Warning: Creating default object from empty value in i18ntaxonomy_term_page() (line 34 of /var/www/sachalayatan/s6/sites/all/modules/i18n/i18ntaxonomy/i18ntaxonomy.pages.inc).

খেলাধুলা

ক্রীড়া ও মহত্ত্বের রাজনীতি – ইনভিক্টাস

তারেক অণু এর ছবি
লিখেছেন তারেক অণু (তারিখ: শনি, ২৮/০৭/২০১২ - ৭:৪৫অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

১১ ফেব্রুয়ারী, ১৯৯০, রবিবার, বিকেল তিনটে- দক্ষিণ আফ্রিকার রক্তবর্ণ ধূলোময় মাঠে রাগবী অনুশীলনে মত্ত একদল শ্বেতাঙ্গ কিশোর, রাস্তার অন্য পারে কাটাতারের বেড়া ঘেরা মাঠে তুমুল হৈ হট্টগোলে ফুটবল খেলায় নিবিষ্ট সমবয়সী একদল কৃষ্ণাঙ্গ কিশোর, তখনকার অভিশপ্ত রাজনৈতিক সামাজিক ব্যবস্থার এক প্রতীক এই ভিন্ন গাত্রবর্ণের কোমলমতি কিশোরদের জন্যও আলাদা আলাদা খেলা, খেলার মাঠ ও কাটাতারের ব্যবস্থা।


লণ্ডন অলিম্পিক ২০১২ : দ্যা গ্রেটেস্ট ফ্লপ শো অন দ্যা আর্থ!

থার্ড আই এর ছবি
লিখেছেন থার্ড আই (তারিখ: শনি, ২৮/০৭/২০১২ - ৪:৩০অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:


উত্তর মেরুর ম্যারাথন

তারেক অণু এর ছবি
লিখেছেন তারেক অণু (তারিখ: মঙ্গল, ১০/০৭/২০১২ - ৭:০৭পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

North Pole Marathon 2007


আমিই মরিনহো

সুহান রিজওয়ান এর ছবি
লিখেছেন সুহান রিজওয়ান (তারিখ: সোম, ০৯/০৭/২০১২ - ১১:৩১পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

[justify]
হাঁটু মুড়ে ডাগআউটের পাশেই মাঠে বসে ছিলাম আমি। টাইব্রেকারের শেষ কিকটা নিতে মাঝমাঠ থেকে শোয়েইনি যখন সামনে এগুলো, তার স্থির অথচ জোরালো পদক্ষেপগুলো দেখেই বুঝে গিয়েছিলাম যে সব শেষ, জার্মান স্নায়ূ আরো একবার বরফশীতল থেকে বিজয়ী হয়েই মাঠ ছাড়তে যাচ্ছে। তারপরেও একটা ক্ষীণ আশা ছিলো। যদি হয়, যদি হয়ে যায়...


সদ্য প্রকাশিত ফিফা র‌্যাঙ্কিং এবং কিছু কথা

নিয়াজ মোর্শেদ চৌধুরী এর ছবি
লিখেছেন নিয়াজ মোর্শেদ চৌধুরী (তারিখ: বিষ্যুদ, ০৫/০৭/২০১২ - ১২:৪৭পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

র‌্যাঙ্কিং বিষয়ে মানুষের প্রতিক্রিয়া খুবই বিচিত্র। যেমন, বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাঙ্কিং-এ নিজের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নেমে গেলে সেই র‌্যাঙ্কিং “গাঁজা খাওয়া” র‌্যাঙ্কিং হিসেবে উপাধি পায়, আবার একই র‌্যাঙ্কিং-এ নিজের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উপরে উঠলে লোকে মুচকি মুচকি হাসে।


বাংলাদেশের ফুটবল

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: সোম, ০২/০৭/২০১২ - ২:২০অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

বাপ-দাদাদের মুখে শুনে আর পেপার পত্রিকা পড়ে জেনেছি আগের দিনে আবাহনী মোহামেডানের খেলা হলে নাকি সারা দেশে ফুটবলের অন্তত কিছুও যারা জানে তারা নাকি দুই ভাগে ভাগ হয়ে যেত। খেলার সপ্তাহখানেক আগে থেকে চায়ের টেবিলে, দোকানের বেঞ্চে, স্টেডিয়াম পাড়ায় চলত ম্যাচের গবেষনা আর ম্যাচের পর সপ্তাহখানেকের বেশি সময় ধরে চলত ম্যাচের পোস্টমর্টেম। এখনকার প্রজন্মের খুব কম ছেলেমেয়েই আছে যারা বাংলাদেশের ফুটবল তথা ঘরোয়া ফুটবলের কোন খোজখবর রাখে। জানি না সুদূর ভবিষ্যতে এমন দিন আসবে কিনা যখন তরুন ছেলেমেয়েরা আদৌ বিশ্বাস করবে আমাদেরও একটা ফুটবল ঐতিহ্য ছিল এবং সালাহউদ্দিন, সালাম মুর্শেদী, আসলাম, কায়সার হামিদ, সাব্বিররা একেকজন এমন সেলিব্রেটি ফুটবলার ছিলেন যাদের খেলা দেখতে তো বটেই প্র্যাকটিস দেখার জন্য পর্যন্ত মাঠে ভীড় জমত।
আমি ফুটবলবোদ্ধা নই। আমি খুব সাধারন একজন ফুটবলপ্রেমী। পত্রপত্রিকার মাধ্যমে দেশের ফুটবলের নিয়মিত খোজখবর রাখার চেষ্টা করি। আমার কাছে মনে হয় আমাদের ফুটবল একটা গন্ডি থেকে কেন যেন বের হতে পারছে না। দশ বছর আগে যে অবস্থায় ছিল এখন তার থেকে উন্নতি তো হয়নিই বরং আরো খারাপ হয়েছে। যদিও সেই ছোটবেলা থেকে হোমড়াচোমড়া কর্মকর্তাদের মুখে শুনে আসছি অচিরেই বাংলাদেশের ফুটবল এশীয় মানে পৌছাবে। আমি একজন খুব সাধারন দর্শক বা সমর্থক হিসেবে চিন্তা করি আমাদের ফুটবলের এই হাল কেন। খুব গভীর গবেষনায় না গিয়ে সাদামাটা কথায় আমি কিছু চিন্তাভাবনা তুলে ধরি। সচলায়তনে দেশের অনেক সমস্যা নিয়ে অনেক লেখা নিয়মিত আসে। সেই তুলনায় এই বিষয়টি সামান্য। তবে এটাও ঠিক যে খেলাধুলাই একমাত্র জিনিস যা আমাদের পুরো জাতিকে একসাথে হাসাতে পারে অথবা একসাথে কাঁদাতে পারে। আর আমাদের যে একটা ফুটবল ঐতিহ্য ছিল যা এখন মূমুর্ষ অবস্থায় আছে সেটা তো অস্বীকার করার উপায় নাই।


ডিরেক্টরের বিদায়

সুহান রিজওয়ান এর ছবি
লিখেছেন সুহান রিজওয়ান (তারিখ: শনি, ২৮/০৪/২০১২ - ১২:০৮পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

[justify]


স্মৃতিচারণ: বার্সিলোনা, রোনাল্দিনহো, পেপ গোয়ার্দিওলা

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: শুক্র, ২৭/০৪/২০১২ - ৩:৫৯পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

খবরটা অনেক জায়গাতেই চাউর হয়ে গেছে--পেপ গোয়ার্দিওলা আর বার্সিলোনা ফুটবল দলের কোচ থাকছেননা। আর কিছুদিনের মধ্যেই এই মৌসুম শেষ হবে, আর তার সাথেই বিদায় নেবেন এই কোচ। বার্সা যথাসাধ্য চেষ্টা করছে তার মন ফেরানোর, তবে তার না থাকাটা এখন প্রায় শতভাগ নিশ্চিত।


টাইম লাইনঃ বাংলাদেশের পাকিস্থান সফর নিয়ে কে কী বলছেন (হালনাগাদকৃত)

নিয়াজ মোর্শেদ চৌধুরী এর ছবি
লিখেছেন নিয়াজ মোর্শেদ চৌধুরী (তারিখ: মঙ্গল, ১৭/০৪/২০১২ - ৭:১২অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

পাকিস্থানের অস্থিতিশীল রাজনৈতিক পরিস্থিতির কারণে সে দেশে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে যাওয়ার ব্যাপারে বিভিন্ন দেশ এবং ব্যক্তিকে অতীতে অস্বস্তি প্রকাশ করতে শোনা গিয়েছিল। তবে ২০০৯ সনে শ্রীলঙ্কার জাতীয় ক্রিকেট দলের বাসে অস্ত্রধারীরা হামলা চালানোর পর থেকে পাকিস্থানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সম্পূর্ণ রূপে বন্ধ রয়েছে। মাঝে মাঝে কয়েকটি দেশ বিভিন্ন নিরপেক্ষ ভেন্যুতে পাকিস্থানের সাথে খেললেও পকিস্থানে গিয়ে না খেলার সীদ্ধান্তে অটল থেকেছে পুরো আন্তর্জাতিক গোষ্ঠি।


পাকিস্তানে যাস নে বাছা

লুৎফর রহমান রিটন এর ছবি
লিখেছেন লুৎফর রহমান রিটন (তারিখ: সোম, ১৬/০৪/২০১২ - ৫:৫৫পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

লোটাস তো নয় মনিব কোনো
ক্রিকেটাররা দাস না,
ওরে বাছা তোরা কেউই
পাকিস্তানে যাস না ।

অইটা একটা মৃত্যুপুরী
অইটা কোনো দেশ না,
লোটাস মোটেও নয়কো প্রভু
তার ইচ্ছেটাই শেষ না।

একটা সাকিব জন্ম নেয় না
মোটেও শত বর্ষে,
নরক জেনেও ঝাঁপ দিবি ক্যান
লোটার পরামর্শে!

সাকিব-তামিম তৈরি থাকিস
প্রতিরোধের জন্য,
সোনামানিক তোদের পেয়ে
দেশের মানুষ ধন্য।

ষোলো কোটির সমর্থন কি
শুনতে তোরা পাস না?