১৯৭১ সালে কিছু হয়েছিলো নাকি?

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি
লিখেছেন মুহম্মদ জুবায়ের (তারিখ: শুক্র, ২৬/১০/২০০৭ - ১:০৯পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

অফিসে বসে কাজ করতে করতে মাঝে মাঝে সচলায়তনে উঁকি দেওয়া অভ্যাসে দাঁড়িয়ে গেছে। একটু আগে আজকাল তো কিছুই মনে থাকে না : ১৯৭১ সালে কিছু হয়েছিল নাকি? শিরোনামের ব্যানার দেখে মাথা পাগল-পাগল লাগে। উঠে বাইরে গিয়ে পরপর কয়েকটা সিগারেট খেতে হয়।

আজ সকালে ইন্টারনেটে পড়ছিলাম, কে একজন বলেছে (একে চিনি নাকি? মনে পড়লো না) বাংলাদেশে যুদ্ধপরাধী বা স্বাধীনতাবিরোধী বলে কিছু ছিলো না কোনোকালে।

ঠিক কথা। যুদ্ধ হলে তবে না যুদ্ধাপরাধী থাকার কথা ওঠে। এ দেশে যুদ্ধ কবে হয়েছিলো? অর্বাচীনদের জানিয়ে দাও, আমাদের স্বাধীনতা আকাশ থেকে অবতীর্ণ হয়েছিলো।

ধূমপান করতে করতে কী কী মনে পড়ে না তার একটা তালিকা করা গেলো:

১. ওই বছর এ দেশে মৃত্যুহার অতি উচ্চ হয়ে পড়েছিলো বলে কেউ কেউ দাবি করে। কারণ হিসেবে বলা হয় নির্বিচার হত্যা। বিষয় অমীমাংসিত।

২. ওই বছর সারা দেশ জুড়ে একটা গণভ্রমণের প্রবণতা দেখা গিয়েছিলো। বাড়িঘর ছেড়ে মানুষ বনেজঙ্গলে যায় উৎসব করতে। মিলিটারির কথা বলে বাচ্চাদের কান্না থামানোর এক চমকপ্রদ উপায় এই সময়ে উদ্ভাবিত হয়েছিলো, যা আজও মাঝে মাঝে কার্যকর।

৩. জানা যায়, এক কোটি লোক পাশের দেশে যায় পিকনিক করতে। এতো বিশাল আকারের দীর্ঘস্থায়ী পিকনিক পৃথিবীর ইতিহাসেই কম হয়েছে বলে জানা যায়।

৪. একদল বেয়াড়া অবাধ্য বালক ও যুবক যুদ্ধ যুদ্ধ খেলার অভিনয় করেছিলো তখন।

৫. আমার বাল্যকালের বন্ধু সাইফুল, বাদশা ও আলতাফ আলীকে কেন কে জানে আর কোনোদিন খুঁজে পেলাম না। ছটফটে দুলালের দুটি চোখই কী এক অলৌকিক উপায়ে নেই হয়ে গেলো।

৬. সুদর্শন মাসুদ ও আরেক বন্ধুর ছোটো ভাই স্কুলে-পড়া বালক টিটুর নামের আগে শহীদ লেখা ফ্যাশন হয়ে গেলো।

৭. বগুড়ার শহীদ চান্দু স্টেডিয়াম নামকরণের মানে কী? সে না হয় ছিলো এক প্রতিশ্রুতিবান ফুটবলার, না হয় ৭১-এর মাঝামাঝি থেকে আর কখনো তাকে কোথাও দেখা যায়নি। তার নামে স্টেডিয়াম?

আরো অনেক অনেক কথা মনে পড়েনি। সময় পেলে পরে লেখা যাবে।

সংযোজন:

অলৌকিক হাসানের প্রস্তাব অনুযায়ী অন্যদের সংযোজন-মন্তব্যগুলি তাঁদের নামে সংযুক্ত করে দেওয়া হলো।

হাসিব
৮. ঐ বছর পুরো দেশের মেয়েরা হরতাল করে সন্তান জন্মদান থেকে বিরত থাকে । জন্মহার শুন্য ও একটু বেশী মৃত্যুহার ছিলো বলে জনসংখ্যা হঠাৎ করে একটু কমে যায় ।

৯. মুজিব সরকারের কর্মচারিরা আদমশুমারিতে ফাকি মারায় ৩০ লক্ষ লোক গোনায় আসেনি ।

অলৌকিক হাসান
১০. ১৯৭১ সালের প্রায় পুরোটা সময় শবেবরাতের রাতের মতো হালকা পটকাবাজি খেলা হয়েছিল। পরিমাণে নাকি একটু বেশি হওয়াতে অনেকে ওই গন্ডগোলের বছর থেকে আজ পর্যন্ত পঙ্গু হয়ে আছে।

আরিফ জেবতিক
১১.কিছু ভারতীয় হিন্দু এই দেশে অনুপ্রবেশ করতে গিয়ে উত্তেজিত জনতার হাতে মারা গেছিল ।তবে তারা এ দেশের ইসলামী শাসন দেখে প্রায় মুসলমান হয়ে গিয়েছিল ।কারন পুরুষ মৃতদেহের বেশিরভাগেরই খৎনা করা ছিল বলে জানা গেছে ।

দুর্বাশা তাপস
১২. রাজার আকার মহামানব তৈরীর জন্যই পূর্ব-পরিকল্পিত নাটক মঞ্চায়ন করা হয়। এই মহান উদ্যোগে স্বেচ্ছায় ৩০ লাখ লোক জীবন উৎসর্গ করে।

অয়ন
১৩. ডিসেম্বরের মাঝামাঝি হঠাত করে দেশের অসংখ্য ডাক্তার, সাহিত্যিক, শিক্ষক, সাংবাদিক রায়ের বাজারে গিয়ে আত্মহ্ত্যা করে। তাদের আত্মহত্যার কারণ জানা যায়নি।

ধূসর গোধূলি
১৪. মাওলানা ভাষানী, শেখ মুজিব এরা আতঙ্কবাদী, নাইলে নিজের দেশের ভিতরে গন্ডগোল লাগায়?
আর ঐযে রুমী, ছাদে উইঠা পাশের বাসার ছেমরির লগে টাংকি মারতো। পরে বড় হুজুরেরা ডাইকা শাসাইয়া দিলো, সেই লজ্জায় আর সে ঘরেই ফিরলো না!
আর হুনো, স্বাধীন স্বাধীন করবানা। ভাইয়ে ভাইয়ে কাইজ্যা হয় তাই বইলা এতো সুন্দর বাড়ি থুইয়া আরেকটা বাড়ি করতে হইবো? নাহয় মায়ের পরনের কাপড় ধইরা টান দিছেই, তো কি হইছে, এ্যাঁ?
কিজানি, তোমরা জানি কি কও। ৭১!! কি হইছিলো!!! ইদানিং আবার কিস্সুই মনে থাকে না!!!!

তারেক
১৫. সেই বছর কিছু দূর্বল ঈমাণের মুসলমান পার্শ্ববর্তী হিন্দু দেশে হিজরতে গিয়েছিল বলে তাদের আত্মীয় স্বজনদের সামান্য টাইট দেয়া হয়েছিল।

বিপ্লব রহমান
১৬. ওই বছর দেশের প্রধান নদ-নদীতে 'অজ্ঞাত কারণে' মারাত্নক দূষণ দেখা দিয়েছিলো বলে পরিবেশ বিজ্ঞানীরা বলছেন। তারা এ-ও বলছেন, একই সঙ্গে আকস্মিকভাবে কুকুর, কাক ও শকুনের স্বাস্থ্যের ব্যাপক উন্নতি ঘটে। ...

সুমন চৌধুরী
১৭. দেশে কোন যুদ্ধাপরাধী নাই। (বিদেশে আছে)

আড্ডাবাজ
১৮. হঠাত করে মহামারীতে দেশে তিরিশ লাখ লোক মারা গেল..।

নিঘাত তিথি
১৯. শেখ মুজিব নাকি তিন লাখকে ভুলে তিন মিলিয়ন বলেছিলো!

অমিত
২০. ১৯৭১ সালে পাকিস্তান বাহিনীর সহায়তায় দেশকে হিন্দুস্তান করার চক্রান্ত অসম সাহসিকতার সাথে মোকাবেলা করা হয়। এরপর শাসন কাজের সুবিধার জন্য পাকিস্তানি ভাইরা এই প্রদেশের দায়ভার বাংলাদেশীদের হাতে তুলে দেন। প্রশাসনিক কাজে জটিলতা দেখা দিলে এর পূর্ব পাকিস্তান নাম বদল করা হয়।

রাহা
২১. লিপইয়ারের মতন লিপশতকের কারণে ১৯৭১ সালকে কাল্পনিক ধরা হয়

দ্রোহী
২২. ১৯৭১? এইটা আবার কি?

আনোয়ার সাদাত শিমুল
২৩. বড়ভাই ওরকম চড় থাপ্পড় মারে, মনে রাখতে নেই।


মন্তব্য

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

ওদের খবর দিলে রগ কেটে দিয়ে যাবে, ব্যথার উপশম হোক বা না হোক।

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

হাসিব এর ছবি

৮. ঐ বছর পুরো দেশের মেয়েরা হরতাল করে সন্তান জন্মদান থেকে বিরত থাকে । জন্মহার শুন্য ও একটু বেশী মৃত্যুহার ছিলো বলে জনসংখ্যা হঠাৎ করে একটু কমে যায় ।

হাসিব এর ছবি

৯. মুজিব সরকারের কর্মচারিরা আদমশুমারিতে ফাকি মারায় ৩০ লক্ষ লোক গোনায় আসেনি ।

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

হাসিব, আপনার সংযুক্তি দুটির জবাব নেই। আরো আসুক সবার কাছ থেকে এরকম।

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

অমিত এর ছবি

"আসুন আমরা জাতিকে আর বিভক্ত না করি। এখন আমাদের সামনে এগিয়ে যেতে হবে।কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে উন্নয়নের জোয়ার সামলাতে হবে।"
কি বলেন জুবায়ের ভাই, ঠিক না ???

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

এর উপরে কোনো কথা হয়?

কিন্তু এইসব কথা বলা লোকগুলির জিভ টেনে ছিঁড়তে ইচ্ছে করে কেন কে জানে!

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

চমৎকার বলেছেন।

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

আরিফ জেবতিক এর ছবি

১১.কিছু ভারতীয় হিন্দু এই দেশে অনুপ্রবেশ করতে গিয়ে উত্তেজিত জনতার হাতে মারা গেছিল ।তবে তারা এ দেশের ইসলামী শাসন দেখে প্রায় মুসলমান হয়ে গিয়েছিল ।কারন পুরুষ মৃতদেহের বেশিরভাগেরই খৎনা করা ছিল বলে জানা গেছে ।

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

দারুন!

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

সুমন চৌধুরী এর ছবি

দেশে কোন যুদ্ধাপরাধী নাই। (বিদেশে আছে)



ঋণম্ কৃত্বাহ ঘৃতম্ পীবেৎ যাবৎ জীবেৎ সুখম্ জীবেৎ

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

যুদ্ধাপরাধী বলেই তো কিছু নেই।

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

হিমু এর ছবি
মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

আচ্ছা থাক।

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

তাই করবো। উত্তম প্রস্তাব।

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

আড্ডাবাজ এর ছবি

হঠাত করে মহামারীতে দেশে তিরিশ লাখ লোক মারা গেল..।

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

গণনায় তো ভুল আছে বলে!

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

নিঘাত তিথি এর ছবি

ভুলই তো। শেখ মুজিব নাকি তিন লাখকে ভুলে তিন মিলিয়ন বলেছিলো!
হায় সেলুকাস!
----------------------------------------------------
আমার এই পথ চাওয়াতেই আনন্দ

----------------------------------------------------
আমার এই পথ চাওয়াতেই আনন্দ

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

তিন মিলিয়ন না হয়ে তিন লক্ষ হলে কার কী উপকার হয় জানি না। সংখ্যার হেরফেরে অপরাধ লঘু হয়?

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

অমিত এর ছবি

১৯৭১ সালে পাকিস্তান বাহিনীর সহায়তায় দেশকে হিন্দুস্তান করার চক্রান্ত অসম সাহসিকতার সাথে মোকাবেলা করা হয়। এরপর শাসন কাজের সুবিধার জন্য পাকিস্তানি ভাইরা এই প্রদেশের দায়ভার বাংলাদেশীদের হাতে তুলে দেন। প্রশাসনিক কাজে জটিলতা দেখা দিলে এর পূর্ব পাকিস্তান নাম বদল করা হয়।

দুর্বাশা তাপস এর ছবি

১২. রাজার আকার মহামানব তৈরীর জন্যই পূর্ব-পরিকল্পিত নাটক মঞ্চায়ন করা হয়। এই মহান উদ্যোগে স্বেচ্ছায় ৩০ লাখ লোক জীবন উৎসর্গ করে।

==============================
আমিও যদি মরে যেতে পারতাম
তাহলে আমাকে প্রতি মুহূর্তে মরে যেতে হত না।

অয়ন এর ছবি

১৩. ডিসেম্বরের মাঝামাঝি হঠাত করে দেশের অসংখ্য ডাক্তার, সাহিত্যিক, শিক্ষক, সাংবাদিক রায়ের বাজারে গিয়ে আত্মহ্ত্যা করে। তাদের আত্মহত্যার কারণ জানা যায়নি।

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

উহারা যে বিশ্বাসঘাতক!

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

রাহা এর ছবি

লিপইয়ারের মতন লিপশতকের কারণে ১৯৭১ সালকে কাল্পনিক ধরা হয়

..হৃদি ভেসে যায় অলকানন্দার জলে...

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

দুর্দান্ত বলেছেন কিন্তু।

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

দ্রোহী এর ছবি

১৯৭১? এইটা আবার কি?

এই হারামজাদা, বাংলাদেশ কি রে? বাংলাদেশ কি? পেয়ারে পাকিস্তান বল।


কি মাঝি? ডরাইলা?

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

স্যাটায়ার করতে গিয়ে দেখি সবাই দেখি ইচ্ছা মত গালি দিয়ে যাচ্ছে!!

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

আড্ডাবাজ এর ছবি

গালি দিয়ে শুরু, জুতার মালা আসছে..

আনোয়ার সাদাত শিমুল এর ছবি

বড়ভাই ওরকম চড় থাপ্পড় মারে, মনে রাখতে নেই।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- ১৪. মাওলানা ভাষানী, শেখ মুজিব এরা আতঙ্কবাদী, নাইলে নিজের দেশের ভিতরে গন্ডগোল লাগায়?
আর ঐযে রুমী, ছাদে উইঠা পাশের বাসার ছেমরির লগে টাংকি মারতো। পরে বড় হুজুরেরা ডাইকা শাসাইয়া দিলো, সেই লজ্জায় আর সে ঘরেই ফিরলো না!
আর হুনো, স্বাধীন স্বাধীন করবানা। ভাইয়ে ভাইয়ে কাইজ্যা হয় তাই বইলা এতো সুন্দর বাড়ি থুইয়া আরেকটা বাড়ি করতে হইবো? নাহয় মায়ের পরনের কাপড় ধইরা টান দিছেই, তো কি হইছে, এ্যাঁ?
কিজানি, তোমরা জানি কি কও। ৭১!! কি হইছিলো!!! ইদানিং আবার কিস্সুই মনে থাকে না!!!!
_________________________________
<সযতনে বেখেয়াল>

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

...স্বাধীন স্বাধীন করবানা।

জ্বি হুজুর, মনে থাকবো। আর কমু না। এই কানে ধরলাম! কার কান তা কিন্তু কই নাই। চোখ টিপি

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

তারেক এর ছবি

১৫. সেই বছর কিছু দূর্বল ঈমাণের মুসলমান পার্শ্ববর্তী হিন্দু দেশে হিজরতে গিয়েছিল বলে তাদের আত্মীয় স্বজনদের সামান্য টাইট দেয়া হয়েছিল।

_________________________________
ভরসা থাকুক টেলিগ্রাফের তারে বসা ফিঙের ল্যাজে

দিগন্ত এর ছবি

ইউরোপের অধিকাংশ দেশে হলোকস্ট অস্বীকার করাটা শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে গণ্য করা হয়। আর বাংলাদেশে নিজের দেশের বিরুদ্ধে জেনোসাইড অস্বীকার করার কোনো শাস্তি নেই! এরকম আইন প্রণয়নের কথা হয়েছে কি আগে?


পথের দেবতা প্রসন্ন হাসিয়া বলেন, মূর্খ বালক, পথ তো আমার শেষ হয়নি তোমাদের গ্রামের বাঁশের বনে । পথ আমার চলে গেছে সামনে, সামনে, শুধুই সামনে...।

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

যে দেশে মুক্তিযুদ্ধের কথা বলাও প্রায় অপরাধের সমতুল্য, সেখানে এই ধরনের আইন শুধুমাত্র আপনার-আমার স্বপ্নের ভেতরে বাস করার সাহস পায়।

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

সৌরভ এর ছবি

পূর্ব পাকিস্তান তাইলে "বাংলাদেশ" ক্যামনে হৈলো?


আবার লিখবো হয়তো কোন দিন

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

অরূপ, আমার ঘোর সন্দেহ করার কারণ আছে যে এই ব্যানারটি আপনার হাত দিয়ে বেরিয়েছে। সুতরাং এই লেখাটি লিখিত হওয়ার জন্যে এবং আনুষঙ্গিক সব মন্তব্যের দায়ে আপনাকে অভিযুক্ত করা হলো। চোখ টিপি

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

বিপ্লব রহমান এর ছবি

১৬. ওই বছর দেশের প্রধান নদ-নদীতে 'অজ্ঞাত কারণে' মারাত্নক দূষণ দেখা দিয়েছিলো বলে পরিবেশ বিজ্ঞানীরা বলছেন। তারা এ-ও বলছেন, একই সঙ্গে আকস্মিকভাবে কুকুর, কাক ও শকুনের স্বাস্থ্যের ব্যাপক উন্নতি ঘটে। ...


আমাদের চিন্তাই আমাদের আগামী: গৌতম বুদ্ধ


একটা ঘাড় ভাঙা ঘোড়া, উঠে দাঁড়ালো
একটা পাখ ভাঙা পাখি, উড়াল দিলো...

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

আঃ বিপ্লব, এতো সত্যি কথা বলতে নেই!

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

মুহম্মদ জুবায়ের এর ছবি

অলৌকিক হাসানের প্রস্তাব অনুযায়ী অন্যদের সংযোজন-মন্তব্যগুলি তাঁদের নামে যুক্ত করে দেওয়া হলো।

-----------------------------------------------
ছি ছি এত্তা জঞ্জাল!

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA