গুগুল বায (Google buzz)

সাফি এর ছবি
লিখেছেন সাফি (তারিখ: বুধ, ১০/০২/২০১০ - ৩:১৫অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:


ইন্টারনেট দুনিয়ার মোটামুটি সবখানেই দাপটের সাথে বিচরণ করলেও, একটা জায়গায় একটু পিছিয়ে যাচ্ছিল গুগুল সাহেবরা। আর তা হল সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং। এটা বাদ দিলে আর বাকি সব খানেই হয় ওনারা সর্বেসর্বা বলা চলে। সার্চ ইঞ্জিন দিয়ে যাত্রা শুরু করে প্রথমে ইয়াহু, আলতাভিস্তার ভাত মেরেছে তারা, গুগুল রিডার দিয়ে ব্লগলাইন/নিউজগেটর কে না খাইয়ে মেরেছে, জিমেইল দিয়ে ইয়াহু/হটমেইল/এওএল কে শুইয়ে দিয়েছে - বেচারা ইয়াহুতো এমনই মার খেয়েছে যে আরেকটু হলেই মাইক্রোসফটের হাতে নিজের ইজ্জ্বত বিকিয়ে দিত এবং সামনে যে দিবেনা তার এখনও কোন নিশ্চয়তা নেই। আইগুগুল দিয়ে পেজফ্লেক্স বা মাইক্রোসফট লাইভ এর ঠ্যাং ভেঙ্গে দিয়েছে, ব্লগস্পট নিয়ে ওয়ার্ডপ্রেসের সাথে সমান তালে পাল্লা দিচ্ছে গুগুল বাবাজি।

নতুন ভার্সান বের করতে যেয়ে নেটস্কেপ নিজেরাই নিজেদের পিছে আঙ্গুল দেওয়ায় – বদখত ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার (আই ই) নিয়ে মাইক্রোসফট যখন ধাক্কিতিকি নাচছিল, তখন ফায়ারফক্সের অর্থায়ন করে গাছে তুলে দিয়ে ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারের দাড়ি ধরে টান দিয়েছে এই গুগুলই। আর এখন নিজেরাই ক্রোম ব্রাউজার নিয়ে এসেছে ফায়ারফক্সের মই কেড়ে নিয়ে আই ই কে খান খান করে দিতে । তাদের মস্তানি এমনই বেড়েছে যে একদিকে নেক্সাস ওয়ান দিয়ে আইফোন কে হুমকি দিচ্ছে তো আরেকদিকে এন্ড্রোয়েড দিয়ে তাবৎ স্মার্টফোন ওএস (operating system)কেই ধমকি দিচ্ছে। উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম বেচে বুচে যখন মাইক্রোসফট দুইটা পয়সা করে খাচ্ছিল, তখন ঘোষনা দিল ক্রোম ওএস(operating system) এর। হারাধনের ছেলেদের মতন মাইক্রোসফটের আরেক সোনার খনি অফিসের সাথে পাল্লা দিতে নিয়ে এসেছে গুগুল ডকএক্সচেঞ্জ সার্ভার নামে মাইক্রোসফটের আরেক ছেলেরে দৌড়ানি দিতেসে গুগুল এপ্স দিয়ে। মাইক্রোসফটও অবশ্য বসে নেই, তারা গুগুলের তান্ডব ঠেকাতে তাদের সবচেয়ে ছোট ছেলে বিং কে লেলিয়ে দিয়েছে। বিং দেখতে ভালো। বয়সে নবীন হলেও বেশ ভালই এগুচ্ছে এবং সময়ই বলতে পারবে সে গুগুলকে কতখানি কড়কে দিতে পারে।

এদের অত্যাচারে ইন্টারনেটে আসলেই টেকা দায় হয়ে গেছে অন্যদের জন্য। শুধু যে সফটওয়ার কোম্পানিরা বিপাকে আছে তা না, টেলিফোন কম্পানিগুলোর ব্যবসা খেতে নিয়ে এসেছে গুগুল ভয়েস। তবে সবখানেই মস্তানি চলেনা। ইউটিউবরে ধরতে নিয়ে আসছিল গুগুল ভিডিওকে কিন্তু উলটা ইউটিয়ুব ই এমন থাবড় দিল যে রাগের চোটে গুগুল ইউটিয়ুবকে খেয়েই ফেলল। এটা আরেক সমস্যা যুদ্ধে যদি দেখে যে জেতার সম্ভাবনা নাই, তাহলে সোজা খেয়ে ফেলে! ডাবলক্লিক তাদের এডওয়ার্ডস/এডসেন্স প্রকল্পের সাথে পাল্লা দিতে চাচ্ছিল বলে তাকেও গুগুলের পেটে যেতে হয়েছে। কিছুদিন আগে ফিডবার্নার কে খেয়ে এখন তৃপ্তির ঢেকুর তুলছে তারা। এমন শত্রুর সাথে আপনি কি করে পারবেন?

কিন্তু বাবার ও বাবা আছে, এত কিছু করেও সোশ্যাল নেটওয়ার্কিংয়ে বার বার ধরা খাচ্ছিল তারা ফেসবুকের কাছে, টুইটারের কাছে, ইয়াহুর পেটে যাওয়া ফ্লিকারের সাথে পারছিলোনা পিকাসা নিয়ে। অর্কুট নিয়ে একটু ফেসবুক কে গুতাও দিসিল বাজায় দেখতে কিন্তু সুবিধা হয়নাই। না পারলে যা হয় তারা চেষ্টা করল ফেসবুককে খেয়ে ফেলতে। কিন্তু ফেসবুক বিরাট মাস্তান মাত্র কিছুদিন আগেই গুগুল কায়দায় সে ফ্রেন্ডফিডকে খেয়েছে, সুতরাং সে ধরা দিবে কেন? এখন গুগুল ই বা কি করে? সবাই জেনে যাচ্ছে যে সে ফেসবুকের কাছে তার সব জারিজুড়ি ফাঁস। এই অবস্থায় গুগুল করল কি ….

গুগুল কি করল এটা আপাতত এখন থাক, লেখা এমনিতেই বড় হয়ে গেছে – চা খাওয়া দরকার। আমিতো আর সচল না যে চা খেয়ে এসে পোস্ট এডিট করে বাকিটা এখনই দিয়ে দিব। আগামী কাল বা পরশুদিন দ্বিতীয় পর্ব নামিয়ে দিব আশা করছি।

পাদটীকাঃ যাঁরা ইন্টারনেট বিষয়ে কিঞ্চিত কম আগ্রহী তাদের জন্য দুই একটা টীকা দেওয়া যেতে পারে।যেমন ধরা যাক খেয়ে নেওয়া বলতে এই লেখায় বোঝানো হয়েছে কিনে নেওয়া।খাদ্যচক্রের বড় মাছ যেমন ছোট মাছকে খেয়ে নেয়, তেমনি বড় কোম্পানিরাও প্রায়ই ছোট কোম্পানিদের কিনে নেয়।গুগুল এভাবে যাদের কিনেছে তাদের ঠিকানা পাবেন এই ঠিকানায়। গুগুলের এমন অবস্থা দেখে মনে হতে পারে ইন্টারনেটটাকে আর কিছুদিনের মধ্যেই তারা সরকারি অফিসের টেন্ডার বক্স বানিয়ে ফেলবে যেখানে সরকার দলীয় ছাত্র সংগঠন ছাড়া আর কারও টেন্ডার জমা পড়বেনা। কিন্তু এখানে সূক্ষ পার্থক্য হলো গুগুলের ইনোভেশনের কারণে ব্যবহারকারীরা নিজেরা স্বেচ্ছায় তার হাতে ধরা দেয় – এখানেই গুগুলের জয়।

(চলবে)


মন্তব্য

গৌতম এর ছবি

গুগল মানুষকে গুগল বায দিয়ে গুগলবাজ বানিয়েই ছাড়বো বোধহয়!

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

শিক্ষাবিষয়ক সাইট ::: ফেসবুক

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

সাফি এর ছবি

ভাল বলেছেন গৌতমদা হাসি

নীড় সন্ধানী এর ছবি

‍‌আমি দশ বছর ধরে গুগলবাজ। কেন যেন গুগল যা খায়, আমারও তা সুস্বাদু লাগে। ভোক্তা হিসেবে আমি গুগল নিয়ে খুব সন্তুষ্ট। আমার প্রায় সব প্রোডাক্ট গুগলবেজড। হাসি

আপনার লেখা চমৎকার হচ্ছে যথারীতি। পরের পর্বের জন্য বসলাম। তাড়াতাড়ি চা শেষ করুন।

-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-
সেই সুদুরের সীমানাটা যদি উল্টে দেখা যেত!

‍‌-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.--.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.
সকল লোকের মাঝে বসে, আমার নিজের মুদ্রাদোষে
আমি একা হতেছি আলাদা? আমার চোখেই শুধু ধাঁধা?

সাফি এর ছবি

সবাই খালি আমাকে তাড়াতাড়ি চা শেষ করতে বলে! কোথায় মডুদের বলবে আমাকে তাড়াতাড়ি সচল করতে! যাই হোক - আমিও গুগুলবাজ খাইছে

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- গুগলের উত্থানটা আমার কাছে কেমন জানি নাটকীয়ই লাগে।

দেখা যাক বায্ কেমন হয়।

এইসব সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের সাথে বাংলা ব্লগের একটা মিল আছে। যতো কিছুই নতুন খুলুক, ব্যবহারকারী ঐ পুরাতনরাই। এরাই ঘুরেফিরে সব জায়গায় টোকাটুকি করে।
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

সাফি এর ছবি

নাটকীয়তো বটেই। এত অল্প সময়ে এত উন্নতি কে কোথায় করতে পেরেছে বলেন? আর বাংলা ব্লগ ও কিন্তু একটা সোশ্যাল নেটওয়ার্কই

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

সার্চে গুগল সেরা হবেনা কেন বলুন, আমার একটা সাইট আছে যেখানে আর্টিকেল লেখার ১৫ মিনিটের মধ্যে সেটা গুগলের সার্চে চলে আসে। বিং বা ইয়াহুতে ২ সপ্তাহেও আসেনা।

গুগল ওয়েভ দেখেছি, ভালো লাগেনি।

সাফি এর ছবি

গুগুল ওয়েভ সাকুল্যে একদিনই ব্যবহার করেছিলাম, ভাল লাগেনি আমারও। বিং এর ইন্ডেক্সিং বেশ ভাল। ইয়াহুর কিছু সীমাবদ্ধতা আছে যদিও। তবে আমি বিং এ ব্যাকগ্রাউন্ডের ছবি দেখা ছাড়া আপাতত তেমন কিছু করিনা। আপনার সাইট মানে কি নিসর্গ-এর কথা বলছেন? পিংওমেটিক বা বিং এর পিং সার্ভিস ব্যবহার করে দেখতে পারেন। বিং কে পিং করতে হলে নিচের ফরম্যাট এ হিট করতে হবে ঃ
http://www.bing.com/webmaster/ping.aspx?siteMap=[your site map link]

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

না সাফি ভাই, নিসর্গ না। প্রফেশনের সাথে সম্পর্কযুক্ত একটা ইংরেজী সাইট। পিংওম্যাটিকের নাম শুনেছিলাম। মনে হয় দুয়েকবার ব্যবহারও করেছি। ধন্যবাদ পরামর্শের জন্য।

বর্ষা এর ছবি

লেখা চরম ভালো লাহলো, তবে যদি ছবিটা আপনার বানানো হয় তবে ঐটায় বেশী লাইক!!!
********************************************************
আমার লেখায় বানান এবং বিরাম চিহ্নের সন্নিবেশনের ভুল থাকলে দয়া করে ধরিয়ে দিন।

********************************************************
আমার লেখায় বানান এবং বিরাম চিহ্নের সন্নিবেশনের ভুল থাকলে দয়া করে ধরিয়ে দিন।

সাফি এর ছবি

না আপু ছবিটা গুগুলের সাহায্যেই পাওয়া। আরেকটা কোন পোস্টের কমেন্টে দেখলাম আপনার ছোট বোনের নাম নূর-এ-নাজিয়া। উনি কি ডিবেটার ছিলেন?

বর্ষা এর ছবি

হুম! হাসি
********************************************************
আমার লেখায় বানান এবং বিরাম চিহ্নের সন্নিবেশনের ভুল থাকলে দয়া করে ধরিয়ে দিন।

********************************************************
আমার লেখায় বানান এবং বিরাম চিহ্নের সন্নিবেশনের ভুল থাকলে দয়া করে ধরিয়ে দিন।

আলমগীর এর ছবি

এতগুলা লিংক! পুরা পেজ কমলা রঙ হয়া গেছেগা।

সাফি এর ছবি

কি করব আলমগীর ভাই, অনেকের জন্যই এগুলো নতুন নাম। বাংলায় লিখেছি বলে বুঝতে অসুবিধা হলে, সরাসরি লিংক-এ যেয়ে মূল জিনিসটা পড়তে পারবে।

অতিথি লেখক এর ছবি

লিঙ্কু গুলা ভালা পাইলাম ।
পড়তে মজাই লাগল!

গুগল এর প্রোডাক্ট ভাল পাইলেও, পুরো সার্চ ওদের হাতে এইটা আমার মানতেই রাগে গা জ্বলে! দোয়া করি বিং কিছু করুক, যদিও ভরসা পাই না মন খারাপ

নতুন প্রোডাক্ট এর কথা আপনার টুইটে দেখছিলাম ।
আপনার মন্তব্য শুনি ।
তারপর না হয় আমার আইডিয়া কমুনে!

বোহেমিয়ান

সাফি এর ছবি

বিং দুই হাতে পয়সা বিলাচ্ছে সার্চের শেয়ার গুগুলের হাত থেকে কব্জা করতে। দেখা যাক পারে কিনা। নতুন প্রোডাক্ট নিয়ে আমার মন্তব্য পরের পর্বে দিবো, ঐটার কমেন্টে তোমার অভিজ্ঞতা দিও হাসি
(তুমি মনে হয় বাপ্পী? তাই তুমি করে বললাম হাসি )

হিমু এর ছবি
সাফি [অতিথি] এর ছবি

না। তবে বিং ক্যাশব্যাক দিচ্ছে আর প্রচুর ফ্রি give away contest করছে

দ্রোহী এর ছবি

গুগোল ওয়েভটা মনে হয় মার খেতে যাচ্ছে! আমি গত ২ মাসে একবারও লগ ইন করিনি। এই লেখা পড়ে মনে পড়লো। তাই একবার লগ ইন করে দেখলাম। দেঁতো হাসি

সাফি এর ছবি

গুগোল ওয়েভটা মনে হয় মার খেতে যাচ্ছে! আমি গত ২ মাসে একবারও লগ ইন করিনি।

আমিওনা হাসি

সুরঞ্জনা_ এর ছবি

লেখা ভাল হয়েছে। দ্বিতীয় পর্ব কই কই?
চলুক

--------------------------------------------------
জগতে সকলই মিথ্যা, সব মায়াময়,
স্বপ্ন শুধু সত্য আর সত্য কিছু নয় ।

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

সাফি এর ছবি

আসবে আপু এই পোস্ট দ্বিতীয় পাতায় গেলেই হাসি

রাগিব এর ছবি

গুগল সব ক্ষেত্রে মোটেও সফল না। ওয়েভ এর বড় উদাহরণ। ওয়েভ দিয়ে কী করবো, তা বোঝার আগেই শুরু হয়ে গেছিলো ওয়েভ ইনভাইটেশনের হুজুগ। ওয়েভ দেখে আমারও ভালো লাগেনি ... আগা মাথা নেই, আর পুরানো মাল নতুন নামে গছানোর চেষ্টা মনে হয়েছে।

বাজ নিয়েও আপাতত মাথা ব্যথা নেই। টুইটার আমার সবচেয়ে প্রিয়, কারণ ফেইসবুকের মতো বাড়াবাড়ি নেই, আর বিশাল বিশাল কবিতা, কুইজ এসব পোস্ট করছে না কেউ ওখানে।

আমার ধারণা গুগল এইখানেও ওয়েভের মতোই মার খাবে।

----------------
গণক মিস্তিরি
মায়ানগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | টুইটার

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

সাফি এর ছবি

টুইটার আমার ও খুব প্রিয়। গুগুলের ব্যার্থতার কথা লিখব বলে ওয়েভ আর নল কে মাথায় রেখেছিলাম, কিন্তু শেষে ভুলে গেছি। আগামী পর্বে জুড়ে দিব। আর বায্‌ সম্পর্কে আমার ধারণাও ওই পোস্টের জন্য তুলে রাখি।

শামীম [অতিথি] এর ছবি

ওয়েভ কিন্তু এখোনো ডেভেলোপার প্রিভিও মোডে রয়েছে। ওয়েভের এখোনো বেটাই রিলিজ করেনি। তাই যতদিন ইউজারদের জন্য ওয়েভ রিলিজ না হচ্ছে ততদিন ইউজার হিসাবে কমপ্লেইন বেকার।

তাছাড়া ওয়েভ কিন্তু ফেসবুকের মতো কোন এপ না এটা একটা প্লাটফর্ম। বর্তমান গুগল ওয়েভ তার একটা ক্লাইন্ট মাত্র ।একটা প্লাটফর্ম ডেভেলপ হতে সময়তো লাগবেই। তবে ভবিষ্যত কিন্তু ওয়েভরই।

অনিকেত এর ছবি

বহুদিন পর একটা লেখা গোগ্রাসে গিললাম---
লেখা 'দারুণ' ছাড়িয়ে 'অসাধারণ' এর দরজায় টোকা দিচ্ছে !!
পরের পর্ব জলদি ছাড় বস।

শুভেচ্ছা নিরন্তর

সাফি এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ অনিকেতদা। এটা প্রথম পাতা থেকে বিদায় নিলেই দ্বিতীয় পর্ব হানা দিবে

সাইফ তাহসিন এর ছবি

লেখা পইড়া হাসতে হাসতে পেট ব্যাথা করতেছে, পুরাই মারদাঙ্গা হয়েছে। এতগুলান লিংক পুস্টাইতে আমার প্রায় ১ মাস লাগত, এই লেখার পিছনে যে বিশাল পরিশ্রম করেছ তার জন্যে ৫ তারা দিলাম, আর ২ প্লেট কাচ্চি জমা কইরা রাখলাম, আসলে খাওয়াবো। আর আলমগীর ভাইয়ের মত বলতে হচ্ছে, পুরাই লেখাইতো দেখি কমলা হয়ে গেছে, তোমার লেখা দেখেই কমলা খাইতে ইচ্ছা করতেছে, তাই কমেন্ট শুর্ট কইরা কমলা খাই গিয়া।

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদ্বপি গরীয়সী

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

সাফি এর ছবি

সাইফ ভাই,
কবে যে যামু দেলোয়ার বাবার স্টেটে কাচ্চি খাইতে তার নাই ঠিক, তার আগে মনে করায় দিলেন কেন? এই কারণে আপ্নারে মাইনাচ পাঁচ। লেখা নিয়া আসলে যেমন ভাবতেসেন তেমন পরিশ্রম হয়নাই। এই গঠনাগুলান আগেই জানতাম, লেখারে সাপোর্ট দেবার জন্য লিংকাইসি শুধু (এখানেও গুগুলের সাহায্যে)

আশরাফ মাহমুদ এর ছবি

ভালো লাগল। ব্যবহার-বান্ধব বলেই গুগল ভালো লাগে। আর বিনামূল্যে!

==============================
ঢাকার মৌন ঘ্রাণে বকুলফুলের নাভি
==============================
হা-তে এ-ক প্র-স্থ জো-ছ-না পা-ড়ে-র ঘ্রা-ণ

সাফি এর ছবি

বিনামূল্যে সার্ভিস দিয়ে প্যাসিভভাবে মূল্য আদায়ের পথিকৃতও গুগুল। ধন্যবাদ আশরাফ ভাই মন্তব্যের জন্য

অস্পৃশ্যা এর ছবি

"ধাক্কিতিকি নাচছিল"...
হাহাহাহাহা...হাসতেই আছি...

লেখাটা খুব মজার তারপরও তথ্যবহুল(আমার মত টেকিমূর্খের জন্য)।

ধন্যবাদ।

সাফি এর ছবি

ধন্যবাদ আপনাকেও অস্পৃশ্যা

ইমতিয়াজ মির্জা এর ছবি

লেখাটা তৈরী করতে কতো খানি পরিশ্রম করেছেন লিংক গুলো দেয়া দেখেই বোঝা গেলো ।
গুগল ফেসবুকের সাথে পাল্লাদেবার দরকার নেই মনে হয় --
ফেসবুক নিজেই নিজেকে শেষ করবে -- এটা আমার কাছে মনে হয় -- তবে উঠতি বয়সীদের কাছে - সব সময়ই ফেসবুক জনপ্রিয় রয়ে যাবে ।

লেখাটা শেষ করলে তৃপ্তি পেতাম ।

সাফি এর ছবি

গুগল ফেসবুকের সাথে পাল্লাদেবার দরকার নেই মনে হয় --

গুগুল কিন্তু তা মনে করছেনা। আর ফেসবুকের এখন পর্যন্ত কর্মকান্ড দেখে মনে হয় তারাও ইন্টারনেটের আরেক গুগুল হতেই এসেছে। চেষ্টা করব এই বিষয়ে পরের পর্বে কিছু লিখতে। সচলের নীতিমালায় প্রথম পাতায় একই লেখকের একাধিক লেখাকে নিরুৎসাহিত করা হয়, তাই এটা পরের পাতায় গেলে দ্বিতীয় পর্ব ছেড়ে দিব। মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ হাসি

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- পোস্টের ক্ষেত্রে মূলত নিয়মটা এমন-
২৪ ঘণ্টা পার অথবা এক পাতায় দুটি পোস্ট না হওয়া। যেটা আগে আসে।
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

সাফি এর ছবি

ধুর মিয়া। আপ্নে লুক খ্রাপ। দিব্যি সচলের ঘাড়ে চাপাইতেসিলাম। কানে কানে কই (লেখা এখনও শেষ হয়নাই) :">

সিরাত এর ছবি

হাহ হাহ হাহ!

অমিত এর ছবি

আমি মোটামুটি গুগলাসক্ত। মেইল, অনলাইন ডকস, ম্যাপ, চ্যাট,সেল ওএস সবকিছুই গুগলের। এদের আমার যেই জিনিসটা ভাল লাগে, অন্তত ভোক্তা হিসাবে আমার মনে হয় যে এরা প্রফিট এর আগে সারভিসকে প্রাধান্য দেয়।

অমিত এর ছবি

গুগলের নতুন মতলব

পলাশ দত্ত এর ছবি

গুগল এই কাজও করবে !!! তাহলে অন্যরা দাড়াবে কোথায়???
==========================
পৃথিবীর তাবৎ গ্রাম আজ বসন্তের মতো ক্ষীণায়ু

==========================
পৃথিবীর তাবৎ গ্রাম আজ বসন্তের মতো ক্ষীণায়ু

সাফি এর ছবি

পলাশদা, গুগুল আসলে নিজের সার্থেই চায় পাব্লিকের কানেক্টিভিটি যেন ভাল থাকে। এতে গুগুলেরই লাভ। এ ছাড়া এই ব্যবসায় নামার আর কোন মতলব আছে বলে মনে হয় না।

সাফি এর ছবি

ধন্যবাদ অমিত ভাই লিংকের জন্য। আইএসপি এর ব্যাপারটা আগে চোখে পড়েনি। কিন্তু গুগুলের জন্য এই পদক্ষেপ makes sense। এখন যদি সব আই এস পি এক জোট হয়ে গুগুলকে ব্লক করে, তাহলে কিন্তু গুগুল শেষ। কিন্তু সে নিজে এই ফিল্ডের গেম প্লেয়ার হলে এই আশংকা অনেক খানি কমে যায়।

অতিথি লেখক এর ছবি

"সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং"- এখানে একটা কথা না বললেই নয় (ভাবখানা এমন যেন আমিও জানিনা বিষয়টা), MySpace এর হোম পেইজে ডান পাশে Powered by Google লেখা থাকে, এর মানে কি এটাও google এর কিছু একটা??? - ছাড়পত্র...

শুধুই পাঠক এর ছবি

মাইস্পেসের সার্চের অংশটা শুধু গুগলের। সচলেরটাও।

সাফি এর ছবি

ধন্যবাদ শুধুই পাঠক। কিন্তু আপনিতো মন্তব্য করে শুধুই পাঠক নামের বারোটা বাজালেন!

মূলত পাঠক এর ছবি

দারুণ নামিয়েছেন দাদা। চা খেয়ে তাড়াতাড়ি আসেন।

সাফি এর ছবি

বল্লেন দাদা? খুশি হয়ে গেলাম। চা শেষ কিন্তু লেখা যে এখনও প্রথম পাতায় জ্বলজ্বল করছে!

লীন এর ছবি

গুগোল মামা জিন্দাবাদ।
(লেখা ভালোইছে) চলুক

______________________________________
লীনলিপি

সাফি এর ছবি

ধন্যবাদ লীন

স্নিগ্ধা এর ছবি

আজকেই মোটে গুগল বায ব্যবহার করলাম! লেখা ভাল্লাগ্লো হাসি

সাফি এর ছবি

আজকেই মোটে গুগল বায ব্যবহার করলাম!

আমিও তাই
লেখা ভাল্লাগ্লো

ধন্যবাদ হাসি

অতিথি লেখক এর ছবি

মাইস্পেসের সার্চের অংশটা শুধু গুগলের" জানলাম। কিন্তু orkut? google account setting এ গেলে orkut - Settings নামে একটা লিংক আসে। কেন ভাই! - ছাড়পত্র...

রাগিব এর ছবি

মাইস্পেসের সাথে নাহয় চুক্তি করে সার্চ পার্টনার হতে হয়েছে, কিন্তু অরকুট তো গুগলেরই নিজস্ব সার্ভিস হাসি , কাজেই ওটা তো থাকবেই।

----------------
গণক মিস্তিরি
মায়ানগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | টুইটার

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

পলাশ দত্ত এর ছবি

চা-বিরতি শেষ করেন ...
==========================
পৃথিবীর তাবৎ গ্রাম আজ বসন্তের মতো ক্ষীণায়ু

==========================
পৃথিবীর তাবৎ গ্রাম আজ বসন্তের মতো ক্ষীণায়ু

সাফি এর ছবি

চা শেষ দাদা, লেখা দ্বিতীয় পাতায় যাবার অপেক্ষায় আছি। হাসি

অতিথি লেখক এর ছবি

অবশ্যই, এতক্ষনে একটা কথা বলার মত কথা পেলাম। orkut বেশ ভালো জনপ্রিয় ভারতে (আমার জানা মতে)। শুধু বাংলাদেশ facebook এর জন্য সুবিধা করতে পরছেনা কিন্তু বিশ্বের প্রায় সব দেশে অরকূটের রেটিং ভালো।

"ইন্টারনেট দুনিয়ার মোটামুটি সবখানেই দাপটের সাথে বিচরণ করলেও, একটা জায়গায় একটু পিছিয়ে যাচ্ছিল গুগুল সাহেবরা। আর তা হল সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং।"!!! - ছাড়পত্র...

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

অরকুট ইন্ডিয়াতে সবচেয়ে জনপ্রিয়, আর অন্য কয়েকটি দেশে। কিন্তু পৃথিবীর সব দেশে নয়। উত্তর আমেরিকাতে তো নয়ই।

বাংলাদেশে কিন্তু অরকুট এসেছিল ২০০২-২০০৩ এর দিকে। কিন্তু বাংলাদেশের সাপেক্ষে একটু আগেই চলে এসেছিল এটা। তাই জনপ্রিয় হতে পারেনি অতটা। তাছাড়া তখন অরকুটে ফ্রেন্ড-টু-ফ্রেন্ড ইনাভাইটেশন পদ্ধতি চালু ছিল। আর প্রায় ৫/৬ পাতা তথ্য ভরতে হত রেজিস্ট্রেশনের সময়। সব মিলিয়ে অতটা ক্যাচি ছিলনা।

গুগল কিনে নেবার পরও কার্যকরী ভাবে ঠিকঠাক করতে অনেক দেরী হয়ে যায়। ফলে এটা একটা 'গুড টু হ্যাভ' প্রডাক্ট হয়ে দাঁড়িয়েছে, 'স্টেট অফ দ্যা আর্ট' নয়।

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

সাফি এর ছবি

ধন্যবাদ মুর্শেদ ভাই। আমি এত সুন্দর করে বুঝাতে পারতাম না হাসি
ছাড়পত্র ভাই,
অর্কুট সম্ভবত ব্রাজিল থেকে যাত্রা শুরু করেছিল আর এখনো ওখানেই সবচেয়ে বেশী জনপ্রিয়। এর বাইরে ভারতেও বেশ জনপ্রিয়। এখানে ভূত থেকে ভূতের ভূমিকা আছে, আমি সেই সোশ্যাল নেটওয়ার্কেই সাচ্ছন্দ্য বোধ করব যেখানে আমি আমার বন্ধু বান্ধবদের পাবো। ব্যবহারকারীদের মধ্যে প্রায় ৫০% ব্রাজিলের, ২০% ভারতের আর ১৭% আমেরিকার। বাংলাদেশে এক সময় অর্কুট বেশ জনপ্রিয় ছিল, কিন্তু ফেসবুক এসে সেই 'জন'দের ভাগিয়ে নিয়ে গেছে

রাগিব এর ছবি

এসএম৩ আর সাফি, দুজনকেই অল্প একটু শুধরে দেই, অর্কুট পুরোদস্তুরভাবেই গুগল থেকে শুরু হওয়া প্রজেক্ট। ওদের কর্মী অর্কুট এটা ২০% প্রজেক্ট (মানে ব্যক্তিগতভাবে সপ্তাহে ১ দিন কাজ করে তৈরী করা) হিসাবে অর্কুট শুরু করেছিলো। তার পর ২০০৪ এর দিকে এটাকে গুগল মার্কেটে ছাড়ে।

অর্কুট যখন আসে, তখন আমিই সম্ভবত প্রথম ৫ জন বাংলাদেশী ইউজারের একজন (১ম জনও হতে পারি)। ইনভাইট পাঠিয়ে নেয়ার সিস্টেম ছিলো। বাংলাদেশে খুব একটা আগ্রহ কেউ পায়নি তখন। আর অর্কুটের পেছনে গুগলেরও আগ্রহ কম থাকায় এটার সমস্যা দূর করেনি -- প্রথমদিকে এটা এতো স্লথগতির ছিলো যে, ব্যবহার করা যেত না একদমই।

অর্কুট, ওয়েভ, আর নোল -- এসব প্রজেক্টগুলোর দুরবস্থা দেখে গুগলকে মাইক্রোসফটের মতো লাগে। বিশেষ করে নোল বানাবার সময়ে গুগলের দম্ভ ছিলো দেখার মতো -- উইকিপিডিয়াকে ল্যাং মেরে ফেলে দেবো এমন সব ভাব করে বেড়াচ্ছিলো। নোল এ কেউ আদৌ কাজ করে কি না, সন্দেহ, সেরকম ওয়েভ ইনভাইট নিয়ে হুজুগ চললেও মাস দুয়েক ধরে কাউকে নামও নিতে শুনি না।

* অর্কুটের নাম এসেছে এর স্রষ্টা গুগলের এক তুর্কী ইঞ্জিনিয়ার থেকে, যার নামও অর্কুট। উদ্ভট লাস্ট নেইম উচ্চারণ করতে পারলাম না, তাই গুগলে খুঁজে নেবেন সবাই আগ্রহ থাকলে।

----------------
গণক মিস্তিরি
মায়ানগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | টুইটার

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

সাফি এর ছবি

ধন্যবাদ রাগিব ভাই। ভুলটা এতদিন ধরে জেনে বসে আছি যে খোঁজ করার ও প্রয়োজন দেখিনি লেখার সময়! নোল এর কথা আর কি বলব আজ পর্যন্ত কোন সাইটে নোল এর রেফারেন্স দেখলাম না। শুধু তাই না, গুগুল ডুডুলগুলোতেও তারা প্রায়ই উইকিপিডিয়াকে লিঙ্ক করে।

অনার্য সঙ্গীত এর ছবি

দারুণ লেখা। সাবলীল। দারুণ রান্না করা ডাল-ভাতের তৃপ্তি পেলাম (বেশি মসলার মোগলাই খাবার আমার পছন্দ না) হাসি
____________________________
নিজের ভেতর কোথায় সে তীব্র মানুষ !

______________________
নিজের ভেতর কোথায় সে তীব্র মানুষ!
অক্ষর যাপন

সাফি এর ছবি

ধন্যবাদ প্রিয় লেখক অনার্য সঙ্গীত। আমার অবশ্য সবরকম খাবারই পছন্দ হাসি

জুলিয়ান সিদ্দিকী এর ছবি

ভালো লাগলো। পরের অংশের অপেক্ষায়।

___________________________________________
ভাগ্যিস, আমার মনের ব্যাপারগুলো কেউ দেখতে পায় না!

___________________________
লাইগ্যা থাকিস, ছাড়িস না!

সাফি এর ছবি

ধন্যবাদ জুলিয়ান ভাই। পরের পর্ব আসিতেছে ...

আনাম এর ছবি

চলুক

সাফি এর ছবি

মানিকদার হাত নিয়ে টানাটানি?

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

লিখা চরম ভাল্লাগছে। প্রচুর লিংক ব্যবহার করায় পড়তে গিয়ে একটু বাধাগ্রস্ত হয়েছি।

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

সাফি এর ছবি

ধন্যবাদ মুর্শেদ ভাই। লেখার সাপোর্টে আসলে লিংকাতে হয়েছে। তবে ইয়াহু হটমেইল টাইপ জনপ্রিয় ব্যক্তিদের আসলে না লিংকালেও হতো

উদ্ভ্রান্ত পথিক এর ছবি

সবাই কমেন্টাইতেছে তাই আমিও কমেন্ট করি!
লেখা ভাল্লাগছে! দেঁতো হাসি
( হোমওয়ার্ক কি কম নাকি এই সেমিস্টারে চোখ টিপি )
---------------------
আমার ফ্লিকার

---------------------
আমার ফ্লিকার

অতিথি লেখক এর ছবি

'বাজ্জ' একটা ছোট আকারের ট্যুউটার। তবে, এক্ষেত্রে গুগল মনে হয় ওয়েব এর মতো ভুল করতে চায়নি। এটাকে জিমেইল এর সাথে এক করে দিয়েছে। তাতে যদি তড়িগড়ি কিছু ইউজার পাওয়া যায়। ওয়েবও মনে হয়, জিমেইলের সাথে সমন্বিত করে ছাড়লে, কিছু গতি করতে পারতো। আলাদা একাউন্ট রাখা বেশ ঝামেলা। বিশেষ করে, কিছু অগুরুত্বপূর্ণ কাজের জন্য।

প্রথম অভিজ্ঞতায় 'বাজ্জ'কে বেশ ‌distracting মনে হয়েছে। প্রায়শই আপডেট আসে। এটার আপডেট রেইট ইনবক্সের চেয়ে অনেক বেশী। তাই, এটা আপাতত লুকিয়ে (‌hide) রেখেছি।

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

আমি মোটামুটি গুগুল নিয়াই সন্তুষ্ট রাজকুমার ভাই। অগোরে আমার মনে ধরে...

তবুও গুগল কী করলো এরপর, জানতে চাই...
_________________________________________

সেরিওজা

_________________________________________

সেরিওজার গল্প

সিরাত এর ছবি

কিন্তু বাজ নিয়া গল্প কই? হাসি

অতিথি লেখক এর ছবি

বিভ্রান্তির অবসান, এবার আমিও বলতে পারি "চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির"। এস এম মাহবুব মুর্শেদ, সাফি ও রাগিব ভাই- ধল্যবাদ। পরের অংশের অপেক্ষায় আছি। - ছাড়পত্র...

শাহেনশাহ সিমন এর ছবি

বিজনেসের পড়াশোনায় গুগল খুব-ই ইন্টারেস্টিং একটা কেস। তবে আমার ফাকিবাজি অভ্যেসের কারনে গুগলের ব্যাপারে কিছুই জানতাম না। বেশ জ্ঞান পাইলাম। তোরে ধইন্যা দেঁতো হাসি

জলদি শেষ কর না রে দোস্ত! পুরাটা পড়লে বুস্তার্মু যে এইটা আমার জন্যি সামনে একখান সুবিধা কইরে দেয় নাকি (বিস্তারিত মেসেজে দিবো, পুরাটা ছাড়ার পর দেঁতো হাসি )।
_________________
ঝাউবনে লুকোনো যায় না

_________________
ঝাউবনে লুকোনো যায় না

জি.এম.তানিম এর ছবি

লেখাটায় রেফারেন্স দিতে গিয়ে ভালো খাটতে হয়েছে বোঝা যাচ্ছে। চলুক

বাজ ব্যবহার শুরু করেছি। এখনো কোন মন্তব্য নেই, দেখা যাক কী হয়।
-----------------------------------------------------------------
কাচের জগে, বালতি-মগে, চায়ের কাপে ছাই,
অন্ধকারে ভূতের কোরাস, “মুন্ডু কেটে খাই” ।

-----------------------------------------------------------------
কাচের জগে, বালতি-মগে, চায়ের কাপে ছাই,
অন্ধকারে ভূতের কোরাস, “মুন্ডু কেটে খাই” ।

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

আমার কাছে তো খারাপ লাগতেসে না। বেশ মজাই পাচ্ছি বরং...

অতিথি লেখক এর ছবি

কিন্তু Google Buzz টা তেমন পছন্দ হয়নি আমার।

---------------
আলোর ছটা
---------------

অদ্বিতীয় এর ছবি

গুগলকে মাইক্রোসফট আর ছুঁতে পারবে কি না জানিনা, তবে আশাকরি পারবে না। মাইক্রোসফট কে বাই বাই বলতে আমি এখনই প্রস্তুত! বিং যতই সেজেগুজে আসুক না কেন, গুগল ই এখন আমার সার্চ এর গুরু! যেদিকে তাকাই গুগল দেখি... দেখতে ভালোও লাগে। সেদিন দেখলাম গুগল এর কোন এক রিসার্চার মাইক্রোসফটের ১৭ বছরের পুরানো পোকা বের করছে! সবাই দেখি ওয়েভ কে পচায়, আমার তো ভালই লাগে! কোন কারণে টুইটারেই কেন যেন তাল পাই না ঃ(

অদ্বিতীয়

অদ্বিতীয়

শাহেনশাহ সিমন এর ছবি

কিরে, পরের পার্ট কই?
_________________
ঝাউবনে লুকোনো যায় না

_________________
ঝাউবনে লুকোনো যায় না

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA