সচলায়তন আপগ্রেড: কোন পাঁচটি ফিচার আপনার কাছে গুরুত্বপূর্ণ?

সচলায়তন আপগ্রেডের কাজ চলছে। আপনাদের মতামতের উপর ভিত্তি করে গুরুত্বপূর্ণ ফিচারগুলোর কাজ করা হবে। আপনার পছন্দ মত পাঁচটি অপশন বাছাই করুন।

এখানে উল্লেখ্য যে, প্রাথমিক ভাবে পুরো ওয়েবসাইটের আপগ্রেড করা হবে। তারপর একে একে ফিচারগুলো যুক্ত করা হবে।

Choices

দুঃখিত, এই পোস্টে আপনার ভোট গৃহীত হবে না।

মন্তব্য

আলমগীর এর ছবি

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

হু ইমেজ মডুউলের আপগ্রেডটা এবারে প্রথমেই ঠিক করেছি। শুধু ওই একটা ডাটা কনভার্সনে আধা ঘন্টার উপরে লাগে।

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

বস, আমাদের আপনি কোথায় নিয়ে যাচ্ছেন? দ্রুপাল ৫ নাকি ৬ এ?

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

৬ এ যাব। এখন ৫ এ থাকার কোন মানে নাই।

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

হুমম। কয়দিন পরে তো ৭ বের হবে। সেটা ম্যাচিওর হতে অবশ্য সময় লাগবে।

পুতুল এর ছবি

ব্যাপারটা ভোটে যুইত কইরা কইতে পারলাম না!
ধরেন আমি হিমুর একটা লেখা পড়তে চাই। সে জন্য একটা সার্চ অপশন থাকবে যেখানে আমি 'হিমু 'টাইপ করে চাবি টিপলে হিমুর সব লেখা বা তার ব্লগ আসবে। এমন একটা ব্যবস্থা থাকা দরকার।
**********************
ছায়া বাজে পুতুল রুপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কি দোষ!
!কাঁশ বনের বাঘ!

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

কনফুসিয়াস এর ছবি

এটা তো এখনও আছে। আপনি যে কোন ব্লগারের নামের উপরে ক্লিক করলেই তার সব লেখা এসে হাজির হবে।
-----------------------------------
আমার জানলা দিয়ে একটু খানি আকাশ দেখা যায়-

-----------------------------------
বই,আর্ট, নানা কিছু এবং বইদ্বীপ

পলাশ দত্ত এর ছবি

কিন্তু এখন খুজতে হলে তো পৃষ্ঠা ঘেটে লেখকের অন্তত একটা লেখা খুজে বের করতে হয়। খোজার এমন সুবিধা কি দেয়া যায় না যে বাক্সের মধ্যে শুধু নাম/বিষয় দিলাম তাহলে সেই নাম/বিষয়ের লেখা চলে আসলো?
==========================
পৃথিবীর তাবৎ গ্রাম আজ বসন্তের মতো ক্ষীণায়ু

==========================
পৃথিবীর তাবৎ গ্রাম আজ বসন্তের মতো ক্ষীণায়ু

কনফুসিয়াস এর ছবি

তাও আছে। নীড়পাতার ডানদিকে, ওপরে দেখুন, বাক্স আছে একটা। ওখানে যে কারও নাম দিয়ে এন্টার চেপে দেখুন কী হয়। হাসি

-----------------------------------
আমার জানলা দিয়ে একটু খানি আকাশ দেখা যায়-

-----------------------------------
বই,আর্ট, নানা কিছু এবং বইদ্বীপ

পলাশ দত্ত এর ছবি

আচ্ছা সত্যি কথা বলেন তো, এইটা কি সবসময় ছিলো!!! আমি মন্তব্য লিখে কয়েকটা ওয়েবসাইট ঘুরে এসে দেখি ওই বাক্স। একজনের নাম লিখে দেখি তার সব লেখা চলে আসলো। তারপর দেখি আপনার মন্তব্যটা। একটু বিব্রত বোধ করতেছি। মন খারাপ

হ্যা, এখন তো মনে হচ্ছে ওই বাক্সটা সবসময়ই ছিলো। চিন্তায় পড়ে গেলাম। মন খারাপ

==========================
পৃথিবীর তাবৎ গ্রাম আজ বসন্তের মতো ক্ষীণায়ু

==========================
পৃথিবীর তাবৎ গ্রাম আজ বসন্তের মতো ক্ষীণায়ু

সাইফুল আকবর খান এর ছবি

এই জরিপে একটা চলুক
আর, সাব-গ্রুপের বিপক্ষে আমিও একটা ছোট্ট হাত তুলে গেলাম ।

___________
স্বাক্ষর?!
মাঝেসাঝে বুঝতে পাই- আমি
নিরক্ষর!

___________
সবকিছু নিয়ে এখন সত্যিই বেশ ত্রিধা'য় আছি

নিবিড় এর ছবি

সাব গ্রুপের বিরুদ্ধে মত দিয়ে গেলাম


মানুষ তার স্বপ্নের সমান বড় ।

হিমু এর ছবি

একটা গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার।

সচল টুকিটাকি বিবর্তনের মধ্যে সবসময়ই চলছে, কিন্তু এবারের আপগ্রেড বেশ বড়সড় হবে বলে মালুম হচ্ছে। সচলের এই বর্তমান চেহারার একটা নমুনা স্ক্রিনগ্র্যাব করে ইমেইজ আকারে নিয়ে রাখা যায় কি? আমরা হয়তো আজ থেকে পাঁচ বছর পর একটা শোকেইস দেখতে পাবো, যেখানে সচলের এই রূপান্তরের ধাপগুলো পর পর সাজানো থাকবে।



হাঁটুপানির জলদস্যু আলো দিয়ে লিখি

সুমন সুপান্থ এর ছবি

সাব-গ্রুপের বিপক্ষে জনমত সংগ্রহে নামবো কি না ভাবছি । বাকীগুলো ঠিক আছে ।

---------------------------------------------------------
তুমি এসো অন্যদিন,অন্য লোক লিখবে সব
আমি তো সংসারবদ্ধ, আমি তো জীবিকাবদ্ধ শব !

---------------------------------------------------------
তুমি এসো অন্যদিন,অন্য লোক লিখবে সব
আমি তো সংসারবদ্ধ, আমি তো জীবিকাবদ্ধ শব !

মেহদী হাসান খান এর ছবি

ভোট দিলাম।

চ্যাট, স্ট্যাটাস (বা মাইক্রোব্লগিং, যেটাই বলেন), গ্রুপ-উপগ্রুপ, কাস্টোমাইজড ফ্রন্টপেজ চাই না।

ইমেইল ফরওয়ার্ড নিয়েও খুব একটা আশাবাদী না। ধরে নিলাম আমাকে মেহদী@সচলায়তন.কম একটা ইমেইল অ্যাড্রেস দেয়া হলো, যেখানে মেইল করলে সেটা মেহদী@ইয়াহু.কম-এ ফরওয়ার্ড হবে। প্রথমবার কেউ একজন আমাকে মেহদী@সচলায়তন.কম-এ মেইল করল, আমি যখন রিপ্লাই দিব, সেন্ডার অ্যাড্রেস হিসেবে তো মেহদী@ইয়াহু.কম যাবে, পরবর্তী সব মেইল তখন চালাচালি হবে ইয়াহুর ঠিকানাতেই। প্রোডাক্ট ব্র্যান্ডিং এর জন্য মেইল ফরওয়ার্ড তাই কাজ দেয় না। একান্তই দিতে চাইলে ফরওয়ার্ডের বদলে হোস্টেড মেইল বক্স দিতে পারেন, সেটা সত্যিকারে ব্যবহার করা সম্ভব। এজন্য জিমেইল ফর ডোমেইন সার্ভিসটা ভালো।

আরেকটা ফিচারের অভাব বোধ করি সচলে, লগইন এর সময় "Remember me" গোছের কিছু। এটা চাই-ই চাই।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আরেকটা ফিচারের অভাব বোধ করি সচলে, লগইন এর সময় "Remember me" গোছের কিছু। এটা চাই-ই চাই।
মেহেদী ভাই, রিমেমবার মি অপশনটা তো এখন ব্রাউজারের সাথেই চলে গেছে। আমার লগিন কিন্তু সেভ করা আছে, বারবার দিতে হয়না। [কম টেকি মানুষ, কোন ভুলভাল বলে থাকলে আগেভাগেই স্বীকার করে রাখছি হাসি ]

মেহদী হাসান খান এর ছবি

ঠিকই বলেছেন পিপিদা। সেটা ইউজারনেম, পাসওয়ার্ড মনে রাখার সুবিধা। আমি সেটার কথা বলিনি। বলেছি "কুকি" মনে রাখার কথা। এই যেমন এখন যদি সচলের সবগুলো উইন্ডো বন্ধ করে দেই আমার লগইন করা সেশনটাও মুছে যাবে, একটা মন্তব্য করতে হলে আবার লগইন করতে হবে। "কুকি" মনে রাখলে এই একটা অতিরিক্ত ধাপ এড়ানো যায়। এটা না থাকার জন্যে প্রায়ই দেখা যায় সচলরাও অফলাইনে মন্তব্য করেন, ব্র্যাকেটে লেখা থাকে "যাচাই করা হয়নি"। একটা কম্পিউটার থেকে আমি একাই যদি সচলে ঢুকি তাহলে বারবার লগইন করার যুক্তি কী? আমি চাই সচলে যখন ঢুকবো সচল নিজেই চিনে যাক আমি কে। ফেসবুক, ফ্লিকার, জিমেইল, ইয়াহু ইত্যাদি ছোট-বড় সব সাইটে সুবিধাটা থাকে। সচলেও সেটা চাই।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

হুমম, ঠিকই তো, ব্রাউজার বন্ধ করলেই তো আবার লগিন করতে হয়, যেটা না হলেই আমি খুশি হতাম। ধন্যবাদ মেহেদী ভাই।

কিংকর্তব্যবিমূঢ় এর ছবি

কিন্তু আমি যদি নিজেই অফলাইনে থাকতে চাই তাহলে? দেঁতো হাসি
................................................................................................
খাদে নামতে আজ ভয় করে, নেই যে কেউ আর হাতটাকে ধরা ...

দ্রোহী এর ছবি

অ্যাজাক্সভিত্তিক মন্তব্য ও লগিন বিষয়টা ভোটে আসা উচিৎ না। ওইটা যুগের দাবী। অনেকেই জানেন না ওইটা খায় না মাথায় দেয়।

অনুপম ত্রিবেদি এর ছবি

ইয়া মা'বুদ আমি তো ভাবছিলাম ঐটাতে বাতাস হামায়া আসমানে উড়ায়!!!

----------------------------------------------------
সকলই চলিয়া যায়,
সকলের যেতে হয় বলে।

==========================================================
ফ্লিকারফেসবুক500 PX

দ্রোহী এর ছবি

লোল! আমি তো প্রথমে ভাবছিলাম ওইটা খায়। পরে একটু খোঁজাখুজি করে দেখি ওইটা আসলে গায়ে দিয়া ঘুমায়।

দ্রোহী এর ছবি

ভুট দিলাম।

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

ফোন এপপ নিয়ে কাজ করার সমস্যা হল হার্ডওয়্যার।

১। ফোনটা কেনা লাগবে। কন্ট্রাক্ট ছাড়া আইফোনের দাম $৬০০। কন্ট্রাক্ট নিলে দু বছর বিল দিয়ে যেতে হবে।

২। ডেভলমেন্ট মেশিন কেনা। যেমন আইফোনের ক্ষেত্রে একটা ম্যাক কিনত হবে। এটা বোধহয় এড়ানো সম্ভব।

মন খারাপ

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

আরো ডেভলপার পেলে দ্রুত কাজ করা যেত। একটা ছেলে রাজি হয়েছিল। পরে আর যোগাযোগ করেনি। একলা কাজ করতে করতে পিছিয়ে যাচ্ছি।

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

যুধিষ্ঠির এর ছবি

এ ব্যাপারে আপনাকে একটা মেসেজ পাঠিয়েছি।

সাফি এর ছবি

কি প্ল্যাটফর্ম? jsp, asp, xml, html, java script হলে সাহায্য করতে পারব। তবে php হলে আপাতত একটু দুর্বল আছি। CMS নিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতাও আছে, সুতরাং টুকটাক কিছু লাগলে আও্য়াজ দিতে পারেন

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

আওয়াজ দিলাম। udvrantoএট জিমেইল।
====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

সচল জাহিদ এর ছবি

ভোটে যা দিতে পারিনি না মন্তব্যে দিচ্ছি।

১. এইটি আগেও মন্তব্যে লিখেছিলাম কোন এক লেখাতে, চোখে পড়েনি বলে আবার দিলামঃ

সচলের রেটিং এর একটা মজার জিনিস বলি, মডুদের এই বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষন করছি,

ধরুন প্রথম জন দিলঃ ৫
পরের জন দিলঃ ৪
তাহলে গড় হলো ৪.৫
এক্ষেত্রে চারটা তারার পর পরের তারার অর্ধেক লাল হয়।

এখন পরের পাঠক যদি দেয় ৫
তাহলে গড় হলো ৪.৬৭
কিন্তু এক্ষেত্রে লাল হবে চারটা তারা !!! অর্থাৎ রেটিং বাড়ছে কিন্তু তারা কমছে।

এখন পরের পাঠক যদি দেয় ৪
তাহলে গড় হলো ৪.৩৩
কিন্তু এক্ষেত্রেও লাল হবে চারটা তারা !!!

এই জিনিসটি আসলে হয়ত কারিগরীগত ভুল। তাই ধরিয়ে দিলাম। আমি এই জিনিসটি পরীক্ষা করে দেখেছি।

যা থাকা উচিৎ তা হল ৪.৫ বা তার অধিক হলে পরের তারার অর্থেক লাল দেখাবে আর ৪.৫ এর কম হলে চারটা তারা লাল দেখাবে।

২. কবিতা নীড়পাতায় অনেক লম্বা জায়গা নিয়ে নেয় যা দেখতে ভাল লাগেনা, যদিও প্রথম পাতায় মোট লেখার সংখ্যা তাতে পরিবর্তিত হয়না। এক্ষেত্রে যদি এমন অপশন থাকে যে কবিতার ক্ষেত্রে প্রিভিও তে ৪ বা পাচ লাইন দেখাবে সেক্ষেত্রে এই সমস্যা সমাধান করা যায় (বর্তমানে এই অপশনটি মনে হয় শব্দ সংখ্যার ভিত্তিতে আছে।

৩. ইশতির সাথে একমত একটি স্পেলচেকার চাই।

----------------------------------------------------------------------------
zahidripon এট gmail ডট কম


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- কমেন্ট লাইক্করা (এইখানে) ভালো পাই না, খুব কি দরকার জিনিষটার? চ্যাটাচ্যাটি করতে গিয়া চেঁতাচেতি বেশি হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল, দরকার দেখি না। গ্রুপিং আর কাস্টমাইজড নীড়পাতারে কইষ্যা মাইনাস।

আরেকটা হলো, সচলায়তন ডোমেইনে ইমেইল সুবিধা। এইটা দিয়া কী হবে? ভিজিটিং কার্ডে উল্লেখ করবো যে "ভাই আমারে এইখানে মেইল দিও, আমার অফিসিয়াল ব্লগিং ইমেইল।" কোনো দরকার আছে এইটারও?

ফেসবুকের মতো স্ট্যাটাস জিনিষটাও মনে হচ্ছে না খুব দরকারী। কি জানি হয়তো সময়ের সাথে দরকারী মনে হতে পারে! কিন্তু আমি ব্যক্তিগতভাবে মনেহয় না কখনো এই জিনিষ ব্যবহার করবো! (সিগনেচারের ব্যাপারটা আলাদা ধরলাম।)

ক্যুইজ প্রকাশে (পরীক্ষা নেয়া) ক্ষেত্রে টার্গেট গ্রুপ কারা? শিক্ষকরা কি ক্যুইজের জন্য সচলায়তনকে ব্যবহার করতে শুরু করবে! আমার তো মনেহয় এই জিনিষ চালু করলে আমি নিজেই হাজারটা ফাইজলামি মার্কা ক্যুইজ দিয়ে লোকজনের জান খান্দান করে ফেলবো!
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

মামুন হক এর ছবি

ভোট দিসি, মন্তব্য লিখতে যাচ্ছিলাম। দেখি ধুগো আমার মনের কথাগুলোই বলে দিসে। ধুগোর কমেন্টে লাইক টিপি দিলাম।

বেশি জটিল করার দরকার নাই। সচল এমনিতেই ভালো চলছে। ফেসবুকের স্টাইলে নানা অ্যাপ্লিকেশন দিয়া ঘর ভর্তি করার অর্থ দেখিনা। এইটা একটা লেখালেখির জমিন, আড্ডাবাজির আখড়া না হলেও মনে হয় খুব একটা খারাপ হবেনা।

মন্তব্য , ভোটিং ইত্যাদিতে স্বচ্ছতা বাড়ানো উচিত সম্ভব হলে।

কিংকর্তব্যবিমূঢ় এর ছবি

গ্রুপ আর এজাক্সে না-ভোট দিলাম দেঁতো হাসি
................................................................................................
খাদে নামতে আজ ভয় করে, নেই যে কেউ আর হাতটাকে ধরা ...

স্বাধীন এর ছবি

ভোট দিয়েছি, কিন্তু পাঁচটির বেশি পছন্দ করা যাবে না এই ব্যবস্থাটি ভাল হয়নি। যে যার মত যত খুশি পছন্দ করতো, তাহলে মতামত আরো পরিষ্কার হত।

যা হোক, নিজের পছন্দ মত নীড়পাতা, চ্যাটের সুবিধে আর উপ-গ্রুপ এই তিনটি চাই না।

আর ইশতির মত আমিও বাংলা স্পেলচেকার চাই। স্পেল চেকারের অপশনটা ভোটের লিস্টিতে যুক্ত করা হোক। হাসি)।

ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

বাংলা স্পেলচেকার চাই

যুধিষ্ঠির এর ছবি

এই মন্তব্যে "অতি ব্যাপক লাইক" মারার অপশন চাই।

ফিরোজ জামান চৌধুরী এর ছবি

'ফিচার' বানানটি 'ফীচার' নয়, 'ফিচার'। বিদেশি শব্দ বাংলাতে 'ই' কার যোগে লেখা হয়।

আশা করি, সচল মডুবৃন্দ এটা এডিট করে দেবেন।

ঝিনুক নীরবে সহো, নীরবে সয়ে যাও
ঝিনুক নীরবে সহো, মুখ বুঁজে মুক্তো ফলাও।

মূলত পাঠক এর ছবি

সাধারণভাবে ই-কারই দেওয়ার কথা, কিন্তু কিছু শব্দে ঈ-কার দিলে সঙ্গত হয়। যেমন sit বলতে সিট চলে, কিন্তু seat-এর জন্য সীট হওয়া উচিত বলেই মনে হয়। Bitch ও beach-এর ক্ষেত্রেও সে কথা প্রযোজ্য। এ নিয়ে কোনো অভিধানী আইন নেই হয়তো, তবে নিজের মতো করে যুক্তি ভাবা যেতে পারে বলেই মনে হয়।

সেই যুক্তিতেই ফীচার বানান ঠিক মনে হয়।

পলাশ দত্ত এর ছবি

এক "সিট" উচ্চারণে ইংরেজিতে দুইটা শব্দ পাওয়া যায়। "বিচ" উচ্চারণেও তাই। এক্ষেত্রে হ্রস্ব-দীর্ঘের ভেদটা ঠিক। "ফিচার" উচ্চারণেও কি একাধিক শব্দ আছে? ঠিক জানা নাই। না-থাকলে বানানটা "ফিচার" হলেই ভালো; বাংলাদেশের বাংলা ভাষায় এভাবে চলছেও।
==========================
পৃথিবীর তাবৎ গ্রাম আজ বসন্তের মতো ক্ষীণায়ু

==========================
পৃথিবীর তাবৎ গ্রাম আজ বসন্তের মতো ক্ষীণায়ু

মূলত পাঠক এর ছবি

আপনার তোলা প্রসঙ্গটা আসবে মনে হয়েছিলো, আলসেমি করে সে কথা লিখি নি। কথা ঠিক, যেখানে দুরকম অর্থ হতে পারে সেখানে ই ও ঈ কারের ফারাক এনে পরিষ্কার করা যায় মানেটা। আরেকটা দিক হলো দু ভাষায় উচ্চারণের সাযুজ্য আনা। Feature শব্দটা যখন ইংরেজিতে কথা বলি তখন উচ্চারণ করি 'ফীচার'-এর মতো, 'ফিচার'-এর মতো নয়। সেই হিসেবে ধরলে ঈ-কার লাগানো যেতে পারে। আসলে যেহেতু এগুলো বাংলা শব্দভাণ্ডারের অংশ হয় নি সেজন্য এদের নিয়ে মুনিদের মতানৈক্য থাকতেই পারে।

শাহেনশাহ সিমন এর ছবি

জরিপের ফলাফল কবে নাগাদ বাস্তবায়িত হবে দেঁতো হাসি ?
_________________
ঝাউবনে লুকোনো যায় না

_________________
ঝাউবনে লুকোনো যায় না

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

টাইম ফ্রেইম:

সেপ্টেম্বর ১-নভেম্বর ৩০ ২০০৯: সচলায়তন আপগ্রেড + গুরুত্বপূর্ণ ফিচার রোলআউট
ডিসেম্বর ১ - ডিসেম্বর ৩১ ২০০৯: প্রকাশায়তন রিলিজ
জানুয়ারী ১ - অনওয়ার্ড ২০১০: মেইনটেনেন্স + অন্যান্য ফিচার রোলআউট

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

শুভাশীষ দাশ এর ছবি

আমার পুরানো লেখা ভালো লাগে, পুরানো দিনের গান কি কবিতা আমার খুব পছন্দের, পুরানো দিনের মানষ খুব খুব ভালো লাগে, তেমনি পুরানো (আমার সাথে সম্পর্ক মাত্র প্রায় পঁচিশ দিনের পুরানা চোখ টিপি ) সচলায়তন ও আমার উড়াধুড়া ভাল্লাগে।

আমি মহা মহা কম্পুকানা। এখন যা পাচ্ছি আমার জন্য অনেক। চাওয়ার শেষ নাই , তাই পাঁচটায় টিক ও দিছি।

শিক্ষানবিস এর ছবি

ও হ্যা,
সাবগ্রুপ, একেজনের কাছে নীড়পাতা একেক রকম, চ্যাট, স্ট্যাটাস আপডেট- এইসবের ঘোর বিরোধী।

শিক্ষানবিস এর ছবি

ভোটে জানাইছি। পাশাপাশি চাই,
সার্চ অপশনটা আরও কার্যকরী হোক। গুগলের কাস্টম সার্চ ব্যবহার করলে মনে হয় খারাপ হবে না। দেইখেন...

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

আমি ভাবছিলাম পাঁচটার মধ্যে আঁটাতে পারবো? একযোগে টিকানো শুরু করে শেষ করে গুনে দেখি ঠিকঠাক ৫টাই টিকাইছি। নিজেরেই মারহাবা দিলাম।

তবে কিছু ব্যাপার বুঝি নাই... পরে মন্তব্য পড়ে বুঝতে হইলো। আর তখন মনে হইলো আমার আরো একটাতে ভোট দেওন দরকার। এ্যাজাক্সভিত্তিক মন্তব্য কী জিনিস তা আগে বুঝি নাই। কিন্তু এখন মনে হইতেছে ঐটাতে আমার ভোট থাকা দরকার। কী করি?

আমিও হাসান মোরশেদের মন্তব্যের সঙ্গে এক্কেবারে একমত। সাবগ্রুপ আর চ্যাটাচ্যাটির বিরুদ্ধে। এক্কেবারে...

ফীচার না ফিচার?
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

অনুপম ত্রিবেদি এর ছবি

ভোটে জানিয়ে গিয়েছি।

১) তবে আমার নিজের পোষ্টে অন্যের মন্তব্য আর যে কারো পোষ্টে আমার মন্তব্যের জবাবের নোটিফিকেশন পেলে ভালো লাগবে। আমি কোথাও মন্তব্য করলে সেখানে যেই মন্তব্য করূকনা কেনো আমার কাছে নোটিফিকেশন আসে - ফেসবুকের এহেন বিরক্তিকর সিসটেমটা আমার কখনই ভালো লাগে নাই।

২) একাধিক ছবি আপলোড করার বিষয়টা ভালো তবে ঐ ছবি গ্রুপ, লেখক গ্রুপ, কবি গ্রুপ - এসব সাব-গ্রুপের বিশেষ কোন প্রয়োজন নেই বলে আমার মনে হয়। তখন দেখা যাবে ঐসব গ্রুপ নিয়েই ব্যাস্ত হচ্ছি, সচলায়তন নিয়ে নয়। তবে কারু ব্লগ পেজ-এ ব্লগ লিষ্টের পাশাপাশি পেজের উপরের স্থানে আলাদাভাবে আপলোড করা ছবিগুলোর থাম্বনেইল দেখা গেলে ভালো হতো।

------------------------------------------------------
সকলই চলিয়া যায়,
সকলের যেতে হয় বলে।

==========================================================
ফ্লিকারফেসবুক500 PX

স্বপ্নাহত এর ছবি

আজকাল বেশি প্যাচাল পাড়তে ভাল্লাগেনা। যা কওনের ভোটেই কইসি চোখ টিপি

---------------------------------

তবে যে ভারি ল্যাজ উঁচিয়ে পুটুস্‌ পাটুস্‌ চাও?!

---------------------------------

বাঁইচ্যা আছি

নজমুল আলবাব এর ছবি

আমারে ১২ choices were selected but only ৫ are allowed.
এই মেসেজটা দিছে।

মন খারাপ

------------------------
ভুল সময়ের মর্মাহত বাউল

যুধিষ্ঠির এর ছবি

আরেকটা জিনিস চাই, সেটা হলো একটু অ্যাডভান্সড একটা সার্চ অপশন। বিশেষ করে লেখক ভিত্তিক, তারিখ ভিত্তিক, ট্যাগ ভিত্তিক, এইসব। অমুক লেখক এই তারিখ আর ওই তারিখের মধ্যে কি লিখেছিলেন, বা ২০০৯ এর একুশে ফেব্রুয়ারীতে কি কি লেখা এসেছিলো - এরকম সার্চ করতে চাই।

সবজান্তা এর ছবি

যা বলার ভোটেই বললাম।

সাম্প্রতিককালে ফেসবুকে অ্যাজাক্সের লেজে গোবরে অবস্থা দেখে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছি। শক্তপোক্ত না হলে সে দিকে না যাওয়াই উত্তম।


অলমিতি বিস্তারেণ