প্রকাশিত হল কলেজ স্মৃতি: সচলায়তনের কলেজ স্মৃতি সংকলন

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি
লিখেছেন প্রকৃতিপ্রেমিক (তারিখ: শুক্র, ০২/০৭/২০১০ - ৪:২৯পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

সচলায়তন কলেজ স্মৃতি সংকলন ২০১০সচলায়তন কলেজ স্মৃতি সংকলন ২০১০খেলাপির খাতায় নাম প্রায় উঠেই যাচ্ছিল। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো। ভাগ্য বলে আসলে কিছু রয়েছে সেটা আবারো বুঝতে পারলাম। কলেজের স্মৃতি নিয়ে ই-বই প্রকাশের উৎসাহ নিয়ে যখন কাজ শুরু করি তখনও বুঝতে পারিনি বিষয়টা এত কঠিন হয়ে উঠতে পারে। বই প্রকাশের মতো আপাতঃ সহজ কাজটি যে কতটা কঠিন তা বেশ বুঝতে পেরেছি। যাই হোক, সচল/হাচল-দের কলেজের স্মৃতি বিষয়ক লেখাগুলো নিয়ে বাংলাবাজারে যাওয়া আমার জন্য কঠিনই ছিল। কিন্তু নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন সহায়তার জন্য এগিয়ে এলেন, এবং সবকিছুর যোগাড়-যন্ত্র শেষ করে যখন আমাকে বললেন আপনি মুখবন্ধ লেখেন তখন ভাবলাম মুখ তো এতদিন বন্ধ করেই ছিলাম- নতুন করে বন্ধ করবো কিভাবে?

১ জুলাই, ২০১০।
আজ সচলায়তনের জন্মদিন।

এমন একটি দিনে ই-বইটি প্রকাশিত হল দেখে অত্যন্ত আনন্দ বোধ করছি। প্রিয় সচল, হাচল, অতিথি, এবং সকল পাঠক/পাঠিকাঃ সচলায়তনের জন্মদিনে আপনাদের সবার জন্য এই সামান্য উপহার--সচলায়তন কলেজ স্মৃতি সংকলন।

কলেজের স্মৃতি নিয়ে আমার লেখায় উল্লেখ করেছি কিভাবে কলেজ আমাদের নিয়মানুবর্তিতার শিক্ষা দিয়েছে। অথচ নিজেই প্রতিশ্রুত সময়ে বইটি প্রকাশ করতে পারিনি। বিশ্বাস করুন, ব্যক্তিগত এবং একাডেমিক কাজে এতটাই ব্যস্ত ছিলাম/আছি যে মাঝে মাঝে মনে হতো ই-বইয়ের কাজে হাত দিয়ে বিরাট একটা বিপদে পড়েছি। আমি জানি এসব অনেকের কাছেই অজুহাতের মত মনে হবে, কিন্তু বস্তুত একাডেমিক কারণেই ই-বইয়ের সংকলনের কাজে হাত দিতে আমার অনেক দেরী হয়ে যায়। পরিশেষে সেই নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ব্যক্তিটি এগিয়ে না এলে বই প্রকাশ হতে আরো দেরী হতো। তার নাম প্রকাশ করে তাকে আর লজ্জায় ফেলতে চাইনা।

সচলে একজন মানুষ আছেন যিনি প্রায় সব কাজের কাজী এবং যিনি অনেকের কাছে সচলায়তনের সবচেয়ে সরব ব্যক্তিত্ব। ই-বইটির যথোপযুক্ত প্রচ্ছদ করে দিয়েছেন সেই ব্যক্তি-- নজরুল ভাই। নজরুল ভাই এমন একজন মানুষ, বহু বছর ধরে যার বয়স আটকে থাকে ২৫-এ। প্রথম দিকে ওনাকে বলে রেখেছিলাম যে ভাই, আমার বইটার প্রচ্ছদ করে দিতে হবে। তারপর যখন বই আর সময়মতো বের হয়না, তখন উনিই ইমেইলে আমাকে প্রচ্ছদ ডিজাইনের কথা স্মরণ করিয়ে দেন। সপ্তাহ খানেক আগে যখন কাজ মোটামুটি মাঝের দিকে, তখন ওনার কম্পিউটার গেল বিগড়ে। শেষ পর্যন্ত চমৎকার একটি প্রচ্ছদ করে দিয়েছেন তিনি। সেজন্য নজরুল ভাইয়ের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা।

ই-বইটি দেরীতে প্রকাশের জন্য আপনাদের অনেকের ধৈর্যচ্যুতি ঘটিয়েছি বলে ক্ষমাপ্রার্থী।

সংকলনটি আপনাদের ভালো লাগলেই সার্থক হবে ক্ষুদ্র এই প্রয়াসটুকু।

চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চে থাকুক শির।





পিডিএফ ফাইলডাউনলোড করুন (হাই কোয়ালিটি)

এটি কাজ না করলে বা ডাউনলোড করাপ্ট মেসেজ দিলে বা অন্য কোন কারণে পড়তে না পারলে এখান থেকে ডাউনলোড করুন।


মন্তব্য

ধুসর গোধূলি এর ছবি
প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

ওইযে ওঝা আর দংশন করার একটা গান আছে না? ওই গানটা মনে পড়ছে।

ধুসর গোধূলি এর ছবি
তাসনীম এর ছবি

ধন্যবাদ আপনাকে দারুণ এই কাজটার জন্য।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

হাসান মোরশেদ এর ছবি

অভিনন্দন প্রিয় পিপি হাসি
প্রচ্ছদ সহ এই পোষ্ট স্টিকি হোক।
-------------------------------------
জীবনযাপনে আজ যতো ক্লান্তি থাক,
বেঁচে থাকা শ্লাঘনীয় তবু ।।

-------------------------------------
জীবনযাপনে আজ যতো ক্লান্তি থাক,
বেঁচে থাকা শ্লাঘনীয় তবু ।।

কৌস্তুভ এর ছবি

নেট স্পিড কম বলে এখনো ডাউনলোড করতে পারিনি, কিন্তু অভিনন্দন এবং ধন্যবাদ জানিয়ে গেলাম এই সংগ্রহটি প্রকাশের জন্য। পড়ে মতামত জানাবো।

আয়নামতি এর ছবি

চমৎকার ই-বুকটির জন্য পিপিদাসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে শুভেচ্ছা-অভিনন্দন!
ডিএল করে রাখলাম। সময় করে রসিয়ে রসিয়ে পড়া যাবে। বইটির ভেতর বাড়িতে একটু উঁকি দিয়ে কমলাফুলের আমন্ত্রণে মুগ্ধ না হয়ে পারিনি! প্রচ্ছদে জড়িয়ে আছে স্মৃতির হাতছানি। চমৎকার অতি চমৎকার! আবারো অভিনন্দন।

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

চলুক

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

আব্দুর রহমান এর ছবি

পড়া শুরু করলাম, ফাটাফাটি লাগতেছে। অনেক ধন্যবাদ, এর সাথে জড়িত সবাইকে।

------------------------------------------------------------------
এই জীবনে ভুল না করাই সবচেয়ে বড় ভুল

------------------------------------------------------------------
এই জীবনে ভুল না করাই সবচেয়ে বড় ভুল

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

পুরাই দৌড়ের উপর। সারাদিন তাই থাকবো।
রাতে এসে পড়বো পুরাটা।
পিপিদাকে বিরাট অভিনন্দন।
আর নাম নাজানা সেই মহানুভবের জন্য বিরাট শুভেচ্ছা
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

কাকুল কায়েশ এর ছবি

পিপিদা, অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে! সংশ্লিষ্ট সবাইকেও ধন্যবাদ, এবং স্পেশাল ধন্যবাদ নজরুল ভাইকে এত সুন্দর প্রচ্ছদ উপহার দেওয়ার জন্য! প্রচ্ছদ ও অলংকরণ আসলেই ফাটাফাটি হয়েছে!

র‌্যান্ডমলি ২/৩টা পড়ে ফেললাম! সুহানের লেখাটা অসম্ভব ভাল লেগেছে! জওহরলাল স্যারের ক্লাস আদৌ পাইনি, তাই তাঁর প্রতি আমার সেরকম কোন দরদও ছিল না, যদিও অন্য গ্রুপমেটদের কাছ থেকে তাঁর অনেক প্রশংসা শুনতাম! সুহানের লেখাটা পড়ে এখন আফসোস হচ্ছে, 'ইসস, তিনি যদি আমাদের ক্লাস নিতেন!'

==========================
একটাই কমতি ছিল তাজমহলে,
......তোমার ছবিটি লাগিয়ে দিলাম!

==========================
একটাই কমতি ছিল তাজমহলে,
......তোমার ছবিটি লাগিয়ে দিলাম!

নৈষাদ এর ছবি

প্রকৃতিপ্রেমিককে অভিনন্দন ভাল একটা কাজের জন্য।
ডাউনলোড করলাম, পড়ব।
২৫ টা লেখা ছাপা হয়েছে - অনেক তো।

স্পর্শ এর ছবি

পড়তে শুরু করিনি এখনো। চোখ বুলিয়ে গেলাম শুধু! অসাধারণ। অলঙ্করন প্রচ্ছদ টাইপসেট সব কিছু।
প্রকৃতিপ্রেমিক সহ এর সঙ্গে জড়িত সবাইকে অভিনন্দন, এমন একটা দারুণ কাজ করার জন্য। হচ্ছে না-হচ্ছে না করতে করতেই কী বিশাল একটা বই হয়ে গেল!

জয়তু সচলায়তন।


ইচ্ছার আগুনে জ্বলছি...


ইচ্ছার আগুনে জ্বলছি...

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ পিপিদা !!!
এবং অনেক ধন্যবাদ নজরুল ভাই !!!!

_________________________________________

সেরিওজা

ফারুক হাসান এর ছবি

বিশাল অভিনন্দন পিপিদা!

আপাতত পড়তেছি।

রেশনুভা এর ছবি

বাহ। চকচকে একটা বই। শুরু করতেছি।

বাউলিয়ানা এর ছবি

বাইরে ঝমঝম বৃষ্টি, আর দশটা দিনের চাইতে একটু বেশি ঠান্ডা আজকের আবহাওয়া, হাতে চায়ের মগ নিয়ে বসে গেলাম কলেজ স্মৃতির বe পড়তে।

অনেক ধন্যবাদ পিপিদা, নজরুল ভাই সহ সবাইকে এত চমতকার একটা উপস্থাপনার জন্য।

রাফি এর ছবি

আরে দারুণ কাজ হয়েছে...চমৎকার প্রচ্ছদ আর অলঙ্করন।।
ই-বুক প্রকাশের সাথে জড়িত সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ।।

---------------------------------------
আমি সব দেবতারে ছেড়ে
আমার প্রাণের কাছে চলে আসি,
বলি আমি এই হৃদয়েরে;
সে কেন জলের মতন ঘুরে ঘুরে একা কথা কয়!

---------------------------------------
আমি সব দেবতারে ছেড়ে
আমার প্রাণের কাছে চলে আসি,
বলি আমি এই হৃদয়েরে;
সে কেন জলের মতন ঘুরে ঘুরে একা কথা কয়!

নীড় সন্ধানী এর ছবি

অতীব চমৎকৃত হয়েছিলাম, কিন্তু নিজের লেখাটার শুরুতেই একটা বাক্যবিভ্রাটে আনন্দে ভাটা পড়লো। দোষটা ১০০% আমারই।

তবে আধ পড়া কয়েকটা মারাত্মক সুন্দর লেখা দেখে মনে হলো চাঁদেও যদি কলংক থাকে, আমার বিভ্রাটটি তেমন একটা হইল আর কি, মাফ করে দিলাম নিজেরে।

নজু ভাই আর পিপিদা দুজনকে অনেক ধন্যবাদ!

‍‌-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.
এ ভ্রমণ, কেবলই একটা ভ্রমণ- এ ভ্রমণের কোন গন্তব্য নেই,
এ ভ্রমণ মানে কোথাও যাওয়া নয়।

‍‌-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.--.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.
সকল লোকের মাঝে বসে, আমার নিজের মুদ্রাদোষে
আমি একা হতেছি আলাদা? আমার চোখেই শুধু ধাঁধা?

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

ব-e প্রকাশের কষ্ট দেখে মনে হচ্ছে শাস্তি হিসেবে ব-e প্রকাশের দায়িত্ব দেয়া উচিত। হাসি মডুরা ভেবে দেখতে পারেন।

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

সুরঞ্জনা এর ছবি

পিপিদাকে অনেক শুভেচ্ছা।
পুস্তিকা না হয়ে পুস্তক হয়েছে শেষ-মেশ। হাসি
পড়তে খুব ভাল লাগছে। অনেক ধন্যবাদ, এই 'ম্যামথ' দায়িত্ব নিয়ে সেটা আবার পালন করে ফেলার জন্যে। হাসি
............................................................................................
স্বপ্ন শুধু সত্য আর সত্য কিছু নয়

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

দ্রোহী এর ছবি

ডাউনলোড করেছি সকালে। একবার চোখ বুলিয়েছি পুরো ই-বুকে। এখনো পড়তে শুরু করিনি।


কি মাঝি, ডরাইলা?

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

সকালে ডাউনলোড করে রাখসি। পড়া শুরু করি নি এখনও। তবে একটু উল্টায়-পাল্টায় দেখসি পৃষ্ঠাগুলা।

প্রকৃতিপ্রেমিক ভাই, ধুগো'দা, নজরুল ভাই এবং জড়িত সবাইকেই অনেক অভিনন্দন এবং ধন্যবাদ।

আনোয়ার সাদাত শিমুল এর ছবি

ডাউনলোড করে চোখ বুলালাম।
চমৎকার লাগলো।
ফা/হার লেখাটা পড়েই ফেললাম। (ভেতরে কোনো এক শিমুলের নাম দেখে ;)। আমি না।)
বলাই'দারটাও ভালো লাগলো খুব...

আগের অভিজ্ঞতা থেকে জানি, ই-বুক প্রকাশ করা ভীষণ পরিশ্রমের কাজ। সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন এমন একটি প্রচেষ্টার জন্য...।

বিঃ/দ্রঃ - পিপি'দার ৩বার তাগাদা সত্ত্বেও, সময় এবং স্বাচ্ছন্দ্যের অভাবে, নিজে লেখা না দিতে পারায় কিছুটা লজ্জাষ্কর অবস্থায় আছি...।

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

ফাহার লেখাটা দারুন লেগেছে... ধুগো'রটাও ...

_________________________________________

সেরিওজা

মেয়ে [অতিথি] এর ছবি

বইয়ের সাজগোজ দারুন হইছে পিপিদা। আর আমার পচা লেখাটা রাখার জন্য অনেক ধন্যবাদ। ডাউনলোড করলাম।

অভিনন্দন।

মেয়ে

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

আমার মুখ বন্ধ, তাই কিছু বলতে পারছিনা। সবাইকে একযোগে ধন্যবাদ। তবে এটুকু বলি যে এই বই প্রকাশে আমার অবদান খুবই সামান্য। লেখক এবং ডিজাইনারদের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফল এই বই হাসি

তুলিরেখা এর ছবি

লেখার মণিমুক্তা সাজিয়ে এই যে বই-রত্নমালাটি গাঁথলেন, এর জন্য চিরদিনের কৃতজ্ঞতা পাবেন নিখিল পাঠকসমাজের ।
অভিনন্দন।

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

জুলিয়ান সিদ্দিকী [অতিথি] এর ছবি

খুব ভালো লাগলো। অভিনন্দন। শেষপর্যন্ত কাজটা করতে পারলেন।

সচলকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা সহ প্রকৃতি প্রেমিকের প্রতি সচলদের প্রেম বৃদ্ধি পাক এই কামনায়...

ওহ লিখতে ভুলে গেছি - আমার লেখাটাই বাজে মনে হচ্ছে।

তানভীর এর ছবি

চলুক

অভিনন্দন পিপি ও সংশ্লিষ্ট সবাইকে। আমার একটা লেখা দেয়ার ইচ্ছে ছিল। কিন্তু সময় করে উঠতে পারি নি। নেক্সট টাইম চোখ টিপি

অনিন্দিতা চৌধুরী এর ছবি

আমি কেন জানি ডাউনলোড করতে পারছি না। The file is damaged and could not be repaired জানাচ্ছে। আর কোন উপায় আছে এটা ডাউনলোড করার?

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- আপনি চাইলে মেইল করে দেয়া যেতে পারে। তার আগে, আরেকবার চেষ্টা করে দেখবেন নাকি!
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

দাদা রে, আমি তিনবার ডাউনলোড করছি। কিন্তু একবারো দেখতে পারি নাই। ডবল ক্লিক করলে এডোবি ইমেজ রিডার খোলে, তারপর কয় দিসিজেন আননোন ফাইল ফর্মেট...
এই দুঃখ কাহারে সুধাই?
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

ধুসর গোধূলি এর ছবি
সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

ভাইরে, আমি যদি এতকিছু পারতাম তাইলে তো কামই হইতো... দেখি কারো দয়া হয় কী না দিলে মন খারাপ
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

ফক্সিট রিডার ডাউনলোড করে ইনস্টল করে নেন।

একটা মেইলও পাঠাইসি। দেখেন।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- একটা ব্যাপার, ফক্সিটে দেখলাম বইটার রঙ-চঙ গুলো বেশ পরিষ্কার আর ঝকঝকে দেখায়। এ্যাডোবিতে দেখায় ম্যান্দামারা!
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

অনিন্দিতা চৌধুরী এর ছবি

নাহ্ হলো না। প্লীজ মেইল করে দিন
এ।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- মেইল করে দিয়েছি। পিপিদা চাইলে এ্যাড্রেস সরিয়ে দিতে পারেন। এভাবে পুরো মেইল এ্যাড্রেস থাকলে বটের আক্রমনে পড়াটা অবশ্যম্ভাবী।
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

তিথীডোর এর ছবি

চমৎকার ই-বুকটির জন্য পিপিদাসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে শুভেচ্ছা-অভিনন্দন!!!!

________________________________________
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

________________________________________
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

অতিথি লেখক এর ছবি

চমৎকার সংকলনের জন্য ধন্যবাদ......ডাউনলোড করেছি আজ ......পড়ছি।

...............অ্যামেচার..............

মুস্তাফিজ এর ছবি

অনেকের সাথে রাজ্জাকের গল্প ভালো লেগেছে।
ধন্যবাদ সবাইকে।

...........................
Every Picture Tells a Story

গৌতম এর ছবি

পিপিদা, কলেজ স্মৃতি নিয়ে প্রকাশিত এই সংকলনটি নিশ্চয়ই চমৎকার হবে। উদ্যেগ গ্রহণ ও সফল বাস্তবায়নের জন্য আপনাকে অনেক অভিনন্দন।

আমি এ নিয়ে চারবার ডাউনলোড করলাম ইবুকটি। কিন্তু কোনোবারই অ্যাক্রোবেট রিডারে ওপেন হচ্ছে না। পরে ফক্সিট রিডার ইনস্টল করেও চেষ্টা করলাম। তাতেও কাজ হলো না। বিকল্প কিছু করা যায় কি?

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

শিক্ষাবিষয়ক সাইট ::: ফেসবুক

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

দেখি কী করা যায়। ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার দিয়ে ট্রাই করেননি তো? ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারে কিন্তু অনেক সময় ডাউনলোড করাপ্ট করে ফেলে।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- আপনার যদি এডোবি ন্যুনপক্ষে নয় নাম্বার ভার্সন থাকে অথবা ফক্সিট রিডার থেকে থাকে তাহলে তো সমস্যা হওয়ার কথা না। একটা সম্ভাবনা থাকতে পারে আপনার ওখানে ফাইল না খোলার, সেটা হলো ডাউনলোড পুরোপুরি হয় নি। আমার এখানে সমস্যা হচ্ছে না কিন্তু।

বিকল্প হতে পারে, কেউ একজন (যেমনঃ আমি) মেইল করে ইবুকটা আপনাকে পাঠাতে পারেন। পাঠাবো?
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

নিবিড় এর ছবি

ধূগোদা, আমিও পড়তে পারছি না। কষ্ট করে কি একটা মেইল দিবেন? এড্রেস হল rashed 110 এট জিমেল


মানুষ তার স্বপ্নের সমান বড় ।

গৌতম এর ছবি

আমি অ্যাডোবি অ্যাক্রোবেট ৬.০ ব্যবহার করছি। আমার মনে হয় এসব ক্ষেত্রে অ্যাক্রোবেট ৫.০ কম্পিটিব্যাল করে প্রকাশ করা উচিত, যদিও এতে মান কিছুটা খারাপ হয়। তবে চার-চারবার ডাউনলোড করার পরও অ্যাক্রোবেট ৬.০ বা ফক্সিটে ওপেন হলো না দেখে অবাক হচ্ছি।

আপনার সমস্যা না হলে পাঠানোর অনুরোধ থাকলো। আগাম ধন্যবাদ।

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

শিক্ষাবিষয়ক সাইট ::: ফেসবুক

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- এ্যাডোবি ৬? এখনও? ফক্সিটেরও কি ঐ আমলের ভার্সনই? চোখ টিপি

ফাইজলামি না, সুযোগ পেলে এই জিনিসগুলো আপডেট করে ফেইলেন গৌতম'দা। কারণ এ্যাডোবিতে কনভার্ট করা পিডিএফগুলো এখন আর এতো আগের ভার্সন কম্পেটিবলের অপশন দেয় না মনে হয়!

মেইল পাঠাইছি।
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

গৌতম এর ছবি

ফক্সিটটা আপডেটেড। আর চুরি করা মাল তো, তাই অ্যাডোবির পরের ভার্সনগুলোর রিডার-রাইটার একসঙ্গে পাই নি। তাই আপডেটও করতে পারছি না।

...ধন্যবাদ। ইমেইল পেয়েছি। ডাউনলোডও করেছি এবং সহিসালামতে তিনি ওপেন হয়েছেন। হাসি

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

শিক্ষাবিষয়ক সাইট ::: ফেসবুক

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

ধুসর গোধূলি এর ছবি
অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

"ফক্সিট ফ্যান্টম" ব্যবহার করেন না কেন? এটা তো রিডার-রাইটার সহ। হাসি

অ্যাডোবি অ্যাক্রোব্যাট এতো সময় নেয় ফাইল ওপেন করতে! আমার কাছে ভালো লাগে না এই সফটওয়্যারটা। এরচেয়ে ফক্সিট তো অনেক ভালো!

গৌতম এর ছবি

এটার কথা তো জানতাম না! তবে অনেক আগে ফক্সিটের কিছু কিছু প্রোডাক্ট ব্যবহার করেছিলাম। ওটার ফ্রি ভার্সনে অনেক কিছু থাকে না। ফক্সিটের আলাদা ফ্রি রাইটার ব্যবহার করেছিলাম। এতো সীমাবদ্ধতা দেখে পরে বিরক্ত হয়ে ছেড়ে দিয়ে আবার অ্যাক্রোবেটে ফেরত গিয়েছিলাম।

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

শিক্ষাবিষয়ক সাইট ::: ফেসবুক

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

আপনি চাইলে মেইলে পাঠায়ে দিতে পারি। আপনার অ্যাড্রেস তো নাই আমার কাছে। মোবাইলে মেসেজে পাঠায়ে দিয়েন, আমি মেইল পাঠায়ে দিবোনে হাসি

অতিথি লেখক এর ছবি

ধন্যবাদ প্রকৃতিপ্রেমিক ভাই। বিশাল ১টা কাজ করে ফেলেছেন।
সংশ্লিষ্ট সবাইকে অনেক ধন্যবাদ।

পাগল মন

অতন্দ্র প্রহরী এর ছবি

আমি কিন্তু একবারেই ডাউনলোড করে ফাইলটা ওপেন করতে পারসি। আমি ফক্সিট ব্যবহার করি। মনে হয়, যাঁরা ফাইলটা ওপেন করতে পারতেসেন না, তাঁদের ডাউনলোডটা ঠিকমতো হয় নি। ফাইলের সাইজ ২.৯ মেগাবাইট। যাঁরা ওপেন করতে পারতেসেন না, তাঁরা একবার চেক করে নিতে পারেন ফাইল সাইজ ঠিক আছে নাকি।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- ফাইল ওপেন করতে সমস্যার প্রধাণতঃ দুইটা কারণ হতে পারে।

সমস্যার কারণ ১. ডাউনলোড সম্পূর্ণ না হওয়া।
সমাধানঃ ক) ডাউনলোড প্রান্তে কম নেট স্পিড! এইটার জন্য আপাতত আল্লা আল্লা করা ছাড়া কোনো উপায় দেখছি না! মন খারাপ

খ) যেহেতু ইবুক সচলে হোস্ট করা, ট্রাফিক লোডের কারণে ডাউনলোড স্পিড উঠানামা করতে পারে কি না, এইটা একটা ব্যাপার হতে পারে।

গ) আশেপাশের কাউকে 'ত্যালানো' যেতে পারে ইবুকটা পাঠানোর জন্য।

সমস্যার কারণ ২. রিডার সাপোর্ট না দেয়া।
সমাধানঃ ফক্সিট রিডার ডাউনলোড করে নিন। কাজে দিবে।

যারা এ্যাডোবি ব্যবহার করেন, তাঁরা নতুন ভার্সনটা ডাউনলোড করে ফেলুন। কিছুদিন পর আর ভার্সন-৬ কম্পেটিবল মাল পত্তর পাবেন বলে মনে হয় না!
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

সুলতানা পারভীন শিমুল এর ছবি

আমারো লাগবে। দেঁতো হাসি

...........................

একটি নিমেষ ধরতে চেয়ে আমার এমন কাঙালপনা

...........................

একটি নিমেষ ধরতে চেয়ে আমার এমন কাঙালপনা

দময়ন্তী এর ছবি

অনেক অভিনন্দন!
আমার লেখাটা এখনও এক তৃতীয়াংশ হয়ে পড়ে আছে৷ কিছুতেই সময় করে শেষ করতে পারি নি৷ মন খারাপ
-----------------------------------------------------
"চিলেকোঠার দরজা ভাঙা, পাল্লা উধাও
রোদ ঢুকেছে চোরের মত, গঞ্জনা দাও'

-----------------------------------------------------
"চিলেকোঠার দরজা ভাঙা, পাল্লা উধাও
রোদ ঢুকেছে চোরের মত, গঞ্জনা দাও'

মহাস্থবির জাতক এর ছবি

হুঁ। জিন্দগিমে দুসরা বার ই-বইয়ে নিজের লেখা পেলাম।

বিব্রত হলাম।

আসলে. আমি বরাবরই লোকচক্ষুর অগোচরে থাকতেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি। আর আমার লেখাটাই কি না পড়লো প্রথমে!

প্রকৃতিপ্রেমিক বলেছিলেন যে, বয়োক্রমের (বা, কলেজে যাওয়ার সনের) নিম্নক্রম অনুসারে লেখাগুলো সাজানো হবে। মানে, সবচাইতে বুড়োর লেখাটা সবার আগে। তাই, এটা দেখেও টাসকিত হয়েছিলাম।

পরে অবশ্য ভেতরে অন্যদের লেখা পড়ে জানলাম, বুঝলাম এবং শান্তি পেলাম যে, আমিই সর্ববৃহৎ...থুক্কু...সর্বজ্যেষ্ঠ নই। লেখাগুলো সংস্থাপনার ক্রমবিচারে তাহলে কোন সুনির্দিষ্ট নিয়ম অনুসরণ করা হয় নি? একটা মনে হয় পাচ্ছি যে, যাঁদের লেখা এসেছে আগে, তাঁরাই ঠাঁই নিয়েছেন আগে।

অনেকের লেখাই ভালো লাগলো। কৌস্তুভের লেখাটা বেশ মজারু লাগলো। বেশ! সাইফুলের লেখাটা ঠাসবুনোট হলেও ভাষাব্যবহারে ভালোলাগা জন্মালো। বলাই, সুহান, কাকুল, নীড় সন্ধানী, পুতুল, নজ্রুলিস্লাম- এঁদের অন্যরকম লেখাগুলোয় আনন্দ পেলাম। ইয়ে...তাসনীম আর ধূগোর আরো জমাটি লেখা আশা করেছিলাম, বিশেষত তাসনীমের। ধূগোর লেখাটা কিন্তু মোট্টেও খারাপ হয় নি, তবে প্রত্যাশার পারদ আগে থেকেই চড়িয়ে রাখলে যা হয় আর কি! হিমুর, সিরাতের, মুর্শেদের-এমনি অনেকের লেখা পেলে ভালোই লাগতো।

প্রচুর পরিচিত পুরুষালি গন্ধ সংকলনটায়। মেয়েরা অনেকেই এতো ভালো লেখেন সচলে, অথচ তাঁদের প্রতিনিধিত্ব এতো কম!

আফসোস! আসলেই আশা করেছিলাম। দময়ন্তী বা তুলিরেখার চোখে ওপার বাংলার কলেজের মেয়েলি অভিজ্ঞতাটা চোখে দেখার বা চেখে দেখার যে-ইচ্ছে, সেটা ফুড়ুৎ হলো, এরকমটাই হয় আমার বেলায়।

তারপরও, যা হলো ভালোই হলো। বিশেষত, গেট-আপের প্রশংসা না করে পারছিই না। প্রচ্ছদের জন্যে (নি)দারুণ শুভেচ্ছা জনাব নজরুলকে যিনি দাড়ি না রেখে চুল রেখেছেন।

ইয়ে..এরকম উদ্যোগ আরো নেওয়া যায় না?
_______________________________
খাঁ খাঁ দুপুরে, গোধূলিতে আর রাতে বুড়ি পৃথিবী
কেবলই বলছে : খা, খা, হারামজাদা, ছাই খা!

(ছাই: মণীন্দ্র গুপ্ত)

_______________________________
খাঁ খাঁ দুপুরে, গোধূলিতে আর রাতে বুড়ি পৃথিবী
কেবলই বলছে : খা, খা, হারামজাদা, ছাই খা!

(ছাই: মণীন্দ্র গুপ্ত)

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- জমাটি লেখা! হে হে, খালি কোনোমতে একটা বালিকা সমৃদ্ধ কলেজে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাইলে দেখতেন, জমাটি লেখা কারে বলে! বাপ-মায় তো দিছে একটা কাঠখোট্টা, সাহারা মরুভূমি মার্কা কলেজে কান ধরে ঢুকায়ে, জমাটি কাহিনি পাবো কই! মন খারাপ

তবে তারপরেও লিখতে গিয়ে দেখলাম দুই বছরে নেহায়েত কম স্মৃতি জমা হয় নি ভাণ্ডারে। কিছু লিখতে সমর্থ্য হলাম, বাকি সব বাদ পড়ে গেলো। বাদ পড়ে গেলো সাইন্স ক্লাবের সদস্য না হয়েও সাইন্স ক্লাবের সাথে বেইলি রোডের বিখ্যাত বালিকা কলেজে সাইন্স ফেয়ারে ঢুঁ মারা! বাদ পড়ে গেলো 'কসমস' প্রকাশ নিয়ে অমল স্যারের সাথে মিটিং-এর কথা! বাদ পড়ে গেলো দল বেঁধে আইডিয়াল কলেজের আশেপাশে ঘুরঘুর করা! বাদ পড়ে গেলো বিদ্যাসাগর স্যারের বাসায় পড়তে গিয়ে বেইলি রোডের কলেজের পড়ুয়াদের সাথে খিটিমিটির কথা! বাদ পড়ে গেলো আমাদের কলেজে সাইন্স ফেয়ারে 'হুদাই ক্যাচাল' করার কথা! বাদ পড়ে গেলো আমাদের পরের ব্যাচের নবীন বরণে এমনি এমনি ঘুরতে গিয়ে আয়োজকদের তালিকায় ফাদার বকুলের নির্দেশে ঢুকে যাওয়া। পাঞ্জাবি পরিহিত সবার মাঝে আমার চকড়াবকড়া, বিচ শার্ট পরে এদিক সেদিক দৌঁড়ানোর কথাও বলা হলো না!

এখন, এই মন্তব্য লিখতে গিয়ে দেখি যা লিখলাম 'কলেজ স্মৃতি' হিসেবে, বাদ পড়ার তালিকা তার চেয়ে অনেক অনেক বড়, বিশাল। দুই বছরের নিরস জীবনে এতোকিছু কখন ঘটলো, টেরই তো পেলাম না! মন খারাপ
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

তুলিরেখা এর ছবি

ফাদার বকুল ????
হাসি

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

তাসনীম এর ছবি

ইয়ে...তাসনীম আর ধূগোর আরো জমাটি লেখা আশা করেছিলাম, বিশেষত তাসনীমের।

প্রত্যাশা পূরণ না করতে পারার জন্য দুঃখিত। লেখাটা বেশ দ্রুত লেখা, প্রকাশ হওয়ার পর আমার নিজের কাছেও খাপছাড়া লেগেছে। পিপিদা সময় বাড়াবেন জানলে আরেকটু সময় নিয়ে লিখতাম। (দোষটা পিপিদার ঘাড়ে চাপায়ে দিলাম হাসি )

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

ঘাড় পেতে নিলাম হাসি

পুতুল এর ছবি

দুর্দান্ত। বিষয় এবং উপস্থাপনা, অতুলনীয়। সংকলনটার একটা দোষ পাইলাম। সেটা হইল আমার নিজের লেখাটা। কলেজের স্মৃতি কতো বিচিত্র!
যারা অনেক পরিশ্রম কইরা বইটা প্রকাশ করলেন তাদের সবাইকে ধন্যবাদ।
শুরুটা করার জন্য পিপিদাকে অভিনন্দন।
**********************
ছায়া বাজে পুতুল রুপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কি দোষ!
!কাঁশ বনের বাঘ!

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

নীড় সন্ধানী এর ছবি

যারা ডাউনলোড এরর দেখছেন তাদেরকে বলি, সমস্যা সম্ভবতঃ আপনার এডোবি পুরোনো সংস্করন। আমিও প্রথমে খুলতে পারিনি। কিন্তু্ এইমাত্র এডোবি ৯ ইনস্টল করলাম, সাথে সাথে কাজ হলো। হাসি

-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.
এ ভ্রমণ, কেবলই একটা ভ্রমণ- এ ভ্রমণের কোন গন্তব্য নেই,
এ ভ্রমণ মানে কোথাও যাওয়া নয়।

‍‌-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.--.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.
সকল লোকের মাঝে বসে, আমার নিজের মুদ্রাদোষে
আমি একা হতেছি আলাদা? আমার চোখেই শুধু ধাঁধা?

অছ্যুৎ বলাই এর ছবি

বর্তমানে বাঁচতে যখন হিমশিম খেতে হয়, তখন আর স্মৃতি নিয়ে লেখা যায় না। যারা এই কঠিন কাজটি করেছেন, সেই লেখকদেরকে ধন্যবাদ। কয়েকটা লেখা পড়লাম, বাকিগুলোও পড়বো। কারো কারো লেখা পড়ার পরে মনে হলো লেখক-পাঠক দু'পক্ষই অতৃপ্ত, সব কথা বলা হলো না, সব কথা শোনা হলো না। এই অতৃপ্তিই হয়তো নোতুন সময়ে প্রবেশের পাসওয়ার্ড।

পিপিদা, নজু ভাই, গোধুলী - ধন্যবাদ।

---------
চাবি থাকনই শেষ কথা নয়; তালার হদিস রাখতে হইবো

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

বর্তমানে বাঁচতে যখন হিমশিম খেতে হয়, তখন আর স্মৃতি নিয়ে লেখা যায় না।
আপনি বস আসল কথাটা বলে ফেলেছেন। আর বিশেষ কিছু বলার নাই।

অতিথি লেখক এর ছবি

চমৎকার কাজ!
শুভকামনা!

কাজী মামুন

মর্ম এর ছবি

পুরো বইটা একবারে প্রিন্ট করে বাঁধাই করে এরপর পড়বো, কয়েকটা লেখা পড়েছি, কেমন লাগল তা পরে বলার ইচ্ছা থাকলো।

এই বইটা নিয়ে কেউ লিখবেন না? তখন মন্তব্য করে যাবো'খন!!

আমার একখানা লেখাও চলে এসেছে।
ভাল তো লেগেছেই। কথা হলো, পড়ার পর একটা ভুল বেরিয়েছে তথ্যে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া কলেজের শহীদ লুৎফর রহমান ভবন নিয়ে লিখতে গিয়ে উনার ব্যাপারে লিখেছিলাম, "...উন্নত জীবন, মহৎ জীবনের লুৎফর রহমান..."; যেমন আমি জানতাম। এখন জানলাম তিনি মুক্তিযুদ্ধে শহীদ একজন সশ্রদ্ধ শিক্ষক হলেও সেই লুৎফর রহমান নন।

অনাকাংখিত তথ্যবিভ্রাটের জন্য দুঃখিত।
~~~~~~~~~~~~~~~~
আমার লেখা কইবে কথা যখন আমি থাকবোনা...

~~~~~~~~~~~~~~~~
আমার লেখা কইবে কথা যখন আমি থাকবোনা...

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।