সালমান খানের আরেকজন ভক্ত বলছি

অতিথি লেখক এর ছবি
লিখেছেন অতিথি লেখক (তারিখ: রবি, ২৬/০৯/২০১০ - ১২:২৫পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

auto

হিন্দী সিনেমার নায়কদের নামগুলো অনেক সময় জনমানুষের সাথে মিলেমিশে যায়। এই যেমন ধরেন আপনি বিলেতের উত্তরের কোন শহরে গিয়ে বললেন যে, আমি আমির খানেরে ‘সাপোট করি’, তাহলে ভাল সম্ভাবনা হল, যে আপনার কথার অর্থ ধরে নেয়া হবে অলিম্পিকে মেডেল পাওয়া কিশোর বক্সার আমির খানের কথাই বলছেন। তেমনি আরেক নায়োকচিত কিংবাদন্তী পুরুষ হলেন সালমান খান। হ্যাঁ আমি এইবারও স্বল্পবসনা পেশীবহুল কারো নাম নিচ্ছিনা, আরেকজন সালমান খান যিনি তার নায়োকোচিত নাম নিয়েই বসে ছিলেন না বরং একাই পৃথিবীর মানচিত্র পালটে দেবার মত এক দুঃসাহসী কাজ ইতিমধ্যে করে ফেলেছেন।

শুরুটা হয়েছিল মোটামুটি সহজ ভাবেই, খানবাবা আম্রিকা থাকেন, এম,আই,টির ট্রিপল গ্র্যাজুয়েট (একলগে ম্যাথ, ইলেক্ট্রিকাল ইঞ্জিরি আর কম্পু), লগে হার্ভার্ডের এম্বিএ আর লাগে কি। হেজ ফান্ড, ক্যাপিটাল মার্কেট এইসব নিয়া কাজকাম। একদিন তার এক খালা এসে ধরল, আমার মাইয়াটারে একটু অংক দেখাইয়া দাওগো। খান থাকে এক শহরে বইন থাকে আরেক শহরে, হাইফাই ব্রডব্যান্ডের জমানায়, নো পেরবলেম, ইয়াহু ম্যাসেঞ্জারের ডুডল নোটপ্যাডে ভয়েস চ্যাট আর আঁকিবুঁকি নিয়ে ভার্চুয়াল ক্লাস নেয়া শুরু হল। পরীক্ষায় রেজাল্টে ফেল্টুশ বোন দিব্যি ছক্কা মারল। এইরকম আরো দুচারটা কেসের পরে সালমান চিন্তা করছিলেন এই অনলাইন মাস্টারিগিরিকে কিভাবে আরো ছড়িয়ে দেয়া যায়। পরবর্তীতে এইগুলোকে পুরোদস্তুর ভিডিও করে ইউটিউবে আপলোড করা হল। তার কিছুদিন পরে এক আশ্চর্য জিনিষ দেখা গেল, সারা পৃথিবীর বিভিন্ন যায়গা থেকে বিশেষ করে আমেরিকারই বিভিন্ন যায়গা থেকে অসম্ভব হিট আসা শুরু করল এবং এর প্রায় সব দর্শকই দেখা যাচ্ছে স্কুল ও কলেজের ছাত্র ছাত্রীরা। এই পাবলিসিটি এতই বাড়া বাড়ল যে, এক পর্যায়ে তিনি এক দুঃসাহসীক সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললেন। নটা-পাঁচটার নিয়মিত চাকরী ছেড়ে দিয়ে অনলাইন ফ্রি টিউটোরিয়াল বানানোকেই ফুলটাইম কাজ হিসেবে নিয়ে নিলেন। নিয়মিত কিছুকিছু করে তৈরি করতে করতে আজ পর্যন্ত ১৮০০+ টিউটোরিয়াল একদম একাএকাই তৈরি করে ফেললেন।

এইবারে আসি ভিডিওগুলির ব্যাপারে। প্রথমত কোন ঝকমকা এনিমেশন নাই, গ্রাফিক্সের বলিহারি নাই, দিব্যি কালো একটা স্ক্রীন তার মাঝে কিছুক্ষণ পরে পরে কাঁচা হাতে আঁকিবুকি হচ্ছে আর কেউ একজন ঘ্যানঘ্যান করে অডিওতে কথা বলছে। প্রশ্ন হল এইখানে ম্যাজিকটা কোথায়? একটু ফিরে যান আপনার ছোটবেলায় স্কুলের দিনগুলিতে। আমার বিশ্বাস প্রত্যেকেরি অভিজ্ঞতা আছে নিজের বড়ভাই, পাড়ার বড়ভাই বা পাশের বিল্ডিং এর ইউনিভার্সিটি পড়ুয়া যিনি আপনার পড়াশোনার প্রতি দৃষ্টিভঙ্গী বদলানো ও সমস্যা সমাধানের মৌলিক আগ্রহ জাগানোর জন্য অসাধারণ অবদান রেখেছেন। ভিডিওর ধরণটাও অনেকটা তেমনই। শুনলে মনেই হবেনা যে ক্লাস করছেন, মনে হবে এই সাধারণ একটা জিনিষ কেউ একজন আপনাকে বোঝানোর চেষ্টা করছে। যিনি বোঝাচ্ছেন, তিনি নিজেও আপনার চেয়ে মহা আঁতেল কেউ না, বরং ভাবখানা যেন আমিও গত সপ্তাহেই শিখেছি ব্যাপারটা, ভূলে যাবার আগেই তোমারে একটু শিখায়ে দেই। খুব সীমিত দৈর্ঘের (৩-৭ মিনিট) এই ভিডিওগুলোতে যেকোন বয়সের শিক্ষার্থীর জন্য একদম ডুবে যাওয়াই স্বাভাবিক। তাই টের পাবার আগেই দেখা যাচ্ছে উল্লেখিত ক্লাসের বিষয়টি শিক্ষার্থী শিখে ফেলছে। আর এই অদ্ভূত অভিজ্ঞতা একজন, দুইজন না বরং আমেরিকা ও সারা বিশ্বের লক্ষ লক্ষ শিক্ষার্থীর এখন। উঁচু বেতনের অফিস ফেলে গোঁয়ারের মত লেগে থাকার ফলে সালমান খান বর্তমানে আমেরিকার সবচেয়ে জনপ্রিয় শিক্ষকদের মধ্যে একজন প্লাস রীতিমত সেলিব্রিটি।

সালমান খানের করা ইউটিউবের ভিডিও নিয়ে ওয়েবসাইট খান একাডেমী। এই আকর্ষণীয় প্রকল্পটির ওয়েবসাইটে আমি প্রথম দেখি ২০১০ সালের প্রথম দিকে। তখুনি প্রচন্ড কাজের একটা জিনিষ মনে হয়েছিল আর এই নিয়ে ব্লগেও লিখব মনে করেছিলাম। আজকে খান একাডেমী নিয়ে একটু অতিরিক্ত বাকবাকুম হয়ে আছি আমি কয়েকটা কারণে। এই মহা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ফ্যান হিসেবে বিল গেটস নিজেকে পরিচয় দিতে সম্মানিত বোধ করেন। মাইক্রোসফটের এডুকেশন এওয়ার্ড পেয়েছিল এই সাইটটি আগেই। আজকে যেটা আবিষ্কার করলাম যে, গুগল ২০০৮ সালে প্রোজেক্ট ১০ টুদিপাওয়ার ১০০ নামে প্রোজেক্টটি চালু করে। তাতে পৃথিবী বদলে যেতে পারে এমন আইডিয়া চাওয়া হয় সারা পৃথিবীর কাছে। প্রায় ১৫,০০০ আইডিয়া জমা পড়ে সারা পৃথিবী থেকে। সেখান থেকে প্রায় দেড় বছর যাচাই বাছাই করে ১৬ টি পরিকল্পনা ঠিক করা হয়, সেখান থেকেও ভোটাভুটির মাধ্যমে ৫ টি আইডিয়াকে গুগলের পক্ষ থেকে ২ মিলিয়ন ডলার করে দেয়া হয়। শিক্ষা খাতে পৃথিবীর সেরা প্রকল্প হিসেবে বিবেচিত হয় এই খান একাডেমী। আমার দৃষ্টিতে এক হিসেবে নোবেল পুরস্কারের চেয়েও বড়ো অর্জন পৃথিবীর সেরা চ্যালেঞ্জ জিতে নেয়া এই সম্মান। এই অর্থ দেয়া হয় আরো অনেক বেশী ভিডিও আরো বেশী ভাষায় অনুবাদ যেন করা যায় সেই জন্য।

এই তো গেলো পুরস্কার পাবার পরের কথা, কিন্তু সালমান খানের এই ভিডিওগুলির কল্যাণে তিনি যখন ছোট বা মাঝারি আকারে পরিচিত, তখনই বিভিন্ন যায়গা থেকে অফার এসেছিল এইগুলোকে বাণিজ্যিকিকরণ করার। তাতে তিনি দিব্যি সেলিব্রিটি থেকে ধনী সেলিব্রিটিতে পরিণত হতেন একই সাথে বানিজ্যিক বিপনন মাধ্যমগুলোতে তার শিক্ষা ছড়ানো যেত। কিন্তু ধীরস্থী বিনয়ী এই শিক্ষাতাপস সযত্নে এইসব প্রোলভন এড়িয়ে গেছেন আর তার ভিডিওগুলি বিতরণ করেছেন ওপেন সোর্স লাইসেন্সের মাধ্যমে। অর্থাৎ, যে কেউ ডাউনলোড করে যতখুশি বিতরণ করতে পারবে, দিব্যি ইংরেজীর যায়গায় চীনে ভাষায় অনুবাদ করতে পারবে কোন আইনী বাধা ছাড়াই। এই বিষয়ে ব্লগার ডেভিড তাকে উৎসাহিত করেন তার প্রকল্প মুক্ত রাখার জন্য।

আরেকটা যেই কারণে অমানুষিক আনন্দ হচ্ছে সেটা বলছি। গতবার খান একাডেমী দেখার পরে ইচ্ছে হয়েছিল এই চমৎকার উদ্যোগ নিয়ে ব্লগে লিখব। কিন্তু আলসেমী সহ আরো অন্যান্য কারনগুলোর মধ্যে একটা ছিল যে সালমান খানের বাড়ী পাকিস্তান অথবা উত্তর পশ্চিম ভারত বলে মনে হচ্ছিল। তাই আরেকদিন লিখুমনে বলে মনে মনে ড্রাফট করে ফেলেছিলাম। আজকে চেক করে দেখলাম যে কয় কি! মনুর বাড়ী বরিশাল! বাংলার জন্য, বাংলাদেশের জন্য এটা বিপুল এক গৌরব!

স্প্যানিশ সহ আরো বেশ কিছু ভাষায় ইতমধ্যে সালমান খানের করা ভিডিওগুলি অনুবাদ করা শুরু হয়ে গেছে। স্রেফ আলসেমীর কারণে খুব সম্ভবত বাংলার মুখ দেখবে না। তবুও আমন্ত্রণ রইল খান একাডেমীতে।

ফরিদ
বইমেলা


মন্তব্য

জাহামজেদ এর ছবি

সালমান খানের জন্য শুভকামনা।

__________________________________
মরণের পরপারে বড় অন্ধকার
এইসব আলো প্রেম ও নির্জনতার মতো
__________________________________

__________________________________
মরণের পরপারে বড় অন্ধকার
এইসব আলো প্রেম ও নির্জনতার মতো
__________________________________

শাহেনশাহ সিমন এর ছবি

শুভাশীষদা'র ফেসবুক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে জেনেছিলাম এনার কথা। সাইট কয়েকবার ঢুঁ মেরেছি। এনশাল্লাহ, এবার আমার অঙ্কভীতি দূর হবে দেঁতো হাসি খাইছে
_________________
ঝাউবনে লুকোনো যায় না

_________________
ঝাউবনে লুকোনো যায় না

শরতশিশির এর ছবি

কীভাবে যে ধন্যবাদ দেবো ফরিদ ভাই, বুঝে পাচ্ছি না। আপনার পোস্ট মাত্র দেখলাম, দেখে না লগিয়ে পারলাম না। যেখানে আমারই আগে লেখা উচিত ছিল সালমান খান-কে নিয়ে, একটা ইন্টারভিউ নেবো নেবো করেও ব্যস্ততার জন্য করা হয়ে উঠলো না, সেখানে আজ মেঘ না চাইতেই জল।

তবে আমার চেয়ে আপনার আগে লেখে ফেলাটাই ভাল হয়েছে। আমার হয়তো নিরপেক্ষ লেখা সম্ভব হতো না। সালমান আমার মামাতো ভাই, ওর বাবা আমার মায়ের আপন ফুপাতো ভাই। জামাল মামা-ও খুব ব্রিলিয়ান্ট ছিলেন। ছেলে বাবার মতোই হয়েছে।

দেখি, এখন যদি একটা কিছু করি ওকে নিয়ে।

ইউটিউবের অন্যতম উদ্যোক্তা জাওয়াদ কারিমের বাবা-ও কিন্তু বাংলাদেশী। এখন ওঁনারা মিনেসোটায় আছেন।

আবারও অসংখ্য ধন্যবাদ। কাল আম্মুকে দেখাবো, আর ফেইসবুকে ছড়িয়ে দেবো। হাসি

ভাল থাকবেন।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি দেখতে চাই না বন্ধু তুমি
কতখানি হিন্দু আর কতখানি মুসলমান
আমি দেখতে চাই তুমি কতখানি মানুষ।

অতিথি লেখক এর ছবি

সচলে অনেক সময়ই অত্যান্ত্য চমৎকার বেশ কিছু অডিও সাক্ষাতকার নেয়া হয়।

আপনি সালমান ভাইয়ের সাথে পারিবারিক ভাবে সম্পর্কিত জেনে অত্যান্ত খুশী হলাম। আশা করছি খুব শীঘ্রই সচলের পক্ষ হতে ওনার সাক্ষাতকার নিতে আপনি সহায়তা করবেন।

জাওয়াদ বাংলা-জর্ম্মন প্রকল্পের ফসল। তার সাফল্যও চমৎকার।

ফরিদ

কৌস্তুভ এর ছবি

বরিশাইল্যা ভাইরে উত্তম জাঝা!

হাসিব এর ছবি

এই লোকরে নিয়ে আমি লিখতাম। আপনি লিখে ফেললেন মন খারাপ
________________________________________________
নীড়পাতা.কম ব্লগকুঠি

রাফি এর ছবি

আমি ওয়েবসাইটটাতে আগে কয়েকবারই গিয়েছি...তবে উদ্যেক্তা যে বাংলাদেশী জানতাম না।।
ফেসবুকে শেয়ার দিলাম।।

---------------------------------------
আমি সব দেবতারে ছেড়ে
আমার প্রাণের কাছে চলে আসি,
বলি আমি এই হৃদয়েরে;
সে কেন জলের মতন ঘুরে ঘুরে একা কথা কয়!

---------------------------------------
আমি সব দেবতারে ছেড়ে
আমার প্রাণের কাছে চলে আসি,
বলি আমি এই হৃদয়েরে;
সে কেন জলের মতন ঘুরে ঘুরে একা কথা কয়!

রাজিব মোস্তাফিজ [অতিথি] এর ছবি

অসাধারণ ইন্সপায়ারিং ! বরিশাইল্যা মনুরে অনেক শ্রদ্ধা !

রিজভী [অতিথি] এর ছবি

লেখাটা পড়ে মনটা ভরে গেল। ধন্যবাদ ব্যাপারটা তুলে ধরার জন্য। ফেইসবুকে শেয়ার করে ছড়িয়ে দিলাম।

-------------------------------------
কেউ যাহা জানে নাই- কোনো এক বাণী-
আমি বহে আনি;

পুতুল এর ছবি

শুভেচ্ছা
**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

**********************
ছায়াবাজি পুতুলরূপে বানাইয়া মানুষ
যেমনি নাচাও তেমনি নাচি, পুতুলের কী দোষ!
!কাশ বনের বাঘ!

রাহিন হায়দার এর ছবি

কিছুদিন আগে জেনেছি এই শ্রদ্ধেয় ভদ্রলোকের ব্যাপারে। অসাধারণ কাজ করছেন!

লেখাটির জন্যে ধন্যবাদ।
________________________________
মা তোর মুখের বাণী আমার কানে লাগে সুধার মতো...

________________________________
মা তোর মুখের বাণী আমার কানে লাগে সুধার মতো...

সমুদ্র এর ছবি

খান একাডেমিতে ঢুঁ মেরেছি কয়েকবার আগেও, তবে গুগলের পুরস্কার পাওয়ার গল্প এবং পেছনের পটভূমি বিশদ জানা হলো গতকাল। একটা পোস্ট দেয়ার ইচ্ছা হচ্ছিলো, সচলে এসে আপনার পোস্ট দেখে লগইন করতেই হলো মন্তব্য দিতে।
যাদের নেট কানেকশান ভালো তারা দেখে নিতে পারেন সালমান খানের বিশ মিনিটের এই উপভোগ্য 'টক'খানা

এবার আসা যাক মূল প্রসঙ্গে, যে জন্যে লগানো।
বাংলাদেশের সেরা সব স্কুল-কলেজ থেকে পাশ করা ছেলেমেয়েদেরও যে গণিত এবং বিজ্ঞানে যে দুর্বলতা থেকে যায় তার মূল কারণ আমার মনে হয় স্রেফ ভালো শিক্ষকের অভাব - এমন শিক্ষক যে 'উল্টোপাল্টা' প্রশ্ন করলে ডাস্টার ছুঁড়ে মারবেনা, আর উত্তর দেয়ার ক্ষমতাটাও রাখবে। আর গ্রামগঞ্জের স্কুল-কলেজের কথা বাদই দিলাম। স্কুল-কলেজে অনেক ছেলেমেয়েরই কিন্তু ইচ্ছাটা থাকে আরেকটু জানার, গভীরে যাবার - স্রেফ রিসোর্সের অভাবে হয়ে ওঠেনা।

বাংলাদেশের স্কুল-কলেজের ছাত্রদের জন্যে এইরকম একটা টিউটোরিয়াল রিপোসেটরি গড়ে তোলা কতটা জরুরী/প্রায়োগিক?
প্রথমেই মনে হতে পারে ইন্টারনেটের স্পিড আর অ্যাভেইলিবিলিটির কথা। আসলে এই রিসোর্সটা এক্সেস করতে হলে যে অনলাইনে থাকতে হবে এমন নয়। একাডেমির সাইটে দেখলাম এই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পাব্লিশড সব ভিডিও গুলোর একটা ডাউনলোডেবল ভার্সন পাওয়া যাচ্ছে (সাকুল্য তেরো গিগাবাইট)। এইটে নামিয়ে নিয়ে একটা পিসিতে দিয়ে দিলেই কিন্তু সবাই এক্সেস করতে পারবে, চাইকি সার্ভার বানিয়ে লোকাল ইন্ট্রানেটে। আজকাল তো শুনছি গ্রাম-মফস্বলের অনেক স্কুলেও সরকার কম্পিউটার দিচ্ছে, সেই কম্পিউটারগুলোও ব্যবহার করা যেতে পারে।

এবার অনুবাদ প্রসঙ্গে। যদ্দূর বুঝেছি গুগলের এই অ্যাওয়ার্ডটা মূলত কন্টেটগুলো অন্য ভাষায় সহজলভ্য করার জন্যেই দেয়া। "স্রেফ আলসেমীর কারণে খুব সম্ভবত বাংলার মুখ দেখবে না" চিন্তাটা না করে আমরা কিন্তু চাইলে এই ভিডিওগুলোন বাংলায় অনুবাদ করার একটা উদ্যাগ নিতেই পারি। সুবিধা হলো যে সহজেই বর্তমান ইংরেজি ভিডিওটা ঠিক রেখে শুধু বাংলা ডাবিং দিয়েই শুরু করা যায়। মুক্ত যেকোন প্রকল্পের মতই শুধু দরকার কিছু উৎসাহী পাবলিক।

মূল সাইটে দেখলাম ট্রান্সলেশান প্রজেক্ট এর জন্যে উৎসাহী জনগণকে চার বিষয়ের চারটি ভিডিওর লিস্ট দিয়ে ডাবিং করা ভিডিও পাঠাতে বলা হচ্ছে। আমি ব্যক্তিগত ভাবে যেমন গণিত বা পদার্থবিজ্ঞানে আগ্রহী, এমনি করে জীববিজ্ঞান আর রসায়নের জন্যেও কী অনুবাদে উৎসাহী (কিছু!) লোক পাওয়া যাবেনা?

-----------------------
"Life happens while we are busy planning it"

"Life happens while we are busy planning it"

নীলকান্ত এর ছবি

@সমুদ্র ভাইঃ আরও একটা জিনিস বাঁচানো যাবে এ পদ্ধতিতে তা হল সময়। অনেক ভালো শিক্ষক শুধুমাত্র সময়ের অভাবে পরিপূর্ণরূপে শিক্ষাদান করতে পারেন না। এ ব্যবস্থায় সঅময় অনেক বাঁচানো যাবে।

প্রতিনিয়ত চিনছি নিজেকে


অলস সময়

রাজিব মোস্তাফিজ [অতিথি] এর ছবি

সিএনএন এর সাথে নিচের ইন্টারভিউটাতে কিন্তু উনি বলেছেন টিম হায়ার করে প্রফেশনালী উনি বিভিন্ন ভাষায় অনুবাদের কাজটি করবেন গুগলের দেয়া টাকাটা দিয়ে । বাংলা এর থেকে বাদ যাওয়ার কোনো যুক্তিসংগত কারণ নেই । তাও আমরা শরত শিশির আপুর উপর বিশেষ দায়িত্ব ন্যস্ত করতে পারি এ বিষয়টা ফলোআপ করার জন্য । অনুবাদের কাজটুকু হয়ে গেলে তারপর শিক্ষা মন্ত্রণালয় দায়িত্ব নিতে পারে লেকচারগুলোর ডাউনলোডেড ভার্সন সারা দেশের সব স্কুলে পৌঁছে দেয়ার জন্য । প্রযুক্তির কল্যাণে সবার জন্য মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করার সুযোগ সহজলভ্য করা কত সহজ হতে পারে ভেবে আমি রীতিমত অভিভূত । ছোট্ট সাক্ষাত্কারটার লিংক-----

http://www.youtube.com/watch?v=QGxgAHer3Ow

রাগিব এর ছবি

গতরাতে টিভিতে এর একটা লেকচার দেখলাম। অসাধারণ। ডিএনএ কাকে বলে কত প্রকার , সব সোজা করে ৫ মিনিটে বুঝিয়ে দিলো।

ফরিদ ভাই, আপনার কপাল ভালো, উইকিতে আজকে গেছেন। মাস খানেক আগেও ঐখানে পাকিস্তানীরা তাকে পাকি বানিয়ে রেখেছিলো। আমি মেরামত করা মাত্রই পাকিস্তানী কয়েকজন হাজির হয়ে গেলো তাকে পাকিস্তানী বানাতে!! আলাপ পাতায় এক ছাগুর সাথে অর্থহীন বাতচিত করতে হয়েছে, সেই ছাগু সালমানের বাড়ি পাকিস্তানে না এটা বিশ্বাসই করতে পারেনা, হাতে ধরে দেখানোর পরে মাথা খারাপ হয়ে আক্ষরিক ভাবেই ছাগলের ঘুরা রোগের মতো ঘুরতে লাগলো!! সে এক মজার ঘটনা।
----------------
গণক মিস্তিরি
মায়ানগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | টুইটার

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

অমিত আহমেদ এর ছবি

তাই তো বলি! আমি উইকির কল্যানে তাঁকে পাকি বলেই জানতাম।

লেখায় চলুক

অতিথি লেখক এর ছবি

আপনি উইকিতে ঠেকা না দিলে আজকে এই পোস্টটা লেখাই হোতোনা।

আবারো ধন্যবাদ

ফরিদ

রাগিব এর ছবি

পাকিস্তানী ছাগুর কথামৃত অনেকটা আবার ওখানে নাই, মজাদার অংশগুলা আমার নিজের আলাপ পাতায় দেয়া। ঐগুলা পড়লে বিমলানন্দ অনুভব করবেন। হাসি

----------------
গণক মিস্তিরি
মায়ানগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | টুইটার

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

মাহে আলম খান এর ছবি

সালমান খানের সাথে এবিষয়ে মেইলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এখানে পড়ুন http://bit.ly/9m459t

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

কয়দিন আগে একটা মেইল থেকে বিষয়টা জানলাম। অসাধারণ কাজ।

সুজয় কুমার চৌধুরী এর ছবি

@রাগিব ভাই,

আমি অনেকদিন আগে থেকেই এনার ভক্ত। উনার প্রোফাইল সার্চ দিতে গিয়ে উইকিতে পাকিস্তানি দেখেছিলাম স্পষ্ট মনে আছে। এই একটা কারণে উনার ব্যাপারে উচ্ছ্বাস প্রকাশে আমার অ্যালার্জি ছিল। এর উপর একটা পোস্ট লেখার অনুরোধ রাখছি।

ফরিদ এর ছবি

খান একাডেমীর মাধ্যমে সালমানের কাজ ও তার অর্জন নিঃসন্দেহে ঈর্ষণীয় ও গৌরবময়। আমার ব্যাক্তিগত মত হল বাংলাদেশের শিক্ষাখাতে জাফর ইকবাল স্যার গণিত নিয়ে যে নবউদ্দীপনার সৃষ্টি করতে পেরেছেন গণিত অলিম্পিয়াডের মাধ্যমে সালমান খানের অর্জন অনেকটা সেরকমই। যদিও বাংলাদেশে তার পরিচিতি বা স্বীকৃতি নাই।

সম্ভবত এক অর্থে তা খারাপও না। বাংলাদেশের মিডিয়া পূজা করার মত নতুন অবতার পেলে তারে এতোই কচলায় যে তিতা হয়ে ছেড়ে দে মা কেঁদে বাঁচি অবস্থা হয় সেই বেচারার।

তবে আমার বিশ্বাস নবীর নাম ভাঙ্গিয়ে পাহাড়ী গপ্পের চেয়ে মিডিয়া লাইমলাইটের অনেক বেশী যোগ্য ছিল সালমান খানের গুগল এওয়ার্ড জেতা।

অতিথি লেখক এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ আপনাকে। আমার এই ব্যাপারে কোনো ধারনাই ছিল না। এক অর্থে অসাধারণ। ওই সাল্মান খানরে দেখতারিনা কিন্তু আমাদের দেশি সালমান খানের প্রতি শ্রদ্ধা বেড়ে যাচ্ছে। ( উইকিতে পাকি ছাগুদের ঘুড়া রোগ দেইখা দারুন মজা পাইছি)

অনন্ত

Tusher [অতিথি] এর ছবি

ভালো লাগলো।

উদ্ভ্রান্ত পথিক এর ছবি

ডিফারেন্সিয়াল ইকুয়েশন নিয়ে একটা ভিডিও দেখলাম। এক কথায় অসাধারণ। কত্ত সহজ করে বুঝায় দিলো। বুয়েটের গণিত ক্লাসে শিক্ষক না পাঠায় এই ভিডিও দেখাইলে পোলাপাইন্দের গণিতে এই দুরবস্থা হইতো না!
---------------------
আমার ফ্লিকার

---------------------
আমার ফ্লিকার

তাসনীম এর ছবি

কয়েকদিন আগে একজনের পাঠানো ই-মেইলে জেনেছি এটা, আরো গর্ব হয়েছে এই জেনে যে উনি বাংলাদেশী।

প্রিয় পোস্টে নিলাম। এই লেখাটার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

Omi এর ছবি

অসাধারণ এই তথ্য শেয়ার করার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ হাসি

কাজী মামুন এর ছবি

অসাধারণ!!
পোস্টটা বন্ধুদের সাথে শেয়ার করছি!

=================================
"রঙিন কাফনে মোড়া উৎসুক চোখে
ছায়া ছায়া প্রতিবিম্ব দেখি
মানুষ দেখি না।।"

=================================
"রঙিন কাফনে মোড়া উৎসুক চোখে
ছায়া ছায়া প্রতিবিম্ব দেখি
মানুষ দেখি না।।"

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি

চলুক

অনুপম ত্রিবেদি এর ছবি

জেনে খুব ভালো লাগলো। আমিও একজন ভক্ত হয়ে গেলাম ... ... ...

===============================================
ভাষা হোক উন্মুক্ত

==========================================================
ফ্লিকারফেসবুক500 PX

অতিথি লেখক এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ এই মানুষটা সম্পর্কে আমাদের জানানোর জন্যে। ফেসবুকে শেয়ার করছি।

রাতঃস্মরণীয়

দ্রোহী এর ছবি

ফেসবুকের কল্যানে খান একাডেমির কথা শুনেছি।


কাকস্য পরিবেদনা

সংসপ্তক এর ছবি

ব্যাপক ভালু পাইলাম! বিশেষ ধন্যবাদ রাগিব ভাইকে তাঁর উইকিযুদ্ধ জারি রাখার জন্য।
.........
আমাদের দুর্বলতা, ভীরুতা কলুষ আর লজ্জা
সমস্ত দিয়েছে ঢেকে একখণ্ড বস্ত্র মানবিক;
আসাদের শার্ট আজ আমাদের প্রাণের পতাকা

.........
আমাদের দুর্বলতা, ভীরুতা কলুষ আর লজ্জা
সমস্ত দিয়েছে ঢেকে একখণ্ড বস্ত্র মানবিক;
আসাদের শার্ট আজ আমাদের প্রাণের পতাকা

শুভাশীষ দাশ এর ছবি

ইদানীং এনার লেকচার শোনার নেশা হয়েছে। দিনে ঘন্টা দুয়েক বা তার বেশি ক্লাস করি।

----------------------------------------------------------------
অভ্র আমার ওংকার

কামরুল হাসান রাঙা [অতিথি] এর ছবি

উনি বাঙালি জেনে গর্ব অনুভব করছি। ফেসবুকে শেয়ার করলাম।

অদ্রোহ এর ছবি

দারুণ !!

--------------------------------------------

আজি দুঃখের রাতে, সুখের স্রোতে ভাসাও তরণী
তোমার অভয় বাজে হৃদয় মাঝে হৃদয় হরণী।

--------------------------------------------
যদ্যপি আমার গুরু শুঁড়ি-বাড়ি যায়
তথাপি আমার গুরু নিত্যানন্দ রায়।

নীলকান্ত এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ ফরিদ ভাইকে। আমার এ বিষয়ে কোন ধারণাই ছিল না। সালমান খানকেও স্যালুট। বাঙ্গালি হিসেবে গর্ব বোধ করছি এবং আশা রাখি বাংলা ভাষায় রূপান্তরের ব্যবস্থা করা হলে যেকোন প্রকারে সহযোগিতা করতে গর্ব বোধ করবো।

প্রতিনিয়ত চিনছি নিজেকে


অলস সময়

অতিথি লেখক এর ছবি

ভাই,
চোখ খুলে দেয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

অমিত্রাক্ষর
অমিত্রাক্ষর@জিমেইল ডট কম

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

দারুণ তো... কিছুই জানতাম না...
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

দুষ্ট বালিকা এর ছবি

উনার সাইট থেকে অনেক শিক্ষা নিয়েছি আগেই... পাকি ভেবে এতোদিন শেয়ার করতাম না! ইয়ে, মানে...

-----------------------------------------------------------------------------------
...সময়ের ধাওয়া করা ফেরারীর হাত থিকা যেহেতু রক্ষা পামুনা, তাইলে চলো ধাওয়া কইরা উল্টা তারেই দৌড়ের উপরে রাখি...

**************************************************
“মসজিদ ভাঙলে আল্লার কিছু যায় আসে না, মন্দির ভাঙলে ভগবানের কিছু যায়-আসে না; যায়-আসে শুধু ধর্মান্ধদের। ওরাই মসজিদ ভাঙে, মন্দির ভাঙে।

মসজিদ তোলা আর ভাঙার নাম রাজনীতি, মন্দির ভাঙা আর তোলার নাম রাজনীতি।

রানা মেহের এর ছবি

নজরুল ভাই ফেইসবুকে সালমান খান নিয়ে বলেছেন
"এই লোকেরে মাথায় তুলে নাচা দরকার"
আমিও বললাম
-----------------------------------
আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস

-----------------------------------
আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস

Kazi Asif Hossain এর ছবি

অনেক ভালো লাগলো লেখাটা পড়ে.....

আসাকরি অচিরেই বাংলা ভাষায় পাবো.....

খেকশিয়াল এর ছবি

আজকেই আমি গুগলের ১০ টুদিপাওয়ার ১০০ এর ব্যাপারে পড়ছিলাম আর আইডিয়াগুলি দেখতে গিয়েই প্রথমে খান একাডেমীর নাম জানলাম, আর এখন এই পোস্ট, দারুণ!

-----------------------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

-----------------------------------------------
'..দ্রিমুই য্রখ্রন ত্রখ্রন স্রবট্রাত্রেই দ্রিমু!'

এস এম মাহবুব মুর্শেদ এর ছবি

খান সাহেবের একটা সাক্ষাৎকার নেয়া গেলে ভালো হোতো।

====
চিত্ত থাকুক সমুন্নত, উচ্চ থাকুক শির

ফরিদ এর ছবি

ব্লগার শরৎশিশিরের তো ভাই বেরাদার হয়, দেখেন লাইন করা যায় কিনা। নিতে পারলে তো বেশ চমৎকার হবে। এছাড়া এই পোস্টের ব্যাপারে মেইল দিয়েছিলাম, জবাব দিয়েছে হাসি

ভিডিওগুলোর লিখিত ট্রান্সক্রিপ্ট কারো কাছে আছে কিনা জিজ্ঞাসা করেছি, স্প্যানিশ সহ আরো কিছু ভাষায় মনে হয় অনুবাদকর্ম চলছে। লিখিত ট্রান্সকৃপ্ট পাওয়া গেলে অনুবাদকর্ম অনেক সহজ হয়ে যাবার কথা।

এই মেইলের জবাবের অপেক্ষায় আছি

বাউলিয়ানা এর ছবি

সিএনএন থেকে নেয়া সালমান খানের ইন্টারভিউ দেখলাম। পুরস্কারের টাকা দিয়ে সব লেকচারগুলো বিভিন্ন ভাষায় অনুবাদের কথা বলেছেন উনি। বাংলায় লেকচারগুলো পাওয়া গেলে দারুন একটা কাজ হবে। কারন ম্যাথের লেকচারগুলো যা দেখলাম, খাঁটি আম্রিকান টানের জন্য বোঝা একটু কষ্টকর বিশেষ করে আমাদের দেশের ছাত্র-ছাত্রীদের।

পোষ্টের জন্য ফরিদ ভাইকে অনেক আপনারে অসংখ্য -ধইন্যাপাতা-

নীড় সন্ধানী এর ছবি

শিরোনামে 'খান' থাকায় পোষ্টে ঢোকা হয়নি আগে।

পুরো পোষ্ট পড়ে আমি আনন্দিত, উল্লসিত, উচ্ছসিত, ‍‌বিস্মিত, গর্বিত ...........আর কোন শব্দ খুজে পাচ্ছি না প্রতিক্রিয়া জানাবার।

-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.
এ ভ্রমণ, কেবলই একটা ভ্রমণ- এ ভ্রমণের কোন গন্তব্য নেই,
এ ভ্রমণ মানে কোথাও যাওয়া নয়।

‍‌-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.--.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.-.
সকল লোকের মাঝে বসে, আমার নিজের মুদ্রাদোষে
আমি একা হতেছি আলাদা? আমার চোখেই শুধু ধাঁধা?

অতিথি লেখক এর ছবি

এ বিষয়ে জানতাম না। খান দেখে পড়তে মন চাইছিল না।
পড়ে মন টা ভাল হয়ে গেল। মগো বরিশ্যাইলা!

হাজার বছর বেছে থাকুন।

সম্রাট [অতিথি] এর ছবি

সাল ভাইয়ের এক নম্বর ফ্যান হইলেন বিল আংকেল। এইখানে দেখেনঃ

http://money.cnn.com/2010/08/23/technology/sal_khan_academy.fortune/index.htm

স্বাধীন এর ছবি

এক কথায় অসাধারণ।

লেকচারগুলো বাংলাতে অনুবাদ করার কি চিন্তা রয়েছে উনার, এই ব্যাপারে কিছু জানেন।

ভুতুম এর ছবি

চরম। সেইরকম ভালো লাগলো।

-----------------------------------------------------------------------------
সোনা কাঠির পাশে রুপো কাঠি
পকেটে নিয়ে আমি পথ হাঁটি

-----------------------------------------------------------------------------
সোনা কাঠির পাশে রুপো কাঠি
পকেটে নিয়ে আমি পথ হাঁটি

রাগিব এর ছবি

অনুবাদের কথা অনেকেই বলছেন। কিন্তু আমার মতে এই লেকচারগুলো অনুবাদ করা রীতিমত কঠিন একটা কাজ হবে। কারণ ১) লেকচারগুলোর লেখা পুরোপুরি ইংরেজিতে। ওগুলো বাংলা করতে হলে পুরো ভিডিওটাই আবার নতুন করে করতে হবে।

আর ২) লেকচারের ভিডিও যা আছে তা রেখে অডিওটুকু বাংলা করলেও লাভ নেই। কারণ সালমান খানের ভিডিওর জনপ্রিয়তার মূল কারণ হলো তার গল্পছলে বোঝানোর দক্ষতা। বাংলায় যিনি ডাব করবেন অডিও, তিনিও সালমানের মতো দক্ষ ও ভালো শিক্ষক হলে তবেই বাংলায় ভাষান্তরিত অডিও কাজ দেবে। যে কেউ কেবল সালমানের ইংরেজি কথাগুলোকে বাংলা করে দিলেই লেকচারগুলো বাংলাভাষীরা একইভাবে বুঝবে, তা আদৌ হবে না।

এই দুই কারণে এই ভিডিওগুলো বাংলাতে ভাষান্তরিত করা সম্ভব হবে কি না এই ব্যাপারে আমি সন্দিহান। ভিডিও/অডিও-দুটোই বাংলাতে পাল্টাতে গেলে যে রকম পরিশ্রম হবে, তার চাইতে অনেক সহজ হবে কেঁচে গণ্ডুষ করা, মানে বাংলাতে নতুন করে লেকচারগুলো দক্ষ কোনো শিক্ষকের হাতে বানানো।

----------------
গণক মিস্তিরি
মায়ানগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | টুইটার

----------------
গণক মিস্তিরি
জাদুনগর, আম্রিকা
ওয়েবসাইট | শিক্ষক.কম | যন্ত্রগণক.কম

হিমু এর ছবি

কয়েকটা লেকচার দেখে আমারও একই কথা মনে হয়েছে।

আমার মনে হয়, বাংলাদেশের জন্যে ফোকাস করা উচিত গণিত ও ইংরেজির ওপর।



বুকে BOOK রেখে বন্ধু চলো আজ যাবো বরাহশিকারে মোরা ধার ধার ধার দিও বল্লমে ♪♫

অতিথি লেখক এর ছবি

আমি এই পোস্টের শিরোনাম দেখে আগে লেখাটা পড়তে আগ্রহ বোধ করিনি। কিন্তু প্রচুর হিট এবং অর্ধশতাধিক মন্তব্য দেখে লেখাটা পড়তে আগ্রহী হই এবং পড়ে চমৎকৃত হয়েছি। আমার অনুরোধ এই লেখার শিরোনামে 'বাঙ্গালী' বা এই ধরণের কোন শব্দ যোগ করা হোক যেন মানুষ এই পোস্টের শিরোনাম দেখে বিভ্রান্ত না হয়। আর এই পোস্টটা স্টিকী করার অনুরোধ করছি যেন আরো অধিক সংখ্যক মানুষ লেখাটি পড়তে পারে।

সত্যান্বেষী

ফরিদ এর ছবি

এই সালমান যে সেই সালমান না, সেইটা যদি শিরোনামেই বলে দিতাম তাইলে কি আর শেষ প্যারার তামাশা থাকতো? হাসি

অতিথি লেখক এর ছবি

আপ্নে খারাপ লোক।
কুইনাইন কোটেড সুগার দিছেন শিরোনাম। সালমান খান গুরু, তারে স্যামন মাছের ডিম খাওয়ানো উচিত।
ধন্যবাদ বাংলাদেশ এর গৌরবোজ্জ্বল পোস্টের জন্য।

...........................
শ্যামল

ফরিদ এর ছবি

সালমান খানের তৈরি ভিডিওগুলোর প্রাপ্তিস্থান ও আনুষঙ্গিক বিষয় নিয়ে নিয়ে পরবর্তীতে লেখা হয়েছে। আগ্রহীরা পড়তে পারেন।

http://www.sachalayatan.com/guest_writer/35458

ধন্যবাদ

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।