ঘুমপাহাড়ের দেশে (২)

উজানগাঁ এর ছবি
লিখেছেন উজানগাঁ (তারিখ: মঙ্গল, ২০/০৭/২০১০ - ১০:২৫অপরাহ্ন)
ক্যাটেগরি:

ভোলাগঞ্জের রাস্তা পুরোটাই ঘুমের উপর দিয়ে গেল। রাস্তায় দু'একবার ঘুম ভেঙেছে যদিও তা রাস্তার ঝাকুনিতে। ঘুমের ব্যাপারে আমার ভালই সুনাম আছে। যে কোনো অবস্থায় যে কোনো স্থানে আমি ঘুমোতে পারি। নৌকার ইঞ্জিনের পাশে ঘুমিয়ে আমি নির্দ্বিধায় পাড়ি দিতে পারি মাইলের পর মাইল।

ঘুম পুরোপুরি ভাঙল ভোলাগঞ্জ পৌঁছার মিনিট পাঁচেক আগে। তাও আমাদের সহযাত্রি ফখরুল ভাইয়ের চিৎকারে। চোখ মেলতেই দেখলাম সামনে বিশাল এক ট্রাক আড়াআড়িভাবে রাস্তা পুরোটা দখল করে দাঁড়িয়ে আছে। আর ফখরুল ভাই তার চৌদ্দগুষ্টি উদ্ধার করছেন। বেচারা ড্রাইভার হাসিমুখে উনার দিকে তাকিয়ে আছে। ভাবটা এমন যে সে পুরো ব্যাপারটাতে খুব মজা পাচ্ছে।

আমি এই অবস্থায় উনাদের রেখে হাঁটা শুরু করলাম। নদীর পাড়ে যত তাড়াতাড়ি পৌঁছা যায় ততই মঙ্গল। প্রচণ্ড রোদ উঠেছে।

1

তবে আকাশটা ভারি সুন্দর। আমার আকাশপ্রীতি এমনিতেই একটু কম কিন্তু ঐদিন শুধুমাত্র ওয়াইড এঙ্গেল একটা লেন্স ছাড়া কিছুই সাথে নেইনি। যেকোনো সাবজেক্টের দিকে ক্যামেরা তাক করলেই হাসিমুখে বিশাল একখানা আকাশ সেই ছবির অংশ হয়ে দাঁড়ায়।

2

হাঁটতে-হাঁটতে একসময় নদীতীরে পৌঁছে গেলাম। নদীটা এমনিতে খুব সুন্দর। নাম ধলাই। খুব বেশী গভীর না। নীচে বালি থাকায় পানি খুব স্বচ্ছ এবং ঠান্ডা। প্যান্ট গুটিয়ে পানিতে নেমে ছবি তুলতে শুরু করলাম। যতটুকু না ছবি তোলার দিকে মনোযোগ তারও চেয়ে বেশি মনোযোগ দূরের পাহাড়ের দিকে।

3

ঠান্ডা পানির উপর দিয়ে হাঁটতে-হাঁটতে আবার ঘুম পেল। ক্যাম্পের দিকে হাঁটা শুরু করলাম। ঐখানে গেলে ঘুমানোর একটা বন্দোবস্ত করা যাবে। ক্যাম্পে পৌঁছে দেখি আমাদের সফরসঙ্গী কেউ নেই। সবাই নদী পার হয়ে পাহাড়ের দিকে চলে গেছেন। একমাত্র সচল আলমগীর ভাইকে ক্যাম্পের এক কোনায় পত্রিকা পড়ায় ব্যস্ত দেখলাম। আমিও একটা ভাল জায়গা দেখে চোখ বুঁজলাম।

Symphony Under the Sky

এসব ক্ষেত্রে যা হয় পুরোপুরো ঘুম লাগলো না। কিছুক্ষণ পরে-পরে ঘুম ভেঙে যায়। এরই মধ্যে ফখরুল ভাই এসে হাজির। রাজনীতি, সমাজনীতি, অর্থনীতি, বাজারনীতির উপর উনার বিশাল দখল এবং সেটা সবার মধ্যে বিপণনের প্রক্রিয়া দেখে মুগ্ধতায় আমার আর ঘুমাবার উপায় থাকল না।

The beauty of bholagonj

ভোলাগঞ্জের এই জায়গাটা আমার খুব প্রিয়। ভোলাগঞ্জ যে কতোটা সুন্দর সেটা এই ব্রিজে দাঁড়ালে বুঝা যায়। রোদ তখন পড়তির দিকে। আমরা সবাই তখন ধলাই ব্রিজে ব্যস্ত ছবি তোলা নিয়ে। শুক্রবার বলে নদীতে নৌকার সংখ্যা কম। কিন্তু তারপরও যা দেখলাম তা কোনো অংশে কম নয়। সেখানে ঘন্টখানেক কাটিয়ে আমরা ফিরতে শুরু করলাম শহরের দিকে। আলো অনেক কমে এসেছে। গাড়িতে উঠে আবার সেই ঘুম পেয়ে বসল।

Another Sunset

কতক্ষণ পর জানি না। ঘুম ভাঙল। দেখি গাড়ি দাঁড়িয়ে আছে। জায়গাটা ঠিক কোথায় ধরতে পারলাম না। চারদিক লাল করে সূর্য অস্ত যাচ্ছে। মাঝে-মাঝে নিজেকে খুব ক্ষুদ্র মনে হয়। প্রকৃতি মাঝে-মধ্যে একধরনের বিভ্রম তৈরি করে আমাদের চারপাশে। আমরা এদিক-ওদিক ছুটোছুটি করি। একসময় ব্যর্থ হয়ে বসে পড়ি। হায়! প্রকৃতিকে তার মতো করে ধারন করার মতো কোনো কিছু কি আবিষ্কার হবে কোনো কালে !


মন্তব্য

জুয়েইরিযাহ মউ এর ছবি

নীল আকাশ কী যে দারুণ লাগে কী আর বলি... !!
ছবিগুলো চরম জটিল দারুণ অসাধারণ জোশ ...... দেঁতো হাসি হাসি

--------------------------------------------------------------------
নির্জলা নৈবেদ্য


-----------------------------------------------------------------------------------------------------

" ছেলেবেলা থেকেই আমি নিজেকে শুধু নষ্ট হতে দিয়েছি, ভেসে যেতে দিয়েছি, উড়িয়ে-পুড়িয়ে দিতে চেয়েছি নিজেকে। দ্বিধা আর শঙ্কা, এই নিয়েই আমি এক বিতিকিচ্ছিরি

প্রকৃতিপ্রেমিক এর ছবি

দারুণ ছবিগুলো হাসি

তিন নম্বরটাতে মনে হচ্ছে মেঘের ফোয়ারা।
শেষের দুটো অসাধারণ।

আলমগীর এর ছবি

ব্রিজটা মিস করলাম মন খারাপ ছবিটা খুব্ই সুন্দর।

বালক এর ছবি

কি লিখি,
এতো চমৎকার ছবি দেখে কি মন্তব্য করবো খুঁজে পাচ্ছি না!
:::::: :::::::: ::::::::::::::: ::::::::::::::: ::::::::: ::::::::: :::::: ::::::: ::::::::::::
ভবিষ্যতে কি হবে তা ভেবে বর্তমানকে উপেক্ষা করবো কেনো?

____________________________________________________________________
"জীবনের বিবিধ অত্যাশ্চর্য সফলতার উত্তেজনা
অন্য সবাই বহন করে করুক;
আমি প্রয়োজন বোধ করি না :
আমি এক গভীরভাবে অচল মানুষ হয়তো
এই নবীন শতাব্দীতে
নক্ষত্রের নিচে।"

অতিথি লেখক এর ছবি

খুব সুন্দর ছবি। অসাধারণ!

সুমিমা ইয়াসমিন

আরিফ [অতিথি] এর ছবি

খুব ভাল লাগল।। ছবিগুলো অসাধারন হয়েছে

অনিন্দিতা চৌধুরী এর ছবি

অসাধারণ ছবি উজানগাঁ
বিশেষ করে শেষের দুটো ছবি।

অনুপম ত্রিবেদি এর ছবি

তোমার & তোমাদের বদৌলতে সিলেটে যেই কয়টা জায়গার প্রেমে আমি হাবুডুবু তার মধ্যে এই ভোলাগঞ্জ অন্যতম। আমি আকাশপ্রেমী, আকাশ নেই এমন ছবি মনে হয় জীবনে খুবই অল্প তুলেছি। ৩,৫ আর ৬ নাম্বার ছবিতে প্রচুর হিংসা দিয়ে গেলাম, আর কিই বা করতে পারি - যারা সিলেটে থাকে বাই ডিফল্ট আমি তাদের ভয়ানক হিংসা করি।

তোমার মতো করে কবে যে ছবি তুলতে পারবো ... ... ... !!!

===============================================
ভাষা হোক উন্মুক্ত

==========================================================
ফ্লিকারফেসবুক500 PX

তাসনীম এর ছবি

সুপার্ব। ভোলাগঞ্জে যেতেই হবে হাসি

+++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

________________________________________
অন্ধকার শেষ হ'লে যেই স্তর জেগে ওঠে আলোর আবেগে...

নাশতারান এর ছবি

এত সুন্দর আকাশ খোলা চোখে দেখা সম্ভব না বোধ হয়।

_____________________

আমরা মানুষ, তোমরা মানুষ
তফাত শুধু শিরদাঁড়ায়।

পান্থ রহমান রেজা এর ছবি

ভোলাগঞ্জের আকাশ আমাকে ডেকে গেল। যেতেই হবে একদিন।

অনিন্দ্য রহমান এর ছবি

ছবি দেইখা, পড়ার ক্ষমতা লোপ পাইল ... চমৎকার
__________________________
Any day now, any day now,
I shall be released.


রাষ্ট্রায়াত্ত শিল্পের পূর্ণ বিকাশ ঘটুক

এনায়েৎ ইউ এস ইসলাম এর ছবি

অসাধারণ সুন্দর ছবিগুলো। লেখাও চমৎকার। সাথে ওয়াইড এঙ্গেল ল্যান্স থাকায় বোধ হয় ভালোই হলো। সুন্দর আকাশটাকেও ফাকিঁ দিতে পারলেন না। আপনাকে ধন্যবাদ ...

তিথীডোর এর ছবি

বাকরুদ্ধ.....
অসাধারণ!!!!!!!!!!!!

________________________________________
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

________________________________________
"আষাঢ় সজলঘন আঁধারে, ভাবে বসি দুরাশার ধেয়ানে--
আমি কেন তিথিডোরে বাঁধা রে, ফাগুনেরে মোর পাশে কে আনে"

বাউলিয়ানা এর ছবি

আপনে ভোলাগঞ্জ ভ্রমনে ঘুমায়া কাটাইসিলেন! তাইলে তো আপনারে স্বপ্নে পাওয়া ছবির আবিষ্কারক কইতে হয়!

ইয়াল্লা কি জটিল সব ছবি!

সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেলগীর এর ছবি

বাকরুদ্ধ
______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

______________________________________
পথই আমার পথের আড়াল

মুস্তাফিজ এর ছবি

আহ্‌ ঘুম পাহাড়!! কবে যে যাবো।

...........................
Every Picture Tells a Story

অতিথি লেখক এর ছবি

পাঁচ নাম্বার ছবিটা তো বলার বাইরে, সেইরকম সুন্দর...

''চৈত্রী''

ধুসর গোধূলি এর ছবি

- চৈত্ মাসের লগে সহমত।

ঘুমাইলেও যদি এইরম ফটুক তোলা যায়, তাইলে বড় হয়া আমি কেবল ঘুমাইতেই চাই।
___________
চাপা মারা চলিবে
কিন্তু চাপায় মারা বিপজ্জনক

শুভাশীষ দাশ এর ছবি

বাহ্‌

-------------------------------------------------------------
অভ্র আমার ওংকার

হরফ এর ছবি

অ-সা-ধা-র-ণ!!!! আর ৫ নম্বরে ৫ তারা।

--------------------------------------------------
"ছুটলে কথা থামায় কে/আজকে ঠেকায় আমায় কে"

ছুটলে কথা থামায় কে/আজকে ঠেকায় আমায় কে

অতিথি লেখক এর ছবি

লা জওয়াব! এরেই কয় শিল্পীর চোঁখ। আমাদের দেশটা আসলেই অনেক সুন্দর।

অনন্ত

সুরঞ্জনা এর ছবি

যেকোনো সাবজেক্টের দিকে ক্যামেরা তাক করলেই হাসিমুখে বিশাল একখানা আকাশ সেই ছবির অংশ হয়ে দাঁড়ায়।

হাসি
খুব ভালো লাগল।

............................................................................................
স্বপ্ন শুধু সত্য আর সত্য কিছু নয়

............................................................................................
এক পথে যারা চলিবে তাহারা
সকলেরে নিক্‌ চিনে।

বইখাতা এর ছবি

শেষের ছবিটা অসাধারণ।

অর্বাচীন [অতিথি] এর ছবি

সৌন্দর্য!!!!!!!!!!!

ওডিন এর ছবি

বিভ্রান্তিকর মায়াজাগানিয়া সব আলোকচিত্র। দেইখা পুরা তব্দা খায়া গেলাম!!! অ্যাঁ
______________________________________
যুদ্ধ শেষ হয়নি, যুদ্ধ শেষ হয় না

অতিথি লেখক এর ছবি

খুব সুন্দর!!

সৈয়দ আফসার এর ছবি

বন্ধু,
ফটোগ্রাফিতে একদিন আমিও হবো
তোর সহযাত্রী...।
ছবিগুলো তোর হাসির মতো ঝলমল করছে।
ভালো থাকিস্।

__________♣♣♣_________
না-দেখা দৃশ্যের ভেতর সবই সুন্দর!

__________♣♣♣_________
না-দেখা দৃশ্যের ভেতর সবই সুন্দর!

কল্যাণF এর ছবি

গুরু গুরু

Kuhu Mannan এর ছবি

কবে যাবো... ?? মন খারাপ
দারুণ লেখা...... দারুণ ছবি......... হাততালি

মুশাররাত এর ছবি

কে খুলে দিল আকাশটাকে হঠাৎ এমন করে?

নতুন মন্তব্য করুন

এই ঘরটির বিষয়বস্তু গোপন রাখা হবে এবং জনসমক্ষে প্রকাশ করা হবে না।
Image CAPTCHA