেটও বলতে পারে।

মধ্যপ্রাচ্যে বাংলাদেশের দূতাবাসগুলার বিরুদ্ধে প্রধান অভিযোগ হইল, তারা বাংলাদেশের শ্রমিকদের সহযোগিতা করে না। এইটা নিয়াও লেখা দরকার।


রাষ্ট্রায়াত্ত শিল্পের পূর্ণ বিকাশ ঘটুক

স্বপ্নহারা এর ছবি

আমি কনফিউজডঃ বড় হইয়া এম্বাসাডর হমু নাকি বিপ্লব হমু!
লোকটা একটা মাস্টারপীস! সিভিতে নিশ্চয়ই লেখেনঃ বাংলা, ইংরেজি, উর্দু, হিন্দি ও আরবিতে সুদক্ষ... হাততালি

নিমচন্দ্র ভৌমিকের কথায় আপনার এত সন্দেহের কারণ কী? উনি অনেক আগে থেকেই কিন্তু নানা দুর্নীতি-নারী কেলেংকারিতে জড়িত। তার আশেপাশের অনেক মানুষই এর সাক্ষ্য দেয় (আমার নিজের পরিচিত)।

খবরের লিংক দেখুনঃ এক দুই তিন

যে সরকার বিপ্লবের অপরাধ, পরিমল-হোসনে আরার কীর্তি স্বীকার করে না, সেও এটা স্বীকার করতে বাধ্য!

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

রাতঃস্মরণীয় এর ছবি

নিমচন্দ্র ভৌমিকের কথায় আপনার এত সন্দেহের কারণ কী? উনি অনেক আগে থেকেই কিন্তু নানা দুর্নীতি-নারী কেলেংকারিতে জড়িত। তার আশেপাশের অনেক মানুষই এর সাক্ষ্য দেয় (আমার নিজের পরিচিত)।

ক্ষমা করবেন স্বপ্নহারা; দু'টো কথা আর না বলেই পারলাম না। আমাদের বৃহত্তর খুলনা এলাকায়, বিশেষ করে গ্রামগুলোতে মানুষের বিশেষণের আগে সেটাকে প্রমিনেন্ট করতে আরও কিছু উপমা জুড়ে দেওয়া হয়। যেমন দেখুন,

খুবই ফর্সা মানুষকে বলে লাল ফর্সা;
বিশালদেহী জওয়ান মানুষকে বলে পাহাইড়ে জোয়ান;
খুবই কালো বর্ণের মানুষকে বলে ভুতুইড়ে কালা;
খুবই খর্বকায় মানুষকে বলে কোৎ বাইড়ে (এই কোৎ-এর কোনও মানে খুঁজে পাইনি। যারা বলে তারাও জানে বলে কখনও শুনিনি);
আর যারা অতিরিক্ত রকম জাউরা, মানে জাউরাগুলোর মধ্যে সবথেকে বেশি জাউরা, তাদের বলে নিম জাইরো

মান্যবর রাষ্ট্রদূত প্রফেসর ড. নিমচন্দ্র ভৌমিক এযুগে জন্ম নেওয়া মানুষ হলেও তার নামের মাধ্যমে তারই চরিত্রের বিশেষায়ন শতবর্ষের দক্ষিণবাংলার কথ্যভাষার সংস্কৃতিতে বিরাজমান।

------------------------------------------------
প্রেমিক তুমি হবা?
(আগে) চিনতে শেখো কোনটা গাঁদা, কোনটা রক্তজবা।
(আর) ঠিক করে নাও চুম্বন না দ্রোহের কথা কবা।
তুমি প্রেমিক তবেই হবা।

সাইফ জুয়েল এর ছবি

দেখলাম অ্যাম্বাসেডর সাহেবের বক্তৃতা। কি জঘন্য তার ওয়াজ-নছিহত! নিম চন্দ্রের খবরও পেপারে দেখলাম কদিন আগে। কি বিচিত্র করে তারা চিত্রায়িত করছেন বাংলাদেশকে! আহা!

প্রখর রোদ্দুর এর ছবি

কি করার আছে যারা লজ্জা পেতেই আসলে লজ্জা পায়...

বন্দনা এর ছবি

ফেসবুকের কল্যানে আগেই এই লোকের ভিডিও দেখেছিলাম। তের মিনিট এই লোকের কচকচানি সহ্য করা পুরা অত্যাচারের পর্যায়ে পরে তাই তার আগেই ক্ষান্ত দিসিলাম। বাচ্চাদের নিয়া তার কমেন্টটা আমার খুব খারাপ লাগছে। আপনার লিখাটা যথার্থ হয়ছে ভাইয়া।

দ্রোহী এর ছবি

"রাষ্ট্রের মাপে রাষ্ট্রদূত হবে" এ আর এমন কী!

স্বপ্নহারা এর ছবি

চলুক

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

জহির  আহমাদ এর ছবি

ওনারা রাষ্ট্রদূত, রাষ্ট্রধুৎ না রাষ্ট্রদুধ কোনটা আসলে ?

জি.এম.তানিম এর ছবি

চলুক

পাবলিক বক্তৃতায় এসব নেতাদের চেয়ে বাংলাদেশের ধর্মগুরুরা অনেক এগিয়ে আছেন... (ইশতির একটা পোস্ট ছিলো যতদূর মনে হয় এইটা নিয়ে)।

রিমিক্সটা খুবই নেশা ধরানো... কয়েকশবার শুনে ফেলেছি...

সব দেখে শুনে আর বলার কিছু খুঁজে পাই না... অতএব... "নো টক..."

-----------------------------------------------------------------
কাচের জগে, বালতি-মগে, চায়ের কাপে ছাই,
অন্ধকারে ভূতের কোরাস, “মুন্ডু কেটে খাই” ।

অনার্য সঙ্গীত এর ছবি

নো টক

______________________
নিজের ভেতর কোথায় সে তীব্র মানুষ!
অক্ষর যাপন

guest_writer এর ছবি

মন্তব্য নিষ্প্রয়োজন ! -- অণু

তানিম এহসান এর ছবি

মাহবুব ভাই, আপনাকে দু’বার ধন্যবাদ, প্রথমবার আমার আগের একটি লেখায় মন্তব্যের ঘরে আপনি সচলের নিয়মকানুন সম্পর্কে একটি লিংক দিয়েছিলেন, ধন্যবাদ জানানো হয়নি। আর দ্বিতীয় ধন্যবাদ এই পোষ্টটির জন্য, দরকার ছিলো এর! আপনি ভালো থাকবেন।

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

বাংলাদেশের জাপান অ্যাম্বাসেডরের নারী ঘটিত কেলেঙ্কারীর কথাও জানালেন একজন। এ বিষয়ে খবরের লিংক কিংবা বিস্তারিত কেউ জানাতে পারবেন?

প্রান্তর এর ছবি
Udash এর ছবি

কালকে এই ব্যাটার ভিডিও টা দেখলাম। এই বালাদ উল আমিন রে অ্যাম্বাসেডর কেডা বানাইছে?

......... উদাস

বন্দনা কবীর এর ছবি

আগে থেকেই জানা আছে এনাদের কির্তির গল্প, তআই খুব একটা অবাক হলাম না।
ধ্বিক...

sas এর ছবি

"দিল মে কুছ কালো হ্যায়"

আয়নামতি1 এর ছবি

প্রথম ভিডিওটা দেখবার মত বোকামি করিনি। রেগে টং

জুয়েল এর ছবি

ধিক জানাব কার কাছে? তবুও ধিক জানাই।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

শালার, দুঃখের মধ্যেও মাঝে মধ্যে খিক খিক করে হাসি... মুখে কোনো রা সরে না আমার এইসব দেখেটেখে।

কয়লা বাবা এর ছবি

রিমিক্স তা পুরাই গুল্লি

অস্পৃশ্যা এর ছবি

এরকম গণ্ডমূর্খকে অ্যাম্ব্যাসডর বানালে এর চেয়ে আর কি আশা করা যায়! দূর্ভাগ্য আমাদের! সব জায়গায় নির্লজ্জ দলীয়করণ! তবে ভাইয়া, এই শশী থারুর ও খুব ধোয়া তুলসীপাতা নয়। দুর্নীতির অভিযোগ নিয়েই কিন্তু তিনি পদত্যাগ করেছিলেন। লিংকেই দেখুন...
http://74.53.66.2/detail/news/57506

বিবর্ন সময় এর ছবি

অক্ষম রাগে গা জ্বালা করে এসব দেখে শুনে; বুঝতে পারি না কী করতে পারি-কী করা যায়।
মন খারাপ

রাতঃস্মরণীয় এর ছবি

কিছু বলার নেই। কমেডি শো হিসেবে বেশ ভালো হয়েছে। আসলে গত কয়েকবছরের অভিজ্ঞতায় বলা যায় যে বাংলাদেশের ব্যুরোক্র্যাসি এবং ডিপ্লোম্যাসি চুদে গেছে। এরা দেশকে টেনে নিচে নামানোর প্রতিযোগিতায় নেমেছে। একটা লোক যে দেশকে রিপ্রেজেন্ট করে, তার যদি ইংরেজি ভাষায় এই দখল থাকে, তবে আমার মতো লোকদের জাতিসংঘের মহাসচিব হওয়ার কথা ছিলো।

প্রস্তাবনাঃ আগামীতে পুরুষ রাষ্ট্রদূত নিয়োগের ক্ষেত্রে খোজাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হোক।

------------------------------------------------
প্রেমিক তুমি হবা?
(আগে) চিনতে শেখো কোনটা গাঁদা, কোনটা রক্তজবা।
(আর) ঠিক করে নাও চুম্বন না দ্রোহের কথা কবা।
তুমি প্রেমিক তবেই হবা।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।