নামের বিড়ম্বনা.....

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: বিষ্যুদ, ২৮/০১/২০১০ - ১২:৩৫অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

এই ঘটনা হামেশা হয়। টেলিফোনে লোকজন আমাকে জিজ্ঞেস করে 'নাহিদ খান সাহেব আছেন'। আমি বলি 'নাহিদ বলছি'। মেয়ের গলা শুনে সাথেসাথে ফোনের অপরপ্রান্ত বলে 'হ্যালো নাদিয়া, কেমন আছেন'! 'নাদিয়া' নিজের দ্বিতীয় নাম হিসাবে মেনে নিয়েছি, নাহিদ খান কে আমি চিনিনা!
আমার বন্ধু 'শাফকাত আনোয়ার' গ্রামীণ ফোনে অনেক অঘটন এর জন্ম দিয়েছে তার নাম দিয়ে। অনেকে নামের সাথে মানানসই রাশভারী মধ্যবয়সী কোনো ভদ্রলোক দেখতে গিয়ে এক সুন্দরী তরুণীর মুখোমুখি হয়েছেন। একবার মধ্যরাতে আমার মা ফোন করে জানতে চাইলো কি করছি। আমি বললাম 'শাফকাতের রুমে আড্ডা দিচ্ছি'। এরপর মাকে ঠান্ডা করতে আমার খবর হয়ে গেছে। শাফকাতের ডাকনাম নিক্কণ আর সে রোকেয়া হলেই থাকে এই শুনে মা ফোন ছেড়েছিলো!
'রানা' আর আমি একবার ঘুরতে যাবার প্ল্যান করলাম। রানার বাসায় আপত্তি করলো একটা ছেলের সাথে এতোদূরে যাওয়া নিয়ে। আবার আমার বাসায় বললো 'রানা' ছেলেটা কেমন কে জানে, ছেলেদের বিশ্বাস করা ঠিকনা। । রানা'র নাম নিয়ে সচলেও কনফিউশন হয়েছে অনেক...
'শাহীন ইকবাল' নামে একজনকে ঢাবিতে ভর্তির পর মহসিন হলে এটাচ করে দিয়েছিলো। সে ডীন অফিসে গিয়ে মিনমিন করে ডীন স্যারকে বললো স্যার আমি মহসিন হলে থাকতে পারবো না। স্যার মহাব্যস্ত, ফাইল থেকে মুখ না তুলেই হুঙ্কার ছাড়লেন- 'ভর্তি হতে না হতেই পাখা গজিয়ে গেছে না। যে হলে এটাচ করে দিয়েছে সেখানেই থাকতে হবে'। শাহীন তখন নিরুপায় হয়ে গলা উঁচু করলো -আমি কীভাবে মহসিন হলে থাকবো...জোরে কথা বলায় এখন গলার স্বর শুনে স্যার তাকালেন। তাকিয়ে আবার হুঙ্কার দিলেন 'তুমি কেনো মহসিন হলে থাকবে,কী নাম তোমার'।
নাম শুনে আবার হুঙ্কার- কীসব নাম রাখে, লোকজনকে কনফিউজড করে দেয়। শাহীন ইকবাল কে মেয়েদের হলে না দিয়ে ছেলেদের হলে দেবে এটাই তো স্বাভাবিক।
নাম বিষয়ক একটু অন্যরকম আরেকটা গল্প বলি। হলের একজন আপুর নাম ছিলো এশিয়া। মানুষের নাম হিসাবে এশিয়া একটু অভিনব তো বটেই। উনার সাথে পরিচয় হবার পর এই অভিনব নামের পিছনের মজার গল্প শুনেছিলাম। উনার নাম ছিলো আছিয়া। ইংলিশে লিখলে বানান হয় 'Asia'। স্কুলে পড়ার সময় আছিয়া নামটা আদ্যিকালের মনে হওয়াতে উনি নিজেই নামের উচ্চারণ বদলে দিয়েছিলেন, হয়ে গিয়েছিলেন এশিয়া!!

নাহিদ খান


মন্তব্য

বাউলিয়ানা এর ছবি

হাহাহাহা...
ব্যাপক মজা পাইলাম।

রাগিব এর ছবি

মজার ব্যাপার।

আপনার এই শাফকাত আনোয়ার, আর আমার বন্ধু শাফকাত আলম, দুজনেই চট্টগ্রাম কলেজে আমাদের সাথে একই সেকশনে পড়তো। বুঝুন অবস্থাটা।

ফেরদৌস,শাহীন, শামীম, ববি, রনি, এই ধরনের নামগুলো আসলে ছেলে মেয়ে সবারই হয়, তাই সমস্যাটা বাধে।

----------------
গণক মিস্তিরি
মায়ানগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | কুহুকুহু

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

শাফক্বাত এর ছবি

তোমার বন্ধু শাফকাত আলম তো আমার মিতা ছিল। রোকেয়া হলে তার আসা-যাওয়াও ছিল সে আহসানুল্লায় পড়ার সময়...এখন কই সে? কেমন আছে?

রাগিব এর ছবি

হা হা, শাফকাত (আলম) এখন কানাডাতে। পড়াশোনা মাত্র শেষ করেছে উইন্ডসরে। আর বিয়ে করেছে গত বছর। ঘটনা চক্রে আবার আমাদের আগের জায়গা (আরবানা-শ্যাম্পেইন) এর বাংলাদেশী প্রতিবেশীর ছোট বোনকে।

----------------
গণক মিস্তিরি
মায়ানগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | কুহুকুহু

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

গৌতম এর ছবি

হা হা হা... আমার একজন পরিচিতের নাম রিফাত। তাঁরও এরকম বহু অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে হয়েছে!

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

শিক্ষাবিষয়ক সাইট ::: ফেসবুক

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

তিথীডোর এর ছবি

আমারো পোশাকি নামের প্রথম অংশ 'রিফাত' আর এ নিয়ে ঝুটঝামেলাও পোহাতে হয় বিস্তর!!

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া দুই খালাও (আওজিদ কাওসার, রায়হান কাওসার) নামের কারনে বিয়াপক গন্ডগোলে পড়তেন...

--------------------------------------------------
"আমি তো থাকবোই, শুধু মাঝে মাঝে পাতা থাকবে সাদা/
এই ইচ্ছেমৃত্যু আমি জেনেছি তিথির মতো..."
*সমরেন্দ্র সেনগুপ্ত

________________________________________
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

প্রবাসিনী এর ছবি

দেঁতো হাসি :D দেঁতো হাসি
________________________________________________

হইয়া আমি দেশান্তরী, দেশ-বিদেশে ভিড়াই তরী রে

________________________________________________

হইয়া আমি দেশান্তরী, দেশ-বিদেশে ভিড়াই তরী রে

নৈষাদ এর ছবি

মজার ব্যাপার।
ভারতে একবার দুই সপ্তাহের জন্য একটা অফিসে গেছি। একদিন বলা হল আজ সারাদিন তোমার সাথে থাকবে ‘নারিন্দর কোহল’। মন খারাপ নিয়ে জানতে চাইলাম কোন অঞ্চলের ‘লোক’, উত্তর পেলাম, ‘পাঞ্জাবের, শিখ’। সকাল এসে উপস্থিত ‘নারিন্দর কোহল’, ঝলমলে এক শিখ তরুণী...। দেঁতো হাসি

মৃত্তিকা এর ছবি

"তাকিয়ে আবার হুঙ্কার দিলেন 'তুমি কেনো মহসিন হলে থাকবে,কী নাম তোমার'। "
হো হো হো মজা পেলাম!

দ্রোহী এর ছবি

আমার একটা শাহীন মামা, একটা শাহীন খালা, এবং একটা শাহীন আপা আছে। দেঁতো হাসি

সবজান্তা এর ছবি

আমার পরিচিত একটা 'রানা ভাইয়া' আছে দেঁতো হাসি


অলমিতি বিস্তারেণ

রাহিন হায়দার এর ছবি

মজা পেলাম। আমার ছোট মামার নাম শাহীন, সেজ জনের ইতু!

একটা শোনা ঘটনা, সত্যতা জানিনা। মন্টু ও লতা, দম্পতি!
________________________________
তবু ধুলোর সাথে মিশে যাওয়া মানা

________________________________
মা তোর মুখের বাণী আমার কানে লাগে সুধার মতো...

অনার্য সঙ্গীত এর ছবি

হেহে দেঁতো হাসি
____________________________
নিজের ভেতর কোথায় সে তীব্র মানুষ !

______________________
নিজের ভেতর কোথায় সে তীব্র মানুষ!
অক্ষর যাপন

অতিথি লেখক এর ছবি

শিমুল নামটাও অনেক বিভ্রান্তিজনক। রুমি নামটাও। আমার কলেজ জীবনের দুই বন্ধু তাদের নাম নিয়ে যে কতরকম বিপদে পড়েছে তার ইয়ত্তা নেই। একবারের ঘটনা বলি,
কলেজের প্রথম ক্লাসে মনসুর স্যার নাম ডাকছিলেন, - রোল ৩২: রুমি চৌধুরী।
ভারী গলায় আওয়াজ এলো- প্রেজেন্ট স্যার।
- এই দুষ্ট ছেলে। প্রথম ক্লাসেই প্রক্সি দিচ্ছ। সাহসতো কম নয়। কোন স্কুল থেকে এসেছ... (ইত্যাদি ইত্যাদি)
ঝাড়া দুই মিনিট ধরে ধমকা ধমকির পর রুমি বলার সুযোগ পেলো- স্যার এটা আমারই নাম।

---- মনজুর এলাহী ----

ধুসর গোধূলি এর ছবি
কীর্তিনাশা এর ছবি

মজারু ! হাসি

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

-------------------------------
আকালের স্রোতে ভেসে চলি নিশাচর।

অতিথি লেখক এর ছবি

আমার দাদীর নাম আছিয়া| আমি আর আমার ভাই যখন লিখতে শিখি তখন দাদিকে আমরা ইংরেজিতে তাঁর নাম স্বাক্ষর করতে শিখিয়েছিলাম| আমাদেরকে চিঠি লিখলে সবসময় স্বাক্ষর করতেন asia.

আমারও দুইটা বন্ধু আছে যাদের নাম রিফাত| একটা ছেলে, অন্যটা মেয়ে|

-আতিউর
atiurrs from the gmail.com

রেনেট এর ছবি

হাহা...দারুণ মজার লেখা নাহিদ ভাই হো হো হো
---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

নিবিড় এর ছবি

আমার দেখা একটা উলটা ঘটনা আছে, আমাদের ক্লাসে এক ছেলে কে প্রথমে রোকেয়া হলে এটাস্ট করে দিয়েছিল। এই ঘটনার জের বেচারা এই চার বছর ধরে টানছে দেঁতো হাসি


মানুষ তার স্বপ্নের সমান বড় ।

অস্পৃশ্যা এর ছবি

একটা আকারের অভাবে নিজের নামটা নিয়ে প্রায়শই বিড়ম্বনায় পড়ি... একটা সময় খুব রাগ করতাম কেউ নাম নিয়ে উলটো বুঝলে! আর এখন ভাবি, আহা মামা নামটা রাখার সময় কেনো একটা আকার জুড়ে দিলেন না! মন খারাপ সেদিন ফেসবুকে এক বন্ধুর বন্ধুর নাম দেখে শান্তিতে বুকটা ভরে গিয়েছিল। একদম আমার নামে নাম, শুধু পার্থক্য এটাই যে, আমার নামের প্রথম অংশে আকার নেই, তাঁরটায় আছে, আর পরের অংশে আমারটায় আকার আছে, উনারটায় মিসিং... হা হা হা...(সেই নাম দেখে মনের জ্বালা অনেকখানিই জুড়িয়েছিল দেঁতো হাসি)।

সাবিহ ওমর এর ছবি

আমাদের ক্লাসে একজন 'নওরীন হাসান' আছে দেঁতো হাসি

অতিথি লেখক এর ছবি

হাঃ............হাঃ...............হাঃ.....................
গড়াগড়ি যাচ্ছি......

-স্নিগ্ধা করবী

নাশতারান এর ছবি

হো হো হো

আমার পরিচিত এক "তারিন ভাই" আছেন। কেউ যদি বলে, "তারিন কে চেনো তো?" তার পরের প্রশ্নটি হয়ঃ "কোন তারিন? ছেলে তারিন না মেয়ে তারিন?"

_____________________

আমরা মানুষ, তোমরা মানুষ
তফাত শুধু শিরদাঁড়ায়।

নাতাশা এর ছবি

মজার তো।

অতিথি লেখক এর ছবি

অনেক মজার!

শেখ আমিনুল ইসলাম

শশাঙ্ক বরণ রায় এর ছবি

পড়ে মজা পেলাম। লেখায় উল্লেখিত আছিয়া>এশিয়া সম্ভবত আমার কলেজের সিনিয়র, আমার বড় বোনের সাথে পড়তেন। দিদির কাছে তাঁর নাম বদলের কথা শুনেছিলাম।

সাফি [অতিথি] এর ছবি

চমতকার লেখা।

"অনেকে নামের সাথে মানানসই রাশভারী মধ্যবয়সী কোনো ভদ্রলোক দেখতে গিয়ে এক সুন্দরী তরুণীর মুখোমুখি হয়েছেন।" -- এর চেয়ে মধুর অভিজ্ঞতা আর কি হতে পারে

ধুসর গোধূলি এর ছবি
রাফি এর ছবি

হা হা।

আমার নাম নাবিউল আফরোজ।
বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাশ করার পর যখন ডিপার্টমেন্ট থেকে Testimonial নিয়ে রুমে এসে দেখি......।
Testimonial এর শেষ লাইন...
I wish her every success in life.

---------------------------------------
আমি সব দেবতারে ছেড়ে
আমার প্রাণের কাছে চলে আসি,
বলি আমি এই হৃদয়েরে;
সে কেন জলের মতন ঘুরে ঘুরে একা কথা কয়!

---------------------------------------
আমি সব দেবতারে ছেড়ে
আমার প্রাণের কাছে চলে আসি,
বলি আমি এই হৃদয়েরে;
সে কেন জলের মতন ঘুরে ঘুরে একা কথা কয়!

রেনেট এর ছবি

আমিও একবার এক চিঠি পেয়েছিলাম Ms. Ranet সম্বোধনে!
---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

---------------------------------------------------------------------------
একা একা লাগে

সচল জাহিদ এর ছবি

খুব মজা পেলাম।

----------------------------------------------------------------------------
এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।


এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
বিশ্ব পানি দিবসব্যক্তিগত ব্লগ। কৃতজ্ঞতা স্বীকারঃ অভ্র।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- এই সচলায়তনেই, আমার একটা লেখা উৎসর্গ করেছিলাম "শিমুল"কে। সেটা দেখে দুই শিমুলই আমাকে ক্যাক করে ধরে বসলেন "কাকে" উৎসর্গ করেছি সেটা খোলাসা করতে। আমি মনে মনে বললাম ল্যাও জ্বালা, উৎসর্গ করেও শান্তি নাই। ডিসক্লেইমার দিয়ে পরে উৎসর্গ করতে হয়! মন খারাপ
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

সুলতানা পারভীন শিমুল এর ছবি

লইজ্জা লাগে

...........................

কেউ আমাকে সরল পেয়ে বানিয়ে গেছে জটিল মানুষ

...........................

একটি নিমেষ ধরতে চেয়ে আমার এমন কাঙালপনা

তাসনীম এর ছবি

মজা লাগলো। আমার নামের (তাসনীম হোসেন) জন্য আমি ফেসবুকে অনেক ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পেতাম, পরে প্রোফাইলে আমার নিজের একটা বিকট দর্শন ছবি লাগাই। তাসনীম নামে আমি নিজেও অনেক মেয়েকে চিনি, আজ পর্যন্ত একটা ছেলে পেলাম না। সম্ভবত আমিই একমাত্র পুরুষ এই নামে।

অনেকটা শাফকাত আনোয়ারের উল্টো ঘটনা।

--------------------------------------
যে কথা এ জীবনে রহিয়া গেল মনে
সে কথা আজি যেন বলা যায়।

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

মেহবুবা জুবায়ের এর ছবি

শাহীন নাম নিয়ে জন্ম থেকে জ্বলছি। ডালাসে শাহীন আছে পাচঁ জন। মেনফ্রেম শাহীন, কমপিউটার শাহীন, মিউজিক শাহীন, বকবক শাহীন আর মহিলা শাহীন। (নামকরনটা জুবায়েরের) শাহীন নামটা যদি শুধু মানুষের মধে্য সীমাবদ্ধ থাকতো তাহলে কোন কথা ছিলো না। নামকরণে শাহীন নামটাকে কেন এত অগ্র অধিকার দেওয়া হয় তা কে বলবে? শাহীন নাম হয় সবকিছুর। শাহীন হোটেল, শাহীন কার্পেট, শাহীন জুতা এমন কী 'শাহীন বদনা' পর্যন্ত।

--------------------------------------------------------------------------------

রায়হান আবীর এর ছবি

মজা প্লাম। নিজের একটা অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ইচ্ছা কর্তেছে, কিন্তু সেইটা অনেক গে'ইস তাই অফ গেলাম দেঁতো হাসি

অনন্ত [অতিথি] এর ছবি

ব্যাপক মজা পেলাম।

===অনন্ত===

স্বপ্নাহত এর ছবি

হে হে হে। অতীব মজা পাইলাম। সচলেই খুঁজে পেতে বেশ কয়েকটা পাওয়া যাবে। তবে নাম কমুনা। তাইলে শিমুল আফা আর রানা ভাইয়া মাইর দিতে পারে

---------------------------------

তবে যে ভারি ল্যাজ উঁচিয়ে পুটুস্‌ পাটুস্‌ চাও?!

---------------------------------

বাঁইচ্যা আছি

সুলতানা পারভীন শিমুল এর ছবি

শিমুল আর রানা গেলো কই??? চোখ টিপি

...........................

কেউ আমাকে সরল পেয়ে বানিয়ে গেছে জটিল মানুষ

...........................

একটি নিমেষ ধরতে চেয়ে আমার এমন কাঙালপনা

শাফক্বাত এর ছবি

কি রে!!
আমি তো ফেইসবুকে এক ছোটভাইয়ের দেয়া লিংক ধরে তোর লেখা পড়লাম!! ভালই তো লিখিস!
নাম নিয়ে তোর চাইতে যন্ত্রণা মনে হয় আমাকেই পোহাতে হয়েছে বেশি। দুনিয়াতে আর কোনও মেয়ে শাফক্বাত পেলাম না নিজেকে ছাড়া।
আমাদের আইবিএ থেকে সেই আদ্যিকালে এমবিএ পাশ করা একজন শাফক্বাত আনোয়ার আছেন; নামের বানান ইংরেজিতে হুবহু একই। উনি প্রবাসী হওয়ায় বেঁচে গিয়েছি নাহয় কে জানে ওনার সাথেও টক্কর লেগে যেতো হয়তো...

মুশফিকা মুমু এর ছবি

অনেক দিন পর সচলে এসে আপনার লেখা পড়ে খুব মজা পেলাম দারুন হাসি

------------------------------
পুষ্পবনে পুষ্প নাহি আছে অন্তরে ‍‍

শুভাশীষ দাশ এর ছবি

বিয়াফক মজা পাইলাম।

আমার বড়ভাইয়ের নাম রানা। এ কারণে রানা মেহেরকে আমি রানা'দা ভাবতাম। পরে দেখি উনি রানা'দি। আমার ডাক নাম ববি। আমার মামা আমার নামে আবার কুকুর পুষতেন। চোখ টিপি

অতিথি লেখক এর ছবি

হা হা, আমার বাসায় আমার সব বোনের নাম সামিনা দিয়ে শুরু ... বাসায় কেউ ফোন করলে পুরা নামটা জিজ্ঞেস না করলে বোঝা যেত না কাকে চাচ্ছে। ...
-- শফকত

তারানা_শব্দ এর ছবি

হাহাহাহা!!!! মজার লেখা!!! --নাহিদ আপু ( কোলন ডি)

"মান্ধাতারই আমল থেকে চলে আসছে এমনি রকম-
তোমারি কি এমন ভাগ্য বাঁচিয়ে যাবে সকল জখম!
মনেরে আজ কহ যে,
ভালো মন্দ যাহাই আসুক-
সত্যেরে লও সহজে।"

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।