ফন্টের খুঁটিনাটি : পর্ব ১

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: বিষ্যুদ, ০৬/০৫/২০১০ - ৭:১২পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

কিভাবে ফন্ট তৈরী হয় তা নিয়ে মানুষের কৌতূহলের অন্ত নেই। আমাকে প্রায়ই এধরণের প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়। পড়ে প্রক্রিয়াটা বুঝিয়ে বললে আর কৌতূহলটা থাকেনা। প্রত্যুত্তর শোনা যায়, "থাক বাবা, আমার ফন্ট বানিয়ে কাজ নেই"। কিন্তু আগ্রহী মানুষ সবসময়ই পাওয়া যায়।
তাই প্রথমেই বলে রাখছি, ফন্ট বানানোটা সবার জন্য সুখকর কাজ নাও হতে পারে।
আসুন একনজর দেখে নেই একটা ফন্ট বানাতে কি কি লাগে-

১. টাইপোগ্রাফী সম্পর্কে মোটামুটি ধারণা।
২. বাংলা যুক্তাক্ষর নিয়ে ভালো ধারণা।
৩. ভেক্টর গ্রাফিক্স নিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা (এ্যাডব ইলাস্ট্রেটর, ইঙ্কস্কেপ ইত্যাদি)।
৪. প্রয়োজনীয় সফ্টওয়্যার (ফন্টল্যাব স্টুডিও/ ফন্টফোর্জ/ ফন্ট ক্রিয়েটর, ভোল্ট ইত্যাদি)।
৫. অসীম ইচ্ছাশক্তি ও অপার্থিব ধৈর্য। (এই পয়েন্টটা পরে ব্যখ্যা করব)

এবার বাংলা ফন্ট বানানো শুরুর আগে যেসব ব্যাপার জানা থাকা জরুরী সেগুলোর দিকে আলোকপাত করছি।

ইউনিকোড ফন্টের সাথে আসকি(ASCII) ভিত্তিক ফন্টের পার্থক্য:
আসকি ভিত্তিক ফন্টে রোমান অক্ষরগুলোকে প্রতিস্থাপন করে বাংলা অক্ষর বসানো হয়। বিজয়, প্রশিকাশব্দ এসব পুরোনো সফ্টওয়্যারগুলোতে এসব আসকি ভিত্তিক ফন্ট ব্যবহার করে বাংলা লিখতে হতো। এই ব্যবস্থায় কম্পিউটার বুঝতে পারেনা এটা যে বাংলা ভাষা, কারণ তার কাছে অক্ষরগুলো রোমান। যুক্তাক্ষর তৈরী করতেও এর সংশ্লিষ্ট সফটওয়্যারটি প্রয়োজন হয় (যেমন, সুতন্বীর জন্য বিজয়)।
ইউনিকোডে বাংলার প্রত্যেকটি অক্ষরের জন্য পৃথক জায়গা ও ক্রম দেয়া হয়েছে। সেই ক্রম থেকেই কম্পিউটার বুঝতে পারে অক্ষরগুলো ভাষা বাংলা কিনা। এতে করে সার্চিং, সর্টিং, স্পেলচেক জাতীয় সব সুবিধা পাওয়া যায়। ইউনিকোড ফন্টের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো যুক্তাক্ষর তৈরী হয় ফন্ট থেকে। এর মানে কোন অক্ষরের পর কোন অক্ষর বসলে সেটা দেখতে কেমন হবে এই নির্দেশনা ফন্টে দেয়া থাকে। এটা ওপেনটাইপ ফন্টের(otf) ফিচার যেটা এখন ট্রুটাইপ ফন্টেও(ttf) যোগ করা যায়। আপনি অভ্র, গুগল বা উইন্ডোজের ডিফল্ট কিবোর্ড যা দিয়েই লিখুননা কেন ফন্টে কোন যুক্তাক্ষর না দেয়া থাকলে আপনি তা ঠিকমতো দেখতে পারবেন না। আবার একই ফন্ট দিয়ে আপনি উইন্ডোজ, লিনাক্স, অভ্র, গুগল যে কোন ব্যবস্থায় লিখতে পারছেন, নির্দিষ্ট কোন সফটওয়্যারের প্রয়োজন নেই। আরেকটি বড় সুবিধা হল বাংলা ফন্টেই যদি আপনি ইংরেজি অক্ষরগুলো যুক্ত করে দেন তাহলে লেখার সময় ফন্ট পরিবর্তন না করেই শুধুমাত্র কিবোর্ড মোড পরিবর্তন করে বাংলা ইংরেজি পাশাপাশি লিখতে পারবেন।

ইউনিকোডে বাংলা অক্ষরগুলো কিভাবে বিন্যস্ত তা দেখতে পাবেন এই পিডিএফে- http://www.unicode.org/charts/PDF/U0980.pdf

ভেক্টর গ্রাফিক্স:
ফন্ট ডেভেলপমেন্টে ভেক্টর গ্রাফিক্স জানাটা বাধ্যতামূলক। একটা ব্যাপার আপনারা সবাই লক্ষ্য করেছেন যে লেখার সময় ফন্টের সাইজ যত বড়ই করা হোক না কেন তার কোয়ালিটি একই(একদম মসৃণ) থাকে। আপনারা যারা ভেক্টর গ্রাফিক্স নিয়ে কাজ করেছেন তারা হয়তো ব্যাপারটা ইতোমধ্যেই আন্দাজ করে ফেলেছেন যে কেন ভেক্টর গ্রাফিক্স বাধ্যতামূলক? ঠিক ধরেছেন, ফন্টের অক্ষরগুলো তৈরী হয় ভেক্টর গ্রাফিক্সে। যারা ভেক্টর গ্রাফিক্স নিয়ে কাজ করেননি তাদের জন্য কাজটা একটু কঠিন হবে, তবে ভয় পাবার কিছু নেই। ভেক্টর গ্রাফিক্স আর বিটম্যাপের পার্থক্যটুকু জেনে নিয়ে এডোব ইলাস্ট্রেটর অথবা ইঙ্কস্কেপে হাত পাকিয়ে নিন। ভেক্টরে কি করে আঁকতে হয় সেটা বুঝতে পারলেই চলবে।

ভেক্টর গ্রাফিক্স সম্পর্কে উইকি- http://en.wikipedia.org/wiki/Vector_graphics

হিন্টিং:
এটা অপরিহার্য কিছু নয়। তারপরেও হিন্টিং ফন্টের খুব গুরুত্বপূর্ণ অংশ।
একটি সুন্দর ফন্ট বানানোর পর সেটা যে স্ক্রিনেও দেখতে ভালো হবে, এ ব্যপারে আপনি নিশ্চিত হতে পারবেন না। কারণ, ফন্টটি ব্যবহারের সময় এর সাইজ যত ছোট করবেন সেটা তত readability হারাবে। আপনার ফন্টটা যদি স্ক্রিনে পড়াই না গেল তাহলে আপনার শ্রম অনেকাংশেই বৃথা। ফন্টের readability বাড়াতেই হিন্ট করতে হয়। হিন্ট করা মানে হল ছোট সাইজে অক্ষরগুলো দেখতে কেমন হবে সেটা পিক্সেল ধরে ধরে ঠিক করে দেয়া। কাজটা যথেষ্ট শ্রম, ধৈর্য ও সময় সাপেক্ষ।
প্রিন্টের জন্য কিন্তু হিন্টিং এর প্রয়োজন নেই।

প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার:
>ভেক্টর আঁকার জন্য:
-এডোব ইলাস্ট্রেটর- http://www.adobe.com/products/illustrator/
অথবা,
-ইন্কস্কেপ- http://www.inkscape.org/
>ফন্ট তৈরীর জন্য:
-ফন্টল্যাব স্টুডিও- http://www.fontlab.com/font-editor/fontlab-studio/
অথবা,
-ফন্ট ক্রিয়েটর- http://www.high-logic.com/fontcreator.html
অথবা,
-ফন্টফোর্জ- http://fontforge.sourceforge.net/
-মাইক্রোসফ্ট ভোল্ট- http://www.microsoft.com/typography/volt.mspx

অসীম ইচ্ছাশক্তি ও অপার্থিব ধৈর্য কেন প্রয়োজন?
আপনি বাংলার জন্য ইউনিকোডের একটি ফন্ট বানাতে চাইলে আপনাকে ৪০০-৫০০ অক্ষর (এর বিরাট অংশ যুক্তাক্ষর) নিয়ে কাজ করতে হবে। অক্ষর তৈরীর পর যদি ফন্ট হিন্টিং করতে চান তবে সেগুলোকে ধরে ধরে ৪-৬টি সাইজের জন্য হিন্ট করতে হবে। পরে ফন্টটিতে ওপেনটাইপ টেবল যোগ করতে হতে পারে যাতে করে সে যুক্তাক্ষরগুলো তৈরী করতে পারে।
এই তিন লাইন দিয়ে ফন্ট বানানোর পুরো প্রক্রিয়াটা বলে দেয়া হলো। তিন লাইন হলেও খাটুনিটা ঠিকই টের পাচ্ছেন নিশ্চয়ই?

আজকের পর্বটা এখানেই শেষ করতে চাই। আমি বরং আপনাদের পড়াশোনার জন্য আরও কিছু লিংক দিয়ে যাই।

>ওপেনটাইপ ফন্ট আর ট্রুটাইপ ফন্টের পার্থক্য-
http://www.yearbooks.biz/?event=FAQ.Detail&faq=2
http://blogs.adobe.com/typblography/TT%20PS%20OpenType.pdf
>বাংলার জন্য মাইক্রোসফট টাইপোগ্রাফির ডকুমেন্টেশন-
http://www.microsoft.com/typography/OpenType%20Dev/bengali/intro.mspx
>জ্ঞানার্জনের প্রথম হাতিয়ার-
http://www.google.com
>জ্ঞানার্জনের দ্বিতীয় হাতিয়ার-
http://en.wikipedia.org

এতক্ষণ ধৈর্য নিয়ে পড়ার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। পরবর্তী পর্বে আরেকটু বেশি খুঁটিনাটি নিয়ে আলোচনা করবো।

মো. তানবিন ইসলাম সিয়াম
ফন্ট ডেভেলপার, অমিক্রনল্যাব

http://potasiyam.wordpress.com


মন্তব্য

শুভাশীষ দাশ এর ছবি

ব্যাপক।

----------------------------------------------------------------------
অভ্র আমার ওংকার

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

অনেক আগে একবার হিন্টিং নিয়ে সময় নষ্ট করেছিলাম। তখন স্বতন্ত্র একটা ফন্ট তৈরীর প্রকৃয়ার সাথে জড়িত হয়েছিলাম। পরবর্তীতে আর এগুনো হয়নি। উদ্যোগের সাথে থাকার ইচ্ছে আছে।

...............................
নিসর্গ

খেকশিয়াল এর ছবি

দারুণ! পরের পর্ব শিজ্ঞির... চলুক

------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

-----------------------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

সাইফ তাহসিন এর ছবি

ভাইরে, আপনার আর আপনার লেখার ভক্ত হইয়া গেলাম। খুবই জরুরী লেখা!

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

=================================
বাংলাদেশই আমার ভূ-স্বর্গ, জননী জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী

লীন এর ছবি

একটু ভয় পেলেও আগ্রহ হারাইনি।
পরের পর্বের আশায় থাকলাম।

______________________________________
ভাষা উন্মুক্ত হবেই | লিনলিপি

অতিথি লেখক এর ছবি

দারুন হইসে সিয়াম, পরের পর্বের অপেক্ষায় থাকলাম।

অতিথি লেখক এর ছবি

চমৎকার পোস্টটার জন্য ধন্যবাদ সিয়াম ভাই। এমনিতেই আপনার অমিক্রনল্যাব ফোরামে করা সাহায্য এবং সর্বোপরি সিয়াম রুপালি ফন্টের জন্য আপনার ভক্ত হয়ে আছি।

কৌস্তুভ

তাসনীম এর ছবি

চলুক

পরের পর্বের অপেক্ষায়...
++++++++++++++
ভাষা হোক উন্মুক্ত

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

দ্রোহী এর ছবি

দারুণ!!!!!!!!!!!!!!!

অনেক কিছু জানলাম।

মূলত পাঠক এর ছবি

অসাধারণ! এমন বিষয় নিয়ে লেখা, তাও একেবারে আসল শিল্পীদের একজনের হাত থেকে, পাঠক হিসেবে ভাগ্যবান মনে করছি নিজেদেরকে।

ইশতিয়াক রউফ এর ছবি

রূপালিতে কিছু যুক্তাক্ষর ঝামেলা করে মাঝে মাঝে। এজন্য বিশেষ কিছু করণীয় কি?

দুর্দান্ত রকম প্রিয় একটা ফন্ট তৈরির জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ ও অভিনন্দন। শৈলী নেই, তবে আগ্রহ আছে অনেক। অপেক্ষায় রইলাম পরের পর্বের জন্য।

সিয়াম এর ছবি

সিয়াম রূপালির নতুন সংস্করণে সমস্যাগুলো নেই। হয়তো আর কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে।

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

সিয়াম,
প্রথমে অসংখ্য ধন্যবাদ সিয়াম রূপালী ফন্টের জন্য! আর এই ধরণের আর্টিকেল যে লংটার্মে কী উপকার করবে তা ভাষায় বোঝানোর নেই।

১। ডিভাইড এন কনকার: ৫০০ অক্ষর বানাতে ১০ জন লোক কাজে লাগানো যায় না? তাহলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যায়।

২। স্যাম্পল: ফন্ট প্রজেক্টের ফাইলগুলি ওপেন সোর্স করে দেয়া যায় না? তাহলে সহজেই নতুন কেউ জাম্প স্টার্ট করতে পারবে। সেই সাথে এই টিউটোরিয়ার সিরিজটাও অনেক কাজে আসবে।

৩। ফন্টের প্রিন্টযোগ্যতা কীভাবে বাড়ানো যায়? সিয়াম রূপালীর কিছু সমস্যা ছিল, সেগুলো সারানোর জন্য কী করা যায়?

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

সিয়াম এর ছবি

ধন্যবাদ ভাইয়া। সময়ের অভাবে বিস্তারিত বলতে পারছিনা। পরবর্তী পোস্টে তুলে ধরার চেষ্টা করবো।

বর্ষা এর ছবি

এই ব্যাপারটি নিয়ে জানার আগ্রহ ছিলো অনেকদিন। অনেক ধন্যবাদ লেখার জন্য।

********************************************************
আমার লেখায় বানান এবং বিরাম চিহ্নের সন্নিবেশনের ভুল থাকলে দয়া করে ধরিয়ে দিন।

********************************************************
আমার লেখায় বানান এবং বিরাম চিহ্নের সন্নিবেশনের ভুল থাকলে দয়া করে ধরিয়ে দিন।

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

আচ্ছা আমি বাংলা টাইপিংয়ের কয়েকটা সমাধান ভেবে রেখেছি। অপ্রাসঙ্গিক হলেও বলে রাখি:

১। র-ফলা সমস্যার সমাধান:
১ক। অবজারভেশন থেকে একটা বিষয় লক্ষ্য করা যায় যে কার্য লিখতে আমরা ক-আকার-য-রফলা ব্যবহার করি। কখনই ক-আকার-র-হসন্ত-য লিখি না। অর্থাৎ র-হসন্ত-য একটা অব্যবহৃত প্যাটার্ন।

১খ। সমাধান হচ্ছে য-ফলা টাইপ করলে, তার আগে র আছে কিনা দেখা। যদি র থাকে তাহলে র-ZWJ-য-ফলা বসানো ঠিক হবে।

১গ। ব্যতিক্রম পাইনি।

২। গোল্লা অক্ষরের সমাধান:
যদি স্বরবর্ণ এবং নুক্তা অক্ষরের আগে কোন ব্যঞ্জনবর্ণ না থাকে তাহলে ZWJ সহযোগেই স্বরবর্ণ এবং নুক্তা রিপ্লেস করা।

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

অতিথি লেখক এর ছবি

ফোনেটিক লেখা নিয়ে আমারও একটা অফটপিক প্রশ্ন:

ষ লিখতে তিনটে কি চাপতে লাগে - শিফট, স আর হ। শিফট+স আর স+হ দুটোতেই শ না করে শিফট+স কে ষ করা যায় না? আগে ছ লিখতে সি+হ+হ লাগত, নতুন অভ্রয় একটা কি কমানো হয়। এখানেও তেমন করা যায় না?

কৌস্তুভ

সিয়াম এর ছবি

১ক। ঠিক বুঝলামনা। ক-আকার-য-রফলা হলে তো বানানটা কায্র হয়ে যায়। সম্ভবত ক-আকার-র-যফলা লিখতে চেয়েছেন। তাতেও কিন্তু সমস্যা থেকেই যায়। কারণ, যফলা=হসন্ত-য, একারণে ক-আকার-র-যফলা=ক-আকার-র-হসন্ত-য।

১খ। এটা সমাধানটা কিন্তু অভ্রতে ব্যবহার করা হয়েছে।

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

রেফের কথা বলতে চাইছিলাম।

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

সিয়াম এর ছবি

তাহলে ক-আকার-য-রেফ? কিন্তু ইউনিকোডে রেফ অক্ষরের আগে বসে, রেফ=র-হসন্ত।
অভ্র রেফ এর পজিশন স্বয়ংক্রিয়ভাবে ঠিক করতে পারে যদি old style reph ফিচারটা অন থাকে। ক-আকার-য-রেফ লিখলে হয়ে যায় ক-আকার-রেফ-য, যেটা প্রকৃতপক্ষে ক-আকার-র-হসন্ত-য। সমস্যাটা কিন্তু রয়েই গেল।

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

old style reph ফিচারে ঠিক হয়ে যায় জানতাম না। আমি এভাবেই করার কথা ভাবছিলাম।

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

সিয়াম এর ছবি

আমার মনে হয় যফলার জন্য ইউনিকোডে আলাদা স্থান দেয়া উচিত। স্থায়ী সমাধান।

অতিথি লেখক এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ সিয়াম ভাই,

বাংলায় এমন একটা লেখা দরকার ছিল। কারন গুগলে এবিষয়ে কেউ সার্চ করলে আপনার লেখাটি পাবে। নেটে ইংরেজিতে এমন লেখার ছড়াছড়ি। তারপরেও বাংলায় এমন লেখা দেখলে অনেক "পাগল"-ই আগ্রহী হয়ে উঠবে। আর ইউনিকোডে যে বাংলা ফন্টের অভাব রয়েছে, তা আমাদের সকলেই জানা। সেজন্যও এই টিউটোরিয়াল কাজ করবে। আর যেহেতু আপনি শুরু করেছেন, টিউটোরিয়ালটা কিন্তু শেষ করতেই হবে। একদম ফাঁকি দেবার চেষ্টা করবেন না। হুমম...

ভাল থাকবেন।

--- সাদাচোখ

নাশতারান এর ছবি

এই পোস্টের অপেক্ষায় ছিলাম। ফন্টল্যাব জোগাড় করেছি। অসীম ইচ্ছাশক্তি ও অপার্থিব ধৈর্য দুইই আছে। এখন হুট করে কেউ চাকরি না দিয়ে দিলেই হয়।

_____________________

আমরা মানুষ, তোমরা মানুষ
তফাত শুধু শিরদাঁড়ায়।

অগ্নিবীণা এর ছবি

অসম্ভব ভালো লাগলো পড়ে...পরের পর্বের প্রতীক্ষায় রইলাম!

নিনামা এর ছবি

অনেক ভাল লেখছিস,সিয়াম। তুই একদিন অনেক বড় ফন্ট শিল্পী হবি, এই প্রত্যাশা তোর কাছে।

মুস্তাফিজ এর ছবি

ধন্যবাদ লেখাটার জন্য। ভুলে যাওয়া ব্যারাম আবার শুরু হলো।

বুনো চলো কে কার আগে নামায় দেখি।

...........................
Every Picture Tells a Story

সিফাত এর ছবি

সিয়াম ভাই, আমি সিফাত । দুর্দান্ত একটা পোস্ট দিলেন । ক্যাম্পাস যদি এমনি করে আরো বন্ধ থাকে তাহলে আরো এগুবে আপনার কাজ । আমি একটা জিনিষ ফিল করেছি , বাসায় নাক ডেকে ঘুমানোর মধ্যেও অনেক কিছু শেখা যায় ।

সব মিলিয়ে অনন্য একটা পোস্ট , বাংলা ফন্ট আর লেখনী সফটওয়্যার নিয়ে যখন সবার মাতামাতি , তখনি আপনার একটা বুলেট উপহার ।

আচ্ছা , আপনার কাছ থেকে একটা বিষয় জেনে নিতে হবে । তা হলো ফটোশপে ইউনিকোডে বাংলা লেখার কোনো ব্যাবস্থা আছে কি ? আমি একটা প্লাগ-ইন পেয়েছিলাম , কাজ করছে না । আপনি যদি এখানেই তা জবাবে জানিয়ে দেন আমার সাথে আরও অনেকে উপকৃত হবে । ( তবে স্ক্রিনশট নিয়ে ইমেজ হিসেবে ইম্পোর্ট করাটা আমি পছন্দ করি না )

সিয়াম এর ছবি

সিফাত, ক্যাম্পাসতো খুলেই গেল রে! পরের পোস্টটা কয়দিনে শেষ করতে পারবো তা নিয়ে চিন্তায় আছি।
ফটোসপে ইউনিকোডে বাংলা লেখা নিয়ে ফেসবুকে একটা লিংক দিয়েছিলাম, আমার ওয়ালে আছে কিনা দেখতে হবে।

ShovoN এর ছবি

বেশী জোস্‌ সিয়াম । চালায়ে যা, পরবর্তী লেখার জন্য অপেক্ষায় রইলাম ...

দুর্দান্ত এর ছবি

শিরোনাম পড়ে ভেবেছিলাম নন্টে-ফন্টের ফন্টে নিয়ে গভীর কোন আলোচনা দেখবো। হতাশ!

সিয়াম এর ছবি

দুঃখিত।
নন্টে-ফন্টের কথায় ছেলেবেলার কথা মনে পড়ে গেল।

নিদ্রালু [অতিথি] এর ছবি

অসীম ইচ্ছাশক্তি ও অপার্থিব ধৈর্যের কোনটাই নেই তবে অনেক অনেক শুভকামনা থাকলো আপানার জন্যে। এই এধরণের একটা বিষয়ে আলকিত করার জন্যেও অনেক ধন্যবাদ। আমি নিশ্চিত এই একটা লেখায় অনেক নতুন ফন্ট সৈনিক তৈরী হবে।

অতিথি লেখক এর ছবি

দারুণ। অনেক আগে একটু ইচ্ছা ছিলো এরকম একটা কাজ করার। শেষ পর্যন্ত আর হয়ে ওঠে নি। ভেক্টর গ্রাফিক্সও পুরো শেখা হয় নি।

যাক, নতুন ফন্ট বানানো হোক। কিন্ত, সুতন্বীকে টেক্কা দেওয়ার মতো কেউ কিছু বানাচ্ছে না কেন অভ্রতে? সমস্যা হয় কিন্তু বেশ।

---মহাস্থবির---

সাহাদাত উদরাজী [অতিথি] এর ছবি

এ লেখাটি পড়লে মুস্তাফা কাগু'র হাট (রেফ লিখতে পারলাম না) ফেল মারবে!

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

আপনেই সেই সিয়াম রূপালী ফন্টের বানানেওয়ালা? স্যালুট বস... এই পোস্ট আমার কোন কাজে আসবে না। আমি মূর্খ্য মানুষ। কিন্তু আশাকরি অনেকেই এই লেখা পড়ে বাংলা ভাষার জন্য নতুন ফন্ট বানাবে।

আবারো স্যালুট
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

সুমন চৌধুরী এর ছবি

সাধু সাধু সাধু



অজ্ঞাতবাস

রানা মেহের এর ছবি

কীযে ভীষন ভালো লাগছে আপনার লেখা পড়ে।
আমি নিজে কোনদিন এসব পারবোনা।
তবে যাদের অনুপ্রেরনা দিলেন
তারা এগিয়ে যাক
-----------------------------------
আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস

-----------------------------------
আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস

পাঠক [অতিথি] এর ছবি

খুব কৌতুহল উদ্দীপক বিষয়। পুরো প্রক্রিয়ায় শিল্প আর প্রযুক্তির অসাধারন মেলবন্ধন। একজন আগামী পর্বের অপেক্ষায়.........

অফটপিক-- কপিরাইট অফিসের নোটিশ এর ব্যাপারে অভ্র টীম এর পরবর্তী কার্যক্রম কোন পর্যায়ে...এ ব্যাপারে কেউ কিছু বলবেন কি? কোথাও কোন খবর না পেয়ে খুব দুশ্চিন্তায় আছি।

অতিথি লেখক এর ছবি

চমৎকার...

-- সৈকত তপু

লক্ষীপেঁচা এর ছবি

আমার কিছুটা ধৈর্য ও তেল আছে ফন্ট বানানোর, কিন্তু টাইপফেস পাচ্ছি না. একটা জিনিস জানতে ইচ্ছে করে, ফন্ট ডিজাইন করার সময় কি ডিজিটাইজ করে ফন্ট ফেস নিয়ে সেটাকে ভেক্টর গ্রাফিক্স করে বানানো হয় না?

আর একটা প্রশ্ন, ইংরেজি লিগেচার কি বাংলা যুক্তাক্ষরের মতো একটা ব্যাপার না? কেবল জানতে চাইছি আর কি.

আমি কিভাবে একটা টাইপফেস আরেকটা টাইপফেস থেকে আলাদা করবো, জেমন বাংলা ও সুতন্বী দেখতে এক রকম... কিন্তু কি করলে একটু ভিন্ন টাইপফেস করতে পারি কোনো আইডিয়া?

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- সিয়াম, কিছু প্রশ্ন ছিলো।

প্রতিটা ফন্ট তৈরীর বেলায়ই কি একই পদক্ষেপ অবলম্বন করতে হয়? নাকি একবার সবগুলো পদক্ষেপ অনুসরণ করে একটা ফন্ট তৈরী করার পর আরেকটা ফন্ট তৈরীতে আগের বারের পদক্ষেপগুলো এক রেখে কেবল ফন্টের তথ্যগুলো পরিবর্তন করে দিলেই হয়?

এটা জিজ্ঞেস করলাম এইজন্য যে, এগজিস্টিং কোনো ফন্ট (যেমন সিয়াম রূপালী)- এর সোর্স কাজে আসবে কি না পরবর্তী ফন্ট বানানোতে! যদি আসে, তাহলে বোধ'য় অনেক কাজই বেশ খানিকটা সহজ করে ফেলা যাবে।
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

সিয়াম এর ছবি

পুরোনো একটা ফন্টে নতুন অক্ষর বসানোটা অনেক সময় বাঁচায়, কিন্তু এর একটা বাজে দিকও আছে। কিছু ক্ষেত্রে নতুন করে বানানোটাই সুবিধাজনক।
পরের পোস্টে এসব বিষয়গুলো আসবে।

মাহবুব লীলেন এর ছবি

ওরে বাপরে
এর চেয়ে তো তালপাতায় বাঁশের কলম দিয়ে নতুন একটা মহাভারত লেখা অনেক সহজ

০২

চালিয়ে যান
আপনাদের জন্যই আমরা বাংলায় বঙ্গবীর থেকে বাংলাবণিক সবই হবার সুযোগ পাই

নয়ন [অতিথি] এর ছবি

সিয়াম, সাকিবের বন্ধু হিসেবে "তুমি" করে বলি:
আমি একটা বাংলা ওয়েবসাইট তৈরি করতে চাচ্ছি। টেক্সটের জন্য সোলায়মান লিপি ব্যবহার করছি। কিন্তু তোমার লেখা পড়ে বুঝলাম, শিখলাম: ফন্টে ইংরেজি যুক্ত করা না থাকলে ফন্ট পরিবর্তন করতে হয়। সোলায়মানলিপিতে বোধহয় সেরকম কোনো ভজকট আছে; ইংরেজির চেহারা ভালো না। উল্লেখ্য, আমি Microsoft Frontpage ব্যবহার করছি।
আবার তোমার সিয়াম রূপালি এখনও ব্যবহার করিনি। এদিকে শুনতে পাচ্ছি এটাতে যুক্তাক্ষরে সমস্যা। এমতাবস্থায় একটা আশু সমাধান কী আভ্র'র খাতায় আছে? সিয়াম রূপালিতে কি ইংরেজি যুক্ত করা আছে "হিন্টিং" করে?
ধন্যবাদ।
______________________
অন্তহীন এ পথের শেষে
আছে কী যে লুকিয়ে বসে
দেখতে আমি চাই...

সিয়াম এর ছবি

ভাইয়া, বাংলা ফন্টে দেয়া ইংরেজি অক্ষরগুলো স্ক্রিনে সত্যিই দেখতে ভালো লাগেনা। আপনার সাইটের css ফাইলে

font-family: "Arial", "Solaiman lipi"

এভাবে লিখতে পারেন, এতে ইংরেজি দেখাবে Arial থেকে আর বাংলা দেখাবে সোলাইমানলিপি থেকে।
Microsoft Frontpage এর চেয়ে এডোব ড্রিমউইভার অনেক বেশী কাজের, ব্যবহার করতে পারেন।
সিয়াম রূপালিতে একটা সমস্যা ছিল উইন্ডোজ ভিস্তা/৭ এ যুক্তাক্ষর ভেঙ্গে যেত। নতুন সংস্করণে সমস্যাটা থাকবেনা। সিয়াম রূপালির সাথে কোন ইংরেজি অক্ষর নেই।

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

তাই নাকি? আমিতো জানতাম প্রথমে যে ফন্ট থাকবে সব সেটা থেকেই দেখাবে, নাহলে ডিফল্ট সিস্টেম ফন্ট ব্যবহার করবে!

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

নয়ন [অতিথি] এর ছবি

ভাই, অনেক ধন্যবাদ। আমি সেমতেই কাজ করছি। ভালো থেকো। বাংলাদেশের সেবা করতে থাকো। এদেশে তোমার মতো মানুষ দরকার। আল্লাহ'র দয়া বর্ষিত হোক।
_____________________
অন্তহীন এ পথের শেষে
আছে কী যে লুকিয়ে বসে
দেখতে আমি চাই...

শেখ নজরুল এর ছবি

রিটায়ার্ডের পর কাজে লাগবে।

শেখ নজরুল

শেখ নজরুল

স্যাম এর ছবি

চলুক

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।