সায়েন্স ফিকশন সংকলন [আপডেট ১]

সন্দেশ এর ছবি
লিখেছেন সন্দেশ (তারিখ: বিষ্যুদ, ২২/০৪/২০১০ - ৫:৩৩অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

প্রিয় সচল ও অতিথিবৃন্দ,

আগামী ১ জুলাই, ২০১০ সচলায়তনের তৃতীয় বর্ষপূর্তি। এ উপলক্ষে আমরা একটি সায়েন্স ফিকশন সংকলন মুদ্রিত গ্রন্থ আকারে প্রকাশের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

সচলায়তনে কল্পবিজ্ঞানাশ্রিত গল্প খুব বেশি প্রকাশিত হয়নি। তাই আমাদের আশা, পুরোনো ও নতুন গল্প মিলিয়ে একটি সংকলন আমরা পাঠকের হাতে তুলে দিতে পারবো।

তাই অনুরোধ, লিখে ফেলুন একটি কল্পবিজ্ঞান-গল্প। যদি অনুবাদ করতে চান, তা-ও সই, যদিও অনূদিত গল্পের তুলনায় মৌলিক গল্পকে প্রাধান্য দেয়া হবে।

গল্প পাঠানোর ঠিকানা, prakashayatan অ্যাট জিমেল ডট কম। গল্প পাঠানোর শেষ তারিখ, মে ৩১, ২০১০। যাঁদের গল্প নির্বাচিত হবে, তাঁরা একটি ইমেইল পাবেন।

গল্প নির্বাচনের দায়িত্বে আবারও সেই থ্রি বিস্কুটিয়ার্স। যথারীতি, তাঁদের পরিচয় গোপন রইলো। তবে তাঁরা তিনজন পূর্ণ সচল, এবং মডারেটরদের মধ্যে থেকে কেউ নন। তাঁদের নাম গোপন থাকলেও, কাজ গোপন থাকবে না।

সচলের প্রচ্ছদশিল্পীদের কাছেও একই সাথে অনুরোধ রইলো, একটি দুর্দান্ত সাদা-কালো প্রচ্ছদ সৃজনের।

সচল থাকুন, সচল রাখুন!

ধন্যবাদ।


সংযোজন ১.

অনেকেই শব্দসীমা জানতে চেয়েছেন। শব্দসীমা ২,৪০০ শব্দ, অর্থাৎ স্ট্যান্ডার্ড বইয়ের পাতায় ৮ পাতা, তবে আরো স্বল্পায়তন লেখা অধিকতর গ্রহণযোগ্য। বানানের ব্যাপারে যত্ন নেয়ার অনুরোধ করা যাচ্ছে, প্রয়োজনবোধে কারো সাহায্য নিয়ে লেখাটির বানানপ্রমাদ সংশোধন করে পাঠাতে পারেন।


সংযোজন ২.

আশানুরূপ সংখ্যায় কল্পবিজ্ঞান গল্প সংকলকদের হাতে এসে পৌঁছায়নি। কয়েকজন সচলের অনুরোধে লেখা পাঠানোর সময়সীমা জুন ১৫, ২০১০ পর্যন্ত বাড়ানো হলো। আপনাদের কাছ থেকে সত্বর সুলিখিত সব গল্পের প্রত্যাশা করে আছেন সংকলকবৃন্দ। ধন্যবাদ।


মন্তব্য

অতিথি লেখক এর ছবি

শুনে অনেক ভাল লাগল,আমিও একটি লেখা পাঠানোর কথা ভাবছি দেঁতো হাসি

রণদীপম বসু এর ছবি

সায়েন্স ফিকশন কেমনে লিখে গো দাদা ? ইশ্, যদি লিখতে পারতাম !

-------------------------------------------
‘চিন্তারাজিকে লুকিয়ে রাখার মধ্যে কোন মাহাত্ম্য নেই।’

-------------------------------------------
‘চিন্তারাজিকে লুকিয়ে রাখার মধ্যে কোন মাহাত্ম্য নেই।’

আনোয়ার সাদাত শিমুল এর ছবি

চলুক

দ্রোহী এর ছবি

চলুক

নীড় সন্ধানী এর ছবি

‍‌কোন শব্দ লিমিট আছে নাকি? আমার একটা সায়েন্স ফিকশন সিরিজ আছে, গল্প হিসেবে একটু বড় হয়ে যায় সাইজে। তাই সর্বাধিক কত শব্দ পর্যন্ত দেয়া যাবে জানা দরকার।

-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-
সেই সুদুরের সীমানাটা যদি উল্টে দেখা যেত!

‍‌-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.--.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.
সকল লোকের মাঝে বসে, আমার নিজের মুদ্রাদোষে
আমি একা হতেছি আলাদা? আমার চোখেই শুধু ধাঁধা?

জি.এম.তানিম এর ছবি

দারুণ! মঙ্গলগ্রহ থেকে ফেরত এসেই লেখার কাজে হাত দিব। দেঁতো হাসি
-----------------------------------------------------------------
কাচের জগে, বালতি-মগে, চায়ের কাপে ছাই,
অন্ধকারে ভূতের কোরাস, “মুন্ডু কেটে খাই” ।

-----------------------------------------------------------------
কাচের জগে, বালতি-মগে, চায়ের কাপে ছাই,
অন্ধকারে ভূতের কোরাস, “মুন্ডু কেটে খাই” ।

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

বিজ্ঞান কি আমারে সমর্থন করে?

মন খারাপ

এইখানে আমি কেবলই পাঠক... তবে উদ্যোগের প্রতি শুভেচ্ছা রইলো
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

মাহবুব লীলেন এর ছবি

আমি একজন নির্জলা পাঠক আগাম পাঠক হয়ে রইলাম
ওই কম্ম আমাকে দিয়ে হবার নয়

অতিথি লেখক এর ছবি

লেখার আশা রাখি

হাফিজ

ধুসর গোধূলি এর ছবি
জেবতিক রাজিব হক এর ছবি

'বিজ্ঞান দিয়াছে বেগ, কেড়ে নিয়াছে আবেগ।'
আবেগহীন লেখা পাষান লোকের কর্ম, তাই...

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

প্রশ্ন আছে কিছু।

১। কোন শব্দ সংখ্যা নির্দিষ্ট করা আছে ??
২। সাইফাই গল্পের কোন নির্দিষ্ট ক্রাইটেরিয়া কী আছে ?? না কি, যেই গল্পটা আমার কাছে সাইফাই বলে মনে হচ্ছে , সেই ধরণের যে কোন লেখাই প্রেরণযোগ্য ??

_________________________________________

সেরিওজা

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

চলুক
হয়তো লেখা হবে না। তবুও একবার চেষ্টা করে দেখবো হয়তো। উদ্যোগের জন্য সাধুবাদ জানাই।

অপেক্ষায় থাকলাম সংকলনের।

জুলিয়ান সিদ্দিকী এর ছবি

চিন্তিত
.
___________________________________________
ভাগ্যিস, আমার মনের ব্যাপারগুলো কেউ দেখতে পায় না!

___________________________
লাইগ্যা থাকিস, ছাড়িস না!

ফারুক হাসান এর ছবি

অবশ্যই একটা লিখবো।
অন্যান্য সংকলনের মত হয়তো অনেক লেখা পাওয়া যাবে না। কিন্তু তাই বলে যেন সংকলন থেমে না থাকে।
যারা বলছেন সাইন্স ফিকশন লিখতে পারেন না, তারা আসলে এই বলে গা বাঁচাচ্ছেন চোখ টিপি
জাফর ইকবাল ধাঁচের গল্পই যে লিখতে হবে তা তো আর না। লীলেন ভাই, নজরুল ভাই আপনারা ভিন্ন ধাঁচের শুরুটা করে দিন, এই সংকলন থেকেই না হয় 'সায়েন্স বেশি ফিকশন কম' প্রথাটা ভেঙ্গে ফেলুন।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- আরও একটা ই-বই প্রকাশের কথা আছে সচলে। কলেজের দিনগুলি নিয়ে সেই ই-বুকেও লেখা পাঠানোর জোর সুপারিশ করে গেলাম এখানে।

বই-এ লেখা প্রকাশ করতে জনগণের এতো অনীহা কেনো! চিন্তিত
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

হিমু এর ছবি

লিখছি একটা। যথারীতি খাচ্চর খাচ্চর কথা দিয়ে বোঝাই সামান্য সায়েন্স আর বোন্দা বোন্দা ফিকশন। নাম "তারপরে কী হইল জানে শ্যামলাল"। নায়ক আচার্য ঘনমূলানন্দ।

বই ছাপা হচ্ছে কোত্থেকে? কয় ফর্মা হচ্ছে? কিনতে পাওয়া যাবে কোথায়?



বুকে BOOK রেখে বন্ধু চলো আজ যাবো বরাহশিকারে মোরা ধার ধার ধার দিও বল্লমে ♪♫

দ্রোহী এর ছবি

"তারপরে কী হইল জানে শ্যামলাল"!!!!!!!!!! হা হা হা....

নায়কের নাম আচার্য ঘনমূলানন্দ? হা হা হা হা

কার কথা যেন মনে পড়ে গ্যালো।

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

ইশ্ আমি যদি সাইফাই লিখতে পারতাম!

বোহেমিয়ান এর ছবি

লেখা কি একটি ই পাঠাতে পারব? নাকি একাধিক?

লিখে ফেলুন একটি কল্পবিজ্ঞান-গল্প। (মনে হচ্ছে একটি ই মন খারাপ )

একাধিক গল্প পাঠানোর সুবিধা থাকলে ভালো হয় হাসি

_________________________________________

_________________________________________
ওরে! কত কথা বলে রে!

অতিথি লেখক এর ছবি

আমি তো এখনো অতিথি
তো অতিথি রা কি লিখতে পারবে ??

বাংলা এর ছবি

আশা করি এবং অপেক্ষায় থাকি।

সাইফুল আকবর খান এর ছবি

সাইফাই লেখার মতো হাইফাই বৈজ্ঞানিক লোক আমি না। আমি লিখবো না, তবে পড়ার আশা আর অপেক্ষায় রইলাম বৈকি। লেখকসকল আর প্রকাশায়তনের জন্য সাধুবাদও রইলো।
কিন্তু, অবৈজ্ঞানিক একটা প্রশ্ন এইবারও সামলাইতে পারতেছি না আমি। কবিতার সেই প্রাগৈতিহাসিক প্রকাশিতব্য ই-বই-টার সাথে কী ঘটলো আসোলে?! প্রশ্নটা সন্দেশ-রে একবার হালকা ক'রে জিজ্ঞেস করছিলাম ১৮৫৩ সালের দিকে, উত্তর পাইনাই। সেই বইয়ের সম্পাদন-দায়িত্বপ্রাপ্ত শ্রীমান সুমন চৌধুরী-রেও ১৯৬৭ সালের দিকে জিজ্ঞেস করছিলাম একবার, কিন্তু তিনিও এই প্রশ্নটারে জবাবের আবশ্যক বা কাবিল মনে করেননাই নিশ্চয়ই। আজকে আবার তাই একটা নির্লজ্জ হাত তুললাম এইখানে। কারণ, সচলায়তন-রে যদি লজ্জা করি, তাইলে গাল তো সারাজীবন লাল বানায়ে মুখও রাখতে হইবো সব জায়গায় সব সময় কমপ্লিটলি বন্! চোখ টিপি

___________
সবকিছু নিয়ে এখন সত্যিই বেশ ত্রিধা'য় আছি

___________
সবকিছু নিয়ে এখন সত্যিই বেশ ত্রিধা'য় আছি

সুমন চৌধুরী এর ছবি

২০১০ এ পাবেন দাঁতভাঙ্গা জবাব।



অজ্ঞাতবাস

সাইফুল আকবর খান এর ছবি

ঠিকাছে। আট মাস অপেক্ষা করতেছি তাইলে! চোখ টিপি দেঁতো হাসি
কিন্তুক, ভাঙ্গনের লেইগ্যাও এই আমার দাঁতগুলাই পাওয়া গ্যালো, না?!

___________
সবকিছু নিয়ে এখন সত্যিই বেশ ত্রিধা'য় আছি

___________
সবকিছু নিয়ে এখন সত্যিই বেশ ত্রিধা'য় আছি

চেনা পথিক [অতিথি] এর ছবি

প্রথম দিন খবরটা দেখে এত্তো খুশি হয়েছি, কিন্তু আজ হঠাৎ মনে আসল--"আমি তো লেখাগুলো শুধু পড়তেই পারবো, কিন্তু আমার নিজের কোন লেখা জমাও দিতে পারব না!!!!!!! :-s"
সুতরাং, এখন হেল্প দরকার-- কীভাবে লেখা পাঠানো যাবে- এই ব্যপারে।
আশা করি 'সচলায়তন' সাহায্য করতে দ্বিধা করবে না। হাসি

ফারাবী [অতিথি] এর ছবি

অতিথিদের লেখা কি গ্রহণযোগ্য বিবেচিত হবে?

নীল-মডু এর ছবি

নিশ্চয়ই।

অছ্যুৎ বলাই এর ছবি

সায়েন্স ফিকশন লেখার চেষ্টা কখনো করি নাই। আমার কাছে, এটা হয় সায়েন্স একেবারেই না জানাদের কাজ অথবা ভালো জানাদের কাজ, আমার মতো আধা-জানাদের জন্য সমস্যা। তবে এবার একটা টেরাই দেবো। ট্রাজিক-কমেডিটাইপের কিছু লেখা যেতে পারে, যাতে প্রেম অবশ্যই থাকতে হবে। ভিলেন বিজ্ঞানীর নিষ্ঠুর বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা থেকে বাঁচাতে এলিয়েন-মানবীর সাথে নায়কের প্রেম, নায়িকার মানাভিমান, তারপর উড়ন্ত সসারে তার ফিরে যাওয়া 'আপন' দেশে, কান্নাভেজা চোখ, তারপরে উহারা সুখে-শান্তিতে .... ইদানিং 'লাইফ আফটার পিপল' সিরিজ দেখছি খুব মনোযোগ দিয়ে, ওখান থেকে কিছু টুকলিফাই করা যেতে পারে। কিংবা লেখা যেতে পারে সেই বর্ণচোরা গিরগিটি নিয়ে, যে শুধু গাছের পাতাই নয়; বরং হাওয়ার বর্ণও ধারণ করতে পারে, মিলিয়ে যেতে পারে চোখের নিমিষে, গল্পের শেষে দেখা যাবে সে আসলে গিরগিটিই নয়; বাংলাদেশের কোন জব্বর বিজ্ঞানীর আবিষ্কৃত স্পাই রোবোট, দেশের তথ্য পাচার রোধে কোনো ডিজিটাল প্রাইমিনিস্টারের আদেশে বানানো গোপন প্রোজেক্টের ফসল। অথবা সেই চকোরের চাঁদের আলো খাওয়া কনসেপ্ট নিয়েই বা লিখি না কেন? দেশে গ্যাস নাই তো কি হয়েছে, আমদানীর বিদ্যুৎ কোন কামে লাগবে, আমাদের কোনো কচি চাঁদের আলো থেকেই না হয় বিদ্যুৎ বানাবে, সেই বিদ্যুৎ থেকে হাওয়া পরিশোধন করে বানানো হবে পানি, তা দিয়ে ফসল চাষ হবে, সুজলা-সুফলা-শস্য-শ্যামলা হবে আবার বাংলাদেশ।

সায়েন্সের চাইতে সায়েন্স ফিকশনই বেশি কঠিন। আহ! সবকিছুই যদি শূন্য থেকে সৃষ্টি করা যেত!

---------
চাবি থাকনই শেষ কথা নয়; তালার হদিস রাখতে হইবো

পুতুল এর ছবি

কোন কিছুই তো ভাল পারি না। কিন্তু চেষ্টা করতে অসুবিধা কী? দেখি কিছু লেখা হয় কী না। কল্প বিজ্ঞান বহুত কঠিন! চেষ্টা করবো।
**********************
ছায়া বাজে পুতুল রুপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কি দোষ!
!কাঁশ বনের বাঘ!

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

অতিথি লেখক এর ছবি

শুভ কামনা থাকল।।

অতিথি লেখক এর ছবি

শুভ কামনা থাকল।।

লীন এর ছবি

লিখতে পারি না। কাজেই পড়ার অপেক্ষায় রইলাম। শুভকামনা রইলো সচলায়তন ও লেখকদের প্রতি।
______________________________________
ভাষা উন্মুক্ত হবেই | লিনলিপি

গৌতম এর ছবি

না, অনেক চেষ্টা করেও কিছু লিখতে পারলাম না। আমি বাদ। সায়েন্সের সাথে ফিকশনটা মেলানো সত্যিই কঠিন লাগছে! মন খারাপ

এখন শুধু অন্যদের লেখা পড়ার জন্য অপেক্ষা করছি। চমৎকার চমৎকার কিছু লেখা শিগগিরই পড়া হচ্ছে- এই আশায় বসে আছি। হাসি

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

শিক্ষাবিষয়ক সাইট ::: ফেসবুক

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

তুলিরেখা এর ছবি

প্রকাশায়তন,
পেলেন কি? জিমেলের থেকে পাঠিয়েছিলাম।
থ্রী বিস্কুটিয়ার্স, একটু জানাবেন ফিরতি মেইলে?
সঙ্কলনের জন্য শুভেচ্ছা রইলো।
-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- যাক। সময়সীমা একটু বাড়াতে চেষ্টাটা করা যেতে পারে। এমনিতে তো আগে থেকে বিষয় দেখিয়ে দিলে লিখতে গিয়ে কাটা পাতলা দেই। তাও দেখি এইবার, খাচড়া খাচড়া কথার সাথে নুন, চুন আর আমের কষের জোড়াতালি দিয়ে একটা 'চাইন্চ-পিকশন' লিখে ফেলতে পারি কিনা!

বিশেষভাবে বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ আমার লেখায় সাইন্স আর ফিকশন খোঁজা বৃথা। তবে খাচড়া কথা পড়তে চাইলে সু-স্বাগতম। দেঁতো হাসি

ইয়া হাবিবি
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

মূলত পাঠক এর ছবি

সময়সীমা বাড়ানোর অর্থ উপরের মন্তব্যে যাঁরা সব প্রতিশ্রুত হয়েছেন তাঁদের অনেকেই লেখা পাঠান নি। আমি এই ভয়েই পাবলিকলি কিচ্ছু বলি না লেখা নিয়ে হাসি

কিন্তু যাঁরা বলে ফেলেছেন তাঁরা সবাই পাঠান। অনেক গল্প থাকে যেন। বই পড়বো যখন, তখন যেন একটু মোটাসোটা হয়, মাইক্রোচিপের মাপের হলে মুশকিল।

মঈনুল ইসলাম [অতিথি] এর ছবি

যারা লেখা পাঠাচ্ছেন, তাদেরকে ফিরতি মেইলে প্রাপ্তি সংবাদ জানালে খুব ভালো হয়। কারণ ইতোমধ্যে অনেকবার এমন হয়েছে যে, প্রাপক মেইলটা পাননি। তখন আরেকবার পাঠাতে হয়। কিন্তু prakashayatan নীরব থাকলে না লেখক উৎসাহ পান, আর না কাজ এগোয়। কী মনে হয়?
নয়ন
______________________________
অন্তহীন এ পথের শেষে
আছে কী যে লুকিয়ে বসে
দেখতে আমি চাই...

অতিথি লেখক এর ছবি

আমি চরম কম্পুকানা, তাই একটা বোকা-বোকা প্রশ্ন করতেছি...ব্লগ লেখার পর প্রকাশ করার জন্য জমা দেবো কেম্নে? নিচে লেখা থাকে প্রিভিউ এবং সংরক্ষণ , কিন্তু প্রকাশের জন্য জমা দেয়ার অপশন কোনটা বুঝতেছিনা। দয়া করে কি বলবেন?

অতিথি লেখক এর ছবি

আমিও বিষয়টা ঠিক বুঝি নি।

মূলত পাঠক এর ছবি

"ব্লগ লেখার পর প্রকাশ করার জন্য জমা দেবো কেম্নে? নিচে লেখা থাকে প্রিভিউ এবং সংরক্ষণ , কিন্তু প্রকাশের জন্য জমা দেয়ার অপশন কোনটা বুঝতেছিনা।"

এই প্রশ্নের উত্তর এখনো না পেয়ে থাকলে বলি, প্রিভিউ বোতাম টিপলে লেখাটা প্রকাশ হলে কেমন দেখাবে সেইটা দেখতে পাবেন। সেখানে বানান, প্যারাভাগ ইত্যাদি চেক করে নেবার সুযোগ থাকে প্রকাশ করার আগে। ঐ প্রিভিউতে দেখে নিয়ে নিচের লেখার অংশে পরিবর্তন করে নিন, তারপর সংরক্ষণ বোতাম টিপুন। লেখাটি এইবার জমা পড়লো, মডারেশনের চোখে প্রকাশযোগ্য বিবেচিত হলে তা কিছুক্ষণ পরে নীড়পাতায় আসবে।

সাইফাই সংকলনে দেওয়ার পদ্ধতি এটা নয়, তার কথা এই পোস্টেই আছে।

অতিথি লেখক এর ছবি

আমি একটা ফিকশন অব সায়েন্স পাঠাইলাম কাল।এখন ও জবাব পাই নি। গেল কি গেল না সন্দেহ লাগছে।

অতিথি লেখক এর ছবি

আপনার লেখা সঙ্কলকদের কাছে পাঠানো হয়েছে এরকম একটা মেইল পাইলাম।

অতিথি লেখক এর ছবি

আপনার লেখা সঙ্কলকদের কাছে পাঠানো হয়েছে এরকম একটা মেইল পাইলাম।

মহাস্থবির জাতক এর ছবি

ইয়ে, অতীব দুর্বল একটা লেখা পাঠিয়েছিলাম, কিন্তু কেউ পেলেন কি পেলেন না, সেটা তো আর জানলাম না।

কী হলো আমার ওই বাজে লেখাটার???
_______________________________
খাঁ খাঁ দুপুরে, গোধূলিতে আর রাতে বুড়ি পৃথিবী
কেবলই বলছে : খা, খা, হারামজাদা, ছাই খা!

(ছাই: মণীন্দ্র গুপ্ত)

_______________________________
খাঁ খাঁ দুপুরে, গোধূলিতে আর রাতে বুড়ি পৃথিবী
কেবলই বলছে : খা, খা, হারামজাদা, ছাই খা!

(ছাই: মণীন্দ্র গুপ্ত)

অতিথি লেখক এর ছবি

অপেক্ষা করছি

অতিথি লেখক এর ছবি

আমার লেখা প্রায় শেষ। আমি ১৭ তারিখের মধ্যে দিতে পারবো। জানি না নিবেন কিনা। তবে পাঠাবো।
পলাশ রঞ্জন সান্যাল

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।