আলুর আজকের পাকিমেহন - ২০১২/১১/২৩

স্বপ্নহারা এর ছবি
লিখেছেন স্বপ্নহারা (তারিখ: শুক্র, ২৩/১১/২০১২ - ৫:৩৫পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

প্রথম আলো বাংলাদেশের খুব সম্ভবত সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সবচেয়ে বেশি পঠিত পত্রিকা। এবং দিন বদলের গান শুনিয়ে আর 'মেক লাভ উইথ পাকিস্তান, নট ওয়ার" তত্ত্ব দিয়ে বাংলার ছাগু সমাজে প্রতিদিন আলুর জনপ্রিয়তা বাড়ছেই। ইদানিং তাই ছাগু সমাজের জাতীয় মুখপাত্র হয়ে উঠেছে প্রথম আলো। এই জনপ্রিয়তা বাড়ার একটি বড় কারণ হলোঃ প্রতিদিনের নির্লজ্জ পাকিমেহন-চোষণ-লেহন! অবশ্য প্রথম আলো ভারতকেও মাঝে মাঝে লেহন-মেহন করে (সেটাও আসবে সামনে)- পাকিমেহনের মাত্রা-তীব্রতা এত বেশি যে তা সবার চোখে পড়তে বাধ্য। মাঝে মাঝে পত্রিকা খুলে অবাক হয়ে যেতে হয়, এটি বাংলাদেশের পত্রিকা নাকি পাকিস্তানের? বাংলাদেশের ভেতরেই পাকিস্তানের জাতীয় পত্রিকা হয়ে ওঠা প্রথম আলোতে জনৈক হামিদ মীর প্রায়ই বাংলাদেশিরা আমাদের ভাই- আসো প্রেম করি, আমরা ৭১ এ সামান্য কিছু লোক মেরে ভুল করেছিলাম টাইপ কলামও লেখেন। প্রতিদিন প্রথম আলোর এই পাকিমেহনের সাথে মাঝে মাঝে আরও থাকে হিটলার-লাদেনের প্রতি অসীম শ্রদ্ধা-ভক্তি-অর্গাজমিক শীৎকারে পূর্ণ রিপোর্ট-কমেন্ট। ওহহো, ভুলেই গেছি, প্রথম আলোর সবচেয়ে বড় আকর্ষণ হচ্ছে এর কমেন্ট সেকশন। পাকি-হিটলার-লাদেন মেহনের অসাধারণ সব কমেন্ট প্রকাশিত হয় প্রথম আলোর অনলাইনের প্রতিটি পাতায়। সেই কমেন্টগুলো পড়লে মনে হয় বাংলাদেশের ৮০ ভাগেরও বেশি মানুষ (মন্তব্যকারীদের পরিসংখ্যান অনুযায়ী) অসুস্থ-জাত ক্রিমিন্যাল- এক্ষুণি জেলে অথবা মানসিক হাসপাতালে পাঠানো উচিত তাদের। আরও মনে হয়, এটা বোধ করি বাংলাদেশের কোন পত্রিকা নয়ঃ পাকিস্তানের পত্রিকা!

একটি উদাহরণ দেখা যেতে পারে অগ্রজ হাসিব ভাইয়ের এই স্ক্রিনশটেঃ

প্রথম আলোর ভাই ডেইলি স্টারেও মাঝে মাঝে একই ধারা দেখা যায়।

প্রথম আলোর প্রতিনিয়ত এই পাকিমেহনের ক্রমবর্ধমাণ ধারা নিয়ে সচলায়তন ও অন্যান্য ব্লগে নানা সময় বিচ্ছিন্নভাবে লেখা এসেছে। কিন্তু সেই ব্যাপারটাই একটু গোছানোভাবে একত্রিত করার জন্য আর এই পাকিপ্রেমের বিষবৃক্ষের প্রতি সবার দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য আজ থেকে একটি নতুন সিরিজ চালু হলোঃ "আলুর আজকের পাকিমেহন" শিরোনামে। আগ্রহী যে কেউ এই শিরোনামে প্রথম আলোর পাকিমেহনের খবরগুলো নিয়ে কন্ট্রিবিউট করতে পারেন। সচল-পাঠক সবাই এতে অংশ নিয়ে এই সিরিজটি বেগবান-সমৃদ্ধ করার অনুরোধ রইলো। এখন থেকে যিনিই লিখুন, যে শিরোনামেই লিখুন, "আলুর পাকিমেহন" এই ট্যাগ দিয়ে লিখুন। তাহলে সবগুলো লেখা একসাথে পাওয়া যাবে।

সচলায়তনের কিছু লেখা এখানে দেয়া হলো স্যাম্পল হিসাবেঃ

অন্য ব্লগের কিছু লেখাঃ

আরো চলুক। পাঠকরা অনুগ্রহ করে আরও লেখা যুক্ত করে দিন।

আজকের খেলার পাতাঃ ২৩শে নভেম্বর, ২০১২
-------------------------------------------------------

প্রথম আলোর পাকিপ্রেমের নিদর্শন সবচেয়ে বেশি দেখা যায় খেলার পাতায়। আফ্রিদী-মিজবাহ-সালমান বাট বন্দনায় প্রথম আলোর পাতায় প্রায় প্রতিদিনই খবর থাকে পাকিস্তানের খেলা বিষয়ক। মাঝে মাঝে মনে হয়, উৎপল শুভ্র এন্ড গং রা পাকিসোনার জন্য এতবেশি উদগ্রীব হয়ে থাকে, এত বেশি উত্তেজিত হয়ে থাকে, এত বেশি মর্ষকামে ভোগে যে পাকিস্তানী ক্রিকেট দলের সাথে তাদের বিয়ে পড়িয়ে দেয়া হোক।

পরীক্ষায় রচনা এসেছে "বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজের খেলা"; প্রথম আলোর সাংবাদিক উৎপল শুভ্র জানেন শুধু "পাকিস্তান দল" রচনা। তাই গপ্পের গরু চাঁদে উঠে যায়-

ভবিষ্যতে ১০ নম্বর ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরি নিয়ে কোনো সাংবাদিক স্টোরি করতে চাইলে তাঁর সাকলায়েন মুশতাকের সঙ্গে কথা বলা উচিত।
এখানে সাকলায়েন আসছেন কীভাবে? আসছেন, কারণ ১০ নম্বর ব্যাটসম্যানের দুটি সেঞ্চুরি সম্ভবত তিনি একাই দেখেছেন। প্রথম যে দুটি ঘটনা, তার একটি ১২৮ বছর আগে, অন্যটি ১০২ বছর আগে। যাঁরা তা চর্মচক্ষে দেখেছেন, তাঁরা তো সবাই মরে ভূত। সাকলায়েনই শুধু বলতে পারেন, হুঁ হুঁ, আমি এমন অবিশ্বাস্য ঘটনা দুবার দেখেছি। ১৯৯৮ সালে যে জোহানেসবার্গ টেস্টে সিমকক্সের সেঞ্চুরি, তাতে খেলেছিলেন সাকলায়েন। শুধু খেলেনইনি, সিমকক্সকে আউট করে পাকিস্তানকে ওই যন্ত্রণা থেকে মুক্তিও দিয়েছিলেন তিনিই। পরের ওভারে বাউচারকে ফিরিয়ে ইনিংস শেষও তাঁর হাতেই। সেই সাকলায়েন এবার বাংলাদেশের স্পিন বোলিং কোচের ভূমিকায় আবুল হাসানকে ‘সিমকক্স’ হয়ে যেতেও দেখলেন। একেই বলে ঠিক সময়ে ঠিক জায়গায় থাকা।

"ঠিক সময়ে ঠিক জায়গায় থাকা"-র এইরকম উদাহরণ পৃথিবীর আর কারও পক্ষে দেখা সম্ভব নয়- শুধু উৎপল শুভ্রের পক্ষেই ভাবা সম্ভব!


মন্তব্য

তারেক অণু এর ছবি

দরকার ছিল এই সিরিজের। খুব বেশী দরকার এখনই। চলুক

স্বপ্নহারা এর ছবি

হ্যাঁ, এই পাকিমেহন বন্ধ করা দরকার!

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

অতিথি লেখক এর ছবি

প্রথম আলুর এই পাকিমেহন চোখে পড়ে প্রায়শই তবে তা সংগ্রহ ও কন্ট্রিবিউট করার তাগিদ দিল আপনার এই লেখা। উদ্যোগটি নেয়ার জন্য আপনারে অসংখ্য -ধইন্যাপাতা- । ভালো থাকুন স্বপ্নহারা ।

অমি_বন্যা

স্বপ্নহারা এর ছবি

হ্যাঁ, এটা থামাতে হবে। তাই নিজেই উদ্যোগ নিয়ে নিন- যখনই দেখবেন, একটা লেখা দিয়ে দেবেন।

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

হিমু এর ছবি

সময়োপযোগী উদ্যোগ! লেখা -গুড়- হয়েছে

একটা সাজেশন: ক্রমিক নং না দিয়ে সিরিজের শিরোনামের শেষে তারিখটা বছর-মাস-দিন ফরম্যাটে দিলে ভালো হতো না? যেমন আলুর আজকের পাকিমেহন ২০১২-১১-২৩?

স্বপ্নহারা এর ছবি

হ্যাঁ, করে দিচ্ছি!

এই সিরিজের আইডিয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

ত্রিমাত্রিক কবি এর ছবি

উত্তম জাঝা! চলুক

_ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _
একজীবনের অপূর্ণ সাধ মেটাতে চাই
আরেক জীবন, চতুর্দিকের সর্বব্যাপী জীবন্ত সুখ
সবকিছুতে আমার একটা হিস্যা তো চাই
রিন ফেসবুক

স্বপ্নহারা এর ছবি

আপনারে অসংখ্য -ধইন্যাপাতা-
কাজে লেগে যাও হাসি

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

ত্রিমাত্রিক কবি এর ছবি

লক্ষ্য রাখছি হাসি

_ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _ _
একজীবনের অপূর্ণ সাধ মেটাতে চাই
আরেক জীবন, চতুর্দিকের সর্বব্যাপী জীবন্ত সুখ
সবকিছুতে আমার একটা হিস্যা তো চাই
রিন ফেসবুক

গরীব মানুষ এর ছবি

একটা কথা বলতে ভুলে গেছিলাম, দেশব্যাপি শিবিরের তান্ডবের সময় ঢাকাতে কাওরান বাজারের সামনে এ টি এন চ্যানেলের গাড়ি ভাংচুর করলেও আলু পত্রিকার কোন গাড়ি ভাঙ্গে নাই ছাগুর দল। বোঝেন অবস্থা!

স্বপ্নহারা এর ছবি

জাতীয় মুখপাত্র তো হাসি

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

সত্যপীর এর ছবি

লাদেনের নিরস্ত্র পুলার অসহায় মিত্যু আর ভালো ছেলে নাফিসের বিরুদ্ধে দুষ্টু এফ্বিয়াই এর কান্ড নিয়ে রিপোর্ট পড়তে হলে প্রথম আলোই ভরসা।

গাধাগুলা টাইমস অফ ইন্ডিয়া থেইকা উল্টাপুল্টা অনুবাদ করতেও উস্তাদ।

..................................................................
#banShibir

স্বপ্নহারা এর ছবি

হ, চৌক্ষে পানি আইস্যা যায়!

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

পরীক্ষক  এর ছবি

ফেসবুকেও প্রথম আলোর এই ধরনের পাকিমনা কিংবা ধর্মীয় মৌলবাদী সংগঠনগুলির প্রতি সহানুভুতি জানিয়ে সম্পাদকীয় পাতায় লেখা ছাপানো অনেকে সাধারন নেটিজেনদের বিস্মিত করেছে ।

বিশেষ করে শিবির সংশ্লিস্ত সংবাদগুলিতে দৈনিক আমার দেশ পত্রিকা এবং প্রথম আলো পত্রিকার খবরগুলির মধ্যে খুব একটা পার্থক্য খুঁজে পাওয়া যায় না আজকাল ।

খ্যাংরা কাঠি এর ছবি

পরথম আলু, সাবধানে থাইকো কিন্তুক। শিবিরের প্রতি ১% পক্ষপাতিত্ত করলেও কিন্তু তোমারে কাঠি করা হইব। ফুটা সাবধান!

স্যাম এর ছবি

চলুক চলুক
শিরোনামটাই এমন করেছে যাতে রগ কাটা কিছুটা বৈধ মনে হয় - আমার অবাক লাগে এখনো প্রথম আলো তে অনেক আগের প্রগতিমনারা কাজ করে মন খারাপ অ্যাঁ

স্বপ্নহারা এর ছবি

প্রথম আলো সব দিক দিয়েই প্রথম হতে চায়ঃ বিশেষত ভারত মেহন, শিবির মেহন আর পাকি মেহনে এখন তারা এক লম্বর! ছাগু-পাকি পত্রিকাগুলো ছাগুপনায় প্রথম আলোর কাছে গো-হারা হেরে যাচ্ছে।

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

তানজিম এর ছবি

আলুর ভাবগতিক দেখে মনে হয়, দে আর গিভিং হেডস টু এভরি সিঙ্গেল অপনেন্টস অব বাংলাদেশ।

স্যাম এর ছবি

যথার্থ!!

স্বপ্নহারা এর ছবি

গুরু গুরু

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

স্যাম এর ছবি

পোস্ট টা খুব দরকার ছিল! ধন্যবাদ স্বপ্নহারা!!!

স্বপ্নহারা এর ছবি

অগোছালো ভাবে ফেসবুকে প্রায়ই এগুলো নিয়ে আলোচনা হয়। হাটুপানির জলদস্যু আইডিয়া দিলেন এইরকম একটা কিছু করা দরকার।

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

রণদীপম বসু এর ছবি

আইডিয়াটা হাঁটুপানির জলদস্যু'র না তো ! আমি তো দেখলাম হিমু দিয়েছে ! হা হা হা !!

-------------------------------------------
‘চিন্তারাজিকে লুকিয়ে রাখার মধ্যে কোন মাহাত্ম্য নেই।’

হাসিব এর ছবি

কোন কমেন্ট ছাড়া পায় কোন কমেন্ট ছাড়া পায় না সেটার একটা এ্যানালাইসিস জরুরী হয়ে পড়েছে।

স্বপ্নহারা এর ছবি

জানেনই ত কেমন কমেন্ট ছাড়া পায়। অবশ্য মাঝে মাঝে ব্যালান্স করার চেষ্টা করে। তবে আলুর সবচেয়ে সেলিব্রিটি কমেন্টার তানভীর আলাদিন সরব। গুগল সার্চে সরবের যেসব সরব কমেন্ট আসে, সেগুলো দেখলে এদেরকে (সরব এবং কমেন্ট সেকশনের মডারেটর) আজীবন পাগলা গারদে অথবা হাবিয়া দোজখ টাইপের কোন জেলে পুরে রাখা উচিত বলে মনে হয়।

চরম উদাস ভাই মাঝে মাঝে নানা রকম কমেন্ট দিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করেছিলেন। ভয়াবহ ফল পেয়েছিলেন বলে শুনেছি।

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

আউটসাইডার  এর ছবি

করেছেন কি! হাততালি হাততালি

একেবারে মনের মতো হয়েছে, আমি অনেকদিন ধরেই ভাবছিলাম এমন কিছুর জন্য। অবশ্য মতিকন্ঠ আমাদের কষ্ট অনেকটাই লাঘব করেছে দেঁতো হাসি

স্বপ্নহারা এর ছবি

সিরিয়াসলি এই পাকিপনা বন্ধ করতে হবে। কাজে লেগে যান হাসি

-------------------------------------------------------------
জীবন অর্থহীন, শোন হে অর্বাচীন...

অতিথি লেখক এর ছবি

হাততালি চলুক গুরু গুরু

অরফিয়াস এর ছবি

প্রথম আলোর অনলাইন ডেস্ক আর কয়েকজন খ্যাতনামা সাংবাদিক, এরা পাকি-ব্লোজব না দিলে এদের রাতের ঘুম হয়না, বদহজম হয় আরো অনেক সমস্যা। আজকাল তাদের প্রায়োরিটি লিস্ট এরকম-

১. ফাকিস্তান [বিশেষত ফাকিস্তানের গুল্লি-ডান্ডা দল]
২. সানি লিউনি
৩. পুনম পান্ডে
৪. হিনা রাব্বানী
৫. সানিয়া ভাবি
৬. ছাত্র শিবির

ইত্যাদি, ইত্যাদি।

----------------------------------------------------------------------------------------------

"একদিন ভোর হবেই"

কড়িকাঠুরে এর ছবি

দারুণ হয়েছে- হাততালি

 নয়ন আহমেদ এর ছবি

প্রথম আলো পাকমেহনে এ এক ও অদ্বিতীয় । বিশেষ করে মেহনের কৌশলে প্রথম আলো অতুলনীয় ।
সিরিজ চলুক ।
হাততালি

Kala এর ছবি

প্রথ্ম আলো (ও ডেইল স্টার) জামাতিদের চাইতেও ভয়াবহ কারণ এরা মুখোশ ধারি।

সন্ত জিমি এর ছবি

http://www.prothom-alo.com/detail/date/2012-11-24/news/308047 "আসল সত্য হলো, শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তান ভাঙতে চাননি।" -হামিদ মীর

মামুন এর ছবি

চলুক

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

হি হি হি....

রাতঃস্মরণীয় এর ছবি

হাততালি
চলুক

------------------------------------------------
পাক জমানায় ভালোই ছিলাম
উঁচিয়ে চিবুক কয় যদি কোনও কাগু
পশ্চাদ্দেশে লাত্থি ঝাড়ুন কষে
সাফ বলে দিন- ভাগ ব্যাটা তুই ছাগু।।

ধুসর গোধূলি এর ছবি

চলুক
শিমুলের একটা পুরাতন গল্প আছে, পরবাসে পাকমন। আলু পেপারের পাকি মেহনের প্রেক্ষাপটে সেই গল্পটা এখনও প্রাসঙ্গিক। পার্থক্য হলো, এই নির্লজ্জ মেহন পরবাসে না, চলছে নিজের দেশেই।

মৃত্যুময় ঈষৎ এর ছবি

চলুক সংকলনটার খুব দরকার ছিল। চলুক


_____________________
Give Her Freedom!

কিষান এর ছবি

আজকেও আরেকটা নিউজ আসছে

এখানে

অফ টপিক, প্রথম আলোর সানি লিওন প্রীতিও অসম্ভব বিরক্তিকর লাগে রেগে টং

রিসালাত বারী এর ছবি

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA