আকাশের কাছে-১

তাসনীম এর ছবি
লিখেছেন তাসনীম (তারিখ: বুধ, ১৭/০২/২০১০ - ৫:০২পূর্বাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

আমার মেয়েদের ভূগোল জ্ঞান বেশ সীমিত, প্রায় আমারই মত। ওদের ধারনা পৃথিবীতে জায়গা আছে তিনটি। একটা অস্টিন, যেখানে আমরা থাকি, দ্বিতীয়টা হিউস্টন যেখানে ওর বাপ্পি চাচ্চু থাকে আর তৃতীয়টা হোল বাংলাদেশ যেখানে ওদের নানা, নানি, দাদা, দাদি চাচু, মামা আর যাবতীয় আত্মীয় থাকে। সুতরাং আমি যখন বললাম কলোরাডো যাব, তখন ওদের প্রথম জিজ্ঞাসা হল এইটা কোথায়? এইটা বাংলাদেশ না, হিউস্টন না, অস্টিনও না। তাও অনেক দূরের পথ। বেশ বেশ, তারপরের প্রশ্ন কি হবে ওখানে গিয়ে? ওইখানে বেড়াতে গিয়ে কি লাভ এইটা বুঝাই কি করে। আর বেড়াতে যাওয়ার কনসেপ্টাই এখনও বোঝান হয় নি। লম্বা ছুটি পেলে ঢাকায় যাই, আর উইকেন্ড বা ছুটিছাটায় ডালাস, হিউস্টন বা সান এন্টোনিও। কোনটাই ঠিক বেড়ানোর মত নয় আর এসব জায়গায় গেলে বাসায় বসে আড্ডাই মারা হয়। এবার সত্যি সত্যি বেড়ানো হচ্ছে। বেড়ানো বোঝানোর জন্য ডোরার কার্টুনের সাহায্য নেই, বললাম যে ডোরার মত আমরাও "টলেস্ট মাউন্টেনে" উঠব। এবার এক কথায় রাজি।

২০০৯ সালের জুলাই মাসের শেষ শুক্রবার আমরা বিকেলের ফ্লাইটে অস্টিন থেকে ডেনভার পৌঁছাই, বিশেষত্বহীন ২ ঘন্টার ফ্লাইট। ডেনভার থেকে গাড়ি রেন্ট নিয়ে এক থেকে দেড় ঘন্টার পথ কলোরাডো স্প্রিংস। কলোরাডো খুবই দর্শনীয় জায়গা, এই স্টেটের উত্তর দক্ষিন বরাবর গিয়েছে রকি মাউন্টেন, রাস্তার পাশে গাড়ি রেখে দাঁড়ালেই চোখ জুড়িয়ে যায়। আমাদের গন্তব্য হোল পাইক'স পিক, ১৪,০০০ ফুট উচ্চতায়, আরও আছে রয়্যাল গর্জ বা রাজকীয় গিরিখাদ। কলোরাডো স্প্রিংসের কাছেই আছে গার্ডেন অফ দ্য গডস আর সেভেন ফলস। আমাদের পৌনে তিনদিনের ঝটিকা সফর। তিনদিনে কলোরাডো দেখা সম্ভব না, আমি এর আগে দুবার এসে ঘুরে গেছি স্টেটের উত্তরের রকি মাউন্টেন ন্যাশানাল পার্ক আর মাঝঝানের পাহাড়ি শহর এস্পেন, ছাত্র অবস্থায় একবার ডুরাংগো গিয়েছিলাম, ক্যামেরাও ছিল না সাথে, ডিজিটাল ক্যামেরা এত সুলভ হয় নি তখনও। পুরো কলোরাডো ঠিকমত ঘুরতে সময় লাগবে অন্তত দিন দশেক।

রাতে হোটেলে পৌঁছে, বিছানায় শুতে শুতে প্রায় ১২ টা বেজে গিয়েছিল। অস্টিনে বেজায় গরম অগাস্ট মাসে, সেই তুলনায় কলোরাডো অনেক মনোরম। পরদিন শনিবার, অগাস্ট মাসের এক তারিখ, অফিসিয়ালি সফর শুরু করতে করতে প্রায় দশটা বেজে গেল। বেশ সুন্দর দিন পেয়েছি আমরা। আমার পূর্ব অভিজ্ঞতার আলোকে আমি ফোর হুইল গাড়ি রেন্ট করেছি (সম্ভবত টয়োটা হাইল্যান্ডার)। দেরি না করে রওনা দিলাম পাইক'স পিকের দিকে।

পথের দৃশ্য এটা। কলোরাডোতে মনে হয় বাসার জানালা দিয়ে তাকালেই এরকম দৃশ্য দেখা যায়।

IMG_2396

পাইক'স পিক কে ঘিরে একটা ন্যাশানাল পার্ক, যেটার নাম অবধারিতভাবেই পাইক'স ন্যাশানাল পার্ক। কলোরাডো স্প্রিংস থেকে ৩০ মিনিটেই ন্যাশানাল পার্কে ঢোকার মুখে আসা যায়, কিন্তু আসল মজাটা উপরে মানে চূড়ায় উঠা। উপরে উঠার জন্য ওরা চমৎকার একটা টোল রাস্তা বানায়ে রেখেছে, যেটা দিয়ে ১৪০০০ হাজার ফুট উঠতে প্রায় ৪৫ মিনিট লাগে। জুলাইয়ে একটা মোটর সাইকেল র‌্যালি হয়, তাতে সে বছর এক জাপানি লোক ১১/১২ মিনিটে পাহাড়ের নীচ থেকে উপরে উঠেছে। তবে একটা কথা, কলোরাডো স্প্রিংস শহরও ৬০০০ ফুট উচ্চতায়, সুতরাং ১৪০০০ ফিটের মধ্যে এই ৬০০০ ফুট আপনি উঠে আছেন অলরেডি, বাকি থাকে আর ৮০০০ ফুটের মত। রাস্তাটা ঘুরিয়ে পেঁচিয়ে প্রায় ১৫/১৬ মাইল, উঠার সময়ে মাঝে মাঝে হৃদকম্পণ বন্ধ হয়ে যাবার উপক্রম হয়, কখনও ভয়ে কখনোবা সৌন্দর্য দেখে। বকবক না করে চূড়ায় উঠার পথের ছবিগুলো দেখি।

IMG_2435

IMG_2424

IMG_2592

IMG_2625

১২,০০০ ফুটের উপরে গাছা-পালা হয় না, একে এরা বলে টিম্বার লাইন। উঁচু পাহাড়ের চূড়া গুলো এজন্যই ন্যাড়া ন্যাড়া লাগে বরফ গলে গেলে। কিন্তু অগাস্ট মাসেও জায়গায় জায়গায় বরফ। এই জায়গার একটা ছবি।

IMG_2432

অবশেষে চূড়ায় পৌঁছালাম। আমার প্রায় এক ঘন্টা লেগেছে, মাঝে দুই তিন জায়গায় পাঁচ মিনিট করে থেমেছিলাম ছবি তোলার জন্য। ১৪০০০ ফুটে উঠলে এবং আমার মত শ্বাসের সমস্যা থাকলে একটু অস্বস্তি লাগতে পারে, অক্সিজেন কিন্তু কম, দৌড়াদৌড়ি করলে বিপদে পড়বেন। নীচের ছবিগুলো চূড়া থেকে তোলা।

IMG_2650

IMG_2662

চূড়ার উপর থেকে পায়ের নীচে মেঘের আনাগোনা...

IMG_2661

লেখাটা বড় হয়ে যাচ্ছে, মূলত আমার বকবকের কারনে। প্রথম পর্ব এখানেই শেষ করি। দ্বিতীয় পর্বে আরো কিছু ছবি দিব, আর কথাটা একটু কম বলার চেষ্টা করব, আপনাদের চূড়ায় রেখে গেলাম, উপভোগ করুন আর ভালো থাকুন টা টা...বাই বাই...


মন্তব্য

পাঠক [অতিথি] এর ছবি

আবার যেন দেখতে পাই:)

তাসনীম এর ছবি

দেখা হবে নিশ্চয়।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- দ্বিতীয় ফটুকটা দেখেই গ্লাইডিং করতে ইচ্ছা জাগছে! করা যায় নাকি ওখানে?

রকি মাউন্টেইনের (এতো শুনছি এই জিনিষের নাম) কথা শুনে ডাবলিনার্সের দ্য রকি রোড টু ডাবলিনের কথা মনে পড়ে গেলো। শুনেছেন নাকি?
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

তাসনীম এর ছবি

গ্লাইডিং করতে দেখেনি কাউকে...করা গেলে দর্শনীয় হত, যদিও আমি এর মধ্যে নাই হাসি

রকি রোড টু ডাবলিন শুনি নি, আপনার কমেন্টের পরে শুনে দেখলাম। জন ডেনভারের গানে রকি মাউন্টেইন পাবেন অনেক।

নীচে একটা এম্বেড করলাম (গানটা কভার সিংগারের গাওয়া, ডেনভারের নয়)।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

সাফি [অতিথি] এর ছবি

আমার দেখা এখন পর্যন্ত আমেরিকার সেরা যায়গা কলোরাডো। বাসায় যেয়ে খুঁজে পেলে পাইকস পিক এর কিছু ছবি জুড়ে দিবো

তাসনীম এর ছবি

আমার মতে অন্যতম সেরা, জিপিএ ৫ পাওয়া। আপনার ছবিগুলোর অপেক্ষায় রইলাম।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

অমিত এর ছবি

২০০৬ সালের মে মাসে অস্টিন থেকে গাড়ি চালিয়ে গিয়েছিলাম কলোরাডো। পাইকস পিক এ উঠি ট্রেনে। প্রচন্ড ঠান্ডা আর একটু পরেই বরফ পড়া শুরু হয়।
রকি মাউন্টেইন বেশ সুন্দর জায়গা। কিন্তু সেবার একদিনের বেশি থাকার সময় ছিল না।

তাসনীম এর ছবি

আমিও গাড়ি নিয়ে উঠার দুদিন পরে আবার ট্রেনে করে পিকে উঠেছিলাম। ওটাও দারুন, রেখে দিয়েছি দ্বিতীয় পর্বের জন্য।
+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

তিথীডোর এর ছবি

"দেখিতে গিয়াছি পর্বতমালা..."
তৃতীয় ছবিতে অমন পোজ দিচ্ছেন কোনজন, সামারা নাকি আনুশা?

--------------------------------------------------
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

________________________________________
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

তাসনীম এর ছবি

খুব সত্য...

টপ অফ দ্য ওয়ার্ল্ড পোজ দিচ্ছে আনুশা।
+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

আশরাফ মাহমুদ এর ছবি

এত সুন্দর সুন্দর ছবি দেখে তব্দা খেলাম। কবে যে এমন ছবি তুলতে পারব!

==============================
ঢাকার মৌন ঘ্রাণে বকুলফুলের নাভি
==============================
হা-তে এ-ক প্র-স্থ জো-ছ-না পা-ড়ে-র ঘ্রা-ণ

তাসনীম এর ছবি

ধন্যবাদ আশরাফ, কৃতিত্বটা জায়গার...আমার নয়।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

তুলিরেখা এর ছবি

তাব্ধা! এক্কেরে তাব্ধা! টাশকি লাইগা রইলাম!
অতি সুন্দর!
-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

-----------------------------------------------
কোন্‌ দূর নক্ষত্রের চোখের বিস্ময়
তাহার মানুষ-চোখে ছবি দেখে
একা জেগে রয় -

তাসনীম এর ছবি

আসলেই কলোরাডো ভূস্বর্গ। ধন্যবাদ তুলিরেখা।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

মৃদুল আহমেদ এর ছবি

আপনার বকবকানি বলছেন কেন?
ঐ বকবকানি শোনার জন্যই তো পোস্টে ঢোকা...
ডিয়ার তাসনীম ভাই, আপনার লেখা খুবই ঝরঝরে। আমি অনেক আরাম নিয়ে পড়ি।
এই ছবির সাথে এই বিবরণগুলো না দিলে এগুলো তো স্রেফ ওয়ালপেপার হয়ে থাকবে!
কলোরাডো ঘুরতে যাব... হে হে, আর এক বছরের মধ্যেই চলে আসার সম্ভাবনা আছে, তারপর পুরো আম্রিকা ঢুঁড়ে দেখে ফেলব এনশাল্লাহ!
মিষ্টি মেয়ে আনুশার ছবি দেখে মজা পেলাম।
--------------------------------------------------------------------------------------------
বললুম, 'আমার মনের সব কপাট খোলা ভোজরাজজী। আমি হাঁচি-টিকটিকি-ভূত-প্রেত-দত্যি-দানো-বেদবেদান্ত-আইনস্টাইন-ফাইনস্টাইন সব মানি!'

--------------------------------------------------------------------------------------------
বললুম, 'আমার মনের সব কপাট খোলা ভোজরাজজী। আমি হাঁচি-টিকটিকি-ভূত-প্রেত-দত্যি-দানো-বেদবেদান্ত-আইনস্টাইন-ফাইনস্টাইন সব মানি!'

তাসনীম এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ সদয় মন্তব্যের জন্য।

অভিনন্দন আপনাকে বই প্রকাশের জন্য, অর্ডার দিয়েছি, দুই সপ্তাহের মধ্যে চলে আসবে, এখন অপেক্ষা। কালকে আপনাদের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান দারুন লেগেছে।

অগ্রিম স্বাগতম এই মুল্লুকে, তবে বিচার শুরু করে দিয়ে তারপর দেশ ছেড়েন হাসি

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

নাশতারান এর ছবি

জন ডেনভারের রকি মাউন্টেন চলছে মাথার ভেতর।
লেখা ছোট হয়ে গেছে। ছবিও কম। সামনের পর্বে পুষিয়ে দিন। দেঁতো হাসি

_____________________

আমরা মানুষ, তোমরা মানুষ
তফাত শুধু শিরদাঁড়ায়।

তাসনীম এর ছবি

এইটাই সমস্যা, লেখা আর ছবি ব্যালেন্স করা বড় মুশকিল। চেষ্টা করব পুষায়ে দিতে হাসি

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

নাশতারান এর ছবি

আরে ভাই, আপনি তো দেখছি সিরিয়াস হয়ে গেলেন। লেখা, ছবি দুইই খুব ভালো লেগেছে। আরো হলে আরো তাড়িয়ে তাড়িয়ে উপভোগ করতাম আর কি !!

_____________________

আমরা মানুষ, তোমরা মানুষ
তফাত শুধু শিরদাঁড়ায়।

তাসনীম এর ছবি

সিরিয়াস না...ছবি আর কথার ব্যালেন্স নিয়ে ভাবছিলাম।

আপনার ভালো লেগেছে খুশি হলাম।
+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

নৈষাদ এর ছবি

আপনার লেখা এবং ছবিগুলি ভাল লাগল। ধন্যবাদ।

আমি চমৎকৃত হলাম জাপানি ভদ্রলোকের রেকর্ড দেখে, ১১/১২ মিনিটে ৮০০০ ফুট পাহাড়ের নীচ থেকে উপরে উঠা, তাও বাই-সাইকেলে!!

কলোরাডোর নাম এত শুনেছি...। ছবিগুলি সুন্দর হয়েছে। তবে আমি বলব না আমি মুগ্ধ হয়েছি কলোরাডোর প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে (অবশ্য ছবি দেখে কতটুকুই বা বোঝা সম্ভব)। পাহাড় আমি পছন্দ করি। আমার কাছে আমাদের বান্দরবান কিংবা ভারতের হিল-স্টেশন গুলির সৌন্দর্য অনেক বেশি মনে হয়েছে..।

তাসনীম এর ছবি

ধন্যবাদ আপনাকে নৈষাদ।

জাপানি ভদ্রলোক মোটর বাইকে উঠেছেন, রাস্তা যেরকম, সেটাও জটিল কাজ।

আমি কলোরাডো যাওয়ার মাস চারেক আগে দেশে গিয়েছিলাম, তখন জীবনে প্রথম বান্দরবানের নীলগিরি যাই। অসাধারণ সুন্দর। বাংলাদেশ আর ভারত মিলিয়ে পৃথিবীর সব বৈচিত্রই পাবেন...দাশ বাবুতো বলেই দিয়েছেন...

বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি, তাই আমি পৃথিবীর রূপ
খুঁজিতে যাই না আর...

১১১ বছর বয়েসেও উনি কত রিলেভেন্ট, আমার যখন ১১১ বছর বয়েস হবে, আমার কথা কেউ মনে রাখবে না।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

ধুসর গোধূলি এর ছবি

১১১ বছর বয়েসেও উনি কত রিলেভেন্ট, আমার যখন ১১১ বছর বয়েস হবে, আমার কথা কেউ মনে রাখবে না।
রাখবে রাখবে, আর কেউ না রাখলেও এই ধুগো ঠিকই মনে রাখবে। কিন্তু তার আগে যে আপনাকেও একটা কোবতে লিখে যেতে হবে তাসনীম ভাই।

ধুগোর মুখ আমি দেখিয়াছি, শালীর জন্য অন্য পাত্র
খুঁজিতে যাই না আর...

ধুগো জেনারেশন আপনাকে বংশপরম্পরায় মনে রাখবে, না রেখে উপায়ই বা কী! দেঁতো হাসি
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

তাসনীম এর ছবি

হা হা হা...মনে করায়ে দিলেন...আমি এখন দেখা যাচ্ছে ধূগো দায়গ্রস্ত হাসি

প্রব্লেম হচ্ছে জিগলিন্ডের গল্প পড়লে বাঙ্গালী মেয়েরা চমকে যায়। আমাদের কালচারে মিথ্যা বলা, মানুষ খুন করা, ঘুষ খাওয়া কোনটাই সমস্যা নয়...শুধু কোন মেয়ের সাথে (সাদা হলে আরো বাট) নির্দোষ সময় কাটালেই অসুবিধা।

যাহোক মাথায় আছে, অমর হওয়ার এই সুযোগ হাতছাড়া করব না।
+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

গৌতম এর ছবি

বেশ সুন্দর জায়গা! বেশ সুন্দর লেখা! বেশ সুন্দর ছবি!

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

শিক্ষাবিষয়ক সাইট ::: ফেসবুক

.............................................
আজকে ভোরের আলোয় উজ্জ্বল
এই জীবনের পদ্মপাতার জল - জীবনানন্দ দাশ

তাসনীম এর ছবি

ধন্যবাদ গৌতম।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

ভ্রম এর ছবি

লেখা, ছবি সবই চমৎকার লাগলো!

তাসনীম এর ছবি

ধন্যবাদ ভ্রম।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

শুভাশীষ দাশ এর ছবি

ভাল লাগল।

তাসনীম এর ছবি

ধন্যবাদ শুভাশীষ।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

হিমু এর ছবি

সুন্দর জায়গা। কোনো ধরনের ট্রেকিং ট্রেইল নেই এখানে? অবশ্য ৬০০০ ফুট থেকে ১৪০০০ ফুট উঠতে গেলে খানিকটা খবরই আছে।

পাহাড় ভালোবাসেন, এমন কাউকে পেলেই আমি মোটামুটি ধরেবেঁধে তাকে একটা লেখা পড়ানোর চেষ্টা করি।



বুকে BOOK রেখে বন্ধু চলো আজ যাবো বরাহশিকারে মোরা ধার ধার ধার দিও বল্লমে ♪♫

সুবিনয় মুস্তফী এর ছবি

শুধুমাত্র সাউথওয়েস্ট-এ হাইকিং করে জীবনের কয়েক বছর আরামসে পার করে দেয়া যায়। সেই কপাল যদি কোনদিন হইতো...
-------------------------
হাজার বছর ব্লগর ব্লগর

তাসনীম এর ছবি

ট্রেকিং ট্রেইল আছে, আমি একজনের দেখা পেয়েছিলাম যে ট্র্যাক করে উঠেছিল। তবে দারুন ফিটনেস দরকার হবে নিশ্চিত।

আপনার লেখাটা সেভ করে রাখলাম, পরে পড়ব। শুরুটা ভালো লেগেছ।

ধন্যবাদ।
+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

দুর্দান্ত এর ছবি

কলোরাডো শুনলেই মনে পড়ে মর্ক এন্ড মিন্ডির কথা।
খুব সুন্দর গল্প আর সুন্দর সুন্দর ছবি। যেতে হবে একদিন।
নানু নানু!

তাসনীম এর ছবি

ধন্যবাদ আপনাকে।
কলোরাডো নিঃসন্দেহে আমেরিকার অন্যতম দর্শনীয় জায়গা।

মর্ক এন্ড মিন্ডি কলোরাডোর কাহিনী তা জানতাম না। রবিন উইলিয়ামস পৃথিবীতে মানুষরূপি এলিয়েন ছিল সেটা মনে আছে, সিরিজটা বেশ মজার ছিল।

নানু নানু...

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

চমৎকার লেখা ও ছবি। এটা পড়তে দেরী করে ফেললাম, পরেরটাতে দেরী হবেনা।

তাসনীম এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

সুহান রিজওয়ান এর ছবি

ঝরঝরে, টানটান লেখা। দারুণ ছবি !!!
আপনি কি ডায়রি লেখেন বস ??

_________________________________________

সেরিওজা

তাসনীম এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ সুহান।

না ডায়েরি লেখা অভ্যেস নেই এখন আর, ছোটবেলায় লিখেছি কিছুদিন, সেগুলোও কোথায় যে হারিয়ে গেছে। এখন ব্লগাই মাঝে মাঝে...যে যুগে যে আচার। অন্তর্জালে বাংলা লেখা খুব কঠিন কাজ মনে হত আগে, গত ২ মাসের অনুশীলনে এখন অনেকটা সহজ হয়ে গেছে।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

রাজীব রহমান [অতিথি] এর ছবি

খালা পাহাড় আর পাহাড়... পাহাড়ের জন্য তো দেখি কিছুই দেখার উপায় নেই...

স্বপ্নাহত এর ছবি

আকাশের কাছে - পড়তে পড়তে মুগ্ধতা আকাশের কাছাকাছি পৌঁছে গেল প্রায়। আপনি দারুণ লিখতে পারেন।

আর আপনার মেয়ের ছবি দেখে একা একাই হাসলাম কিছুক্ষণ। এইসব নিষ্পাপ মুখগুলো খুব সহজেই মন ভালো করে দেয়ার অদ্ভূত ক্ষমতা ধারণ করে।

ভালো থাকুন।

---------------------------------

বাঁইচ্যা আছি

---------------------------------

বাঁইচ্যা আছি

তাসনীম এর ছবি

অনেক ধন্যবাদ আপনার মন্তব্যের জন্য।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

দুষ্ট বালিকা এর ছবি

ইশশিরে! মন খারাপ

**************************************************
“মসজিদ ভাঙলে আল্লার কিছু যায় আসে না, মন্দির ভাঙলে ভগবানের কিছু যায়-আসে না; যায়-আসে শুধু ধর্মান্ধদের। ওরাই মসজিদ ভাঙে, মন্দির ভাঙে।

মসজিদ তোলা আর ভাঙার নাম রাজনীতি, মন্দির ভাঙা আর তোলার নাম রাজনীতি।

তাসনীম এর ছবি

কেন?

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

অতিথি লেখক এর ছবি

চমৎকার যায়গা। কবে যে যেতে পারব...

কৌস্তুভ

তাসনীম এর ছবি

সময় করে ঘুরে আসবেন...আমার মতে এটা আমেরিকা দর্শনীয় স্থানগুলোর একটা।

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++
মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না?

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

ওডিন এর ছবি

বাহ! দারুণ সব ছবি আর লেখা।
আরকিছু না, এইসব জায়গার কারনেই আমি আমেরিকানদের হিংসা করি।
______________________________________
যুদ্ধ শেষ হয়নি, যুদ্ধ শেষ হয় না

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

এই লেখাটি যখন পড়ি তখন ঘুণাক্ষরেও ভাবিনি কোনদিন কলোরাডোতে আসা হবে, থাকা হবে!

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।