ব্যাকরণপ্রবাহ

মুজিব মেহদী এর ছবি
লিখেছেন মুজিব মেহদী (তারিখ: শনি, ২৩/০৫/২০০৯ - ৩:১৫পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

লিখতে বসে অনুভব করি জানলাপথে বাতাস বয়ে আনছে পাণিনির অষ্টাধ্যায়ী ব্যাকরণের বিচ্ছিন্ন পাতা, সাথে হেমশব্দানুশাসন, বোপদেবের মুগ্ধবোধ, চান্দ্র ব্যাকরণ... এমন ব্যাকরণপ্রবাহে ভেসে যেতে যেতেও আজকাল মূকতাই শ্রেয়জ্ঞান করি, শুদ্ধ শব্দ-বাক্য আশা করলে একদল লেখক কেবল মারতে আসা বাকি রাখে, বলে যে পশ্চাৎপদ, এই ভয়ে আজকাল একটুও না-পড়ে ছিন্ন পাতা, ধরে ধরে ভাঁজ করে ১৮ খণ্ড ‘রবীন্দ্র-রচনাবলী’র পাশে রেখে দেই, ঐতিহ্য সংস্করণ তাতে মোট ১৯ খণ্ড বলে ভ্রম হয়

এহেন বেহাল দশাকে ঠিক আমলে না-নিয়ে স্ত্রী এসে জিজ্ঞেস করে, রেফের ক্ষেত্রে দ্বিত্ব পরিহার কেন জরুরি মানব যদি ‘ধর্ম্ম’কে ‘ধর্ম’ লিখলে মানেই বদলে যায়, ছেলে বলে কোনটা বলব বাবা, কাউয়া না কাক, অনেক কথাই বলার থাকে, বলতে পারি না

বাংলা ভাষার প্রাণভোমরার খোঁজকারী কলিম খান এসব নিয়ে বলেছেন বিস্তর কথা, তাই চুপচাপ বাড়িয়ে দেই শুধু প্যাপিরাসের পরমাভাষার সংকেত, ভুলভালে ভরা, এবার দেখি বাতাস আরো বাড়ে


মন্তব্য

মূলত পাঠক এর ছবি

ব্যাকরণ নিয়ে এমন সুন্দর কবিতাও যে লেখা যায় জানতাম না। ভাগ্যিস বাবামা প্রজেক্ট শুরু হল।

মুজিব মেহদী এর ছবি

'বাবামা প্রজেক্ট'টা কী আসলে?
..................................................................................
সত্যকথন-স্বভাব
যুদ্ধঘোষণার মতো একটা ব্যাপার প্রায় কথাসভ্যতায়

... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ...
কচুরিপানার নিচে জেগে থাকে ক্রন্দনশীলা সব নদী

মূলত পাঠক এর ছবি

নামের প্রসারণটা বলি, বানানকে বামানান!

মুজিব মেহদী এর ছবি

দারুণ তো, বাবামা!

আপনার কিন্তু 'হলো' বলা দরকার। 'হল' শব্দের চারটা আলাদা আলাদা মানে আছে (ব্যঞ্জনবর্ণসমূহ, লাঙল, দ্রবীকরণ ও প্রশস্ত কামরা)। সংশয় এড়াতে ক্রিয়াপদ হিসেবে 'হলো' লিখতে বলে প্রমিত রীতি।
..................................................................................
সত্যকথন-স্বভাব
যুদ্ধঘোষণার মতো একটা ব্যাপার প্রায় কথাসভ্যতায়

... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ...
কচুরিপানার নিচে জেগে থাকে ক্রন্দনশীলা সব নদী

মূলত পাঠক এর ছবি

ঠিকই, এইটা স্লিপ অফ টাং হয়ে গেছে।

মুজিব মেহদী এর ছবি

ঠিক আছে।
..................................................................................
সত্যকথন-স্বভাব
যুদ্ধঘোষণার মতো একটা ব্যাপার প্রায় কথাসভ্যতায়

... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ...
কচুরিপানার নিচে জেগে থাকে ক্রন্দনশীলা সব নদী

স্নিগ্ধা এর ছবি

নাহ্‌, আপনাকে মন থেকে মাফ করে দিলাম! ধরেন যত খুশি ভুল মন খারাপ

মুজিব মেহদী এর ছবি

সারছে! আগে যে কেবল মুখ থেকেই মাফ করেছিলেন সেটা বুঝতেও আমার এতক্ষণ লেগে গেল!

হ্যাঁ মাদাম, মাঝেমধ্যে ওটা করা যাবে বৈকি। তবে আমার স্কোর সর্বদাই শূন্য। নম্বর টুকে রাখবেটা কে শুনি?

এদিকে আবার নীড়পাতায় শূন্যও ঝুলবে!
..................................................................................
সত্যকথন-স্বভাব
যুদ্ধঘোষণার মতো একটা ব্যাপার প্রায় কথাসভ্যতায়

... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ...
কচুরিপানার নিচে জেগে থাকে ক্রন্দনশীলা সব নদী

মূলত পাঠক এর ছবি

আমিও রণে ভঙ্গ দিয়েছি। ক্যারিক্যাচার্টাসুজঞ্চৌধুরিকর্লেপয়েন্টগুন্তাম, এখনারগুন্তেইচ্ছেহচ্ছেনা।

মুজিব মেহদী এর ছবি

'আমিও রণে ভঙ্গ দিয়েছি। ক্যারিক্যাচার্টাসুজঞ্চৌধুরিকর্লেপয়েন্টগুন্তাম, এখনারগুন্তেইচ্ছেহচ্ছেনা।'

আমিও।
..................................................................................
সত্যকথন-স্বভাব
যুদ্ধঘোষণার মতো একটা ব্যাপার প্রায় কথাসভ্যতায়

... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ...
কচুরিপানার নিচে জেগে থাকে ক্রন্দনশীলা সব নদী

ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

বুস্তার্লাম্না... সুজন্দাকৈ?

শাহেনশাহ সিমন এর ছবি

চলুক

_________________
ঝাউবনে লুকোনো যায় না

তুলিরেখা এর ছবি

বাবামা, আহা!
বাবা ও মা। জব্বর নাম! চমৎকার নাম!
মানে আমাদের মতন বানানশিশুদের বাবা ও মায়ের মতন রক্ষা করবে এই উদ্যোগ। হাসি
-----------------------------------------------
কোন দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

মুজিব মেহদী এর ছবি

কী কাণ্ড আহা!
..................................................................................
সত্যকথন-স্বভাব
যুদ্ধঘোষণার মতো একটা ব্যাপার প্রায় কথাসভ্যতায়

... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ...
কচুরিপানার নিচে জেগে থাকে ক্রন্দনশীলা সব নদী

তুলিরেখা এর ছবি

আমি এতকাল জানতাম বিষন্ন, একজন দেখি বলছেন বিষণ্ণ। কোন্‌টা ঠিক?
-----------------------------------------------
কোন দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

মুজিব মেহদী এর ছবি

'বিষন্ন' (ন+ন) শব্দটায় ঠিক দুঃখিত দুঃখিত ভাবই আসে না। 'বিষণ্ন'ই (ণ+ন, ণ+ণ নয়) সিদ্ধ । শব্দটা তৎসম। এখানে ষ-ত্ব বিধান কাজ করবে।
..................................................................................
সত্যকথন-স্বভাব
যুদ্ধঘোষণার মতো একটা ব্যাপার প্রায় কথাসভ্যতায়

... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ...
কচুরিপানার নিচে জেগে থাকে ক্রন্দনশীলা সব নদী

তানবীরা এর ছবি

এইচ।এস।সি পাশ করার পর আর এ মুখো হইনি কোনদিন। তাও পাশ করেছি পাগুটাদীপতি না কি জানি একটা ফর্মুলা ছিলো তার উপর দিয়ে। নইলে আজো আদু আপা হয়ে ওখানেই লটকে থাকতাম। বাঙালী হয়ে বাংলায় পাশ করা দুঃসাধ্য হতো। ধিক আমাকে।

তানবীরা
---------------------------------------------------------
চাই না কিছুই কিন্তু পেলে ভালো লাগে

*******************************************
পদে পদে ভুলভ্রান্তি অথচ জীবন তারচেয়ে বড় ঢের ঢের বড়

হাসান মোরশেদ এর ছবি

যাক, লিখলেন তো।
-------------------------------------
জীবনযাপনে আজ যতো ক্লান্তি থাক,
বেঁচে থাকা শ্লাঘনীয় তবু ।।

-------------------------------------
জীবনযাপনে আজ যতো ক্লান্তি থাক,
বেঁচে থাকা শ্লাঘনীয় তবু ।।

মুজিব মেহদী এর ছবি

এরকম করে বললেন যে! আমি কি কখনো বলেছি যে লিখব না?

এই বাক্য থেকে 'লেখাটা যত মন্দই হোক, লিখলেন যে এতেই স্বস্তি' ধরনের একটা মানে উপলব্ধ হচ্ছে আমার কাছে। হেহেহে!
..................................................................................
সত্যকথন-স্বভাব
যুদ্ধঘোষণার মতো একটা ব্যাপার প্রায় কথাসভ্যতায়

... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ...
কচুরিপানার নিচে জেগে থাকে ক্রন্দনশীলা সব নদী

হাসান মোরশেদ এর ছবি

হাসি
-------------------------------------
জীবনযাপনে আজ যতো ক্লান্তি থাক,
বেঁচে থাকা শ্লাঘনীয় তবু ।।

-------------------------------------
জীবনযাপনে আজ যতো ক্লান্তি থাক,
বেঁচে থাকা শ্লাঘনীয় তবু ।।

নীড় সন্ধানী এর ছবি

বিরল একটা বিষয়ে ‌জট্টিল কবিতা!!

-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-
সেই সুদুরের সীমানাটা যদি উল্টে দেখা যেত!

‍‌-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.--.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.
সকল লোকের মাঝে বসে, আমার নিজের মুদ্রাদোষে
আমি একা হতেছি আলাদা? আমার চোখেই শুধু ধাঁধা?

জুলফিকার কবিরাজ এর ছবি

ভাই ব্যা কারণ আর কে মানে কারণবারি পান করে লিখলে মাতাল বলে সব ভুল নিপাতনে (নিয়মের পতনে) সিদ্ধ। আর সচলায়তনে ভুল হলে তো কোন কথাই নেই। কারণ সচলের অধিকাংশ লেখকই ভুল লেখে। সচলের এই সময় পাঠক সংখ্যা, সদস্য ১৮ অতিথি ১০৩। যদি কোন লেখায় অনিচ্ছাকৃত ভুল হয় তাহলে মাত্র ১৮ জন সেটি সংশোধনের সুবিধা পাবে। অবশিষ্ট ১০৩ জন অতিথি হবার অপরাধে সংশোধনের সুবিধা পাবে না । অতএব; সচলে বানান ও ব্যাকরণ ভুলের সম্ভাবনা সিংহ ভাগ থেকে যায়।
মজব মহদ ভই ক ধন বদ।

মুজিব মেহদী এর ছবি

বানান ভুলকে এখানে অফিসিয়ালি সযত্নে প্রমোট করা হয় বলে মনে হয় আমার। দুদিন ধরে ব্যানারে একটা ভয়ানক ভুল ঝুলেই যাচ্ছে, ঝুলেই যাচ্ছে। একাধিকবার, একাধিকজন নোটিশ করেছেন, কিন্তু কেউ গা করছেন বলে মনে হচ্ছে না।

এদিকে ভুল ধরার অপরাধেই হয়ত আমার নামটিও ভুল বানানে শূন্য স্কোর নিয়ে ঝুলছে।
..................................................................................
সত্যকথন-স্বভাব
যুদ্ধঘোষণার মতো একটা ব্যাপার প্রায় কথাসভ্যতায়

... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ...
কচুরিপানার নিচে জেগে থাকে ক্রন্দনশীলা সব নদী

আহমেদুর রশীদ এর ছবি

নিয়ম-কানুন-ঘটনা কিছুইতো বুঝতে পারছিনা। আপনার নামের পাশে দেখছি বিরাট এক ০ ঝুলে আছে। এটা শুন্য না শূন্য?

---------------------------------------------------------

ঘাস তুমি ঘাসের মতো থাকো মাটি ছুঁয়ে
যে দেখার সে নতজানু হয়ে ছুঁবে তোমার আঙুল
অবরুদ্ধ মাঠ থেকে তুমি লাফিয়ে নেমোনা প্লিজ পাথরের পথে

---------------------------------------------------------

ঘাস তুমি ঘাসের মতো থাকো মাটি ছুঁয়ে
যে দেখার সে নতজানু হয়ে ছুঁবে তোমার আঙুল
অবরুদ্ধ মাঠ থেকে তুমি লাফিয়ে নেমোনা প্লিজ পাথরের পথে
________________________________________
http://ahmedurrashid.

মুজিব মেহদী এর ছবি

ওই স্কোর মডারেটরগণ আমার প্রতি সম্মানবশত ঝুলিয়েছেন!

মডারেটরগণ লিখলে 'শুন্য' সিদ্ধ, অন্যেরা লিখলে 'শূন্য' লিখতে হবে।

..................................................................................
সত্যকথন-স্বভাব
যুদ্ধঘোষণার মতো একটা ব্যাপার প্রায় কথাসভ্যতায়

... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ... ...
কচুরিপানার নিচে জেগে থাকে ক্রন্দনশীলা সব নদী

খেকশিয়াল এর ছবি

গুরু! জটিল!

------------------------------
'..দ্রিমু য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

-----------------------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

সাইফুল আকবর খান এর ছবি

মজা করে বললেন খুব।
চলুক মুজিব ভাই।
___________
স্বাক্ষর?!
মাঝেসাঝে বুঝতে পাই- আমি
নিরক্ষর!

___________
সবকিছু নিয়ে এখন সত্যিই বেশ ত্রিধা'য় আছি

সন্দেশ এর ছবি

দীর্ঘক্ষণ স্কোরবোর্ডে মুজিব মেহদীর স্কোর "০" ছিলো বলে আমরা লজ্জিত, এবং এ কারণে মুজিব মেহদীর কাছে দুঃখ প্রকাশ করছি। তিনি নিজের স্কোরটি গুণে জানিয়ে দিলে আপডেট করে দেয়া হবে।

স্কোরবোর্ড নিয়ে অভিযোগটি মুজিব মেহদী সন্দেশের কাছে সচলবার্তা হিসেবে পাঠিয়েছেন বলেই ব্যবস্থা গ্রহণে বিলম্ব হয়েছে। সবাইকে অবগত করতে চাই, যে কোন সমস্যায় সচলের কোনো অ্যাকাউন্টে বার্তা না পাঠিয়ে বরাবর পাঠান। এতে করে মডারেটররা অবগত হবেন এবং ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবেন। সন্দেশ বা সচলায়তন বরাবর বার্তা পাঠালে তা অনির্দিষ্টকালের জন্যে অপঠিত থেকে যেতে পারে। ধন্যবাদ।

s-s এর ছবি

স্যার, হাঁস ছিলো সজারু ব্যকরণ মানিনা টা কি ব্যা-করণ হবে? আমি আবার আপনার পোস্টে "নিত্য চকিত চঞ্চল চিত করো নিঃসংশয়" হয়ে জিজ্ঞেস কর্লুম!

মধ্যসমুদ্রের কোলে এর ছবি

পড়া হলো।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।