আমাদের সময়ের গল্প!

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি
লিখেছেন পান্থ রহমান রেজা (তারিখ: সোম, ২২/১২/২০০৮ - ৪:১১অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

আনোয়ার সাদাত শিমুলের উপন্যাস 'ছাদের কার্ণিশে কাক'। উপন্যাসখানা ই-বুক ফোল্ডারে বেশ কিছু দিন ধরেই পড়ে ছিল। কম্পিউটারে একটানা পড়ে যেতে আমার সমস্যা হয় বলে একটু একটু করে পড়েই আগাচ্ছিলাম। এতোদিনে শেষ হলো তা। কোনো উপন্যাস কিংবা কবিতা অথবা গল্পগ্রন্থ পড়ে শেষ করলাম- এভাবে হয়তো বলা যায় না। কারণ অন্য একদিন, বিশেষ কোনো মুহূর্তে আবার তা পড়বার তাগিদ চাগিয়ে উঠতে পারে। আবার উল্টাতে বাধ্য করতে পারে পুরানো বইয়ের পাতারা। শিমুলের উপন্যাসখানা কবে যে আবার ডেকে বসবে আমায় তাই কে'বা জানে!

'ছাদের কার্ণিশে কাক'- কে আমি বলছি, আমাদের সময়ের গল্প বলে। পড়ছিলাম আর ভাবছিলাম এতো আমার, কিংবা আমার কোনো বান্ধবের প্রত্যহ যাপনের ছবির ভেতরেই ঘাপটি মেরে বসে আছি। যেন মঞ্চস্থ করে চলছি আমারই কোনো চরিত্র। যাই হোক, আসুন, উপন্যাসখানা নিয়ে আলাপের আগে একবার আমাদের সময়ের সেলুলয়েড ফিতার অন্দরে একবার প্রবেশ করে আসি।

হুমম! বিপদে পড়ে গেলাম দেখছি, আমাদের সময়ের দিনযাপনের, ঠাঁটবাটের ঠিকুছি নিতে গিয়ে। আমাদের সময়ের গল্প বলতে আমরা যারা তরুণ, তাদের লাইফস্টাইলের কথাই কিন্তু বলছি। এই তরুণদের ভেতরেও আবার আছে ভেদ-বিভেদ। সত্যি করে বলতে আমি আসলে টেকিদেরকেই বলতে চাচ্ছি। যারা বোঝে এএসএল, এলওএল-এর মতো ডিজিটাল জার্গন আর ইমো'র সমঝদারি। রাত জেগে চ্যাটরুমে বসে গল্প করতে করতে যারা হয়তো বন্ধুত্ব গড়ে ডালাসের পল কিংবা ক্যাটরিনার সঙ্গে। পাশের বাড়ির মেয়ে কিংবা ছেলেটি নয়, অন্তর্জালের অদেখা মানুষটিকেই ভালোবেসে স্বপ্ন দেখে ঘর বাঁধার। এর সবই আছে আনোয়ার সাদাত শিমুলের উপন্যাস 'ছাদের কার্ণিশে কাক'-এ। হালকা চালে হলেও আছে কর্পোরেট ওয়ার্ল্ডের নোংরামি, আছে বেকারত্বের অন্তহীন ইতিকথা, পড়াশোনা শেষ করে চাকরি জীবনের অনিশ্চয়তা।

উপন্যাসের ভাষা ও বর্ণনাভঙ্গি খুবই সরস ও চমৎকার। সরস করে বলতে পারার দক্ষতা যেকোনো লেখকের জন্যই প্লাসপয়েন্ট। শিমুল এখানে শতভাগ সফল। একজন পাঠক হিসেবে আমার এমনই মত। আর হ্যাঁ, বলতে ভুলে গেছি, উপন্যাসটির পাঠান্তে যথেষ্টই মুগ্ধ হয়েছি আমি।

তবে দু'একটা বিষয় নিয়ে কিছুটা বলবার আছে। বেলার সাথে আলাপের একপর্যায়ের সরণ নিজেকে উল্লেখ করেছে ছাত্রশিবিরে মুগ্ধ আর কিশোরকণ্ঠের রেগুলার পাঠক হিসেবে। তার একটু পরেই আমরা দেখছি হুমায়ূন আজাদ, মুহম্মদ জাফর ইকবালের প্রতি তার মুগ্ধতা। মাঝের এই রূপান্তরটা লেখক পুরোপুরিই এড়িয়ে গেছেন। দু'একটা বাক্য ব্যয় লেখক এখানে করলেও করতে পারতেন। আবার অন্যদিকে বেলার যে ব্যাকগ্রাউন্ড, সেখানে মনে হয়েছে, লেখক শিমুল বেলার মধ্যে ঢুকে পড়েছেন। এ কারণে একথা বলা যে, আমার কাছে, বেলার সাহিত্য জ্ঞান একটু বেশিই মনে হয়েছে। আবার যায়যায়দিনের মঈন-মিলার কথোপকথন বেলার মতো পাঠক'রা পড়ে কী'না আমার যথেষ্ট সন্দেহ আছে। তাই বেলার মুখ থেকে শফিক রেহমানের মঈন-মিলার কলামটার কথা একটু বেখাপ্পাই লেগেছে। এটা একান্তই আমার কথা। পট উল্টালে হয়তো অন্য যুক্তিও জানা যেতে পারে। সেটা বুঝতে না পারা আমারই অক্ষমতা।

সে যাই হোক, আনোয়ার সাদাত শিমুলের উপন্যাস 'ছাদের কার্ণিশে কাক' ছাড়াও ব্লগে, বিভিন্ন আন্তর্জালিক মাধ্যমে তার লেখা পড়ে আমার মনে হয়েছে, বাংলা সাহিত্যকে অনেক কিছুই দেয়ার ক্ষমতা রাখেন তিনি। সময় তো সবে শুরু। ভবিষ্যতই প্রমাণ রাখবে এর সবকিছু।


মন্তব্য

মূর্তালা রামাত এর ছবি

পান্থ, আলোচনাটা ভালো হয়েছে। বইটি পড়তে হবে।

মূর্তালা রামাত

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি

হাসি

নিবিড় এর ছবি

হুম...... বইটা তো পড়তে হয় ।

অছ্যুৎ বলাই এর ছবি

উপন্যাসের গল্পটা নিয়ে একটা ফিল্ম বানালে কেমন হয়?

---------
চাবি থাকনই শেষ কথা নয়; তালার হদিস রাখতে হইবো

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি

বলাই দা' আমার ধারণা ফিল্ম নয় নাটকই ভালো হবে বোধহয়। তবে উপন্যাসে খানিকটা একঘেয়েমি আছে- ই-চিঠি আর চ্যাটের। তবে এটা পড়তে যতটা একঘেয়েমি লাগে, দেখার সময় এটি আরো বেশি একঘেয়েমি লাগবে। এই একঘেয়েমির জায়গাটা কভার করা গেলে নাটক হিসেবে চমৎকার দাঁড়িয়ে যাবে। তবে ভালো বলতে পারবেন মনে হয় নজু ভাই। নজু ভাই তাড়াতাড়ি মতামত দিয়ে বাধিত করেন।

অছ্যুৎ বলাই এর ছবি

একঘেয়েমির বিষয়টা মেকিং এর ওপর নির্ভর করে। নজু ভাই কই গেলেন?

---------
চাবি থাকনই শেষ কথা নয়; তালার হদিস রাখতে হইবো

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি

নজু ভাই ধারাবাহিকের স্ক্রিপ্ট লেখায় ব্যস্ত। রাতের আগে নাজিল হবেন কী'না সন্দেহ!

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

উপন্যাসটা পড়ার খুবই ইচ্ছা আছে। বেশ কিছুদিন আগে শিমুল ভাইয়ের সব লেখা ঘেটে দেখছিলাম, তখনই চোখে পড়ে এটা। অবশ্য এর আগে এটার নাম শুনি ধূগো'দার কাছে। এখনো-পড়িনি-কিন্তু-পড়বই লিস্টে বেশ উপরের দিকেই আছে এটা, আপনার রিভিউ পড়ে ইচ্ছাটা আরো বেড়ে গেল।

খুব বেশি কাহিনী বলে মজা নষ্ট করে দেননি। দারুন লিখসেন চলুক


যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চাই

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি

আমিও জানতাম না তার এই উপন্যাসটির কথা। একদিন গুগলমামায় কী খুঁজতে গিয়ে পেয়ে যাই এটা। তখনই ডাউনলোড করে রেখেছিলাম। এতোদিনে পড়া শেষ হলো। পড়ে তো আমি মুগ্ধ।

কীর্তিনাশা এর ছবি

বইটা পাওয়া যাবে কোথায়?

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি

নাশু ভাই, গুগলমামায় বইয়ের নাম লিখে সার্চ দ্যান, ই-বুক হিসেবে পেয়ে যাবেন।

মুশফিকা মুমু এর ছবি

বাহ! বইটাতো তাইলে এখন পড়তেই হয়! হাসি চলুক
------------------------------
পুষ্পবনে পুষ্প নাহি আছে অন্তরে

------------------------------
পুষ্পবনে পুষ্প নাহি আছে অন্তরে ‍‍

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি

সমঝে! পড়ার শুরুর আগে বিডিআর ভাইয়ের 'কাজিনা' বিষয়ক ঝামেলাগুলো শেষ করে যায়েন। দেখেন না, বেচারা সঙ্গী বিনা বিষণ্ণতায় ভুগতেছে। হাসি

নজরুল ইসলাম এর ছবি

আমি হাজির...

বইটা পড়ি নাই... তবে শিমূলের লেখার আমি ভক্ত বিশেষ...
আমার ঝামেলা হইলো বই পড়ে সেটায় নাটকের উপাদন পেলেই দখল করে নেই... বইটা পড়বো... নাটক করার উপযোগি মনে হলেই কেল্লা ফতে... আর যদি নাটক করি তাইলে নাট্যরূপে পান্থ... কনফার্ম করলাম।
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি

হাসি

ফরিদ এর ছবি

এহেম, (গলা খাঁকরি)

আমার বইমেলায় বই হিসেবে কাউয়া শিমুলের যায়গা হয়েছিল।

ডাউনলোডের লিঙ্ক এখানেই আছে

http://www.boi-mela.com/BookDet.asp?BookID=73771

সৈয়দ আখতারুজ্জামান এর ছবি

বইটা পড়তে হবে!

পুতুল এর ছবি

গুগল মামা বা ফরিদ সাহেবের লিংক কোথাও বইটা পেলাম না!
এখন গাছ থেকে নামি কি করে!
**********************
ছায়া বাজে পুতুল রুপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কি দোষ!
!কাঁশ বনের বাঘ!

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি

পুতুল ভাই, উপন্যাসখানা আপনাকে মেইল করে পাঠিয়ে দিয়েছি।

তুলিরেখা [অতিথি] এর ছবি

আরে ফ্রিবুক সাইটে গিয়ে যত খুশী খান না,গাছে গাছে আম জাম জলপাই ফলে আছে। হাসি

সাইফুল আকবর খান এর ছবি

পড়তে-হবে লিস্টি'র ব্যাপারটা ছাড়া বাকিটায় অ.প্র'র সঙ্গে সহমত, সহভাষী। হাসি
@ নজরুল ভাই,
পান্থ'র পাশাপাশি আমাদেরকেও একআধটু কাজটাজ দিয়েন কইলাম মাঝেমইধ্যে। চোখ টিপি

-----------------------------------
"আমার চতুর্পাশে সবকিছু যায় আসে-
আমি শুধু তুষারিত গতিহীন ধারা!"

___________
সবকিছু নিয়ে এখন সত্যিই বেশ ত্রিধা'য় আছি

নজরুল ইসলাম এর ছবি

কী বলেন? আমি তো আরো অপেক্ষায় বসে থাকি আপনারা কবে আমাদেরকে কাজ টাজ দিবেন... আমি একটু করে কেটে খেতে পারবো...
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

সাইফুল আকবর খান এর ছবি

এইটা ফাঁকিবাজি হয়ে গ্যালো বস! এখন কি না-ক'রে-না-কেটে খান না কি? চোখ টিপি
সত্যই, আরো স্ক্রিপ্ট ট্রিপ্ট লাগলে টাগলে আওয়াজ টাওয়াজ দিয়েন টিয়েন।
আমরা তো মনে করেন যে অনুকূল পরিবেশের অভাবে পের্তিভা দেখাইতে পারি না পাবলিক্রে! চোখ টিপি
(নিজের পি.আর. চালায়া দিলাম চাম-চিকনে দেঁতো হাসি)

-----------------------------------
"আমার চতুর্পাশে সবকিছু যায় আসে-
আমি শুধু তুষারিত গতিহীন ধারা!"

___________
সবকিছু নিয়ে এখন সত্যিই বেশ ত্রিধা'য় আছি

আনোয়ার সাদাত শিমুল এর ছবি

ছুটিতে ছিলাম, তাই দেরী হয়ে গেলো কৃতজ্ঞতাটুকু জানাতে। তাই শুরুতেই দুঃখিত, প্রিয় পান্থ।

'ছাদের কার্ণিশে কাক' সিরিজ হিসেবে শুরু এবং শেষ হয়েছিল অন্য ব্লগে। তখন ব্লগিং্যের নেশায় ডুবে ছিলাম বলতে গেলে সারাদিন। পরিকল্পনাহীন একটি প্লট এগিয়ে গেছে নিয়মিত। আমিও জানতাম না কী হবে শেষে। ভীষণ উপভোগ করছিলাম, সহব্লগারদের নিয়মিত মন্তব্য - উৎসাহ। আজ আপনার পোস্টের সূত্র ধরে অনেক পুরনো কমেন্টে নস্টালজিক হলাম। দীর্ঘশ্বাস ফেলছি এই ভেবে, মনে পড়ছে - জুবায়ের ভাই সে সময় একেবারে অচেনা এই আমার লেখা ২০ পর্বের সিরিজ আগ্রহ নিয়ে পড়েছিলেন, হীরন্ময় কিছু মন্তব্যও করেছিলেন...।

আপনার বলা কিছু প্রসংগেঃ
স্কুলে স্কুলে ছাত্রশিবির আর কিশোরকন্ঠের প্রচারণার শিকার হয় অনেকেই (আমি নিজেও হয়েছি)। তখন শিবিরি স্টাইলে ডায়েরি লেখার একটা চেষ্টা ছিলো। এটাই এসেছে গল্পে। তবে সরণের রূপান্তরের কথা বাদ পড়ে গেছে। আসা উচিত ছিলো। ধন্যবাদ।
বেলার সাহিত্য জ্ঞানে লেখক নিজের মাঝে ঢুকে যাওয়া...। হা হা। পুরো একমত! আবারও ধন্যবাদ।
যাযাদি-মইন মিলা প্রসংগে - মনে হয়েছে যাযাদি'র বিশাল পাঠক গোষ্ঠীর মাঝে বেলা বা তার বাসার কেউ আছে। সে জন্যই আনা। আপনার কাছে বেখাপ্পা লাগাটার প্রতি আমার বিনম্র সম্মান। এমন স্পষ্টভাষী পাঠক, পরম পাওয়া।

শেষে আবারও কৃতজ্ঞতা, পান্থ। এতদিন পরে হলেও খুঁজে পেয়েছেন। মন দিয়ে পড়েছেন এবং কেমন লেগেছে তা ব্লগে লিখেছেন...। আর বেশী কী-ই বা আশা করতে পারি!

এই লিংকের Read the book এ ক্লিক করে ই-বুকটি ডাউনলোড করা যাবে।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- এখনকার লেখিয়েদের মধ্যে শিমুলকে এগিয়ে রাখি, হয়তো অনেক প্রিয় মানুষ বলেই। তাঁর লেখার প্রতিটা লাইনেই এখনকার সময়ের গন্ধ পাওয়া যায়। গল্পের বর্ণনায় ঠিক মনে হয়, এই- এখনি- এই পথে হেঁটে গেছেন শিমুল।
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

সুমন চৌধুরী এর ছবি

সেই আড়াই বছর আগে প্রথমবার পড়েছিলাম পাকমন পেয়ার। সেই থেকে শিমুলের ব্লগে চোখ আটকে আছে।

ছাদের কার্ণিশে কাক শিমুলের খুব আকর্ষনীয় লেখাগুলির একটি। তবে প্রকৃত শক্তিশালী শিমুলকে পাওয়া যাবে নিলুফার যখন মারা গেলো, পরবাসে পাকমন জাতীয় লেখায়।



অজ্ঞাতবাস

আহমেদুর রশীদ এর ছবি

........ভাল হয়েছে।

---------------------------------------------------------

আমরা যারা শিখিনি চাষবাস,ফসলের গীত
গুলালিতে পাখি হত্যা

---------------------------------------------------------

ঘাস তুমি ঘাসের মতো থাকো মাটি ছুঁয়ে
যে দেখার সে নতজানু হয়ে ছুঁবে তোমার আঙুল
অবরুদ্ধ মাঠ থেকে তুমি লাফিয়ে নেমোনা প্লিজ পাথরের পথে
________________________________________
http://ahmedurrashid.

আহমেদুর রশীদ এর ছবি

........ভাল হয়েছে।

---------------------------------------------------------

আমরা যারা শিখিনি চাষবাস,ফসলের গীত
গুলালিতে পাখি হত্যা

---------------------------------------------------------

ঘাস তুমি ঘাসের মতো থাকো মাটি ছুঁয়ে
যে দেখার সে নতজানু হয়ে ছুঁবে তোমার আঙুল
অবরুদ্ধ মাঠ থেকে তুমি লাফিয়ে নেমোনা প্লিজ পাথরের পথে
________________________________________
http://ahmedurrashid.

রায়হান আবীর এর ছবি

আমি ব্লগীং শুরু করেছি অনেক দেরীতে। আগের অনেক কিছুই এখনও পড়া হয়নি। তবে সচলের বেশ কয়েকজনের সব লেখা আমার পড়া আছে। এদিক ওদিক সব দিক। শিমুল ভাই তার মধ্যে একজন। "ছাদের কার্নিশে কাক" আমি পড়া শুরু করেছিলাম ২০ তম পর্বটা। দারুন লাগার পর- প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ে ফেলেছি। আহ!! বেলা...

পান্থ দা' রিভিউতে জাঝা

=============================

ভূঁতের বাচ্চা এর ছবি

বইয়ের আলোচনাটা জব্বর হইসে !

--------------------------------------------------------

সুলতানা পারভীন শিমুল এর ছবি

পড়তে পারি না। ইয়ে, মানে...

...........................

সংশোধনহীন স্বপ্ন দেখার স্বপ্ন দেখি একদিন

...........................

একটি নিমেষ ধরতে চেয়ে আমার এমন কাঙালপনা

অমিত আহমেদ এর ছবি

ব্লগিং শুরু করেছি বেশ পরে। টুকটাক ব্লগে আনাগোনা শুরু করার সময় দেখি আনোয়ার সাদাত শিমুল নামক জনৈক ব্লগারকে নিয়ে ব্লগ পরিমন্ডলে বিশাল হাইপ। কারণ - ছাদের কার্ণিশে কাক। আমি ঘুরে ঘুরে একটি দু'টি পর্ব পড়লাম। পরে শিমুলের সাথে আবার পরিচিত হলাম "পাকমন পেয়ার" দিয়ে। ততদিনে "ছাদের কার্ণিশে কাক" অখন্ড পিডিএফ-এ পাওয়া যাচ্ছে। আমি ডাউনলোড করে একটানা পড়ে মুগ্ধ হয়ে গেলাম। সাবলিল সুন্দর বর্ণনা, মিষ্টি গল্প। পড়তে গেলে অনেক সময়েই সরণের সাথে নিজের মিলিয়ে নেয়া যায়। গল্পটি ধারাবাহিক ভাবে প্রকাশিত হয়েছিলো। এরপরে কোনো এডিট ছাড়াই অখন্ড পিডিএফ করা হয়েছে। তাই সামান্য কিছু প্রমাদ থাকতেই পারে। তবে শিমুল কোন জাতের লেখক তা এই বইটি পড়লেই ধারণা করা যায়। সমালোচনার জন্য পার্থকে ধন্যবাদ।


ওয়েবসাইট | ব্লগস্পট | ফেসবুক | ইমেইল

পুতুল এর ছবি

পান্থদা, আপনার সাথে পুরোপুরি একমত।
আমার কাছে বিশেষ করে পরিনতিটা খুব ভাল লেগেছে। মানে বাস্তব মনে হয়েছে।
অন্তর্জালের পেঁচে পড়ার আগেই প্রেমের বয়স পার হয়েছে (আসলে প্রেমের বয়স ছিল কখনো!), কাজেই কাছাকাছি আসার এই নতুন মাধ্যমটা বইটা না পড়লে আচ করতে পারতাম না।
তবে শিমুল ভায়ের সার্থকতা এখানেই; নিছক একটা চেটিংকে পরিপূর্ণ করে ছাড়তে পারেন, জীবনের দীর্ঘ পথের অশ্বথ ছায়ার তলে।
কিন্তু নতুন উপন্যাস কৈ শিমুলদা?
**********************
ছায়া বাজে পুতুল রুপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কি দোষ!
!কাঁশ বনের বাঘ!

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

আনোয়ার সাদাত শিমুল এর ছবি

এত এত প্রশংসার ভারে কমেন্ট করতে সাহস পাইনি।
একটু দেরী করে তাই সবাইকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে যাই।
অনেক ধন্যবাদ।

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA